Breaking News
BJP: ইস্তেহার প্রকাশ বিজেপির, 'এক দেশ এবং এক ভোট' লাগু করার প্রতিশ্রুতি      Fire: দমদমে ঝুপড়িতে বিধ্বংসী অগ্নিকাণ্ড, ঘটনাস্থলে দমকলের একাধিক ইঞ্জিন      Bengaluru Blast: বেঙ্গালুরু ক্যাফে বিস্ফোরণকাণ্ডে কাঁথি থেকে দুই সন্দেহভাজনকে গ্রেফতার করল এনআইএ      Sheikh Shahjahan: 'সিবিআই হলে ভালই হবে', হঠাৎ ভোলবদল শেখ শাহজাহানের      CBI: সন্দেশখালিকাণ্ডে সিবিআই তদন্তের নির্দেশ কলকাতা হাইকোর্টের...      NIA: ভূপতিনগর বিস্ফোরণকাণ্ডে এবার কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ NIA      ED: অবশেষে ইডির স্ক্যানারে চন্দ্রনাথের 'মোবাইল-হিস্ট্রি', খুলতে পারে নিয়োগ দুর্নীতি রহস্যের জট      PM Modi: তৃণমূল মানেই দুর্নীতি-লুট! ভোট প্রচারে সন্দেশখালির পর ভূপতিনগর নিয়ে সরব মোদী      NIA: ভূপতিনগর বিস্ফোরণকাণ্ডে গ্রেফতার আরও ২ , কেন্দ্রীয় এজেন্সির উপর হামলার ঘটনায় উদ্বিগ্ন কমিশন      Sheikh Shahjahan: বিজেপির 'দালাল'রা তাঁর বিরুদ্ধে মিথ্যে বলছে, দাবি শেখ শাহজাহানের     

student

Death: টোটোর ধাক্কায় মৃত্য়ু তৃতীয় শ্রেণির পড়ুয়া, চাঞ্চল্য় ডোমজুড়ে

স্কুলে যাওয়ার পথে টোটোর ধাক্কায় মৃত্য়ু হল এক স্কুল পড়ুয়ার। শনিবার সকালে ঘটনায় চাঞ্চল্য় ছড়িয়েছে হাওড়া ডোমজুড় থানার অন্তর্গত ভান্ডারদহ শীতলাতলা এলাকায়। অভিযোগ, টোটোয় ওভারলোড থাকায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ধাক্কা মারে ওই স্কুল ছাত্রীকে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় ডোমজুড় থানার বিশাল পুলিস বাহিনী।

প্রত্য়ক্ষদর্শী সূত্রে খবর, এদিন স্কুল যাওয়ার জন্য় রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে ছিল তৃতীয় শ্রেণির পড়ুয়া। সেই সময় দ্রুতগামী একটি টোটো এসে ধাক্কা মারে তাকে। টোটোর ধাক্কায় গুরুতর জখম হয়ে পড়ে ওই ছাত্রী। এরপর তড়িঘড়ি তাকে উদ্ধার করে ডোমজুড় গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন। ঘটনায় হাসপাতালের সামনেই ক্ষোভ উগড়ে দেন মৃতার পরিবার। তারপর হাসপাতালে ডোমজুড় থানার পুলিস গিয়ে পরিস্থিতি সামাল দেয়।

4 weeks ago
Behala: অনলাইন গেমে আসক্তি! উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার দেওয়ার পর ছাত্রের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার

উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা শেষ হয়েছে ২৯ ফেব্রুয়ারি। পরীক্ষা হয়ে যাওয়ার পর বন্ধুদের সঙ্গে ঘুরতে বেরিয়েছিল গত সোমবার। বাড়ি না ফেরায় শুরু হয় খোঁজাখুঁজি। অবশেষে রেল কলোনির বন্ধ কোয়াটার থেকে উদ্ধার হয় ছাত্রের ঝুলন্ত দেহ। ঘটনাটি ঘটেছে বেহালায়।  ইতিমধ্যে দেহ ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে। গোটা ঘটনা খতিয়ে দেখছে বেহালা থানার পুলিস।

পুলিস সূত্রে খবর, মৃত ছাত্রের নাম অংশুমান সিং(১৭)। এমপি বিলাস স্কুলের এবছরের উচ্চ মাধ্যমিকের ছাত্র। বাড়ি বেহালা পাঠকপাড়ায়। উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা শেষ হওয়ার পরে গত সোমবার বন্ধুদের সঙ্গে ঘুরতে বেরিয়েছিল অংশুমান। মঙ্গলবারও অংশুমান বাড়ি না ফেরায় পরিবারের লোকজন অংশুমানের ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করে। কিন্তু কোনওরকম ভাবে ফোনে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। এমনকি যে বন্ধুদের সঙ্গে ঘুরতে গিয়েছিল সেই বন্ধুরাও কেউ ফোনে পাচ্ছিল না অংশুমানকে।

এরপরই পরিবারের লোকজন এলাকার বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি শুরু করেন। বেহালা গোলশাপুর রেল কলোনির বদ্ধ বিল্ডিং গুলিতে খোঁজ করতে গিয়ে ৩৫ নম্বর বিল্ডিং-এর চার তলায় অংশুমানকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পান এলাকার মানুষজন। তড়িঘড়ি অংশুমানকে নামিয়ে নিয়ে যাওয়া বিদ্যাসাগর হাসপাতালে। সেখানে ডাক্তাররা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করে।

কীভাবে কী কারণে এই মৃত্যু পরিবারের লোকজন তা বুঝে উঠতে পারছেন না।  তবে পরিবারের লোকজনের বক্তব্য, অংশুমান অনলাইন গেম খেলায় আসক্ত ছিল। বেশ কয়েক মাস ধরে তার কয়েক লক্ষ টাকা দেনা হয়ে গিয়েছিল বন্ধু দের কাছে। পরিবারকে কিছুই জানায়নি। সোমবার অংশুমান-এর বন্ধু মারফত তাঁরা তা জানতে পারেন।

a month ago
Murshidabad: নার্সিং পড়ুয়ার রহস্যমৃত্যু! দুর্ঘটনা নাকি নেপথ্যে অন্য কারণ, তদন্তে পুলিস

মুর্শিদাবাদের বহরমপুরের নার্সিং ছাত্রীর রহস্যময় মৃত্যু। দুর্ঘটনা নাকি এর পিছনে অন্য কোনও কারণ? ধোঁয়াশায় পরিবার।

জানা গিয়েছে, সম্রাজ্ঞী চক্রবর্তী নামের ওই পড়ুয়া জিয়াগঞ্জের রবীন্দ্রনাথ টেগর ইনস্টিটিউটে নার্সিং-এর প্রথম বর্ষের ছাত্রী ছিলেন। পড়াশোনাতেও খুব মেধাবী ছিলেন বলে পরিবার সূত্রে খবর। গত ১৬ই ফেব্রুয়ারি মুর্শিদাবাদের বহরমপুরে রাত ৮টা ১৫ মিনিট  নাগাদ সম্রাজ্ঞী চক্রবর্তীকে অজ্ঞান এবং আহত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। সন্দেহ, অভিষেক হোসেন ওরফে সাহেব নামের বন্ধুর সঙ্গে বাইকে যাওয়ার সময় দুর্ঘটনা ঘটেছে। প্রথমে তাঁকে মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ এবং পরের দিন কলকাতার এসএসকেএম-এর ট্রমা কেয়ার ইউনিটে ভর্তি করা হলে ২৬শে ফেব্রুয়ারি মৃত্যু হয় তাঁর। ইতিমধ্যেই সম্পন্ন হয়েছে ময়নাতদন্ত। তবে নিহত পড়ুয়ার ভাইয়ের প্রশ্ন, যদি বাইক দুর্ঘটনা হয় সেক্ষেত্রে দুর্ঘটনার পর অভিষেক বন্ধুকে ফেলে পালিয়ে গেলেন কেন? তার নাম যাতে কোথাও না আসে সেই চেষ্টাই বা কেন?

পরিবারের তরফে গত ২১ তারিখে বহরমপুর থানায় অভিষেক হোসেন ওরফে সাহেব নামে নিহত ওই সম্রাজ্ঞী চক্রবর্তীর বন্ধুর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়। কিন্তু এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়নি বলে পরিবার সূত্রে খবর। নিহত পড়ুয়ার বাবার দাবি, ঈর্ষার কারণে এই ঘটনা। প্রেম ঘটিত সমস্যার কথাও উড়িয়ে দিচ্ছে না পরিবার। হয়তো বন্ধুদের দুষ্কৃতী চক্রের পাল্লায় পড়েই মেয়ের এরকম পরিণতি। জানাচ্ছে নিহত পড়ুয়ার পরিবার।

সম্রাজ্ঞী চক্রবর্তীর মৃত্যুতে পরিবারের দাবি সঠিক তদন্ত হোক এবং দোষিদের যাতে শাস্তি হয় প্রশাসনের কাছে সেই দাবি জানিয়েছেন তাঁরা।

2 months ago


Howrah: মায়ের হাতে মার খেয়ে মৃত্য়ু মেয়ের! দানা বাঁধছে রহস্য হাওড়ার বেলুড়ে

মায়ের হাতে মার খেয়ে মৃত্য়ু হল ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীর। শুক্রবার ঘটনায় চাঞ্চল্য় ছড়িয়েছে হাওড়ার বেলুড়ে। জানা গিয়েছে, মৃত ছাত্রীর নাম অনন্যা সৃষাম। স্থানীয়দের অভিযোগ, মায়ের হাতে মারধর খেয়েই মৃত্যু হয়েছে ষষ্ঠ শ্রেণির ওই ছাত্রীর। 

স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, এদিন সকাল থেকেই বেলুড়ের বাজার সংলগ্ন এলাকার একটি ফ্ল্যাটে ঝগড়া অশান্তির শব্দ শুনতে পান প্রতিবেশীরা। তারপর বেলা গড়াতেই মায়ের কান্নার আওয়াজ পেয়ে স্থানীয়রা ছুটে এসে দেখেন অচৈতন্য অবস্থায় মায়ের সামনে মেঝেতে লুটিয়ে পড়ে রয়েছে বছর বারোর মেয়ে অনন্যা। 

এরপর তড়ঘড়ি ওই ছাত্রীকে লিলুয়া রেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানের চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। ছাত্রীর হঠাৎ মৃত্য়ুতে চাঞ্চল্য় ছড়িয়েছে গোটা এলাকায়। ইতিমধ্য়ে সম্পূর্ণ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে বেলুড় থানার পুলিস।

2 months ago
Nadia: আত্মহত্যা নাকি আক্রমণ? উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা চলাকালীন শৌচালয় থেকে উদ্ধার রক্তাক্ত ছাত্রী

সকল ছাত্রছাত্রীর মুখে একটাই কথা, ভীষণ কঠিন হয়েছে উচ্চমাধ্যমিকের পদার্থবিদ্যার প্রশ্ন। বৃহস্পতিবার ক্লাসরুমে পরীক্ষা চলছে। অন্যদিকে গলায় ওড়নার ফাঁস, হাত কাটা অবস্থায় বাথরুম থেকে উদ্ধার ছাত্রী। আত্মহত্যার চেষ্টা উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার্থীর? স্বভাবিকভাবেই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে নদিয়ার সেনপাড়া স্কুলে।

জানা গিয়েছে, নদিয়া সেনপাড়া স্কুলে উচ্চমাধ্যমিকের সিট পড়েছিল নদিয়ার জগন্নাথ স্কুলের ওই ছাত্রীর। বিগত কয়েকদিনে পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে মিটলেও বাধ সাধে বৃহস্পতিবার। জানা যায়, ওইদিন, পদার্থবিদ্যার পরীক্ষার প্রশ্নপত্র পেয়ে প্রায় এক ঘণ্টা বাদে শৌচালয়ে যেতে চায় ওই ছাত্রী। শৌচালয়ে গেলেও, প্রায় ১৫ মিনিট পরও খোঁজখবর না আসায় খুঁজতে বেরোয় পরীক্ষকেরা। শৌচালয়ের দরজা খুলে উদ্ধার হয় গলায় ওড়নার ফাঁস, হাত কাটা অবস্থায় ওই ছাত্রীকে। সঙ্গে সঙ্গে তাকে নিয়ে যাওয়া হয় করিমপুর গ্রামীণ হাসপাতালে। খবর দেওয়া হয় অভিভাবকদের কাছে। আপাতত স্থিতিশীল ছাত্রী।

যদিও, আত্মহত্যার কথা অস্বীকার পরিবারের। পরীক্ষার হলে আক্রোশ থেকেই ওই ছাত্রীকে মারধরের অভিযোগ পরিবারের। তবে ঠিক কী কারণে হল এই ঘটনা। আত্মহত্যা নাকি আক্রমণ? সেই সব নিয়েই তদন্তে নেমেছে করিমপুর থানার পুলিস।

2 months ago


Exam: টাকা দিলেই মিলবে প্রশ্নপত্র! সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রলোভন পেয়ে থানার দ্বারস্থ পরীক্ষার্থীরা

পরীক্ষার আগেই এবার উচ্চ মাধ্যমিকের প্রশ্ন পড়ুয়াদের দেওয়া হবে। এমনই প্রলোভন দেখিয়ে টাকা চাওয়ার অভিযোগ তুলেছে রায়গঞ্জের একাধিক উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার্থী। শনিবার রাতে এই বিষয়ে পুলিসের দ্বারস্থ হয়েছেন পরীক্ষার্থীরা। 

উচ্চমাধ্য়মিক পরীক্ষার্থীরা জানিয়েছে, সোশ্যাল মিডিয়ার একটি অ্যাপ টেলিগ্রামে 'মাস্টারমাইন্ড' নামে একটি গ্রুপ খোলা হয়েছে। আর সেই গ্রুপ থেকে সকল পরীক্ষার্থীর সাথে যোগাযোগ করে পরীক্ষার আগেই সংশ্লিষ্ট বিষয়ের প্রশ্নপত্র সরবরাহ করার প্রলোভন দিচ্ছে। আর তার বিনিময়ে বিনিময়ে দাবী করা হয়েছে ৮-১০ হাজার টাকা। 

কদিন ধরে এই বিষয়টি প্রত্যক্ষ করে শনিবার একদল ছাত্রছাত্রী সেই অ্যাপে অভিযুক্তের ফাঁদে পা দেওয়ার নাটক করে তাঁর কাছ থেকে কিছু তথ্য গ্রহণ করে৷ সেই সব তথ্য অনুযায়ী বাংলা, ইংরেজি সহ প্রতিটি বিষয়েই প্রশ্নপত্র ফাঁস হয়েছে বলে অভিযোগ তাঁদের। এর ফলে ছাত্র ছাত্রীদের উপর পড়ছে খারাপ প্রভাব। তাই অবিলম্বে এক্ষেত্রে কড়া পদক্ষেপ গ্রহণের দাবী জানিয়েছেন পরীক্ষার্থীরা। সাইবার ক্রাইমেও অভিযোগ জানাতে চলেছেন অভিযোগকারীরা। 


2 months ago
Accident: পরীক্ষা দিয়ে বাড়ি ফেরার পথে দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত তিন উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার্থী সহ পাঁচ

স্কুটার ও অটোর মুখোমুখি সংঘর্ষে আহত হল উচ্চমাধ্যমিকের তিন পরীক্ষার্থী সহ পাঁচ জন। তিন পরীক্ষার্থীর অবস্থা গুরুতর। বর্তমানে আহত ওই তিন পড়ুয়া ডায়মন্ড হারবার মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এক অটোযাত্রীকেও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। প্রাথমিক চিকিৎসার পর অটোযাত্রীকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার উস্থির বানেশ্বরপুরে। 

জানা গিয়েছে, জখম পরীক্ষার্থীরা কেসিলি বরকতিয়া হাই মাদ্রাসার পড়ুয়া। তাঁদের পরীক্ষা সিট পড়েছিল বানেশ্বরপুরে। শুক্রবার থেকে শুরু হয়েছে উচ্চমাধ্য়মিক পরীক্ষা। এদিন পরীক্ষার শেষে তিন পরীক্ষার্থী স্কুটারে চেপে বাড়ি ফিরছিলেন। সেই সময় উল্টোদিক থেকে আসা অটোর সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। দুই ছাত্রী সহ তিন পরীক্ষার্থী ছিটকে পড়েন। তারপর দ্রুত তাঁদেরকে উদ্ধার করে ডায়মন্ড হারবার মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি করা হয়। দুই ছাত্রীর অপারেশন প্রয়োজন বলে হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে।

2 months ago
Nadia: আর্থিক অভাব! বাধা অমান্য করে মেয়ে মাধ্যমিক পরীক্ষা দেওয়ায় আত্মঘাতী বাবা

আর্থিক দারিদ্রতার কারণে মেয়ের মাধ্যমিক পরীক্ষায় বাধা হয়ে দাঁড়ালেন বাবা। মাধ্যমিক পরীক্ষা দিতে দেবে না বলে মেয়ের মাধ্যমিক পরীক্ষার অ্য়াডমিড ও রেজিস্ট্রেশন আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেন বাবা। বাবার কথা অমান্য় করে অ্যাডমিট ও রেজিস্ট্রেশনের জেরক্স কপি নিয়ে মাধ্যমিক পরীক্ষা দিতে গেলে আত্মঘাতী হন বাবা। ঘটনাটি রানাঘাট থানার হবিবপুর গ্রামের।

জানা গিয়েছে, ওই মাধ্য়মিক পরীক্ষার্থীর নাম মনিকা মণ্ডল (১৬)। বাবা রামপ্রসাদ মণ্ডল, পেশায় লরি চালক। হবিবপুর উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী মনিকার চিরকাল উচ্চশিক্ষার স্বপ্ন ছিল। কিন্তু জীবনের প্রথম বড় পরীক্ষা দিতে গিয়ে তার জীবনে নেমে এল অন্ধকার। ওই মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীর ইচ্ছা ছিল পড়াশোনা করার। কিন্তু পড়াশোনার অদ্য়ম ইচ্ছাটা হেরে গেল আর্থিক দারিদ্রতার কাছে। 

সূত্রের খবর, আর্থিক দারিদ্রতার কারণেই বাবা তার মেয়েকে বাধা দিয়েছিল মাধ্যমিক পরীক্ষা দিতে। বাবার সেই বাধা অমান্য করে সে পরীক্ষা দিতে গিয়েছিল। মেয়ের জোরপূর্বক পরীক্ষায় বসাটা মেনে নিতে পারল না তার বাবা। মাধ্যমিকের ইংরাজি পরীক্ষার দিন বাড়িতে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেন বাবা। 

স্থানীয় সূত্রে খবর, মনিকার মা দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ। অভাবে সংসারে দু'মুঠো ভাত জোগানোটাই মুশকিল। সেখানে পড়াশোনার ব্য়াপারটা একেবারে ধরা ছোঁয়ার বাইরে বলতে গেলে। বর্তমানে তাঁদের সম্বল বলতে রয়েছে ছোট্ট একটি বাড়ি। পরিবারে রোজগেরে বলে আর কেউ নেই। মনিকার মা অসুস্থ শরীর নিয়ে কী কাজই করবে, আর কীভাবেই ছোট ছোট সন্তানদের মুখে খাবার তুলে দেবে সেই ভেবেই দুচোখ জলে ভরে যাচ্ছে।

মনিকার মায়েরও ইচ্ছা সন্তানরা শিক্ষার আলোয় শিক্ষিত হোক। কিন্তু এখনও দারিদ্রতার গভীর অন্ধকারে দাঁড়িয়ে রয়েছে গোটা পরিবার। তাই সন্তানদের লেখাপড়া করার জন্য দুমুঠো অন্নের জন্য সরকারি সহযোগিতার দাবি করছে পরিবার। সরকারি সহযোগিতা পেলেই সন্তানদের শিক্ষিত করতে পারবে, সন্তানদের দু'মুঠো অন্ন জোগাতে পারবে। এখন দেখার সরকারিভাবে প্রশাসন কতটা সহযোগিতা করে।

2 months ago


Maldah: মিলল না অ্য়াডমিড কার্ড, মানসিক অবসাদে আত্মহত্যার হুমকি উচ্চমাধ্য়মিক পরীক্ষার্থীর

চলতি মাসের ১৬ তারিখ থেকে শুরু হতে চলেছে এবছরের উচ্চমাধ্য়মিক পরীক্ষা। সেই উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার অ্য়াডমিড কার্ড না পেয়ে অথৈ জলে এক পরীক্ষার্থী। অভিযোগ, স্কুলে পরীক্ষার ফর্ম ফিলাপ করা হলেও মেলেনি অ্য়াডমিড কার্ড। যা নিয়ে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে গাফিলতির অভিযোগে ব্লক দপ্তরে অভিযোগ দায়ের করেছে ওই পরীক্ষার্থীর পরিবার। এমনকি মানসিক অবসাদে আত্মহত্যার হুমকি দিয়েছে ওই পরীক্ষার্থী। ঘটনাটি মালদহের হরিশ্চন্দ্রপুর ১ নম্বর ব্লকের কনুয়া ভবানীপুরে। 

জানা গিয়েছে, কনুয়া ভবানীপুর হাইস্কুলের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রী লিপি স্বর্ণকার। চলতি মাসের ১৬ তারিখ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় বসতে চলেছে লিপিও। উচ্চ মাধ্যমিকের রেজিস্ট্রেশন কার্ডও পেয়ে গিয়েছিল। এমনকি টেস্ট পরীক্ষা দিয়েও ফলাফল ভালো হয়েছিল তার। পরবর্তীতে উচ্চমাধ্য়মিক পরীক্ষার জন্য ফর্ম ফিলাপ করেছিল লিপি। কিন্তু স্কুলে প্রত্য়েককে অ্য়াডমিড কার্ড পেলেও পায়নি লিপি। 

এরপর প্রধান শিক্ষকের কাছে জানতে গেলে প্রধান শিক্ষক বলেন লিপি নাকি ফর্ম ফিলাপ করেনি। তারপর থেকেই চরম হতাশায় মানসিক অবসাদে ভুগছেন ওই পরীক্ষার্থী। তার অভিযোগ মানসিক অবসাদে যদি আত্মহত্যা করি তাহলে তার দায় থাকবে প্রধান শিক্ষকের। জীবনের দ্বিতীয়বার বড় পরীক্ষার আগে মেয়ের এই সমস্যায় ব্যাপক দুশ্চিন্তায় রয়েছে পরিবারের লোকেরাও। সমস্যা সমাধানের জন্য হরিশ্চন্দ্রপুর ১ নম্বর ব্লক সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিকের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন তাঁরা। আবেদন করেছেন জেলা শাসককেও

2 months ago
Deganga: 'আমি পারলাম না', অঙ্ক পরীক্ষা খারাপ হওয়ায় আত্মঘাতী মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী

অঙ্ক পরীক্ষা ভালো না হওয়ায় গলায় দড়ি দিয়ে আত্মঘাতী হল মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী। চাঞ্চল্য়কর ঘটনাটি ঘটেছে দেগঙ্গার অম্বিকানগর এলাকায়। মৃতদেহের পাশ থেকে উদ্ধার হয়েছে সুসাইড নোট। জানা গিয়েছে, মৃত পড়ুয়ার নাম নাসিমা খাতুন। ঘটনায় শোকের ছায়া নেমেছে গোটা এলাকায়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে দেগঙ্গা থানার পুলিস গিয়ে ঘরের দরজা ভেঙে মৃতদেহটি উদ্ধার করে।

মৃতার পরিবার সূত্রে দাবি, গতি বেড়াচাঁপা বীনাপানি বালিকা বিদ্যালয়ের ছাত্রী নাসিমার পরীক্ষার সেন্টার পড়েছিল চৌরাশী হাইস্কুলে। গতকাল বৃহস্পতিবার ছিল অঙ্ক পরীক্ষা। বাড়ি ফিরে নাসিমা তাঁর মাকে জানিয়েছিল পরীক্ষা ভালো হয়নি, যেমনটা আশা করেছিলাম। আজ অর্থাৎ শুক্রবার ভৌত বিজ্ঞান পরীক্ষা। সকাল থেকে ডাকিডাকি করেও ঘুম থেকে উঠছে না দেখে দরজা ভেঙে পরিবারের সদস্যরা দেখেন ঘরের মধ্যে গলায় দড়ি দিয়ে ঝুলছে নাসিমা। খবর দেওয়া হয় দেগঙ্গা থানার পুলিসকে। এরপর পুলিস মৃতদেহটি উদ্ধার করে বিশ্বনাথপুর গ্ৰামীণ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

2 months ago


High Court: অনুমোদনহীন অন্তত ১৫ টি বিএড কলেজ! মামলার পরবর্তী শুনানি ছয় সপ্তাহ পর

মেয়েকে বিএড কলেজে ভর্তি করতে গিয়ে অনিয়মের খোঁজ। মামলাকারী দেখেছিলেন, কলেজ যেখানে থাকার কথা সেখানে নেই। রয়েছে অন্যত্র। দেখে সন্দেহ হওয়ায় খোঁজ করতে গিয়ে এরকম আরও ছয়টি কলেজের সন্ধান পান মামলাকারী। অভিযোগ,  কলেজগুলি বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুমোদন না নিয়েই ভর্তি নিচ্ছে।

মামলাকারীর আইনজীবী দেবযানী সেনগুপ্তর অভিযোগ, এনসিটিই গাইডলাইন অনুসরণে এইসব কলেজ স্থাপন করা যায়। নিজস্ব বাড়ি ও অন্যান্য সুযোগ সুবিধা থাকা সেখানে বাধ্যতামূলক। সেগুলি ঠিকঠাক থাকলে তবেই রাজ্য সরকার সেই প্রতিষ্ঠানকে নো অবজেকশন সার্টিফিকেট দেয়। তারপর সংশ্লিষ্ট বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অ্যাফিলিয়েশন বা অনুমোদন দিতে হয়। কিন্তু এই কলেজগুলির ক্ষেত্রে তা অনুসরণ করা হয়নি।

বিশ্ববিদ্যালয় জানায়, এমন অন্তত ১৫ টি কলেজ আছে, যেগুলির অনুমোদনের নবীকরণ পর্ব চলছে এখনও।

সবটা শোনার পর বিচারপতির মন্তব্য, বিষয়টি অত্যন্ত গুরুতর। সর্বাধিক প্রচারিত একটি বাংলা ও একটি ইংরেজি সংবাদপত্রে বিশ্ববিদ্যালয়কে দুই সপ্তাহের মধ্যে বিজ্ঞাপন দেওয়ার নির্দেশ দেন বিচারপতি। সেখানে বিশ্ববিদ্যালয়কে উল্লেখ করতে হবে, কোন কোন কলেজের অনুমোদন আছে। স্পষ্টত বিচারপতির নির্দেশ, অনুমোদনহীন কলেজে ছাত্র ভর্তি করা যাবে না। আদালতের নির্দেশে মামলার পরবর্তী শুনানি আগামী ছয় মাস পর।

2 months ago
Student: পারিবারিক অশান্তির জেরে বিছিন্ন বিদ্যুৎ সংযোগ! সমস্যার মুখে মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী

পারিবারিক বিবাদের জেরে ভুক্তভোগী এক মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী। অভিযোগ, মাধ্যমিক পরীক্ষা শুরুর ঠিক আগেই কেটে দেওয়া হয়েছে বিদ্যুৎ সংযোগ। হ্যারিকেনের আলোয় কোনওরকম কষ্ট করে পড়াশোনা করতে হচ্ছে মাধ্যমিক পরীক্ষার সময়ে। ঘটনাটি পূর্ব মেদিনীপুরের শহীদ মাতঙ্গিনী ব্লকের বাড়ধূর্পা গ্রামের। 

ওই ছাত্রীর বাবা জানিয়েছেন,  প্রতি মাসে বিদ্যুতের বিল সঠিক সময়ে দিয়ে দেওয়া সত্ত্বেও কোনও কারণ না দেখিয়ে বিদ্যুৎ কেটে দিয়েছে বিদ্যুৎ দফতর। স্থানীয় ও পরিবার সূত্রে আরও জানা গিয়েছে, পাঁচ ভাইয়ের মধ্যে গন্ডগোলের সূত্রপাত দীর্ঘদিন ধরে। আর এই গন্ডগোলের জেরেই গত ৩১শে জানুয়ারি রাতে বিদ্যুৎ দফতরের লোকেরা গ্রামবাসীদের চাপে পড়ে বিদ্যুৎ সংযোগ কেটে দিয়েছেন বলে দাবি ওই মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী ছাত্রীর পরিবারের। পরীক্ষার সময়ে বিদ্যুৎ সংযোগ না পাওয়ায় খুবই সমস্যা পড়েছে ওই ছাত্রীটি। ফলে তার পড়াশোনায় খুবই ব্যাঘাত ঘটছে। 

ঘটনার খবর পেয়ে বিদ্যুৎ দফতরের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে বিদ্যুৎ দফতরের রিজিওনাল ম্যানেজার রঞ্জিত কুমার মণ্ডল জানান, বিল মেটানো থাকলে কোনওভাবেই বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা যায় না। এই ক্ষেত্রে বিল মেটানো থাকা সত্ত্বেও কেন বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হল তা তিনি খোঁজ খবর নিয়ে দেখছেন। অতি শীঘ্রই যাতে বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়া হয় সেই ব্যাপারে দফতরের কর্মীদেরকে প্রয়োজনীয় নির্দেশ দিচ্ছেন তিনি।

2 months ago
Narendrapur: নরেন্দ্রপুরের মৃত ছাত্রের পেটে মিলল মদ, ময়নাতদন্তে চাঞ্চল্য়কর তথ্য়

নরেন্দ্রপুর ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ুয়ার মৃত্যুকান্ডে পুলিসের উঠে এলো চাঞ্চল্য়কর তথ্য়। ওই ছাত্রের মৃতদেহ উদ্ধার হওয়ার পর খুনের অভিযোগ তুলেছিল তাঁর পুরিবার। অপ্রতিমের বাবা ও দাদু তাঁর খুন করেছে বলে অভিযোগও উঠেছিল। অপ্রতিমের মৃত্যু রহস্য এখনও পর্যন্ত অধরা। এরমধ্য়েই পুলিসের হাতে আসে অপ্রতিমের ময়না তদন্তের রিপোর্ট। 

পুলিস জানিয়েছে, অপ্রতিমের ময়না তদন্তের প্রাথমিক রিপোর্টে উল্লেখ রয়েছে জলে ডুবে মৃত্যু হয়েছে তাঁর। রিপোর্ট অনুযায়ী, তাঁর লিভারে পাওয়া গিয়েছে অ্যালকোহল। দেহে কোনওরকম আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। যদিও, ময়না তদন্তের রিপোর্ট মানতে নারাজ অপ্রতীমের পরিবারের সদস্যরা। অপ্রতিমের বাবা-মা ও মামার প্রত্যেকেরই বক্তব্য তাঁরা জানতে চান ঠিক কোন সময় জলে ডুবে গিয়েছিল সে। তাহলে সময়ের ওপরেই নির্ভর করে জানা যাবে মৃত্যুর কারণ। গতকাল অর্থাৎ সোমবার শেষকৃত্য সম্পন্ন হয় অপ্রতিমের। ঘটনায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে গোটা এলাকাজুড়ে। 

2 months ago


Purulia: হোস্টেল থেকে ছুটি পেতে খুদে পড়ুয়াকে থেঁতলে খুন অষ্টম শ্রেনির ছাত্রের!

স্কুলে ছুটির প্রয়োজন ছিল। তাই ছুটি পেতে প্রথম শ্রেণির ছাত্রকে খুন করল অষ্টম শ্রেনির ছাত্র। অভিযোগ, মৃত ওই খুদে পড়ুয়ার নাক মুখ থেঁতলে মারা হয়েছে। ঘটনার তদন্তে নেমে সোমবার অষ্টম শ্রেনির ওই ছাত্রকে গ্রেফতার করেছে পুরুলিয়া মানবাজার থানার পুলিস। অভিযুক্ত ওই ছাত্রকে জুভেনাইল আদালতে পেশ করা হয়। গোটা ঘটনায় শোকহত মৃত খুদের পরিবার। মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে পুরুলিয়ার মানবাজারে। ঘটনাকে কেন্দ্র করে আতঙ্ক ছড়িয়ে অন্য় পড়ুয়া থেকে শুরু করে অভিভাবকদের মধ্য়ে। 

প্রসঙ্গত গত ৩০ জানুয়ারি পুরুলিয়ার মানবাজার থানার জবলা এলাকার ঘাসতোড়িয়া সারদা শিশু মন্দির আবাসিক স্কুলের মৃত ওই প্রথম শ্রেণীর ছাত্রের মৃতদেহ আবাসিক স্কুল সংলগ্ন একটি পুকুর থেকে উদ্ধার হয়।  উদ্ধার হওয়া ওই মৃতদেহের একাধিক জায়গায় দেখা গিয়েছে আঘাতের চিহ্ন। এরপর মৃত পরিবার পুলিসের কাছে লিখিত অভিযোগ জানায়। এরপরেই খুনের মামলা রুজু করে তদন্ত শুরু করে মানবাজার থানার পুলিস।

পুলিস অষ্টম শ্রেনির ওই পড়ুয়াকে গ্রেফতার করে পুরুলিয়ার শিমুলিয়া আনন্দ মঠ জুভেনাইল জাস্টিস বোর্ডের তাকে পেশ করা হয়। সেখান থেকে ওই কিশোরকে হুগলির কল্যাণ ভারতী হোমে পাঠানো হয়। প্রাথমিক তদন্তে পুলিসের অনুমান, ওই পড়ুয়া কিছু একটা অঘটন ঘটিয়ে ফেললেই লেখাপড়া, হোস্টেল জীবনের 'বন্দি দশা' থেকে ছুটি পাবে। আর সে বাড়ি ফিরতে পারবে। তাই অষ্টম শ্রেণীর ওই ছাত্র এমন ঘটনা ঘটায়।

2 months ago
Death: স্কুলে প্রার্থনার লাইনে অসুস্থ, খিদিরপুরে মৃত্য়ু তৃতীয় শ্রেনির ছাত্রীর

স্কুলে প্রার্থনা চলাকালীন হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়ল তৃতীয় শ্রেনীর ছাত্রী। অসুস্থ অবস্থায় বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তাকে। পরে মৃত্য়ু হয় তার। সোমবার সকালে মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটে খিদিরপুর সেন্ট থমাস মর্নিং স্কুলে। অকাল প্রয়াণে শোকের ছায়া নেমে এসেছে পড়ুয়ার পরিবারে সহ গোটা স্কুলে। সেই কারণে মঙ্গলবার বন্ধ রাখা হয়েছে ওই স্কুলের মর্নিং গার্লস বিভাগ। 

জানা গিয়েছে, মৃত ওই ছাত্রীর নাম আদৃকা সেন। প্রতিদিনের মতই  সোমবার দিন সকালেও বাবার সঙ্গে স্কুলে এসেছিল আদৃকা। তারপর স্কুলে ঢুকেই সে দাঁড়িয়ে পড়ে প্রার্থনার লাইনে। মর্নিং প্রেয়ার চলাকালীন গুরুতর অসুস্থ বোধ করে সেখানেই পড়ে যায়। তড়িঘড়ি ফোন করে জানানো হয় তার বাড়িতে। আচমকা অসুস্থ হওয়ায় তাকে স্কুলেই প্রাথমিক চিকিৎসা করা হয়। এরপর স্কুলের কাছেই অবস্থিত একটি বেসরকারি হাসপাতালে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় ওই ছাত্রীকে। কিন্তু শেষ রক্ষা আর হল না। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার কিছুক্ষণ বাদেই মৃত্যু তার। 

এবিষয়ে স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা বলেছেন, গত বছর দুর্গাপুজোর আগে একবার অসুস্থ হয়ে পড়েছিল ওই তৃতীয় শ্রেনির ছাত্রী। এছাড়াও স্কুলের অন্য় এক শিক্ষক জানান, আদৃকা অসুস্থ ছিল। কিন্তু তার হঠাৎ মৃত্য়ুর কারণ এখনও স্পষ্ট নয় কর্তৃপক্ষের কাছে। যদিও এখনও অবধি পুলিসের কাছে কোনও অভিযোগ দায়ের করেনি ওই মৃত ছাত্রীর পরিবার। 


2 months ago