Breaking News
Weather: ফের চড়বে পারদ, কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গে তাপপ্রবাহের সতর্কবার্তা, কতদিন চলবে জানুন...      Sandeshkhali: স্ত্রীকে কাঁদতে দেখে কান্নায় ভেঙে পড়লেন 'সন্দেশখালির বাঘ'...      High Court: নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় প্রায় ২৬ হাজার চাকরি বাতিল, সুদ সহ বেতন ফেরতের নির্দেশ হাইকোর্টের      Sandeshkhali: সন্দেশখালিতে জমি দখল তদন্তে সক্রিয় সিবিআই, বয়ান রেকর্ড অভিযোগকারীদের      CBI: শাহজাহান বাহিনীর বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ! তদন্তে সিবিআই      Vote: জীবিত অথচ ভোটার তালিকায় মৃত! ভোটাধিকার থেকে বঞ্চিত ধূপগুড়ির ১২ জন ভোটার      ED: মিলে গেল কালীঘাটের কাকুর কণ্ঠস্বর, শ্রীঘই হাইকোর্টে রিপোর্ট পেশ ইডির      Ram Navami: রামনবমীর আনন্দে মেতেছে অযোধ্যা, রামলালার কপালে প্রথম সূর্যতিলক      Train: দমদমে ২১ দিনের ট্রাফিক ব্লক, বাতিল একগুচ্ছ ট্রেন, প্রভাবিত কোন কোন রুট?      Sarabjit Singh: ভারতীয় বন্দি সরবজিৎ সিং-এর হত্যাকারী সরফরাজকে গুলি করে খুন লাহোরে     

South24Pargana

Death: ভিনরাজ্য়ে কাজে গিয়ে ফের বাংলার শ্রমিকের মৃত্য়ু, আহত ৩

আবারও ভিনরাজ্য়ে কাজ করতে গিয়ে মৃত্য়ু হল এক পরিযায়ী শ্রমিকের। আহত আরও তিনজন। জানা গিয়েছে, মৃত শ্রমিকের নাম কুতুবউদ্দিন শেখ। দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিষ্ণুপুর থানার অন্তর্গত চক এনায়েত নগরের বাসিন্দা তিনি।  

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, গতমাসে ২৮ ফেব্রুয়ারি জলপাইগুড়িতে কাজে যান চারজন শ্রমিক। যাঁরা হলেন কুতুবউদ্দিন শেখ, সিরাজ শেখ, ফুরকান শেখ, ইনসান শেখ। গতকাল অর্থাৎ শনিবার তাঁদের বাড়িতে খবর আসে যে, অ্যামোনিয়া গ্যাসের পাইপ লিক করে মৃত্য়ু হয়েছে কুতুবউদ্দিন শেখের। আর গুরুতরভাবে আহত হয়েছে সিরাজ শেখ, ফুরকান শেখ ও ইনসাফ শেখ। 

স্থানীয় সূত্রে আরও জানা গিয়েছে, মৃত কুতুবউদ্দিন ছিলেন তাঁর বাড়ির একমাত্র ভরসা। তাঁর উপার্জনের মাধ্য়মেই চলত গোটা সংসার। এক ছেলে ও এক মেয়ে, স্ত্রীকে নিয়ে সংসার তাঁর। হঠাৎ মৃত্যুতে ভেঙে পড়েছে তাঁর পরিবারসহ গোটা এলাকার মানুষজন। 

কুতুবউদ্দিন শেখের আত্মীয়-স্বজনদের বক্তব্য, এই রাজ্যে বা এই জেলায় যদি কাজ থাকত তাহলে ভিনরাজ্যে কাজে গিয়ে এইভাবে মৃত্যু হত না। কাজ নেই তাই পেটের টানে ভিনরাজ্যে ছুটতে হয় এই এলাকার মানুষজনদেরকে। পরিবারের লোকজন থেকে শুরু করে একটাই দাবি প্রশাসনের সাহায্যের।

a month ago
Dead: হাসপাতালের কোয়ার্টারে উদ্ধার চিকিৎসকের ঝুলন্ত মৃতদেহ, তদন্তে পুলিস

হাসপাতালের কোয়ার্টার থেকে উদ্ধার হল এক চিকিৎসকের ঝুলন্ত মৃতদেহ। ঘটনায় চাঞ্চল্য় ছড়িয়েছে ডায়মন্ড হারবার মেডিক্য়াল কলেজ ও হাসপাতালে। পুলিস জানিয়েছে, মৃত ব্য়ক্তির নাম কল্যাণাশিস ঘোষ (৪৫)। হুগলির কোন্নগরের বাসিন্দা। 

জানা গিয়েছে, গতকাল অর্থাৎ রবিবার গভীর রাতে হাসপাতালের কোয়ার্টারের ভিতর থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার হয় ওই চিকিৎসকের মৃতদেহ। এরপর মৃতদেহটি উদ্ধার করে মেডিক্য়াল কলেজ ও  হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়। সূত্রের খবর, গত ছ'বছর আগে ডায়মন্ড হারবার মেডিক্য়াল কলেজ ও হাসপাতালে মেডিসিনের চিকিৎসক হিসেবে যোগ দিয়েছিলেন কল্যাণাশিস নামের ওই ব্য়ক্তি। বর্তমানে তিনি এম আর বাঙুর হাসপাতালের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। করোনার সময়কাল থেকে বিশেষ দায়িত্ব ছিল মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ওই চিকিৎসকের। 

পারিবারিক কারণে মানসিক অবসাদের জেরে ওই চিকিৎসক আত্মঘাতী হয়েছেন বলে পুলিসের প্রাথমিক অনুমান। ইতিমধ্য়ে মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তে পাঠিয়েছে পুলিস। খবর দেওয়া হয়েছে মৃত ওই চিকিৎসকের পরিবারের কাছেও। আজ, সোমবার মৃত চিকিৎসকের দেহ ময়নাতদন্ত হবে।

2 months ago
Fraud: সরকারি চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে এক লক্ষ টাকার প্রতারণার শিকার তৃণমূলের যুব নেতা

স্বাস্থ্য দফতরে ভুয়ো নিয়োগপত্র দিয়ে এক লক্ষ টাকা প্রতারণার অভিযোগ। প্রতারণার শিকার খোদ তৃণমূলের যুব নেতা। অভিযোগ, ভুয়ো তৃণমূল কর্মীর পরিচয়ে প্রতারণা করা হয়। ঘটনার পর থেকে পলাতক অভিযুক্ত ওই ভুয়ো তৃণমূল কর্মী। অভিযুক্তের সঙ্গে বিধায়ক এবং মন্ত্রীর ছবি ঘিরে শুরু বিতর্ক। প্রতারিত যুব নেতা প্রতারক তৃণমূল কর্মীর বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন।

জানা গিয়েছে, দক্ষিণ ২৪ পরগনার রায়দিঘি বিধানসভার পাকুড়তলার বাসিন্দা পৃথ্বীরাজ তাঁতি প্রতারণার শিকার হন। দক্ষিণ ২৪ পরগনার রায়দিঘি কলেজের তৃণমূল ছাত্র পরিষদের নেতা ছিলেন তিনি। বর্তমানে কৌতলা অঞ্চল যুব তৃণমূলের সভাপতি। গত সেপ্টেম্বর মাসে দলের কর্মসূচিতে গিয়ে আলাপ হয় পাথরপ্রতিমা বিধানসভার লক্ষ্মীজনার্দনপুর পঞ্চায়েতের মহেশপুরের বাসিন্দা প্রীতম কলার সঙ্গে। 

অভিযোগকারী যুব তৃণমূল নেতার দাবি, প্রীতম তৃণমূলের অঞ্চল সম্পাদকের পদে ছিলেন। এরপর তাঁকে স্বাস্থ্য দফতরে চাকরির টোপ দেন প্রীতম। এমনকি চার লক্ষ টাকায় গ্রুপ-‌ডি পদে চাকরি দেওয়ার জন্য স্ট্যাম্প পেপারে চুক্তি হয়। অগ্রিম ১ লক্ষ টাকা নেয় প্রীতম। এরপর কলকাতার নীলরতন সরকার হাসপাতালে গ্রুপ-‌ডি পদে চাকরির একটি নিয়োগপত্র হাতে পান পৃথ্বীরাজ। সেই নিয়োগপত্র নিয়ে নীলরতন সরকার হাসপাতালে কাজে যোগ দিতে গেলে সুপার জানিয়ে দেন এটি ভুয়ো নিয়োগপত্র। তারপরেই ফাঁস হয়ে যায় প্রতারণার জাল। 

এরপর ওই প্রতারিত নেতা কলকাতা পুলিস ও সুন্দরবন পুলিসের কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযুক্ত প্রীতমের পরিবার তৃণমূল সমর্থক বলে জানান তাঁর মা রীণা কলা। তবে প্রতারণার সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করে অভিযুক্ত। 

4 months ago


Kidnapping: ২ লক্ষ টাকা মুক্তিপণ চেয়ে অপহরণ যুবককে, ধৃতের বাড়ি থেকে উদ্ধার অপহৃত যুবক

দুই লক্ষ টাকা মুক্তিপণ চেয়ে অপহরণ এক যুবককে। ছেলেকে ফিরিয়ে আনতে থানায় দ্বারস্থ হন বাবা ও মা। ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার নরেন্দ্রপুর থানার অন্তর্গত রাধানগর গ্রাম পঞ্চায়েতের ডিহি এলাকায়। অপহৃত ওই যুবকের নাম স্বর্ণদীপ মণ্ডল (২৪)। 

পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, রবিবার সকালে বাড়ি থেকে বেরিয়েছিলেন স্বর্ণদীপ। তারপর প্রায় ১০ ঘণ্টা কেটে গেলেও বাড়ি ফেরেননি সে। এরপর শুরু হয় খোঁজাখুঁজি। ছেলে বাড়ি না ফেরায় নরেন্দ্রপুর থানায় গিয়ে হাজির হন বাবা প্রদীপ মণ্ডল ও মা তপতি মণ্ডল। তাঁদের অভিযোগ, অচেনা একটি ফোন নম্বর থেকে ফোন আসে। ছেলের মুক্তিপণ হিসেবে ২ লক্ষ টাকা দাবি করে অপহরণকারী। মোট তিনবার তাঁদের কাছে ফোন আসে টাকার জন্য। 

এত কম সময়ে এতগুলো টাকা কোথায় পাবে এবং কিভাবে জোগাড় হবে এসব ভেবে রবিবার রাতেই নরেন্দ্রপুর থানায় অপহরণের অভিযোগ দায়ের করা হয়। অভিযোগের ভিত্তিতে রাতেই তদন্তে নামে পুলিস। সোমবার ভোরে একজনকে গ্রেফতার করে পুলিস। তারপর সেই অভিযুক্তের বাড়ি তল্লাশি চালিয়ে উদ্ধার করা হয় স্বর্ণদীপকে। তবে এই ঘটনার সঙ্গে আরও কেউ জড়িত আছে কিনা তা খতিয়ে দেখছে পুলিস।

4 months ago
Fraud: ১০০ দিনের কাজে দুর্নীতির অভিযোগ, আদালতে সরব প্রতারিত ব্য়ক্তি...

শিক্ষা, রেশনের পর এবার একশো দিনের কাজে দুর্নীতির অভিযোগ। গোটা বিষয় এফআইআর করে তদন্ত শুরু করেছে পুলিস। সূত্রের খবর, একশো দিনের বকেয়া টাকার দাবিতে চলতি মাসে দিল্লি যাবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অন্যদিকে বিজেপির পক্ষ থেকে একশো দিনের কাজে ব্যাপক দুর্নীতির অভিযোগ তুলে সরব হয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী থেকে রাজ্যের নেতারা। দক্ষিণ ২৪ পরগনার মন্দিরবাজার ব্লকের কৃষ্ণপুর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় একশো দিনের কাজে ব্যাপক দুর্নীতির ছবি প্রকাশ্যে এসেছে। ওই পঞ্চায়েত এলাকার বাসিন্দা তথা বিজেপি নেতা রণজিৎ হালদার আরটিআই করেন। সেই তথ্য হাতে আসার পর ব্যাপক বেনিয়ম প্রকাশ্যে এসেছে বলে অভিযোগ। 

যেমন মাধবপুরের বাসিন্দা মন্টু ঘোষ। তাঁর দাবি, তাঁর জবকার্ড থাকা সত্ত্বেও তিনি জানতেন না। এমনকি সেই জবকার্ডে কয়েক দফায় টাকাও তোলা হয়েছে। অভিযোগ, সেই টাকা তুলেছেন মন্টু ঘোষ নামে গ্রামেরই এক বাসিন্দা। তিনি আবার পঞ্চায়েতের অস্থায়ী কর্মী ছিলেন। এই তথ্য প্রকাশ্যে আসার পর আদালতে যান বঞ্চিত মন্টু ঘোষ। তারপর আদালত মন্দিরবাজার থানাকে এফআইআরের নির্দেশ দেন। 

অভিযুক্ত মন্টু ঘোষ জানিয়েছেন, ‘‌আমি পঞ্চায়েতে ভ্যাকসিনের কাজ করে টাকা পেয়েছি। আমার কাছে কোনো জবকার্ড নেই। আমি কাজ করেছি তাই টাকা পেয়েছি।’‌ এই বিষয়ে মন্দিরবাজারের বিডিও মাসুদ রহমান জানান, এখনও পর্যন্ত ব্লক প্রশাসনের কাছে এই ধরনের লিখিত অভিযোগ জমা পড়েনি। তবে অভিযোগ পেলে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে। ইতিমধ্যে একাধিক জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা করে তদন্ত শুরু করেছে মন্দিরবাজার থানা।

4 months ago


Migrant Workers: ফের ভিনরাজ্যে কাজে গিয়ে মৃত্যু পরিযায়ী শ্রমিকের

আবারও ভিন রাজ্যে কাজ করতে গিয়ে মৃত্যু হল এক পরিযায়ী শ্রমিকের। ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার সাগরের কোম্পানিছাড় এলাকায়। জানা গিয়েছে, মৃত শ্রমিকের নাম সঞ্জয় মাইতি।

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, গত সোমবার বাড়ি থেকে অসমের করিমগঞ্জে বোরিং-এর কাজে গিয়েছিলেন সঞ্জয় মাইতি। বৃহস্পতিবার কাজ শেষ করে তার পাশেই বিকেলে তাবু টাঙিয়ে রাতে ছিলেন তিনি। তারপর রাস্তার পাশ দিয়ে একটি সিমেন্টভর্তি ট্রাক যাওয়ার পথে হঠাৎ নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ওই তাবুর ওপরে গিয়ে পড়ে। গুরুতর জখম অবস্থায় ওই শ্রমিককে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

রবিবার ওই পরিযায়ী শ্রমিকের মৃতদেহ তাঁর বাড়িতে নিয়ে আসা হয়। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই যুবকের পরিবারে একমাত্র রোজগেরে সদস্য ছিলেন ওই শ্রমিক। এই মৃত্যুর ঘটনাকে ঘিরে শোকের ছায়া নেমে এসেছে গোটা এলাকায়।

উল্লেখ্য, মুর্শিদাবাদে কয়েকদিন আগেই দিল্লিতে কাজ করতে গিয়ে মৃত্যু হয় এক পরিযায়ী শ্রমিকের। মাস চারেক আগে বাড়ি থেকে দিল্লীতে রাজমিস্ত্রির কাজ করতে যান সফিকুল নামের ওই শ্রমিক। সেখানে কাজ করতে গিয়ে ছাদ থেকে পড়ে মৃত্যু হয় তাঁর। একের পর এক পরিযায়ী শ্রমিকের মৃত্যুতে স্বাভাবিকভাবেই চাঞ্চল্য ছড়াচ্ছে।

5 months ago
Mathurapur: মথুরাপুরে নাবালিকা নিগ্রহের অভিযোগে গ্রেফতার এক অভিযুক্ত যুবক

মন্দির বাজারের পর এবার মথুরাপুরে নাবালিকা নিগ্রহের অভিযোগ। এক স্কুল ছাত্রীকে ডেকে নিয়ে গিয়ে নিগ্রহের অভিযোগ উঠল এলাকার এক যুবকের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার মথুরাপুর থানা এলাকায়। নির্যাতিতার মায়ের অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত বাসুদেব জাতুয়াকে গ্রেফতার করেছে পুলিস। ধৃতের বিরুদ্ধে যৌন নিগ্রহ সহ পকসো আইনে একাধিক ধারায় মামলা রুজু করেছে পুলিস। বৃহস্পতিবার ধৃতকে ডায়মন্ড হারবার মহকুমা আদালতে তোলা হয়। 

অন্যদিকে, এদিন নির্যাতিত ওই ছাত্রীর মেডিকেল করানো হয়েছে ডায়মন্ড হারবার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। যৌন নিগ্রহের সময় অভিযুক্তের এক সঙ্গী পাহারা দিচ্ছিল বলে অভিযোগ। পুলিস তাকেও কেন গ্রেফতার করল না, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে নির্যাতিতার পরিবার। যেহেতু অভিযুক্ত বাসুদেব জাতুয়া তৃণমূলের ঘনিষ্ঠ। তাই অভিযোগ তুলে নেওয়ার জন্য নির্যাতিতার পরিবারকে প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ। এই ঘটনার পর থেকেই আতঙ্কিত রয়েছে নির্যাতিতা ছাত্রীর বাবা ও মা। 

নির্যাতিতার মা জানিয়েছেন, বুধবার বিকেলে বাড়ির পাশেই খেলা করছিল পঞ্চম শ্রেণীর ওই ছাত্রী। অভিযোগ, অন্ধকার নামার ঠিক আগেই বছর এগারোর ওই ছাত্রীকে খাবারের লোভ দেখিয়ে ডেকে নিয়ে গিয়ে গ্রামের নির্জন জায়গায় একটি খড়ের স্তুপের পিছনে যৌন নির্যাতন করে বাসুদেব। ঘটনার পর ছাত্রী বাড়িতে ফিরে কান্নায় ভেঙে পড়েন। রাতে অসুস্থ হয়ে পড়লে ছাত্রীকে স্থানীয় চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যায় তাঁর পরিবারের লোকজনেরা। এরপর ছাত্রীর মুখ থেকে সমস্ত ঘটনার কথা শুনে রাতেই পুলিসের দ্বারস্থ হন তার বাবা ও মা।

7 months ago
Jaynagar: নুঁইয়ে পড়া বাড়িতে অস্ত্র-কারখানা! জয়নগরে বিপুল অস্ত্রের হদিশ

টেবিলে পর পর সাজানো ওয়ান শাটার গান, লং মেশিন গান থেকে শুরু করে বন্দুকের বাঁট, ড্রিল মেশিন, ডাইস, ফাইল, করাত সহ অস্ত্র তৈরির বিভিন্ন যন্ত্রপাতি। দেখে মনে হতে পারে অস্ত্র তৈরির কোনও কর্মশালা। কিন্তু এই বিপুল পরিমাণ অস্ত্র কোথায় ছিল জানেন? দক্ষিণ ২৪ পরগনার জয়নগর কাশিপুরের কামারিয়ায় একটি নুঁইয়ে পড়া মাটির বাড়িতে। এই বাড়ির ঘরেই লোকচক্ষুর আড়ালে এতদিন ধরে গড়ে উঠেছিল আস্ত অস্ত্রাগার, অবৈধ অস্ত্রের কারখানা। অভিযান চালিয়ে এই বিপুল অস্ত্র সহ অস্ত্রাগারের মালিক রহমাতুল্লা শেখকে পাকড়াও করে বারুইপুর পুলিস জেলার স্পেশাল অপারেশন গ্রুপ ও জয়নগর থানার পুলিস।

বহুদিন তক্কে তক্কে ছিল বারুইপুর পুলিস। মঙ্গলবার অভিযান চালাতে গিয়ে ওই মাটির বাড়ির অন্দরমহল দেখে পুলিসের চক্ষু কপালে ওঠে। গোপন অস্ত্রাগার থেকে অস্ত্র তৈরির বিপুল সরঞ্জামের পাশাপাশি উদ্ধার ৮ টি ওয়ান সাটার গান এবং ২ টি লং মেশিন গান।

সূত্রের খবর, ধৃতের বাড়ির পাশের পুকুরেও নাকি অস্ত্র ডুবিয়ে রাখা ছিল। ধৃতের স্ত্রীর কথায়, মুজিবর, সাইফুল, সাজমল নামে কয়েকজন ব্যক্তি বাড়িতে অস্ত্র এবং অস্ত্র তৈরির সরঞ্জাম রেখে গিয়েছিল। তবে কি এই বাড়ি থেকেই অস্ত্র, সরঞ্জাম আমদানি-রপ্তানিও চলত?

থামানো যাচ্ছে না অস্ত্রের আস্ফালন। প্রশ্ন উঠছে বারবার দক্ষিণ ২৪ পরগনাই কেন বন্দুকের নলে? এই পঞ্চায়েত নির্বাচনে দক্ষিণ ২৪ পরগনার ভাঙড়ের ভয়ঙ্করতার সাক্ষী থেকেছে বাংলা। বোমা, বন্দুকের দাপটে রক্তক্ষয়ী ভোটে শিউরে উঠেছে গণতন্ত্র।

7 months ago


Theft: স্কুলের তালা ভেঙে দুঃসাহসিক চুরি, উধাও লক্ষাধিক টাকার সরঞ্জাম, তদন্তে পুলিস

স্কুলের তালা ভেঙে দুঃসাহসিক চুরি (Theft)। ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার (South 24 Parganas) কুলপির মির্জাপুর গণেশচন্দ্র শিক্ষা নিকেতন হাইস্কুলে। বিদ্যালয়ের বেশ কিছু জিনিস চুরি করার পাশাপাশি ভাঙচুরও করা হয়েছে বলে অভিযোগ। ইতিমধ্যেই বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে কুলপি ব্লক প্রশাসন এবং কুলপি থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। কে বা কারা এই চুরির ঘটনাটি ঘটিয়েছে তার তদন্ত শুরু করেছে কুলপি থানার পুলিস (Police)।  

স্কুল সূত্রে জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার রাতেই এই দুঃসাহসিক ঘটনাটি ঘটেছে। বিদ্যালয়ের ১৬ টি তালা ভেঙে কম্পিউটার, সিসিটিভির হার্ডডিস্ক এবং ল্যাবরেটরির অণুবীক্ষণ যন্ত্র ভেঙে দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি বেশ কিছু জিনিস চুরিও করা হয়েছে। স্কুলের প্রধান শিক্ষকের দাবি, আনুমানিক লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি করে দেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে ল্যাবের বিভিন্ন রকম সরঞ্জাম, ৮ টি আলমারির তালা ভেঙে স্কুলের ঘন্টা এবং পিতলের জিনিসপত্রও চুরি করেছে দুষ্কৃতীরা, এমনটাই জানিয়েছেন তিনি। 

স্কুলের এক ক্লার্ক জানান, সকাল ১০ টায় স্কুল খুলতে এসেই তিনি স্কুলের গেটের তালাটি ভাঙা দেখতে পান। স্কুলের বেশ কিছু শ্রেণীকক্ষের দরজাও ভেঙে দিয়েছে দুষ্কৃতীরা। তাঁর দাবি, এই ঘটনা আগেও ঘটেছে চারবার। তখনও অভিযোগ জানানো হয়েছিল থানায়। তবে প্রশাসনের তরফ থেকে কোনও সাহায্য় পাওয়া যায়নি। 

8 months ago
Accident: ভারত-‌চিন সীমান্তে পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু সেনা জওয়ানের, শোকের ছায়া পরিবারে

ভারত-‌চিন সীমান্তে পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু (Accident Death) হল এক সেনা জওয়ানের। গত ৮ অগাস্ট ডিউটিতে যাওয়ার পথে সিকিমের নাতুলাতে ঘটে এই দুর্ঘটনাটি। বৃহস্পতিবার বিকেলে ওই জওয়ানের মৃতদেহটি কাকদ্বীপের (South 24 Parganas) বাড়িতে আনা হয়। তারপর শুক্রবার সকালে গান স্যালুটের মাধ্যমে তাঁর শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়। ঘটনাকে ঘিরে শোকের ছায়া নেমে এসেছে গোটা এলাকায়। 

সূত্রের খবর, মৃত ওই জওয়ানের নাম সমিত মাইতি (৩৫)। বাড়ি দক্ষিণ ২৪ পরগনার কাকদ্বীপের রাজনগর-‌শ্রীনাথ গ্রামে। জানা গিয়েছে, গত ৮ অগাস্ট ডিউটিতে যাওয়ার পথে সিকিমের নাতুলাতে দুর্ঘটনার কবলে পড়ে একটি সেনা জিপ। তার মধ্যেই ছিলেন সমিত মাইতি। শুধুমাত্র সমিত মাইতিই নয়, এই দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে আরও এক জওয়ানের। 

সূত্রের খবর, বৃহস্পতিবার বিকেলে কাকদ্বীপের বাড়িতে ফেরে সমিতের দেহ। এদিন তাঁর মরদেহটিকে গ্রামের স্কুলে আনা হয়। শিক্ষক থেকে পড়ুয়া তাঁর মরদেহে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করেন। তারপরেই তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় বাড়িতে। বাড়িতেও তাঁকে শ্রদ্ধাঞ্জলি দিতে অসংখ্য মানুষ উপস্থিত হয়।

9 months ago


Sanke: বিষধর কালাচ সাপের কামড়ে মৃত্যু দম্পতির, শোকের ছায়া ভাঙড়ে

বিষধর কালাচ সাপের (Snake Bitten) কামড়ে মৃত্যু (Death Couple) হল এক দম্পতির। শুক্রবার ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার (South 24 Parganas) ভাঙড় থানার অন্তর্গত প্রতাপনগর গ্রামে। ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকাকালীনই মৃত্যু হয় তাঁদের। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় ক্যানিং (Canning) থানার পুলিস (Police)। পুলিস দেহগুলি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে। ঘটনাকে ঘিরে শোকের ছায়া নেমেছে ওই এলাকায়। পুলিস সূত্রে খবর, মৃতদের নাম গণেশ মণ্ডল (৪২) ও বিজলী মণ্ডল (৩৬)।    

মৃতদের পরিবার সূত্রে খবর, বৃহস্পতিবার রাতে খাওয়া দাওয়া করে একসাথেই ঘুমোতে গিয়েছিলেন গণেশ ও বিজলী। তবে ভোরের দিকে ঘুমিয়ে থাকা অবস্থাতেই তাঁদের বিছানার মধ্যে একটি কালাচ সাপ ঢুকে পড়ে। তারপরেই সাপটি তাঁদের দুজনকেই কামড় দেয়। 

মৃতার ছেলের দাবি, 'বাবা ভোরে আমার ঘরে গিয়ে আমাকে ডেকে ঘুম থেকে তোলে। তারপরেই বাবা সাপ কামড়ানোর দাগটি দেখায়। আর সেই দাগ দেখে আমি বাবা-মায়ের ঘরে গিয়ে মাকে মেঝেতে পড়ে ছটপট করতে দেখি। তখনই আমি আর পরিবারের অন্য সদস্যরা বাব-মাকে গাড়ি করে স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যায়। তবে সেখানে তাঁদের শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় শুক্রবার সকালেই তাঁদেরকে ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। তারপর ক্যানিং হাসপাতালের চিকিৎসকেরা মৃত্যুর খবরটি জানান।

9 months ago
Namkhana: পরকীয়া দেখে ফেলার শাস্তি! নাবালক ছেলেকে শ্বাসরোধ করে খুন করল মা...

নাবালক ছেলেকে শ্বাসরোধ করে খুন (Death) করার অভিযোগ উঠল মায়ের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার (South 24 Parganas) নামখানা থানার অন্তর্গত উত্তর চন্দনপিঁড়িতে। পুলিস (Police) ঘটনাস্থল থেকে দেহটি উদ্ধার করে কাকদ্বীপ মর্গে নিয়ে যায় ময়না তদন্তের জন্য। অভিযুক্তের বিরুদ্ধে খুনের মামলা রুজু করে এই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিস। অভিযোগের ভিত্তিতে ওই নাবালকের মাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিস। তারপর পুলিসের জিজ্ঞাসবাদের চাপে ছেলেকে খুন করার কথা স্বীকার করে নেয় ওই অভিযুক্ত মা। ধৃতকে আজ কাকদ্বীপ মহকুমা আদালতে পেশ করা হয়েছে। ঘটনাকে ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়ায় এলকায়।

প্রাথমিকভাবে এই ঘটনার তদন্ত করেছে পুলিস, মৃত ওই নাবালকের নাম মইদুলতুল্লা এবং অভিযুক্ত ওই মায়ের নাম মনিরা। মনিরার স্বামী এজাহারতুল্লা একজন পরিযায়ী শ্রমিক। তাই ঘটনার চারদিন আগে কাজের সূত্রে ভিন রাজ্যে গিয়েছেন। স্বামী চলে যাওয়ার পর মনিরা তার দুই সন্তানকে নিয়ে বাড়িতে একাই থাকত। তবে স্বামী ভিনরাজ্যে থাকায় প্রতিবেশী যুবক হানিফের সঙ্গে অবৈধ সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে ওই মহিলা। 

পুলিস আরও জানায়, মঙ্গলবার রাতে প্রতিবেশী ওই যুবকের সঙ্গে নিজের মাকে অপ্রীতিকর অবস্থায় দেখে ফেলে মইদুলতুল্লা। তারপর থেকেই ছেলেকে মুখ বন্ধ রাখার জন্য রীতিমতো চাপ দিতে থাকে মনিরা ও তার প্রেমিক হানিফ। তবে ছেলে সেই কথা না শোনায় বুধবার মইদুলতুল্লা স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পর তাকে মারধর করে মনিরা এবং শ্বাসরোধ করে খুনের পর গলায় ফাঁস লাগিয়ে ঝুলিয়ে দেয়, এমনটাই জানাচ্ছে পুলিস।

9 months ago
Snake: ট্রেন থেকে উদ্ধার হলো তিন ব্যাগ ভর্তি গোসাপ, যার মধ্যে দুটি মৃত

ট্রেন (Train) থেকে উদ্ধার হলো তিন ব্যাগ ভর্তি গোসাপ (Snake)। রবিবার ঘটনাটি ঘটেছে (South 24 Parganas) শিয়ালদহ দক্ষিণ শাখার নামখানা লাইনের ডাউন ট্রেনে। এই ঘটনার খবর পেয়ে রবিবারই ট্রেন থেকে সাপগুলি উদ্ধার করে কাকদ্বীপ থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। তারপরেই ওই গোসাপ গুলিকে নামখানা রেঞ্জের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে।  

সূত্রের খবর, রবিবার বিকেলে লক্ষ্মীকান্তপুর স্টেশনে আরপিএফ-এর নজরদারির সময় ট্রেনের ভিতরে এই সাপগুলি পাওয়া যায়। তারপরেই সেগুলিকে উদ্ধার করা হয়। বন দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, উদ্ধার হওয়া ওই তিনটি ব্যাগ থেকে মোট ১৪ টি গোসাপ উদ্ধার করা হয়েছে। যার মধ্যে দুটি মৃত। তবে কে বা কারা এই গোসাপগুলি পাচার করছিল তার তদন্ত শুরু করেছে লক্ষ্মীকান্তপুর স্টেশনের আরপিএফ ও কাকদ্বীপ থানার পুলিস।

10 months ago


Bomb: পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে ফের উদ্ধার এক ব্য়াগ ভর্তি তাজা বোমা

পঞ্চায়েত নির্বাচনের (Panchayat election) আগে থেকেই প্রায়ই উদ্ধার (Rescue) হয়ে চলেছে বোমা (Bomb) এবং আগ্নেয়াস্ত্র। এছাড়াও মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার সময়েও এই ঘটনাটিগুলি ঘটে চলেছিল। যার কারণে আতঙ্কিত হয়ে পড়ছেন সাধারণ মানুষ। আবারও উদ্ধার এক ব্যাগ ভর্তি বোমা। দক্ষিণ ২৪ পরগনা 

(South 24 Parganas) জেলার বাসন্তী ব্লকে কাঁঠালবেরিয়া গ্রাম পঞ্চায়েতে কলতলা গ্রামে রাতে বোমাবাজির মতো ঘটনা ঘটে এবং সকালে উদ্ধার হয় বোমা। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে বাসন্তী থানার পুলিস। বোমা উদ্ধারের ঘটনায় চাঞ্চল্য় ছড়িয়েছে এলাকায়। 

জানা গিয়েছে, শনিবার রাতে দক্ষিণ ২৪ পরগনার বাসন্তী থানার অন্তর্গত কাঁঠালবেরিয়া গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় ব্যাপক বোমাবাজির ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে বাসন্তী থানার পুলিস সেখানে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এরপর রবিবার সকালে এলাকার একটি নির্মীয়মাণ বাড়ির ঝোপ থেকে উদ্ধার হয়েছে এক ব্যাগ তাজা বোমা। পুলিসের প্রাথমিক অনুমান ব্যাগে ৬ থেকে ৭ টি বোমা রয়েছে। আপাতত ঘটনাস্থলসহ ব্যাগটিকে ঘিরে রেখেছে পুলিস। 

কে বা কারা এই বোমার ভর্তি ব্য়াগ এখানে রেখে গিয়েছে এবং রাতে কারা এলাকায় বোমাবাজি করল সে বিষয়ে জানতে তদন্ত শুরু করেছে বাসন্তী থানার পুলিস। তবে এই ঘটনায় এলাকার সাধারণ মানুষ খুবই আতঙ্কিত। ভয়ে কেউ মুখ খুলতে চাইছেন না।

10 months ago
Crocodile: পুকুরে ঢুকে পড়ল কুমির, আতঙ্কিত গোসাবাবাসী

গোসাবার মন্মথনগরে পুকুরে ঢুকে পড়ল কুমির (Crocodile)। আতঙ্কিত গ্রামবাসীরা। ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার (South 24 Parganas) গোসাবা থানার অন্তর্গত বিপ্রদাসপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের মন্মথনগরে। স্থানীয় সূত্রে খবর, সন্তোষ বর্মন নামে এক ব্যক্তির পুকুরে ঢুকে পড়ে কুমিরটি। গোটা ঘটনায় শোরগোল পড়ে যায় পুরো গ্রামে।

জানা গিয়েছে, হঠাৎ গ্রামবাসীদেরই কয়েকজন লক্ষ্য করেন, সন্তোষের বাড়ি লাগোয়া, তাঁর পুকুরের পাড়ে, একটি বিশাল কুমির শুয়ে রয়েছে। আতঙ্কে শিউরে উঠলে সম্বিৎ হারাননি তাঁরা। দ্রুত খবর পাঠান গোসাবা রেঞ্জে। কিন্তু গ্রামবাসীদের আওয়াজে কুমিরটি পুকুরের জলে নেমে নেমে পড়ে। স্থানীয়দের দাবি, মন্মথনগর গ্রামের পাশ দিয়েই বয়ে গিয়েছে বিদ্যাধরী নদী। সেই নদী থেকে উঠেই সম্ভবত মন্মথনগর গ্রামের মধ্যে ঢুকে পড়েছিল কুমিরটি। খবর পেয়ে গোসাবা রেঞ্জের কর্মীরা পৌঁছন সেখানে। কুমিরটিকে উদ্ধার করার চেষ্টা করছেন তাঁরা। যতক্ষণ পর্যন্ত তার হদিশ না মিলছে, আতঙ্কে রয়েছেন গ্রামের মানুষ।

11 months ago