Breaking News
Mahua Moitra: 'বস্ত্রহরণ শুরু করেছে, মহাভারতের যুদ্ধ দেখতে পাবেন,' সংসদে ঢোকার মুখে হুঙ্কার মহুয়ার      ED: শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতিকাণ্ডে প্রাক্তন শিক্ষকের বাড়িতে ইডি হানা!      Ragging: যাদবপুরে ফের র‍্যাগিংয়ের অভিযোগ! প্রথম বর্ষের ছাত্রকে ফোন করে দেওয়া হত হুমকি...      Film Festival: শুরু ২৯তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব, উদ্বোধনে 'বাদশা' নয় ভাইজান      SSKM: বেড নেই এসএসকেএম-এ! দেড় বছরের শিশুকে ফিরিয়ে দেওয়ার অভিযোগ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে      BJP: জাতীয় সঙ্গীত 'অবমাননা' মামলায় জোর ধাক্কা রাজ্যের! বিজেপি বিধায়কদের গ্রেফতারে 'না' হাইকোর্টের      Recruitment Scam: ফের তৃণমূলের দুই কাউন্সিলরের বাড়ি থেকে উদ্ধার নিয়োগ সংক্রান্ত নথি ও অ্যাডমিট কার্ড!      Congress: স্বাধীনতার পর প্রথম তেলেঙ্গানায় সরকার গঠনের পথে কংগ্রেস      Deganga: গুরুতর অভিযোগ! মিড ডে মিলের চাল লুকিয়ে রাখা হচ্ছে স্কুলের শৌচালয়ে      Sujoykrishna: সুজয়কৃষ্ণের ভয়েস স্যাম্পেল টেস্টে 'ঢিলেমি'! এসএসকেএম-এর ভূমিকা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন     

RR

Bakibur: রেশন বণ্টন দুর্নীতিতে প্রকাশ্যে চাঞ্চল্যকর তথ্য, ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ বাকিবুরের

রেশন বণ্টন দুর্নীতি (Ration Scam) মামলায় বুধবার আদালতে হাজির করানো হয় বাকিবুর রহমানকে (Bakibur Rahman)। এদিন তাঁর আইনজীবী দেবজ্যোতি সেনগুপ্তকে জামিনের আবেদন করতে দেখা যায়নি। এর পরই বাকিবুরকে ৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে আদালত। কিন্তু এদিন আদালতে একের পর এক বিস্ফোরক দাবি করেছেন ইডি আধিকারিকরা। ইডির দাবি, শুধু আটা নয়, চাল নিয়েও একই ধরণের দুর্নীতি হয়েছে। ফলে চাল কীভাবে চুরি করা হয়েছে, সে নিয়েও তদন্ত করছে ইডি। ইডির দাবি, এই দুর্নীতিতে ডিলাররা এবং সমবায় সমিতিও জড়িত।

এদিন বাকিবুরকে আদালতে হাজির করানো হলে ইডির আইনজীবী ভাস্করপ্রসাদ বন্দ্যোপাধ্যায় দাবি করেন, ভুয়ো শিবির করে ভুয়ো চাষির নাম করে ধান কেনার ভান করতেন বাকিবুর রহমান। প্রশাসনের নজর এড়িয়ে ব্যবহার করা হত আধিকারিকদের সিলও। এ ভাবে খাদ্য দফতরের কাছ থেকে টাকা আদায় করতেন বাকিবুর। ইডির আইনজীবী আদালতে আরও জানান, ধান কেনার ক্ষেত্রে খাদ্য দফতরের ভুয়ো অফিসার এবং ভুয়ো সমবায় সমিতির মাধ্যমে সব লেনদেন হত। ধান কেনার জন্য শিবিরের আয়োজন না করেই ধান কেনা হত ও সরকার নির্ধারিত টাকা পেত ভুয়ো সমবায় সমিতি এবং ভুয়ো চাষিরা। ফলে আসল চাষিরা বঞ্চিত হতেন ও মূল চক্রিরা আড়ালেই থাকতেন।

বুধবার জেল হেফাজতের মেয়াদ শেষ হওয়ার পর বাকিবুরকে আদালতে তোলা হলে তাঁকে ফের ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

2 weeks ago
NRS: নেশার প্রতিবাদ করায় জুনিয়র ডাক্তারকে মারধর, পুলিশের হাতে ধৃত ৩

নেশার প্রতিবাদ করায় জুনিয়র চিকিৎসকদের মারধরের অভিযোগ শ্রমিকদের বিরুদ্ধে। মঙ্গলবার এনআরএস মেডিকেল কলেজের ঘটনা। এ ঘটনায় এখনও অবধি ৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে পুলিশ সূত্রে খবর। জুনিয়র ডাক্তারদের তরফে অভিযোগ পেয়ে ইতিমধ্যেই ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে এন্টালি থানার আধিকারিকরা। এ ঘটনায় পুলিশ জানিয়েছে, নেশার প্রতিবাদ করায় জনা দুয়েক জুনিয়র ডাক্তারদের সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে পড়ে এনআরএসে নতুন নির্মীয়মান বিল্ডিং-এর শ্রমিকরা। এরপরেই জুনিয়র ডাক্তারদের মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। ইতিমধ্যেই ঘটনার তদন্তে নেমেছেন এন্টালি থানার পুলিশ।

জানা গিয়েছে, গতকাল অর্থাৎ মঙ্গলবার এনআরএস হাসপাতালের নতুন নির্মীয়মান বিল্ডিংয়ে কিছু শ্রমিক অশালীন কাজ করছিল ও নেশা করছিল। তা দেখতে পেয়ে প্রতিবাদ জানায় কিছু জুনিয়র চিকিৎসকরা। তখন ওই শ্রমিকরা তাঁদের উপর চড়াও হয় বলে অভিযোগ। এরপর জুনিয়র চিকিৎসকদের মারধরও করা হয় বলে অভিযোগ। এরপরেই জুনিয়র ডাক্তাররা এন্টালি থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। চিকিৎসকদের লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নেমে ৩ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলেই জানা গিয়েছে। 

2 weeks ago
Siliguri: নকশালবাড়িতে এটিএম লুটের চেষ্টায় গ্রেফতার সেনাবাহিনীর জওয়ান

শিলিগুড়ির নকশালবাড়ির এক সরকারি ব্যাঙ্কের এটিএম লুঠের চেষ্টার অভিযোগে গ্রেফতার এক যুবক। জানা গিয়েছে, ধৃত যুবক সেনাবাহিনীর জওয়ান। অভিযুক্তের নাম রিশভ প্রধান। বাড়ি নকশালবাড়ির বাবুপাড়া এলাকায়। আজ, সোমবার ব্যাঙ্কের পক্ষ থেকে এটিএম লুঠের অভিযোগ দায়ের করা হয় নকশালবাড়ি থানায়। ধৃতকে আজ শিলিগুড়ি মহকুমা আদালতে তোলা হয়।

অভিযোগ, শনিবার গভীর রাতে নকশালবাড়ি বাজারে অবস্থিত এক সরকারি ব্যাঙ্কের এটিএম থেকে সাইরেন আওয়াজ শুনে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় নকশালবাড়ি থানার পুলিস। এটিএম মেশিন ভেঙে টাকা লুটের চেষ্টা করেন অভিযুক্ত ওই যুবক। অনুমান মেশিন থেকে টাকা বের করার পরিকল্পনা ছিল ধৃতের। ঘটনাস্থল থেকে পাথর উদ্ধার করা হয়েছে। পাথর দিয়ে এটিএমের দরজায় আঘাত করা হয় বলে অনুমান। ধৃত যুবক রিশব প্রধান, গোর্খা রেজিমেন্টের সঙ্গে যুক্ত ছিল বলে জানা গিয়েছে। ধৃত মদ্যপ অবস্থায় এই কাজ করেছেন বলে পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে।

3 weeks ago


Daluakhaki: জয়নগরের দলুয়াখাকি গ্রামে অগ্নিসংযোগের ঘটনায় পুলিশের জালে ৩ অভিযুক্ত

গতসপ্তাহে জয়নগরে তৃণমূল নেতা খুনে চাঞ্চল্য ছড়ায় গোটা দক্ষিণ ২৪ পরগনা সহ গোটা রাজ্যে। তৃণমূল নেতা খুনের পর তাঁর অনুগামীরা প্রতিশোধ স্পৃহায় অভিযোগ এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে খুন করে। পাশাপাশি ওই অভিযুক্তের এলাকায় বাড়ি-ঘরে আগুন জ্বালিয়ে দেয়। সেসময় বিশাল পুলিশ বাহিনীর সাহায্যে কয়েকদিনের মধ্যেই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হলেও ৩টি মামলা শুরু করে ঘটনার তদন্ত শুরু করে পুলিশ। ঘটনার তিন দিন পর তৃণমূল নেতা সইফুদ্দিন নস্করকে খুনে অভিযুক্ত হিসেবে নাম থাকা সিপিএম নেতা আনিসুর রহমান লস্করকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এবার জয়নগরের দলুয়াখাকি গ্রামে সিপিআইএম সমর্থক পরিবারের বাড়িতে অগ্নি সংযোগের ঘটনায় পুলিশের হাতে তিন। পুলিশ জানিয়েছে, রবিবার রাতে আমানুল্লাহ জামাদার, নজরুল মন্ডল ও আকবর ঢালি নামে এই তিন ব্যক্তিকে দোলুয়াখাকি গ্রামে অগ্নি সংযোগের ঘটনায় যুক্ত থাকার অভিযোগে গ্রেফতার করেছে জয়নগর থানার পুলিশ। ধৃতদের আজ বারুইপুর মহকুমা আদালতে তোলা হবে।

গত সোমবার দিওয়ালির দিন ভোর সাড়ে পাঁচটা নাগাদ বাড়ি থেকে বের হন দক্ষিণ ২৪ পরগনার জয়নগরের বামনগাছি পঞ্চায়েত এলাকার তৃণমূলের অঞ্চল সভাপতি সইফুদ্দিন লস্কর। সেসময় তাঁকে ঘিরে ধরে গুলি চালান দুষ্কৃতীরা। সেখানেই লুটিয়ে পড়েন সইফুদ্দিন। তিনি তৃণমূলের পঞ্চায়েত সদস্য ছাড়াও এলাকার সংগঠনের অন্যতম শক্তিশালী নেতা ছিলেন সইফুদ্দিন। তাঁর স্ত্রী এলাকার পঞ্চায়েত প্রধান। তাঁকে খুন করে পালিয়ে যাওয়ার সময় ধাওয়া করে দুজন দুষ্কৃতীকে ধরে ফেলে স্থানীয়রা। গণপিটুনিতে মৃত্যু হয় একজনের। অন্য অভিযুক্তকে পুলিশি হেফাজতে পাঠিয়েছে আদালত। অন্যদিকে, তৃণমূল নেতা খুনে সিপিআইএম প্রার্থী জড়িয়ে থাকার বিষয়টি সামনে আসতেই প্রতিহিংসায় দুষ্কৃতীরা দোলুইখাঁকি গ্রামের একাধিক বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেয়। দলুইখাঁকি গ্রামে মূলত সিপিআইএম সমর্থকদের বাস। খুনের ঘটনায় এই নিয়ে দুজন গ্রেফতার হলেও বাড়িতে আগুন ও গ্রামে তাণ্ডব চালানোর ঘটনায় গতকাল অবধি দোষীদের খোঁজ চালাচ্ছিল পুলিশ। এবার অগ্নিসংযোগের ঘটনায় পুলিশের হাতে গ্রেফতার ৩।

3 weeks ago
Arrest: ভারত-নেপাল সীমান্তে ২৫৪ গ্ৰাম ব্রাউন সুগার সহ গ্রেফতার দুই অভিযুক্ত

পাচারের আগেই ভারত-নেপাল সীমান্তে মাদক সহ গ্রেফতার দুইজন পাচারকারী। তল্লাশি চালিয়ে বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে ৫০ লক্ষ টাকার মাদক। পুলিস সূত্রে খবর, ধৃতরা হল মহম্মদ রহিম (২৫) ও মহম্মদ আতারুল (২৩)। দু'জনই বুড়াগঞ্জের কিলাঘাটার বাসিন্দা। 

পুলিস জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার রাতে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে খড়িবাড়ি থানার অন্তর্গত পানিট্যাঙ্কি ফাঁড়ির পুলিস ও এস‌ওজি যৌথ অভিযানে নামে। এরপর  নেপাল সীমান্ত লাগোয়া পানিট্যাঙ্কি নিউ মার্কেটে সন্দেহজনক একটি বাইককে আটক করে পুলিস। তারপর আটক করা বাইটিকে তল্লাশি চালিয়ে বাইকের ভিতর থেকে উদ্ধার হয় ২৫৪ গ্ৰাম ব্রাউন সুগার।  

পুলিসের অনুমান, ধৃতরা পানিট্যাঙ্কিতে মাদক বিক্রি করতে এসেছিল। কিন্তু তার আগেই পুলিস জালে ধরা পড়ে যায় মাদক সহ ওই দুই ধৃত। পুলিস ধৃতদের গ্রেফতার করে খড়িবাড়ি থানায় নিয়ে যায়। শুক্রবার ধৃতদের শিলিগুড়ি মহকুমা আদালতের তোলা হয়।

3 weeks ago


Fraud: চাকরি দেওয়ার নামে লক্ষ লক্ষ টাকা প্রতারণার অভিযোগ, কাঠগড়ায় ভুয়ো পুলিস

ভুয়ো পুলিস সেজে পুলিসের চাকরি দেওয়ার নামে প্রতারণা। চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে লক্ষ লক্ষ টাকা নিয়ে প্রতারণার অভিযোগ। ঘটনায় এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে শান্তিপুর থানার পুলিস। তবে এখনও ধৃতের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

সূত্রের খবর, নদিয়া শান্তিপুর এলাকার এক ব্যক্তি ভুয়ো পুলিস সেজে পুলিসের চাকরি দেওয়ার নামে দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন লোকের কাছ থেকে টাকা নিচ্ছিল।অভিযোগ, টাকা দেওয়ার পরেও চাকরি পায়নি কেউ।এরপর সন্দেহবশত কারণে ওই প্রতারকের কাছে পাওনা টাকা ফেরত চান প্রতারিতরা। অভিযোগ, টাকা ফেরত চাইতে গেলে প্রতারক ওই ব্যক্তি প্রথমে হুমকি দেয়। পরে প্রতারিতদের বাড়ি রাতের অন্ধকারে আগুন লাগিয়ে পুড়িয়ে ফেলার চেষ্টা করে। 

এরপর প্রতারিতরা প্রতারক ওই ভুয়ো পুলিস কর্মীর বিরুদ্ধে শান্তিপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করে। অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত ব্যক্তিকে শান্তিপুর থেকেই গ্রেফতার করা হয়। পুলিস সূত্রে খবর, এর আগেও ধৃত ওই ব্যক্তিকে পুলিসের মিথ্যে পরিচয় দিয়ে একাধিক মানুষের কাছ থেকে টাকা নেওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার করেছিল শান্তিপুর পুলিস। আবারও একই ঘটনার পুুনরাবৃত্তি হওয়ায় তদন্ত শুরু করেছে শান্তিপুর থানার পুলিস।

3 weeks ago
Arrest: অবৈধভাবে ভারতে প্রবেশ! শিলিগুড়ি থেকে গ্রেফতার দুই পাকিস্তানি

অবৈধভাবে ভারতে প্রবেশের অভিযোগে ভারত-নেপাল সীমান্তের পানিটাঙ্কিতে এসএসবি-র ৪১ ব্যাটালিয়নের হাতে ধরা পড়ল পাকিস্তানি মা ও ছেলে। জিজ্ঞাসাবাদের পর দুজনকেই দার্জিলিং জেলা পুলিশের খড়িবাড়ি থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। পুলিস ওই মহিলাকে গ্রেফতার করে এবং তাঁর ১১ বছরের পুত্র সন্তানকে হোমে পাঠানো হয়েছে।পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে, সাত দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে আদালতের কাছে। ইতিমধ্যেই খড়িবাড়ি থানার পুলিস তদন্তে নেমেছে।

পুলিস আরও জানিয়েছে, ধৃতদের নাম শায়েস্তা হানিফ (৬২) ও আরিয়ান মহম্মদ হানিফ (১১)। বৃহস্পতিবার বিদেশি আইনে ওই মহিলাকে শিলিগুড়ি আদালতে পেশ করা হয়। জানা গিয়েছে, বুধবার বিকেলে নেপালের কাকরভিটা থেকে মেচি নদীর ওপর নির্মিত এশিয়ান হাইওয়ে সেতু হয়ে শিলিগুড়ি বিভাগের খড়িবাড়ি ব্লকের অন্তর্গত ভারত-নেপাল সীমান্ত পানিটাঙ্কিতে পৌঁছায় পাকিস্তানি মা-ছেলে। তল্লাশির সময় তাঁদের কাছ থেকে পাকিস্তানি পাসপোর্ট ও অন্যান্য নথি উদ্ধার করে এসএসবি জওয়ানরা। এর পর তাঁদের দুজনকেই আটক করা হয়।

সূত্রের খবর, পাকিস্তানি মহিলা শায়েস্তা হানিফের আসল নাম গৌরী দে এবং তাঁর আদি বাড়ি অসমের শিলচরে।১৯৭৫-এর দিকে কর্মসূত্রে এই মহিলা মুম্বইতে যান। সেখানে এক পাকিস্তানি যুবক মোহম্মদ হানিফের সঙ্গে আলাপ হয়। বন্ধুত্বের সম্পর্ক বিবাহে পরিণত পায় ১৯৭৯ সালের সেপ্টেম্বর মাসে। এরপর মুম্বই থেকে তাঁরা পাকিস্তানের কারাচিতে চলে যান। সেখানে বেশ কয়েক বছর থাকার পর মোহম্মদ হানিফ কর্মসূত্রে সৌদি আরব যান এবং সেখানে স্বর্ণশিল্পীর সঙ্গে যুক্ত হয়ে। সেখানেই তাঁরা বসবাস করছিলেন।ছেলেকে নিয়ে নিজের মাতৃভূমি ভারতে ফেরার আকাঙ্ক্ষা দীর্ঘদিন ধরেই ছিল গৌরীর।

ভারতের ভিসা না পাওয়ায় শায়েস্তা হানিফ উরফে গৌরী দে তিনি নেপালের ভিসা নিয়ে নেপালে আসেন। সেখান থেকে ভারত নেপাল বর্ডার দিয়ে ভারতে প্রবেশ করার চেষ্টা করেন। সেই সময় এসএসবি জাওয়ানদের সন্দেহ হওয়ায় মা ও ছেলেকে আটক করে এবং তল্লাশি করার পর তাঁর ব্যাগ থেকে পাকিস্তানি পাসপোর্ট উদ্ধার করা হয়।সঙ্গে সঙ্গে গ্রেফতার করে খড়িবাড়ি থানার পুলিসের হাতে তুলে দেওয়া হয়। তবে এই পাকিস্তানি মা ও ছেলের সম্পর্ক কি সত্যিই সেই নিয়ে তদন্ত চালানো হচ্ছে পুলিসের পক্ষ থেকে।

3 weeks ago
Jaynagar: ঘর নেই, খাবার নেই, অগ্নিকান্ডে এখনও ছন্নছাড়া জয়নগরের দলুয়াখাকি গ্রাম

তৃণমূল নেতা খুন এরপর আক্রোশে পাল্টা খুনে এখনও বুধবার সকাল থেকে থমথমে রয়েছে দলুয়াখাকি এলাকা। কেউ ঘর ছাড়া, কেউ আবার পুড়ে যাওয়া ভিটে আগলে পড়ে রয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরের পর থেকে দক্ষিণ ২৪ পরগনার বামনগাছির দোলুয়াখাকি গ্রামে ঘর ছাড়া সকলে। সূত্রের খবর, এখনও পর্যন্ত দক্ষিণ বারাসতের সিপিআইএমের কার্যালয়ে আশ্রয় নিয়ে আছে দলুয়াখাকি গ্রামের আক্রান্ত সিপিআইএমের ২৫ টি পরিবারের মহিলা সদস্যরা। সেই সঙ্গে রয়েছে বেশ কিছু বাচ্চা। 

সোমবার নামাজ পড়তে যাওয়ার পথেই খুন হন জয়নগরের তৃণমূল নেতা সাইফুদ্দিন লস্কর। তারপর নিমেষে পুড়ে ছাই হয়ে যায় দলুয়াখাকি গ্রাম। সিপিএমদের অভিযোগ, একের পর এক সিপিএম সমর্থদের বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয়। এবং গ্রামবাসীদের বেধড়ক মারধর পর্যন্ত করা হয়। যদিও এই সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল। 

অভিযোগ, ঘটনার পর ২৪ ঘন্টা কেটে গেলেও এখনও দলুয়াখাকি গ্রামে ক্ষতিগ্রস্থদের পাশে দাঁড়ায়নি প্রশাসন। ঘটনার পর দলুয়াখাকি গ্রামে দেখা যায় আগুনে পুড়ে গিয়েছে বাড়ির সমস্ত আসবাবপত্র। আর সেই পুড়ে যাওয়া ঘরে শীতের রাতে থাকতে হচ্ছে কিছু মহিলাদের। এখনো পর্যন্ত ক্ষতিগ্রস্থদের খাবারের ব্যবস্থা করা হয়নি। অগ্নিকান্ডের ঘটনায় বেশ আতঙ্কিত দলুয়াখাকি গ্রামের মানুষ। যদিও বাড়ি পুড়িয়ে দেওয়ার ঘটনায় এখনও কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিস।

যদিও গতকাল অর্থাৎ মঙ্গলবার কান্তী গাঙ্গুলী ও সুজন চক্রবর্তীরা এই ঘটনায় আক্রান্ত মহিলাদের নিয়ে গ্রামে ফেরাতে গেলে পুলিস তাঁদেরকে বাধা দেয়। পরবর্তীতে জয়নগর থানায় গিয়ে তাঁরা অভিযোগ জানায়। সেই সঙ্গে ক্ষতিগ্রস্থদের জন্য পোশাক ও খাবার নিয়ে গ্রামে আসছিলেন আইএসএফ বিধায়ক নওশাদ সিদ্দিকী। তাঁকেও আটকে দেয় পুলিস। গ্রামে প্রবেশ করতে  না পেরে পুলিসের হাতে সেই খাবার গ্রামে পৌঁছে দেওয়ার জন্য তুলে দেয় নওশাদ। সেই খাবার এখনও পৌঁছায়নি গ্রামে। 

3 weeks ago


Canning: ডাকাতির ছক বানচাল! ক্যানিং থানার পুলিশের হাতে আগ্নেয়াস্ত্র সহ গ্রেফতার তিন দুষ্কৃতি

কালীপুজোর আগেই বড় সাফল্য় পেল ক্যানিং থানার পুলিস। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে আগ্নেয়াস্ত্র সহ তিনজন দুষ্কৃতিকে গ্রেফতার করল ক্যানিং থানার পুলিস। তল্লাশি চালিয়ে বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে আগ্নেয়াস্ত্র সহ তিন রাউন্ড গুলি। এখনও পর্যন্ত ধৃতদের পরিচয় পাওয়া যায় নি বলে পুলিস সূত্রে খবর। শনিবার ধৃতদের আলিপুর আদালতে পাঠানোর পর সাত দিনের পুলিসি হেফাজতের দাবি জানানো হবে।

পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে, শুক্রবার সন্ধ্যায় গোপন সূত্রে খবর পেয়ে ক্যানিং থানার পুলিস ক্যানিং থানার অন্তর্গত হাটপুকুরিয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের ডেভিসাবাদ এলাকায় অভিযানে নামে। এরপর তল্লাশি অভিযান চালিয়ে একটি আগ্নেয়াস্ত্র ও তিন রাউন্ড গুলিসহ তিনজন দুষ্কৃতিকে গ্রেফতার করে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়ায় এলাকায়।

প্রাথমিক তদন্ত করে পুলিসের দাবি, এলাকায় দুষ্কৃতিমূলক কাজ করার জন্য জড়ো হয়েছিল ওই তিন দুষ্কৃতী। কিন্তু ডাকাতির আগেই সমস্ত ছক বানচাল করে দিল পুলিস। তবে এই ঘটনার পিছনে আরও কে বা কারা জড়িত রয়েছে সে বিষয়ে তদন্ত করছে ক্যানিং থানার পুলিস।

4 weeks ago
Bail: নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় অন্যতম 'মিডিলম্যান' প্রসন্ন রায়কে জামিন দিল সুপ্রিম কোর্ট

নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় জামিন পেলেন আরও ১ অভিযুক্ত। চাকরি বিক্রির অন্যতম দালাল প্রসন্ন রায়কে জামিন দিল সুপ্রিম কোর্ট। শুক্রবার প্রসন্ন রায়ের জামিনের আবেদন মঞ্জুর করেছেন বিচারপতি। উত্তর ২৪ পরগনা সহ রাজ্যের বিস্তীর্ণ এলাকার চাকরিপ্রার্থীদের থেকে টাকা তুলে পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে পাঠাতেন এই প্রসন্ন রায়। দেশে ও দেশের বাইরে তাঁর বিপুল সম্পত্তির খোঁজ পেয়েছে ইডি ও সিবিআই।

এদিন প্রসন্ন রায়ের হয়ে সুপ্রিম কোর্টে সওয়াল করেন মুকুল রোহতগি। তার পরই তাঁকে জামিন দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় আদালত। ২০২২ সালের অগাস্ট মাসে গ্রেফতার হয়েছিলেন প্রসন্ন রায়। এসএসসি দুর্নীতিতে সিবিআই তাঁকে গ্রেফতার করলেও পরে প্রাথমিক নিয়োগ দুর্নীতিতেও তাঁকে হেফাজতে নেন তদন্তকারীরা।

তদন্তকারীদের দাবি, প্রসন্ন রায় পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের দূর সম্পর্কের আত্মীয়। উত্তর ২৪ পরগনা ও লাগোয়া এলাকার চাকরিপ্রার্থীদের কাছ থেকে টাকা তুলে তা পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের কাছে পাঠাতেন তিনি। সেজন্য বিধাননগরে একটি পরিবহন সংস্থার দফতর খুলেছিলেন তিনি। সেই দফতর থেকেই চলত জালিয়াতির কারবার। প্রসন্নের পাঠানো তালিকা মিলিয়ে অযোগ্যদের চাকরি দেওয়ার ব্যবস্থা করতেন পার্থ।

নিয়োগ দুর্নীতির মামলায় এই নিয়ে তৃতীয় কোনও ব্যক্তি জামিন পেলেন। এর আগে মানিক ভট্টাচার্যের স্ত্রী শতরূপা ও ওএমআর শিট পরীক্ষার দায়িত্বে থাকা সংস্থা নাইসার কর্তা নীলাদ্রি দাস জামিন পেয়েছেন।

4 weeks ago


NIA: সক্রিয় মানব পাচার চক্র! ১০ টি রাজ্যে হানা দিয়ে এনআইএর হাতে গ্রেফতার ৪৪ জন

মানব পাচার মামলায় বাংলা সহ একাধিক রাজ্যে জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা (এনআইএ) হানা দিয়েছিল বুধবার কাকভোরে। রাজ্য থেকে মোট তিন জনকে গ্রেফতার করেছেন এনআইএ আধিকারিকরা। তদন্তে নেমে বুধবার বারাসতের ব্যবসায়ী সঞ্জীব দেব-কে গ্রেফতার করেছে এনআইএ। সূত্রের খবর, মানব পাচারচক্রের সঙ্গে যুক্ত দুষ্কৃতীদের পাকড়াও করতে  ১০টি রাজ্যের মোট ৫৫টি এলাকায় হানা দেন এনআইএ-র আধিকারিকেরা। ইতিমধ্যে ৪৪ জনকে গ্রেফতারও করেছে গোয়েন্দারা। তাঁদের মধ্যেই রয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের তিন জন।

এনআইএ আধিকারিকরা একটি বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানিয়েছেন, সেপ্টেম্বরে অসম পুলিসের কাছে একটি অভিযোগ দায়ের হয়েছিল। সেখান থেকেই মানব পাচারচক্রের হদিস পান তদন্তকারীরা। জানা গিয়েছে, এই চক্রের মাধ্যমেই ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত পেরিয়ে অবৈধভাবে অনুপ্রবেশকারীদের দেশে আনতেন পাচারকারীরা। এরপর বিভিন্ন রাজ্যে তাঁদের পাঠিয়ে দিতেন। চলতি মাসে এই মামলা এনআইএ-র হাতে যায়। তারপরই ন্যাশনাল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সির আধিকারিকরা হানা দেন একাধিক রাজ্যে।

বুধবার বাংলা ছাড়াও ত্রিপুরা, অসম, কর্ণাটক, তামিলনাড়ু, তেলেঙ্গানা,  রাজস্থান, হরিয়ানা, জম্মু-কাশ্মীর, পদুচেরি-র একাধিক জায়গায় মানব পাচার মামলায় তল্লাশি চালায় এনআইএ। তদন্তে নেমে ত্রিপুরা থেকে ২১ জন,  কর্ণাটক থেকে ১০, অসম থেকে ৫, বাংলা থেকে ৩ জন, তামিলনাড়ু থেকে ২ অভিযুক্ত, ১ জন করে পদুচেরি, তেলেঙ্গানা ও হরিয়ানা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

উত্তর ২৪ পরগনার বারাসতের পর্যটক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতারের পাশাপাশি এদিন গাইঘাটার হাজরাতলা এলাকায় বিকাশ সরকারের বাড়িতেও তল্লাশি চালায় এনআইএ। বেশ কয়েক ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদের পর বিকাশকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বিকাশ বাংলাদেশের বাসিন্দা। গাইঘাটায় ভাড়াবাড়িতে থাকছিলেন। তাঁর স্ত্রী জানিয়েছেন, বিকাশ কয়েক বছর আগেই বাংলায় এসেছিলেন। চিকিৎসা করাতে তিনি নিজে এসেছেন কিছু দিন আগে। ভিসার মেয়াদ ফুরিয়ে যাওয়ায় দেশে ফিরতে পারেননি। এনআইএ সূত্রের খবর, বাংলা থেকে রাজু রুদ্র নামের আরও এক জনকে মানব পাচার সংক্রান্ত মামলায় গ্রেফতার করা হয়েছে।

4 weeks ago
Arrest: মেডিক্যাল কলেজ থেকে মৃতদেহ পাচারের ঘটনায় গ্রেফতার ৫

বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে মৃতদেহ পাচারের ঘটনায় গ্রেফতার ৫ অভিযুক্ত। জানা গিয়েছে, হাসপাতালের তিন কর্মচারী সহ মোট পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে বর্ধমান থানার পুলিশ। আজ অর্থাৎ বৃহস্পতিবার ধৃতদের বর্ধমান আদালতে তোলা হয়। পুলিশ জানিয়েছে, শববাহি গাড়ির উপরে রাখা থাকতো একটি দেহ। সেই মৃতদেহের ভুয়ো কাগজপত্র তৈরী করে তার ঠিক নিচে গোপন ড্রয়ারে রাখা হত একাধিক মৃতদেহ এবং বিভিন্ন অর্গান গোপনে পাচার করে দেওয়া হত। এই গোপন কাগজপত্র তৈরীতে বর্ধমান মেডিকেল কলেজের হাসপাতালের কর্মীরা জড়িত বলে পুলিস প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছে।

পুলিস সূত্রে খবর, এটি একটি অন্তরাজ্য মৃতদেহ পাচারচক্র। শুধু বর্ধমান নয় রাজ্যের একাধিক জেলায় এই চক্র সক্রিয়। বুধবার বর্ধমান মেডিকেল কলেজ থেকে শববাহি গাড়িতে করে যে মৃতদেহটি নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল সেটি উত্তরাখন্ডে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল বলে পুলিস প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছে। অভিযোগ, দেহ পাচারের জন্য় বেশ কয়েক লক্ষ টাকা বিনিময়ে মেডিকেল কলেজের কর্মীদের সাথে রফা হয়। তবে এই মৃতদেহগুলি কোথায় নিয়ে যাওয়া হত এবং কি করা হত সেটা খতিয়ে দেখার পাশাপাশি কত টাকায় লেনদেন এবং এর সঙ্গে অন্য কোন আন্তর্জাতিক পাচারচক্র যুক্ত আছে কিনা সেটাও খতিয়ে দেখছে পুলিস।

4 weeks ago
Arrest: নাম বদলে দুষ্কৃতিমূলক কর্মকাণ্ড চালাতেন! বিমানবন্দর থানার পুলিসের জালে অভিযুক্ত

নিজের নাম বদলে দুষ্কৃতিমূলক কর্মকাণ্ডে লিপ্ত হয়েছিলেন এক ব্যক্তি। কলকাতা বিমানবন্দর লাগোয়া অঞ্চল থেকে বৃহস্পতিবার ওই অভিযুক্ত ব্যক্তিকে গ্রেফতার করল বিমানবন্দর থানার পুলিস। পুলিস সূত্রে খবর, অভিযুক্ত উত্তরপ্রদেশের বাসিন্দা। নাম ইমরান।কলকাতা বিমানবন্দর সংলগ্ন বিভিন্ন অঞ্চলে দীর্ঘদিন ধরে দুস্কৃতিমূলক কাজ চালাচ্ছিলেন বলে অভিযোগ। শেষমেশ পুলিসের জালে ধরা পড়ল ওই দুস্কৃতি। ধৃতকে বৃহস্পতিবার ব্যারাকপুর আদালতে তোলা হয়।

পুলিস সূত্রে আরও খবর, কখনও মজিদ আনোয়ার আবার কখনো অনু তিওয়ারি, কোনও সময় ইমরান বিভিন্ন নাম ব্যবহার করে কলকাতা বিমানবন্দর লাগোয়া অঞ্চলে  দুস্কৃতিমূলক কার্যকলাপ চালাতেন ধৃত ব্যক্তি। ১৭ অক্টোবর বিমানবন্দর থানা এলাকার মাইকেল নগরের বাসিন্দা এক বৃদ্ধ মহিলা বিমানবন্দর থানায় অভিযোগ করেন যে, সে রাস্তার ধার দিয়ে হেঁটে যাওয়ার সময় এক ছিনতাইবাজ তাঁর গলায় থাকা সোনার হার ছিনিয়ে নিয়ে চম্পট দেন। এরপরেই তদন্তে নেমে মধ্যমগ্রাম এলাকা থেকে ওই ছিনতাইবাজকে আটক করে পুলিস। জিজ্ঞাসাবাদের সময় আটক ওই ছিনতাইবাজ তাঁর কর্মকাণ্ড স্বীকার করে নেন। জানা গিয়েছে, ধৃত ইমরান উত্তরপ্রদেশের বাসিন্দা হলেও দীর্ঘদিন ধরে মধ্যমগ্রাম অঞ্চলে গা ঢাকা দিয়েছিলেন। প্রাথমিক তদন্তে পুলিস জানতে পেরেছে ধৃত ছিনতাইবাজ পার্শ্ববর্তী থানা এলাকায় বহুবার এই কাণ্ড ঘটিয়েছে। পুলিস ধৃতকে নিজেদের হেফাজতে চাওয়ার আবেদন করে আদালতে পেশ করে।

4 weeks ago


NIA: মানব পাচার চক্রের সন্ধানে রাজ্য জুড়ে এনআইএ হানা, গ্রেফতার ১ ব্যবসায়ী

সিবিআই, ইডি, আয়কর দফতরের পর এবার সক্রিয় এনআইএ। মানব পাচার চক্রের সন্ধানে বুধবার ভোররাত থেকে একযোগে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে অভিযান চালাচ্ছে এনআইএ। সূত্রের খবর, ইতিমধ্যে বারাসত থেকে একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। প্রায় ১২ ঘন্টা জিজ্ঞাসাবাদের পর গ্রেফতার করা হয় পর্যটন ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত বারাসতের ব্যবসায়ী সঞ্জীব দে-কে। আবার ঠাকুরনগর থেকেও ১ ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়েছে।

সূত্রের খবর, উত্তর ২৪ পরগনার বারাসতের নবপল্লী রমেশ পল্লীর বাসিন্দা সঞ্জীব দে। অবৈধভাবে বৈদেশিক মুদ্রা লেনদেন এবং হুন্ডির মাধ্যমে বিদেশে টাকা পাচারের অভিযোগে মঙ্গলবার মধ্যে রাতেই তাঁর বাড়িতে হানা  দেয় এনআই-এর দুটি টিম। গতকাল রাত থেকে সকাল অবধি তল্লাশি চলে ব্যবসায়ীর বাড়িতে। এনআইএ সূত্রে খবর, তাঁর বাড়ি থেকে ১৫ লক্ষ টাকা উদ্ধার হয়েছে। বাড়ি থেকে অদূরেই ওই ব্যক্তির অফিস ছিল। অপরদিকে, পাচার চক্রের আড়ালে নিষিদ্ধ জঙ্গিগোষ্ঠী কার্যকলাপের সন্ধানে ঠাকুরনগর আনন্দপাড়া এলাকাতে হানা দেয় গোয়েন্দাদের একটি বিশেষ টিম। ভোর রাত থেকে বুধবার সকাল প্রায় ১১ টা পর্যন্ত অভিযুক্তের বাড়িতে থাকে দলটি৷ একজনকে আটক করা হয়। অভিযুক্তের নাম বিকাশ সরকার৷ জানা গিয়েছে, অভিযুক্ত বাংলাদেশ থেকে এসে প্রথমে মধ্যমগ্রামে একটি মোবাইলের দোকান দিয়ে রিপেয়ারিং-এর কাজ করতেন। পরিচিত একজনের মারফত বনগাঁর ঠাকুরনগরে ভাড়া বাড়িতে থাকতেন।

সূত্রের খবর, সীমান্ত পার করে পাচার চক্রের কাজ চালাতেন। এই চক্রের মাধ্যমে নিষিদ্ধ জঙ্গিগোষ্ঠীর সীমান্ত পার করে নিয়ে আসা হতো বলে এমনটাই অনুমান গোয়েন্দা বিভাগের আধিকারিকদের। বিকাশ সরকারের স্ত্রী ঝর্ণা সরকার জানিয়েছেন। ৪-৫ মাস আগে তিনি চিকিৎসা করতে ভারতে এসেছেন৷ বর্তমানে তিনি এই বাড়িতেই রয়েছেন স্বামীর সঙ্গে৷ বাংলাদেশের যশোরের বাসিন্দা তাঁরা।

মানব পাচার তদন্তে নেমে এদিন ঠাকুরনগর, বারাসতের পাশাপাশি হাবরা বানিপুর হীরাপোল এলাকায় এক যুবকের বাড়িতে যায় এনআইএ- এর একটি বিশেষ টিম।স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ভোর তিনটে নাগাদ চারটে গাড়ি করে এনআইএর একটি দল আসে। সেসময় বাড়িতে কেউ না থাকায় ফিরে যায় আধিকারিকরা। যুবকের নাম কিঙ্কর দাস। যুবক স্থানীয় একটি গেঞ্জির কারখানায় কাজ করতেন বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।এই মুহূর্তে উত্তরপ্রদেশে রয়েছে পারিবারিক কাজে। এনআইএ সূত্রে খবর, আগামী মঙ্গলবার কলকাতা এনআইএ অফিসে হাজিরা দিতে বলা হয়েছে কিঙ্করকে।

4 weeks ago
Mursidabad: পাচারের আগেই উদ্ধার বিপুল পরিমাণ গাঁজা, গ্রেফতার দুই পাচারকারী

পাচারের আগে গাঁজা সহ দুই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করল সাগরদীঘি থানার পুলিস। তল্লাশি চালিয়ে বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে ৬১ কেজি গাঁজা। পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে, ধৃত দুই যুবকের নাম শ্বেতাপ রায় ও সঞ্জিত সিং। দুজনের বাড়ি দার্জিলিং-এর প্রধান নগর থানা এলাকায়। আজ অর্থাৎ বুধবার ধৃতদের ১০ দিনের পুলিসি হেফাজত চেয়ে জঙ্গিপুর মহকুমা আদালতে পাঠানো হয়।

পুলিস সূত্রে আরও খবর, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় গোপন সূত্রে খবর পেয়ে অভিযানে নামে সাগরদীঘি থানার পুলিস। তারপর মোরগ্রামের কাছে ৩৪ নং জাতীয় সড়কে তল্লাশি অভিযান চালানো শুরু করে পুলিস। ঠিক সেই সময় একটি চারচাকা গাড়ি করে শিলিগুড়ি থেকে বহরমপুরে যাচ্ছিল। কিন্তু বহরমপুর যাবার পথে মোরগ্রামের কাছে ৩৪ নং জাতীয় সড়কে পুলিসের হাতে ধরা পড়ে।সন্দেহবশত কারণে ওই চারচাকা গাড়ি আটক করে পুলিস। এরপর গাড়ির ভিতর থেকে উদ্ধার করা হয় মোট ৬১ কেজি গাঁজা। গাড়িতে থাকা ওই দুই যুবককে গ্রেফতার করা হয়।

পুলিসের অনুমান, গাড়িতে করে গাঁজাগুলি পাচারের উদ্দেশ্য়েই নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। কিন্তু পাচারের আগেই সমস্ত ছক ভেঙে দিল সাগরদীঘি থানার পুলিস। তবে এই পাচার চক্রের সঙ্গে আর কারা কারা যুক্ত রয়েছে তা খতিয়ে দেখছে পুলিস প্রশাসন। 

4 weeks ago