Breaking News
BJP: ইস্তেহার প্রকাশ বিজেপির, 'এক দেশ এবং এক ভোট' লাগু করার প্রতিশ্রুতি      Fire: দমদমে ঝুপড়িতে বিধ্বংসী অগ্নিকাণ্ড, ঘটনাস্থলে দমকলের একাধিক ইঞ্জিন      Bengaluru Blast: বেঙ্গালুরু ক্যাফে বিস্ফোরণকাণ্ডে কাঁথি থেকে দুই সন্দেহভাজনকে গ্রেফতার করল এনআইএ      Sheikh Shahjahan: 'সিবিআই হলে ভালই হবে', হঠাৎ ভোলবদল শেখ শাহজাহানের      CBI: সন্দেশখালিকাণ্ডে সিবিআই তদন্তের নির্দেশ কলকাতা হাইকোর্টের...      NIA: ভূপতিনগর বিস্ফোরণকাণ্ডে এবার কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ NIA      ED: অবশেষে ইডির স্ক্যানারে চন্দ্রনাথের 'মোবাইল-হিস্ট্রি', খুলতে পারে নিয়োগ দুর্নীতি রহস্যের জট      PM Modi: তৃণমূল মানেই দুর্নীতি-লুট! ভোট প্রচারে সন্দেশখালির পর ভূপতিনগর নিয়ে সরব মোদী      NIA: ভূপতিনগর বিস্ফোরণকাণ্ডে গ্রেফতার আরও ২ , কেন্দ্রীয় এজেন্সির উপর হামলার ঘটনায় উদ্বিগ্ন কমিশন      Sheikh Shahjahan: বিজেপির 'দালাল'রা তাঁর বিরুদ্ধে মিথ্যে বলছে, দাবি শেখ শাহজাহানের     

PriyankKanungo

NCPCR: রাজ্যে পরপর শিশু নিগ্রহের ঘটনায় প্রকাশ্যে কেন্দ্র-রাজ্য শিশু সুরক্ষা কমিশনের দ্বন্দ্ব

কালিয়াগঞ্জের (Kaliaganj) শিশু নিগ্রহ ও মৃত্যুর ঘটনায়, ফের প্রকাশ্যে রাজ্য এবং কেন্দ্র শিশু সুরক্ষা কমিশনের দ্বন্দ্ব (NCPCR)। রবিবার কালিয়াগঞ্জে মৃতার পরিবারের সঙ্গে দেখা করেন কেন্দ্রীয় শিশু সুরক্ষা কমিশন। পরিবারের সঙ্গে কথা বলেন কেন্দ্রীয় শিশু সুরক্ষা কমিশনের চেয়ারম্যান প্রিয়াঙ্ক কানুনগো (Priyank Kanungo)। যার পরে কেন্দ্রের কমিশনকে কটাক্ষ করতে শুরু করেছে রাজ্য শিশু সুরক্ষা কমিশন।

সূত্রের খবর, কালিয়াগঞ্জে নিগৃহীতার পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে শনিবারই রাজ্যে হয়েছিলেন কেন্দ্রীয় সুরক্ষা কমিশন। রাজ্যের পরপর তিলজলা, গাজলের শিশু নিগ্রহের পর, ফের কালিয়াগঞ্জে শিশু নিগ্রহের ঘটনাকে কেন্দ্র করে কেন্দ্র ও রাজ্যের সংঘাত চরমে।

রবিবার ওই মৃতার পরিবারের সঙ্গে দেখা করে বেরিয়ে, প্রিয়াঙ্ক কানুনগো বলেন, 'এ রাজ্যে বারবার এমন ঘটনা ঘটছে, পশ্চিমবঙ্গে নারী ও শিশুদের সুরক্ষা নেই। এ বিষয়ে প্রশাসনকে বাড়তি সতর্ক থাকা উচিত।' এরপরই রাজ্য শিশু সুরক্ষা কমিশন এনসিপিসিআরকে কটাক্ষ করে টুইট করেন, 'উনি যা করছেন সেটা অত্যন্ত লজ্জাজনক। উনি কোনও কিছু না জেনেই পদক্ষেপ গ্রহণ করছেন।' কেন্দ্রের এই কমিশনকে কটাক্ষ করতে ছাড়েননি তৃণমূল মুখপাত্র কুনাল ঘোষও।

12 months ago
NCPCR: প্রসঙ্গ শিশু সুরক্ষা! কেন্দ্র বনাম রাজ্য কমিশন, তিলজলার পর বচসা মালদাতেও

শুক্রবারের পর শনিবারও জাতীয় শিশু সুরক্ষা কমিশনের (Ncpcr) সঙ্গে বসচায় জড়িয়েছে রাজ্য শিশু সুরক্ষা কমিশন। আগের কথা মতো, শনিবার মালদার (Malda) গাজলে যান জাতীয় শিশু সুরক্ষা কমিশনের চেয়ারম্যান প্রিয়াঙ্ক কানুনগো (Priyank Kanungo)। সেখানেই রাজ্য শিশু কমিশনের চেয়ারপার্সন সুদেষ্ণা রায় তাঁকে মালদার নির্যাতিতার বাড়িতে ঢুকতে বাধা দেন বলে অভিযোগ। মালদার গাজলের নির্যাতিতা পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে, বাধার মুখে কেন্দ্রীয় শিশু সুরক্ষা কমিশনের প্রতিনিধি দল। কেন্দ্রীয় দল অভিযোগ করেন তাঁদেরকে বাধা দেওয়া হচ্ছে। বাধা দিচ্ছে রাজ্য শিশু সুরক্ষা কমিশনের প্রতিনিধি দল। অভিযোগ প্রায় দু'ঘণ্টা তাদেরকে অপেক্ষা করতে হয় নির্যাতিতার পরিবারের সঙ্গে কথা বলতে।


সূত্রের খবর, কেন্দ্রীয় কমিটিকে নির্যাতিতার সঙ্গে কথা বলতে না দিলে, উত্তপ্ত হয়ে ওঠে পরিবেশ। কেন্দ্রীয় দলকে নির্যাতিতার পরিবারের সঙ্গে কথা বলতে দিতে হবে এই দাবি নিয়ে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন গ্রামবাসীরা। এতে সামিল হয় স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব। গাজলের বিধায়ক চিন্ময় দেব বর্মন ও ইংরেজ বাজারের বিধায়ক শ্রীরুপা মিত্র চৌধুরী ছিলেন বিক্ষোভে। তার কিছুক্ষণের মধ্যেই ঘটনাস্থল থেকে চলে যান রাজ্য কমিশনের আধিকারিক-সহ সুদেষ্ণা রায়। কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল রাজনীতি করছে এই অভিযোগ তুলে যান রাজ্যের প্রতিনিধি দল। কিছুক্ষণের মধ্যেই এলাকার জেলা পরিষদ সদস্য সাগরিকা সরকারের নেতৃত্বে তৃণমূল কর্মীরা ঘটনাস্থলে চলে আসে। এবার তারা কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। আর এরপরেই তৃণমূল ও বিজেপি কর্মী সমর্থকদের মধ্যে হাতাহাতি শুরু হয়ে যায়। কোনওরকমে পুলিস পরিস্থিতি সামাল দেয়, শনিবারের ঘটনার জন্য রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল ও বিজেপি বিধায়ক শ্রীরুপা মিত্র চৌধুরী ও গাজলের বিজেপি বিধায়ক চিন্ময় দেব বর্মন।


এরপর বেলা সাড়ে ১১টা নাগাদ, নির্যাতিতার পরিবারের সঙ্গে দেখা করে গ্রাম ছাড়লো কেন্দ্রীয় শিশু সুরক্ষা কমিশনের প্রতিনিধি দল। পাশাপাশি শুক্রবার তিলজলায় তাঁকে শারীরিক হেনস্থা করা হয় বলে অভিযোগ করেন প্রিয়াঙ্ক কানুনগো।  ঘটনার ৭২ ঘন্টা পর কীরকম এগিয়েছে তদন্ত! তদন্তের গতিবিধি সমন্ধে জানতে তিলজলা থানায় আসেন জাতীয় শিশু সুরক্ষা কমিশনের চেয়ারম্যান প্রিয়াঙ্ক কানুনগো। শুক্রবার তাঁকে বাধা দেন রাজ্য শিশু সুরক্ষা কমিশনের চেয়ারম্যান সুদেষ্ণা রায়। প্রিয়াঙ্কের অভিযোগ, তিলজলা থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক তাঁকে শারীরিক হেনস্থা করেছেন, পাশাপাশি সূত্রের খবর, প্রিয়াঙ্ক কানুনগোর কাছ থেকে একটি লিখিত অভিযোগ পাওয়া গিয়েছে।

সেই অভিযোগে উল্লেখ, যে তিলজলা থানায় তদন্তের কার্যক্রম, একটি বডিক্যাম দ্বারা রেকর্ড করা হয়েছিল এবং যখন তিনি ক্যামেরাটি কেড়ে নিতে চান তখন তাঁকে শারীরিকভাবে হেনস্থা করা হয়েছে। পাশাপাশি জোর করে তাঁর থেকে ক্যামেরা কেড়ে নেওয়া হয়েছিল। শ্রী কানুনগোর লিখিত বক্তব্যের ভিত্তিতে, একটি মামলা রেকর্ড করা হয়েছে। সূত্রের আরও খবর, এ ঘটনার পর শনিবারই তিলজলার ওসি বিশ্বক মুখোপাধ্যায়-সহ চার জন পুলিসকে ছুটিতে পাঠানো হয়েছে।

one year ago