Breaking News
BJP: জাতীয় সঙ্গীত 'অবমাননা' মামলায় জোর ধাক্কা রাজ্যের! বিজেপি বিধায়কদের গ্রেফতারে 'না' হাইকোর্টের      Recruitment Scam: ফের তৃণমূলের দুই কাউন্সিলরের বাড়ি থেকে উদ্ধার নিয়োগ সংক্রান্ত নথি ও অ্যাডমিট কার্ড!      Congress: স্বাধীনতার পর প্রথম তেলেঙ্গানায় সরকার গঠনের পথে কংগ্রেস      Deganga: গুরুতর অভিযোগ! মিড ডে মিলের চাল লুকিয়ে রাখা হচ্ছে স্কুলের শৌচালয়ে      Sujoykrishna: সুজয়কৃষ্ণের ভয়েস স্যাম্পেল টেস্টে 'ঢিলেমি'! এসএসকেএম-এর ভূমিকা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন      Recruitment Scam: এবারে দেবরাজ চক্রবর্তীর বাড়ি থেকে উদ্ধার নিয়োগ সংক্রান্ত একাধিক নথি!      Jyotipriya: এসএসকেএম-এও নেই স্বস্তি! সিসিটিভি ক্যামেরার নজরাধীন রাখার নির্দেশ আদালতের      CBI: কোথাও বিধায়ক, কাউন্সিলর, কোথাও ব্যবসায়ীর বাড়িতে হানা, রাজ্যজুড়ে ফের সক্রিয় সিবিআই      Mamata Banerjee: 'অনেক বিধায়কের কোটি কোটি টাকা', বিজেপি বিধায়কদের চাঁচাছোলা আক্রমণ মমতার      Amit Shah: লোকসভার আগে বিজেপির শাহী সভা যেন প্রেস্টিজ ফাইট, সভার লাইভ আপডেট     

NIA

Pneumonia: 'অজানা নিউমোনিয়া' কি ছড়িয়ে পড়বে ভারতে? কী জানাল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক

করোনার (Corona) দাপট বিশ্বে সবেমাত্র কমেছে। কিন্তু এরই মাঝে চিনে ফের নয়া রোগের আতঙ্ক। 'অজানা নিউমোনিয়া' অর্থাৎ 'এইচ৯ এন২'-এ চিনে শিশুরা আক্রান্ত হতে শুরু হয়েছে। সেখানকার হাসপাতালে থিকথিকে ভিড়। এবারে এই রোগ নিয়েই উদ্বেগ প্রকাশ করল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য পরিবার কল্যাণ মন্ত্রক। বিবৃতি দিয়ে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, এখনই আতঙ্কের কিছু নেই। কারণ আপাতত এই রোগ ভারতে ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা কম। এছাড়াও জানানো হয়েছে, যে কোনও ধরনের জরুরি অবস্থার জন্য ভারত প্রস্তুত।

মূলত শিশুরাই অসুস্থ হচ্ছে এই 'অজানা নিউমোনিয়া'য়। ইনফ্লুয়েঞ্জার মতো এই 'অজানা নিউমোনিয়া' ভারতেও ছড়িয়ে পড়বে না তো, এমনই প্রশ্ন প্রত্যেক ভারতবাসীর। এবারে এই প্রশ্নের জবাবে বিবৃতি প্রকাশ করে কিছুটা স্বস্তি দিল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক। স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দেওয়া হল, আপাতত চিনের 'অজানা নিউমোনিয়া' ভারতে ছড়িয়ে পড়ার কোনও লক্ষণ নেই। শুক্রবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়, চিনে শিশুদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়া ফুসফুসের সংক্রমণ ও এইচ৯এন২ সংক্রমণের উপরে কড়া নজর রাখা হচ্ছে। ভারতে এই সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা খুবই কম। তবে বর্তমান পরিস্থিতির উপরে নজর রেখে ভারত যেকোনও পরিস্থিতির সঙ্গেই লড়াই করতে প্রস্তুত।

a week ago
Pneumonia: কোভিডের পর এবারে চিনে নয়া আতঙ্ক 'অজানা নিউমোনিয়া', কী এই রোগ

সারা বিশ্বে করোনার (Corona) দাপট আপাতত কমেছে, মানুষ ফের স্বাভাবিকভাবে জীবনযাপন করতে শুরু করেছে। কিন্তু এরই মধ্যে ফের এক রহস্যজনক রোগের প্রকোপ শুরু হল। আর এবারও এর শুরু চিন থেকেই। 'অজানা নিউমোনিয়া' বলেই উল্লেখ করা হচ্ছে এই রোগকে। জানা গিয়েছে, মূলত শিশুরাই অসুস্থ হচ্ছে এতে। ইতিমধ্যেই এই রোগের জন্য স্থানীয় স্কুলগুলি বন্ধ রাখা হয়েছে।

আন্তর্জাতিক সংবাদসংস্থা সূত্রে খবর, 'অজানা' এই নিউমোনিয়া রোগ মূলত বেজিং এবং লিয়াওনিং প্রদেশের স্কুলপড়ুয়াদের মধ্যে ছড়িয়েছে। এই দুই জায়গায় শিশু হাসপাতালগুলি নিউমোনিয়া আক্রান্ত শিশুতে ভরে গিয়েছে। ১২ নভেম্বর এক সাংবাদিক বৈঠক করে চিনের ন্যাশনাল হেলথ কমিশন সম্ভবত প্রথমবারের মতো বাড়তে থাকা শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা নিয়ে দুশ্চিন্তা প্রকাশ করেছিল। হাসপাতালগুলিতে অজানা নিউমোনিয়া রোগে আক্রান্ত শিশুদের ভিড় উপচে পড়ছে বলে দাবি।

জানা গিয়েছে, অজানা রোগে আক্রান্ত শিশুদের মূলত জ্বর হচ্ছে, ফুসফুসে সংক্রমণ দেখা দিচ্ছে, শ্বাসকষ্ট হচ্ছে। তবে শিশুদেরই এই রোগ হচ্ছে। প্রাপ্তবয়স্কদের মধ্যে সেভাবে ছড়াচ্ছে না রোগটি। কিন্তু এই রোগে এখনও পর্যন্ত কোনও রোগীমৃত্যুর কোনও খবর আসেনি বলেই জানা গিয়েছে। অজানা এই নিউমোনিয়া নিয়ে ইতিমধ্যেই উদ্বেগ প্রকাশ করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বা 'হু'।

2 weeks ago
NIA: মানব পাচার চক্রের সন্ধানে রাজ্য জুড়ে এনআইএ হানা, গ্রেফতার ১ ব্যবসায়ী

সিবিআই, ইডি, আয়কর দফতরের পর এবার সক্রিয় এনআইএ। মানব পাচার চক্রের সন্ধানে বুধবার ভোররাত থেকে একযোগে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে অভিযান চালাচ্ছে এনআইএ। সূত্রের খবর, ইতিমধ্যে বারাসত থেকে একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। প্রায় ১২ ঘন্টা জিজ্ঞাসাবাদের পর গ্রেফতার করা হয় পর্যটন ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত বারাসতের ব্যবসায়ী সঞ্জীব দে-কে। আবার ঠাকুরনগর থেকেও ১ ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়েছে।

সূত্রের খবর, উত্তর ২৪ পরগনার বারাসতের নবপল্লী রমেশ পল্লীর বাসিন্দা সঞ্জীব দে। অবৈধভাবে বৈদেশিক মুদ্রা লেনদেন এবং হুন্ডির মাধ্যমে বিদেশে টাকা পাচারের অভিযোগে মঙ্গলবার মধ্যে রাতেই তাঁর বাড়িতে হানা  দেয় এনআই-এর দুটি টিম। গতকাল রাত থেকে সকাল অবধি তল্লাশি চলে ব্যবসায়ীর বাড়িতে। এনআইএ সূত্রে খবর, তাঁর বাড়ি থেকে ১৫ লক্ষ টাকা উদ্ধার হয়েছে। বাড়ি থেকে অদূরেই ওই ব্যক্তির অফিস ছিল। অপরদিকে, পাচার চক্রের আড়ালে নিষিদ্ধ জঙ্গিগোষ্ঠী কার্যকলাপের সন্ধানে ঠাকুরনগর আনন্দপাড়া এলাকাতে হানা দেয় গোয়েন্দাদের একটি বিশেষ টিম। ভোর রাত থেকে বুধবার সকাল প্রায় ১১ টা পর্যন্ত অভিযুক্তের বাড়িতে থাকে দলটি৷ একজনকে আটক করা হয়। অভিযুক্তের নাম বিকাশ সরকার৷ জানা গিয়েছে, অভিযুক্ত বাংলাদেশ থেকে এসে প্রথমে মধ্যমগ্রামে একটি মোবাইলের দোকান দিয়ে রিপেয়ারিং-এর কাজ করতেন। পরিচিত একজনের মারফত বনগাঁর ঠাকুরনগরে ভাড়া বাড়িতে থাকতেন।

সূত্রের খবর, সীমান্ত পার করে পাচার চক্রের কাজ চালাতেন। এই চক্রের মাধ্যমে নিষিদ্ধ জঙ্গিগোষ্ঠীর সীমান্ত পার করে নিয়ে আসা হতো বলে এমনটাই অনুমান গোয়েন্দা বিভাগের আধিকারিকদের। বিকাশ সরকারের স্ত্রী ঝর্ণা সরকার জানিয়েছেন। ৪-৫ মাস আগে তিনি চিকিৎসা করতে ভারতে এসেছেন৷ বর্তমানে তিনি এই বাড়িতেই রয়েছেন স্বামীর সঙ্গে৷ বাংলাদেশের যশোরের বাসিন্দা তাঁরা।

মানব পাচার তদন্তে নেমে এদিন ঠাকুরনগর, বারাসতের পাশাপাশি হাবরা বানিপুর হীরাপোল এলাকায় এক যুবকের বাড়িতে যায় এনআইএ- এর একটি বিশেষ টিম।স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ভোর তিনটে নাগাদ চারটে গাড়ি করে এনআইএর একটি দল আসে। সেসময় বাড়িতে কেউ না থাকায় ফিরে যায় আধিকারিকরা। যুবকের নাম কিঙ্কর দাস। যুবক স্থানীয় একটি গেঞ্জির কারখানায় কাজ করতেন বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।এই মুহূর্তে উত্তরপ্রদেশে রয়েছে পারিবারিক কাজে। এনআইএ সূত্রে খবর, আগামী মঙ্গলবার কলকাতা এনআইএ অফিসে হাজিরা দিতে বলা হয়েছে কিঙ্করকে।

4 weeks ago


NIA: কেরলের কনভেনশন সেন্টারে বিস্ফোরণের তদন্তে এবার এনআইএ

কেরলের কনভেনশন সেন্টারে বিস্ফোরণের ঘটনায় এবার তদন্ত করবে এনআইএ। রবিবার সকালে অনুষ্ঠান চলাকালীন আচমকা বিস্ফোরণের শব্দে কেঁপে ওঠে এলাকা। মৃত্যু হয় একজনের। জখম ২০ জনের বেশি। ঘটনার পরপরই কেরলের মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেন  স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ও পরিস্থিতির পর্যালোচনা করেন।

অমিত শাহের নির্দেশ,অবিলম্বেই যেন ঘটনাস্থলে এনআইএ ও এনএসজি টিম পাঠানো হয়। সেই নির্দেশ মতোই ৪। জনের এনআইএ টিম গঠন করা হয়েছে রাজ্য পুলিশের পাশাপাশি বিস্ফোরণের ঘটনার তদন্ত করবে এনআইএ-ও।

জানা গিয়েছে সকাল ৯টা নাগাদ বিস্ফোরণটি ঘটে। সেইসময় সেখানে প্রায় ২০০০ মানুষ উপস্থিত ছিলেন। প্রত্য়ক্ষদর্শীরা জানাচ্ছেন, একাধিকবার বিস্ফোরণ হয়। কিন্তু কী কারণে বিস্ফোরণ, তা এখনও জানা যায়নি।

a month ago
NIA: প্রধানমন্ত্রীকে প্রাণনাশের হুমকি! দাবি ৫০০ কোটি টাকা ও লরেন্স বিষ্ণোই-এর মুক্তিও

ফের প্রাণনাশের হুমকি পেলেন দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi)। শুধু তাই নয়, নরেন্দ্র মোদী স্টেডিয়ামও উড়িয়ে দেওয়ার হুমকি ই-মেল এসেছে বলে সূত্রের খবর। জানা গিয়েছে, এবারে সরাসরি হুমকি ই-মেল এসেছে জাতীয় তদন্তকারী সংস্থার (NIA) কাছে। প্রধানমন্ত্রীর প্রাণনাশের হুমকি দেওয়ার পাশাপাশি ৫০০ কোটি টাকা ও লরেন বিষ্ণোইকে মুক্তি দেওয়ার দাবিও জানানো হয়েছে।

সূত্রের খবর, বৃহস্পতি এনআইএ-এর কাছে হুমকি ভরা ই-মেল এসেছে, যেখানে হিন্দিতে লেখা রয়েছে, "তোমার সরকারের থেকে আমাদের ৫০০ কোটি আর লরেন্স বিষ্ণোই চাই। নয়তো কাল আমরা নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে নরেন্দ্র মোদী স্টেডিয়ামও উড়িয়ে দেব। হিন্দুস্তানে সব কিছু বিক্রি হয়, আমরাও কিছু কিনে নিয়েছি। যতই নিরাপত্তা নিশ্চিত কর আমাদের থেকে বাঁচতে পারবে না। যদি কথা বলতে হয় তো এই মেলের মাধ্যমে কথা বল।"

তবে কে বা কারা বা কোন গোষ্ঠীর তরফে এই হুমকি মেল দেওয়া হয়েছে, তা এখনও স্পষ্ট নয়। তবে গ্যাংস্টার লরেন্স বিষ্ণোইয়ের গ্যাং বা ঘনিষ্ঠের তরফেই ই-মেলটি করা হতে পারে বলে গোয়েন্দাদের অনুমান।

2 months ago


Asian Games: নন্দিনীকে 'রূপান্তরিত' বলে খোঁচা বাংলার মেয়ে স্বপ্নার, পদক ফেরত চাইলেন

সোমবার সকাল থেকেই আলোচনায় বাংলার মেয়ে স্বপ্না বর্মন (Swapna Barman)। চলতি বছরের এশিয়ান গেমসে অংশ নিয়েছিলেন তিনি। ৮০০ মিটার মহিলা হেপ্টাথলন এর প্রতিযোগী ছিলেন তিনি। জাকার্তা এশিয়ান গেমসে (Asian Games 2023) স্বর্ণ পদক এনে দিয়েছিলেন স্বপ্না। তাই তাঁকে নিয়ে আশা বেড়েছিল সকলের। যদিও হাংঝৌতে ভালো ফল করতে পারলেন না তিনি। হেপ্টাথলনে চতুর্থ হয়েই থেমেছে তাঁর দৌড়। সেই জায়গায় ভারতের হয়ে ব্রোঞ্জ ছিনিয়ে এনেছেন নন্দিনী আগাসারা (Nandini Agasara)। সতীর্থর বিরুদ্ধেই এবার নিজের ক্ষোভ উগরে দিলেন স্বপ্না।

এশিয়ান গেমসে নন্দিনীর বিপরীতে হার, মেনে নিতে পারছেন না স্বপ্না।  তাই নাম না করেই সামাজিক মাধ্যমে নন্দিনীকে তীব্র ভাষায় কটাক্ষ করলেন তিনি। সামাজিক মাধ্যমের পোস্টে স্বপ্না লিখেছেন, 'হাংঝৌ, চিনে অনুষ্ঠিত হয়েছিল ১৯তম এশিয়ান গেমস। আমি আমার এশিয়ান গেমস ব্রোঞ্জ মেডেল একজন রূপান্তরিত মহিলার কাছে হারিয়েছি। যেহেতু এটি অ্যাথলেটিক্স-এর নিয়ম বিরুদ্ধ, তাই আমি আমার মেডেল ফেরত চাই।'

স্বপ্নার এই মন্তব্য থেকেই আলোচনার সূত্রপাত হয়েছে। প্রসঙ্গত এর আগে নন্দিনীর বিরুদ্ধে কেউ এমন অভিযোগ তোলেননি। ভারতীয় অ্যাথলেটিক্স সংস্থাও এই বিষয়ে কোনও মন্তব্য করেননি। নন্দিনীর বিরুদ্ধে স্বপ্নার এমন মন্তব্যে সামাজিক মাধ্যমেও আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে। বহু নেটিজেন এমন অভিযোগের স্বপক্ষে প্রমাণ চাইছেন। আবার অনেকে স্বপ্নার পাশে দাঁড়িয়েছেন।

2 months ago
NIA: খালিস্তানি গ্যাংস্টারদের ধরতে মরিয়া, দেশের ৫০টি জায়গায় তল্লাশি অভিযান এনআইএ-এর

কানাডার (Canada) সঙ্গে ভারতের (India) সম্পর্ক যখন চরমে পৌঁছেছে, তখনই খালিস্তানপন্থী (Khalistani) গ্যাংস্টারদের (Gangsters) খুঁজে বের করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে এনআইএ (NIA)। দেশের ৬ রাজ্যের মোট ৫০টি জায়গায় চলছে তল্লাশি অভিযান। এর আগে ১৯ জন পলাতক খালিস্তানপন্থী নেতার তালিকা প্রকাশ করেছে এনআইএ। এর পর ফের খালিস্তানপন্থী গ্যাংস্টারদের ধরতে তৎপর কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা।

সূত্রের খবর, বুধবার সকাল থেকেই দেশের বিভিন্ন প্রান্তে অভিযান চালাচ্ছে এনআইএ। খালিস্তানি গ্যাংস্টারদের খোঁজে পঞ্জাব, হরিয়ানা, দিল্লি-এনসিআর, রাজস্থান, উত্তরাখণ্ড ও উত্তরপ্রদেশে তল্লাশি অভিযান চালানো হচ্ছে। শুধুমাত্র পঞ্জাবেই ৩০টি জায়গায় চলছে তল্লাশি। এছাড়া রাজস্থানের ১৩টি, হরিয়ানার ৪টি , উত্তরাখণ্ডের ২টি, এবং দিল্লি ও উত্তর প্রদেশের ১টি করে জায়গায় তল্লাশি অভিযান শুরু করেছে কেন্দ্রীয় সংস্থা।

সূত্রের খবর, ভারতে সন্ত্রাসমূলক কার্যকলাপে আর্থিক মদত দিচ্ছে খালিস্তানপন্থী বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতা ও কিছু গ্যাংস্টাররা। এছাড়াও অস্ত্র সরবরাহ ও দেশবিরোধী কার্যকলাপের সঙ্গে যুক্ত তারা, এমন একাধিক তথ্য উঠে এসেছে। আবার তদন্তকারী সংস্থার কাছে খালিস্তানি-আইএসআই যোগের তথ্য প্রমাণও রয়েছে। ফলে এসব খালিস্তানপন্থী নেতা-গ্যাংস্টারদের খুঁজে বের করতে মরিয়া ও তার জন্যই এনআইএ-এর এই তল্লাশি অভিযান।

সম্প্রতি, খালিস্তানি জঙ্গি হরদীপ সিং নিজ্জরের মৃত্যুর জন্য ভারতকে দায়ী করেছে কানাডা। এ থেকেই দুই দেশের মধ্যে টানাপোড়েনের সৃষ্টি হয়েছে। এরই মধ্যে এনআইএ-এর তল্লাশি অভিযান বেশ তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করা হচ্ছে।

2 months ago
OBC: মহিলা সংরক্ষণ বিল আইনে পরিণত করার দাবি কংগ্রেস সাংসদ সনিয়া গান্ধীর

ওবিসিকে তালিকা ভুক্ত করে অতি দ্রুত মহিলা সংরক্ষণ বিল আইনে পরিণত করার দাবি জানালেন কংগ্রেস সাংসদ সনিয়া গান্ধী। বুধবার লোকসভায় মহিলা সংরক্ষণ বিল বিতর্কে অংশ নিয়েছিলেন কংগ্রেস প্রাক্তন সভানেত্রী। সনিয়ার দাবি, দীর্ঘদিন ধরেই এই বিল নিয়ে নানা চর্চা হচ্ছে। এবার সময় এসেছে, এই বিলকে আইনে পরিণত করা।

এদিন লোকসভায় দাঁড়িয়ে আবেগে ভাসলেন সনিয়া। তিনি জানান, ভারতে মহিলাদের জন্য সংরক্ষণের প্রথম কাজ শুরু করেছিলেন ভারতের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী এবং তাঁর স্বামী রাজীব গান্ধী। কিন্তু রাজ্যসভায় সাত ভোটে হেরে গিয়ে সেই বিল আটকে গিয়েছিল। পরবর্তী সময়ে এই বিল আইনে পাস করার চেষ্টা করেছে কংগ্রেস।

কংগ্রেস এখনও এই বিলকে সমর্থন করে বলেও জানান সনিয়া গান্ধী। একইসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কাছে তাঁর অনুরোধ আর দেরি না করে এই বিল আইনে পরিণত করার সময় এসেছে। সনিয়ার পর এই বিলকে দ্রুত আইনে পাস করাতে সরকারের কাছে অনুরোধ করেন ডিএমকে নেত্রী কানিমোঝিও।

3 months ago


NIA: ব্যবহার হত ভয়াবহ বিস্ফোরক, বেলডাঙা বিস্ফোরণ কাণ্ডে 'UAPA' ধারা যোগ করল এনআইএ

বোমায় ব্যবহার করা হয়েছিল লোহার টুকরো, যা সাধারণ মিলিটারি গ্রেনেড। এই তথ্য হাতে পেতেই বেলডাঙ্গা বিস্ফোরণ কাণ্ডে UAPA ধারা যোগ করল এনআইএ। আদালতে এনআইএ জানায়, পাইপ বোমা বা বোমাতে লোহার টুকরো যা ব্যাবহার করা হয়েছে, তা সাধারণত মিলিটারি গ্রেনেডের মতো। ঘটনায় যারা গ্রেফতার হয়েছে এবং যারা জামিনে রয়েছে, তাদের জামিন বাতিল করার আবেদন জানানো হয়েছে। ২০২২ সালের ১৭ জানুয়ারির ঘটনা। বেলডাঙা থানার রামেশ্বরপুর গ্রামে ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। স্থানীয় একটি বাগানে ছোট পাম্পের ঘরে এই বিস্ফোরণ হয়। বিস্ফোরণে উড়ে যায় গোটা ঘরটি। ইয়াসউদ্দিন শেখ ওরফে ছাদি শেখ নামে এক ব্যক্তির দেহ উদ্ধার হয় ঘটনাস্থল থেকেই। স্থানীয় বাসিন্দাদের তরফে অভিযোগ করা হয়, ওই পাম্পের ঘরে বোমা বাঁধার কাজ চলছিল।

প্রথমে এই ঘটনার তদন্ত শুরু করে রাজ্য পুলিশ। ঘটনাস্থলে যান ফরেনসিক আধিকারিকরা। গত বছর অক্টোবর মাসে এই ঘটনার গুরুত্ব বুঝে তদন্তভার হাতে নেয় এনআইএ। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের নির্দেশে তদন্ত শুরু করে এনআইএ। আবারও ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যান এনআইএ আধিকারিকরা। তবে ততদিনে ৯ মাস পেরিয়ে গিয়েছে। তদন্তে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ৭৪ টি গ্রেনেড উদ্ধার করেছিল।সেই রিপোর্ট পুলিশ এনআইএ-এর হাতে তুলে দেয়। মামলার গুরুত্ব চতুর্গুণ বেড়ে যায়। কেন্দ্রীয় ফরেন্সিক ল্যাবরেটরির রিপোর্টের ভিত্তিতে UAPA-র আবেদন করা হয়। কেন্দ্রীয় তদন্তকারীদের দাবি, ঘটনাস্থল থেকে এমন কিছু জিনিস উদ্ধার হয়েছে, যা সাধারণত মিলিটারি গ্রেনেডের মতো। সাধারণ বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় যা মূলত উদ্ধার হয় না।

3 months ago
Sonia: বিশেষ অধিবেশন নিয়ে ৯ দফা দাবি করে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি সনিয়ার

সংসদের বিশেষ অধিবেশন নিয়ে এবার প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখলেন কংগ্রেসের প্রাক্তন প্রধান ও নেত্রী সনিয়া গান্ধী। বিশেষ অধিবেশনে ৯টি বিষয় আলোচনার জন্য দাবি করলেন কংগ্রেস নেত্রী। এদিকে জি-২০ সম্মেলনের আগে ইউরোপ উড়ে গেলেন রাহুল গান্ধী। সূত্রের খবর, ইউরোপিয়ান ইউনিয়ানের অন্তর্গত আইনজীবী, ছাত্রছাত্রী ও প্রবাসী ভারতীয়দের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন রাহুল।

এদিকে সংসদের বিশেষ অধিবেশনে সনিয়া গান্ধী তাঁর চিঠিতে লিখেন, অন্য রাজনৈতিক দলগুলির সঙ্গে সহমত না হয় এই বিশেষ অধিবেশন ডাকা হয়েছে। এর অ্যাজেন্ডা কী, কেউ জানে না। জানানো হয়েছে এই পাঁচদিন সরকারের কাজ আছে। সনিয়া চিঠিতে জানিয়েছেন, সবার সঙ্গে সহমত হয়েই যাতে এই বিশেষ অধিবেশনে কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

3 months ago


NIA: দত্তপুকুরে অবৈধ বাজি কারখানায় বিস্ফোরণে এনআইএ তদন্তের দাবি বিজেপির

রবিবার সকালে ভয়াবহ বিস্ফোরণ হয় উত্তর ২৪ পরগনার দত্তপুকুরে। সেই ঘটনার তদন্তে এবার এনআইএ দাবি করল রাজ্য বিজেপি। পাশাপাশি এই ঘটনার জন্য রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে আঙুল তুললেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। 

রবিবার সকাল সাড়ে ১০টা নাগাদ বিস্ফোরণ হয় দত্তপুকুরে। ঘটনার জেরে এখনও পর্যন্ত ৭ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। বিস্ফোরণের তীব্রতা এতটাই বেশি ছিল যে একটি বাড়ি পুরোপুরি ভেঙে যায়। এছাড়াও পাশের কয়েকটি বাড়িতে ফাটল দেখা দিয়েছে।

এলাকাবাসীদের অভিযোগ, খাদ্যমন্ত্রী রথীন ঘোষের নেতৃত্বে অবৈধ বাজি কারখানা চলত। যদিও সেই অভিযোগ অস্বীকার করেছে শাসক দল। তাদের পালটা অভিযোগ, আইএসএফ নেতার মদতে ওই এলাকায় অবৈধ বাজি কারবার চলত।

বেআইনি বাজি কারখানা রুখতে কড়া নির্দেশ দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যের একাধিক জেলায় তল্লাশি চালিয়েছিল পুলিস। উদ্ধার করেছিল প্রচুর অবৈধ বাজি। কিন্তু তারপরেও পরিস্থিতি একই রয়ে গেছে।

3 months ago
Sleep: মুঠো মুঠো ঘুমের ওষুধ নয়, অনিদ্রা দূর করার জন্য মেনে চলুন এই নিয়মগুলো

ঘরে ঘরে এখন দেখা যাচ্ছে ইনসোমনিয়ার রোগী। অর্থাৎ রাতে ঘুম (Sleep) না হওয়া, ঘণ্টার পর ঘণ্টা জেগে থাকার রোগের নামই ইনসোমনিয়া (Insomnia)। ফলে রাতে ঘুম না আসতেই সঙ্গে সঙ্গে খেয়ে নিচ্ছেন ঘুমের ওষুধ। তবে আদৌ কি তা কার্যকরী? আর কার্যকর হলেও তা কি শরীরের কোনও ক্ষতি করছে না! প্রশ্নগুলো তাঁদের করা উচিত, যাঁরা প্রায় রোজই এই ঘুমের ওষুধ খেয়ে ঘুমোতে যান। বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, ঘুমের ওষুধ না খেয়েও যাতে স্বাভাবিকভাবে ঘুম আসে, তার জন্য কিছু নিয়ম মেনে চলতে হবে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, রাতে ঘুম না আসার প্রধান কারণই হল অনিয়মিত জীবনযাপন। রাতে দীর্ঘক্ষণ ফোন ঘাঁটা, ঠিক সময়ে না ঘুমিয়ে দেরি করে শুতে যাওয়া, আর এইগুলোই ধীরে ধীরে অভ্য়াসে পরিণত হয়ে যায়। ফলে বিশেষজ্ঞরা প্রথমেই পরামর্শ দেন, রাতে শুতে যাওয়ার আগে ফোনকে দূরে সরিয়ে রাখার। এছাড়াও প্রতিদিন একই সময়ে শুতে যাওয়া ও একই সময়ে ঘুম থেকে ওঠার অভ্যাস করার জন্য বলে থাকেন তাঁরা। আবার ঘুমোতে যাওয়ার আগে চা বা কফি না খাওয়ারও পরামর্শ দেন তাঁরা। আর এই নিয়মগুলো মেনে চললেই ঘুমের ওষুধ ছাড়াই ঘুম আসবে স্বাভাবিকভাবে, এমনটাই মত বিশেষজ্ঞদের। আর এরপরেও যদি কারো ঘুম না আসে, তবে তাঁকে চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়ার জন্য় বলে থাকেন।

4 months ago
Tasnia Farin: গোপনে রেখেছিলেন প্রেম, বিয়ে করলেন বাংলাদেশী অভিনেত্রী তাসনিয়া ফারহিন

কাঁটাতার ভাগ করেছে ভারত-বাংলাদেশের সীমানা। কিন্তু দুই দেশের মানুষের একে অপরের প্রতি শ্রদ্ধা-ভালোবাসা অক্ষত রয়েছে। বিশেষ করে দুই দেশের দর্শকেরা গানই হোক বা সিনেমা, তাড়িয়ে তাড়িয়ে উপভোগ করেন। এইভাবেই যেমন ভারতের অনেক অভিনেতার সঙ্গে পরিচিত হয়েছেন বাংলাদেশবাসী। একইভাবে বাংলাদেশের অনেক অভিনেতা অভিনেত্রীদের সঙ্গেও পরিচিত হয়েছেন এপার বাংলার মানুষ। সেইভাবেই দর্শকেরা চিনেছেন তাসনিয়া ফারহিনকে।

বাংলাদেশের নাটক যারা দেখেন, তারা তাসনিয়া ফারহিনকে ভালোই চেনেন। প্রত্যেকটি নাটকেই তাঁর অভিনয়ের প্রশংসা করেছেন দর্শকেরা। বিশেষ করে 'কারাগার' ওয়েব সিরিজে চঞ্চল চৌধুরীর পাশেও নিজের অভিনয় দাপট বজায় রেখেছিলেন অভিনেত্রী। পরিচালক অতনু ঘোষের 'এক পৃথিবী' সিনেমা দিয়ে, টলিউডে ডেবিউ করেছেন তাসনিয়া। তাঁকে নিয়ে কৌতুহলের শেষ নেই দর্শকদের।  বিশেষ করে তাঁকে যখনই সম্পর্ক নিয়ে প্রশ্ন করা হয়েছে, তিনি গোপনেই রেখেছিলেন মনের ঠিকানা। এবার জানা গেল, তাসনিয়ার মনের ঠিকানা।

সাড়ে ৮ বছর প্রেম করার পর, ১১ অগাস্ট বিয়ে করেছেন অভিনেত্রী। তাঁর মনের মানুষের নাম শেখ রিজওয়ান। তাসনিয়া নিজে সামাজিক মাধ্যমে একটি পোস্ট দিয়ে লিখেছেন, 'সাড়ে আট বছরের ভালোবাসা এবং বন্ধুত্ব। ১১ অগাস্ট আমরা অবশেষে অফিশিয়াল করলাম। যদিও অনেকটা সময় হয়ে গিয়েছে, কিন্তু প্রথম দিনের মতোই আমার হৃদস্পন্দন বেড়ে যায়। আমি তোমার মধ্যে শান্তি পেয়েছি। বাইরের চিৎকারকে অগ্রাহ্য করে আমরা শান্তির ঘর বানিয়েছি।'


একই পোস্টে অভিনেত্রী লিখেছেন, অভিনয় জগতের অংশ না হয়েও কীভাবে এই আট বছরে তাঁর পাশে থেকেছেন রিজওয়ান। তাসনিয়া জানিয়েছেন, পরিবারের কাছের সদস্যদের নিয়ে আইনি বিয়ে সেরেছেন। কারণ তাঁর স্বামী বর্তমানে বিদেশে কর্মরত। তিনি ফিরে এলেই কাছের বন্ধু এবং সহকর্মীদের নিয়ে সেলিব্রেট করার ইচ্ছে প্রকাশ করেছেন তাসনিয়া। শেষে সকলের থেকে আশীর্বাদ চেয়েছেন।


4 months ago


Meeting: সংসদে বহিষ্কৃত কংগ্রেস সাংসদ অধীর চৌধুরী, দ্রুত বিশেষ বৈঠক সনিয়ার

বৃহস্পতিবার সংসদে সাসপেনশনের কোপে পড়েন কংগ্রেস দলনেতা অধীর চৌধুরী। শুক্রবার এই নিয়ে বিশেষ বৈঠক ডাকলেন কংগ্রেসের চেয়ারপার্সন সনিয়া গান্ধী। সরাসরি কেন্দ্রের সঙ্গে সংঘাতে যাবে দল।

নরেন্দ্র মোদী সরকারের বিরুদ্ধে 'ইন্ডিয়া' জোটের অনাস্থা প্রস্তাবের বিতর্কে বুধ ও বৃহস্পতিবার লোকসভায় কংগ্রেসের দলনেতা অধীর চৌধুরীর নাম উঠেছে। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী একাধিক বার অধীরকে নাম করে খোঁচা দিয়েছে কংগ্রেস ও বিরোধী জোটকে।

বৃহস্পতিবার অনাস্থা প্রস্তাব নিয়ে ভোটাভুটির শেষে 'অসংসদীয় আচরণ'-এর অভিযোগ তুলে অধীরের বিরুদ্ধে স্বাধিকার ভঙ্গের প্রস্তাব আনেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রহ্লাদ জোশী। লোকসভায় সেই প্রস্তাব গ্রহণ করেন স্পিকার ওম বিড়লা। শুক্রবারই বাদল অধিবেশনের শেষ দিন। শুক্রবার সিদ্ধান্ত না নিলে অধীর চৌধুরীর সাসপেনশনের মেয়াদ গড়াবে শীতকালীন অধিবেশন পর্যন্ত

4 months ago
Rahul: বিয়ে করতে চলেছেন রাহুল গান্ধী, পাত্রীর খোঁজে মা সনিয়া গান্ধী!

৫৩ বছর হয়ে গেলেও এখনও দেশের 'মোস্ট এলিজেবেল ব্যাচালর' হলেন রাহুল গান্ধী (Rahul Gandhi)। বিয়ে করার জন্য পরামর্শ দিয়ে থাকেন অনেকেই। এতদিন রাহুলকে সরাসরি বলা হত বিয়ে করার জন্য। কিন্তু এবারে ছেলের বিয়ের জন্য মা সনিয়া গান্ধীকে (Sonia Gandhi) বললেন এক মহিলা কৃষক। আর সেই শুনেই মুখে লাজুক হাসি রাহুলের। বিয়ে দেওয়ার সেই প্রস্তাবের মুহূর্ত ক্যামেরাবন্দি করা হয়েছে। আর তা সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তেই ঝড়ের গতিতে ভাইরাল।

সম্প্রতি দিল্লিতে গান্ধী পরিবারের সঙ্গে দেখা করেন হরিয়ানার কৃষক পরিবারের কিছু মহিলা। দেখা গিয়েছে, সেই কৃষক মহিলাদের সঙ্গে বসে খাওয়া-দাওয়া, গল্প-গুজব, নাচ-গান করেছেন গান্ধী পরিবার। সেই মহিলারা গান্ধী পরিবারের জন্য নিয়ে এসেছেন লস্যি, আচার ইত্যাদি। এসব দেখে আপ্লুত তাঁরা। এরই মধ্যে এক ব্যক্তিগত প্রশ্ন করে বসেন এক মহিলা কৃষক। তিনি সরাসরি সনিয়া গান্ধীকে প্রশ্ন করেন, 'ছেলের বিয়ে কবে দিচ্ছেন?' আর এর উত্তরে সনিয়া বললেন 'আপনিই পাত্রীই খুঁজে দিন না।' সনিয়ার এমন কথা শুনে বাকি মহিলারাও হাসতে শুরু করেন। পাশে বসে রাহুল, আর তাঁর মুখেও দেখা যায় লাজুক হাসি।

4 months ago