Breaking News
HC: জেলে ১ বছর ৭ মাস! পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বিচারপ্রক্রিয়া কবে শুরু হবে? ইডির কাছে রিপোর্ট তলব হাইকোর্টের      Sandeshkhali: ''দাদা আমাদের বাঁচান...'', সন্দেশখালির মহিলাদের আর্তি শুনলেন শুভেন্দু      Sandeshkhali: 'মুখ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ করা উচিত', ক্ষোভ প্রকাশ জাতীয় মহিলা কমিশনের চেয়ারপার্সনের      Weather: বিদায়ের পথে শীত! বাড়বে তাপমাত্রা, বৃষ্টির পূর্বাভাস দক্ষিণবঙ্গে      Sandeshkhali: শিবু হাজরার গ্রেফতারিতে মিষ্টি বিলি, আদালতে পেশ, কবে গ্রেফতার সন্দেশখালির 'মাস্টারমাইন্ড'?      Arrest: সন্দেশখালিকাণ্ডে ন্যাজট থেকে গ্রেফতার শিবু হাজরা      Trafficking: ১০ মাস লড়াইয়ের পর মাদক মামলা থেকে মুক্তি বিজেপি নেত্রী পামেলার      Mimi: রাজনীতি আমার জন্য় নয়, মুখ্যমন্ত্রীর কাছে গিয়ে সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা মিমির!      Dev: রাজনীতিতে ফিরতেই ফের দেবকে দিল্লিতে ডাক ইডির      Suvendu: সুকান্ত অসুস্থ থাকলেও, সন্দেশখালি কাণ্ডে আন্দোলনের ঝাঁঝ বাড়াতে মাঠে শুভেন্দু     

Meeting

Wrestler: কেন্দ্রের সঙ্গে বৈঠকের পর আপাতত স্থগিত কুস্তিগীরদের আন্দোলন

কেন্দ্রের আশ্বাস পেয়ে অবশেষে আন্দোলন স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত কুস্তিগীরদের (Wrestler)। বজরং পুনিয়া, সাক্ষী মালিকদের সঙ্গে প্রায় ৫ ঘণ্টা বৈঠক (Meeting) করেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর (Anurag Thakur)। এরপরেই আন্দোলন বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয় তাঁরা। বেশ কয়েকদিন ধরে ব্রিজভূষণের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ নিয়ে আন্দোলন শুরু করে কুস্তিগীররা। বেশ কয়েকদিন ধরে এই আন্দোলন চলে।

বুধবার আন্দোলনরত কুস্তিগীরদের নিয়ে বৈঠকে বসে কেন্দ্র। বৈঠকে কেন্দ্র আশ্বাস দেয়, ভারতীয় কুস্তি ফেডারেশনের সভাপতি ব্রিজভূষণ শরন সিংয়ের বিরুদ্ধে ১৫ জুনের মধ্যে তদন্ত শেষ হবে। এই আশ্বাস পাওয়ার পর সাক্ষীরা জানিয়েছেন, ততদিন পর্যন্ত আন্দোলন স্থগিত রাখা হবে।

এর আগে হরিদ্বারে পদক বিসর্জন দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন কুস্তিগীররা। পদক বিসর্জন না দিলেও কেন্দ্রকে ৫ দিনের সময়সীমা দেন তাঁরা। এরপরেই কেন্দ্র তাঁদের কথা ভেবে তাদের সঙ্গে বৈঠকে বসে। যদিও এ ঘটনায় অভিযুক্ত ব্রিজভূষণ-এর বাড়িতে তদন্তের জন্য মঙ্গলবার হানা দেয় দিল্লি পুলিস।

9 months ago
Nitish: মঙ্গলবার নয়, মমতা-নীতীশ বৈঠক একদিন এগিয়ে হবে সোমবার

মঙ্গলবার নয় বৈঠক হবে সোমবার। রবিবার রাতে নবান্ন সূত্রে খবর মঙ্গলবার নয় সোমবার কলকাতায় আসছেন বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠক করবেন সোমবার দুপুর ২ টোয়। সূত্রের খবর, বিরোধীদের এক জোট করার কাজ কোনওভাবেই পিছাতে চাইছেন না কোন রাজনৈতিক দলই।

মমতা নয় শুধু বিরোধী জোটকে এক করার চেষ্টা জেডিইউ নেতা তথা বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমারের। সেজন্যই কি সোমবার বৈঠকে বসতে চলেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে। সূত্রের খবর, সোমবার দুপুর ২ টোর সময় বৈঠকে বসবেন দুই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। বলাই বাহুল্য এই বৈঠকের প্রসঙ্গ হতে পারে ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচন। হাতে মাত্র এক বছর। 

সূত্রের খবর, সোমবার দুপুর ২টোয় রাজ্যের প্রশাসনিক দফতর নবান্নে বৈঠকে বসবেন দুই মুখ্যমন্ত্রী। বৈঠকের আলোচ্যসূচি নিয়ে এখনও কিছু জানা না গেলেও, বিরোধী জোট নিয়েই দুই রাজনীতিকের আলোচনা হতে পারে বলে সূত্রের খবর। ঘটনাচক্রে সোমবারই লখনউয়ে সমাজবাদী পার্টি (এসপি)-র নেতা অখিলেশ যাদবের সঙ্গে বৈঠক করার কথা নীতীশের।

10 months ago
Nabanna: দ্বিপাক্ষিক বৈঠকেও ডিএ জট কাটলো না, কলকাতায় মহামিছিলের সংগ্রামী যৌথ মঞ্চের

রাজ্য ও সরকারি কর্মচারীদের (Employee) দ্বিপাক্ষিক বৈঠকের (Meeting) ফলাফল শূন্য। বৈঠক শেষে বেরিয়ে কলকাতায় (Kolkata) মহা মিছিলের ডাক রাজ্য সরকারি কর্মচারী সংগঠন সংগ্রামী যৌথ মঞ্চের। ৬ই মে কলকাতায় মহা মিছিলের ডাক রাজ্য সরকারি কর্মচারী সংগঠনের। আজ অর্থাৎ বিকেল সাড়ে চারটের সময় নবান্নের ১৩ তলায়, মুখ্য সচিবের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিলেন সংগ্রামী যৌথ মঞ্চের দুজন আধিকারিক। বৈঠক শেষে এসে তারা জানালেন, এই বৈঠকে কোন লাভই হয়নি। তাঁরা আমাদের কোন দাবি মানতে রাজি নয়।

পাশাপাশি তাঁরা আরও জানিয়েছে, তাদের কোনও দাবি এবং প্রশ্নের সদুত্তর দিতে পারেনি মুখ্য সচিব। প্রসঙ্গত তাঁরা আরও জানিয়েছেন, এই আন্দোলন আরও দীর্ঘতর হবে। এবং লাগাতার বিক্ষোভ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হবে।

10 months ago


Election: পিছিয়ে গেল কমিশনের সঙ্গে ডিএমদের বৈঠক, হাত গুটিয়ে বসে নেই রাজ্য নির্বাচন কমিশন

ভোটের (Election) দিন নির্দিষ্ট না হওয়ার কারণে পিছিয়ে গেল কমিশনের সঙ্গে ডিএমদের (District Magistrate) বৈঠক (Meeting)। পঞ্চায়েত নির্বাচনে কমিশনের প্রস্তুতি তুঙ্গে, অপেক্ষা এখন শুধু সময়ের। তবে নির্বাচনের দিনক্ষণ নিয়ে দোলাচলে কমিশন। পরবর্তী বৈঠক কবে হবে, আপাতত তা নিয়ে অনিশ্চিত কমিশন। আইন অনুযায়ী রাজ্য ও রাজ্য নির্বাচন কমিশনে এর যৌথ মত নিয়ে হয় পঞ্চায়েত নির্বাচন। পঞ্চায়েত ভোট নিয়ে দু'পক্ষের মত কবে এক বিন্দু তে মিলবে সেই নিয়ে সংশয় রয়েছে।

পঞ্চায়েত নির্বাচনের দিন ঠিক হয়নি ঠিকই,তবে হাত গুটিয়ে বসে নেই রাজ্য নির্বাচন কমিশন। পঞ্চায়েত নির্বাচন কবে হতে পারে তা নিয়ে এখনও পর্যন্ত কোনও সবুজ সংকেত নেই রাজ্যের তরফে। তা সত্ত্বেও একটা একটা করে সব কাজ গুছিয়ে ফেলেছে রাজ্য নির্বাচন কমিশন। এই তাপদাহের কারণে মঙ্গলবারের কমিশন ডিএম বৈঠক পিছিয়ে দেওয়া হয়। এক দিকে স্কুল ছুটির ঘোষণা করেছে সরকার, তেমন মানুষকে তাপদাহ থেকে বাঁচতেও সতর্ক করা হয়েছে। এই প্রচন্ড তাপ প্রবাহের কারণেই কমিশন ডিএম বৈঠক স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলেই রাজ্য নির্বাচন কমিশন সূত্রে খবর। যদিও আগামী বৃহস্পতিবার সকাল দশটা থেকে রাজ্যের সব জেলাশাসক এবং জেলা নির্বাচনী আধিকারিকদের বিশেষ প্রশিক্ষণ দেবে কমিশনের কর্তারা। মনোনয়নপত্র কিভাবে জমা নিতে হবে এবং মনোনয়ন পত্রের বিষয়ে বিস্তারিত প্রশিক্ষণ দেবে  রাজ্য নির্বাচন কমিশনের কর্তারা। পঞ্চায়েত নির্বাচনের প্রস্তুতিতে কমিশন ইতিমধ্যেই জেলাগুলিতে নির্বাচনের কালি, অ্যারো ক্রস মার্ক, প্রিসাইডিং অফিসার, ভোট কর্মী, রাজনৈতিক দল এবং প্রার্থীদের আচরণবিধি জেলাগুলিকে  পাঠাতে শুরু করেছে। এর অনেক আগেই সব জেলায় পাঠানো হয়ে গিয়েছে আসন্ন পঞ্চায়েত নির্বাচনের ব্যালট পেপার। এবার পাঠানো শুরু হল কালি এবং অ্যারো ক্রস মার্ক। এই অ্যারো ক্রস মার্ক এসেছে মুম্বই এর মাহিম থেকে প্রায় এক লক্ষ ষাট হাজার, ১০ মিমি কালির বোতল পাঠাতে শুরু করেছে কমিশন। প্রত্যেক বুথের জন্য কমিশন ধার্য্য করেছে দুটি করে কালির বোতল এবং ছয়টি করে অ্যারো ক্রস মার্ক।

অন্যদিকে, দু হাজার ছয় সালে কমিশনের যে আইন হয়েছিল সেই মোতাবেক নির্দল প্রার্থীদের এবারও প্রতীক চিহ্ন বরাদ্দ আছে। গ্রাম পঞ্চায়েতে ৩০টি, পঞ্চায়েত সমিতিতে ২৫টি, এবং জেলা পরিষদে ১৭টি। রাজ্য নির্বাচন কমিশন সূত্রে খবর, ভোট কর্মীদের তালিকার কাজ পঁচানব্বই শতাংশের বেশি হয়ে গেলেও এখনও পর্যন্ত তা চূড়ান্ত হয়নি।তাই কত সংখক ভোটকর্মী নিয়োগ হবে তা চূড়ান্ত করা সম্ভব হয়নি। সর্বোপরি এদিনও কমিশন সূত্রের খবর, মে মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহের মধ্যেই পঞ্চায়েত নির্বাচনের নির্ঘণ্ট প্রকাশ পেতে পারে। ইদের পরেই রাজ্য সরকারের সঙ্গে কমিশন এই বিষয়ে আলোচনায় বসতে চলেছে বলেই সূত্রের খবর। সোমবার রাজ্য মন্ত্রীসভার বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী রাজ্যের মুখ্য সচিবকে নির্দেশ দিয়েছিলেন কোভিড নির্দেশিকা জারি করার জন্য। কোভিড মোকাবিলায় রাজ্য যেমন সতর্ক তেমনই কোভিড পরিস্থিতে নির্বাচন সম্পন্ন করতে প্রস্তুত রাজ্য নির্বাচন কমিশন। রাজ্যের মানুষের কাছে একটাই প্রশ্ন কবে হবে পঞ্চায়েত নির্বাচন, আর কমিশনের কাছে বড় চ্যালেঞ্জ কতটা শান্তিপূর্ণ ভাবে এই আসন্ন পঞ্চায়েত নির্বাচনকে সম্পন্ন করতে সক্ষম হবে রাজ্য নির্বাচন কমিশন।

10 months ago
Abhishek: প্রোডাকশন বয় অভিষেক ও সুন্দরী ঐশ্বর্য, প্রথম দেখা কিভাবে, জানেন?

বলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় দম্পতিদের মধ্যে অন্যতম অভিষেক বচ্চন (Abhishek Bacchan) এবং ঐশ্বর্য রাই বচ্চন (Aishwarya Rai Bacchan)। ২০০৭ এ সাত পাকে বাঁধা পড়েন দু'জনে। তারপর অনেকটা সময় পেরিয়ে গিয়েছে। তাঁদের জীবনে কন্যা আরাধ্যা এসেছে। একইসঙ্গে এসেছে জল্পনাও। তাঁদের মধ্যে বিচ্ছেদ হয়েছে, এমন অনেক জল্পনার সূত্রপাত হয়েছে মাঝেমধ্যে। কিন্তু তা প্রভাব ফেলতে পারেনি অভিষেক ও ঐশ্বর্যর সম্পর্কে। বরং এতগুলো বছর পেরিয়ে আজও তাঁরা বহাল তবিয়তে রয়েছেন একসঙ্গে। তাঁদের প্রেমের শুরু ঠিক কিভাবে হয়েছিল, এক সাক্ষাৎকারে তা জানিয়েছিলেন অভিষেক। সেই ভিডিও আবারও ঘুরছে সামাজিক মাধ্যমে। 

এক সাক্ষাৎকারে অভিষেক বলেছেন, তাঁর সঙ্গে যখন ঐশ্বর্যর প্রথম দেখা হয়, তিনি তখন প্রোডাকশন বয়। তিনি বলেন, 'আমার বাবা মৃত্যুদূত বলে একটি সিনেমা তৈরী করছিল। আমি সেই সিনেমার রেইকি করতে গিয়েছিলাম সুইজারল্যান্ডে। সেখানেই আমার বন্ধু ববি দেওল তাঁর প্রথম সিনেমার শ্যুটিং করছিলেন, ওঁর বিপরীতে অভিনয় করছিলেন ঐশ্বর্য। প্রোডাকশন বয় হিসেবেই প্রথম দেখা ঐশ্বর্যর সঙ্গে।' 

অভিষেক ও ঐশ্বর্য একসঙ্গে গুরু, রাবণ, সরকার রাজ, উমরাও জান, ধুম ২ এর মতো ছবি করেছেন একসঙ্গে। সাক্ষাৎকারে অভিষেক স্বীকার করেন, প্রথম থেকেই ঐশর্যকে ভালো লেগেছিল তাঁর। সেই ভালোলাগার সঙ্গেই ঘর করছেন বর্তমানে।

11 months ago


Abhishek: রাজ্যের সমস্ত জেলা-ব্লক সভাপতিদের সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠকে অভিষেক, প্রসঙ্গ কী

আজ অর্থাৎ সোমবার দুপুর ৩টের সময় রাজ্যের, সমস্ত যুব এবং মাদার তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা ও ব্লক, সভাপতিদের নিয়ে ভার্চুয়াল মিটিং করবেন অভিষেক বন্দোপাধ্যায়। আর কিছুক্ষণের মধ্যে শুরু হবে এই মিটিং। এই ভার্চুয়াল মিটিং পঞ্চায়েত ভোটের আগে, দলের নিচু স্তরে প্রভাব ফেলতে পারে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক মহল।

এখনও দিনক্ষণ ঘোষণা না হলেও দ্রুত পঞ্চায়েত নির্বাচন সম্পর্কে ঘোষণা করতে পারে রাজ্যের নির্বাচন কমিশন৷ সেই কারণে শাসক-বিরোধী সবপক্ষই নির্বাচনের প্রস্তুতিতে পুরোপুরি লেগে পড়েছে৷ আর পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে সোমবার জরুরি সাংগঠনিক বৈঠকে বসতে চলেছে তৃণমূল কংগ্রেস৷ তৃণমূল সূত্রে খবর মিলেছে, সমস্ত জেলার জেলা সভাপতি, বিধায়ত ও ব্লক সভাপতিরা থাকবেন সেই বৈঠকে৷ সেখানেই নির্বাচনের একাধিক ইস্যু নিয়ে আলোচনা হতে পারে৷

এছাড়া আলিপুরদুয়ারে দলীয় সভা থেকে তিনি ঘোষণা করেছিলেন বিজেপি অর্থাৎ কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে ১ কোটি চিঠি প্রদান করবেন তিনি। এই মিটিংয়ে কেন্দ্র সরকারের বঞ্চনাকে হাতিয়ার করে স্বাক্ষর গ্রহণ ও পঞ্চায়েতের প্রস্তুতি শুরু করবেন বলেই তৃণমূল সূত্রে খবর। এছাড়া এ ধরণের মিটিংয়ে দলের নিচু স্তর ও সাধারণ মানুষের মধ্যেও যে জনসংযোগ বাড়বে সেটা বলাই বাহুল্য।

11 months ago
Mamata: কালীঘাটে শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে মমতা, নজরে পঞ্চায়েত ভোট

শুক্রবার রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দলের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে এক বিশেষ বৈঠকে বসছেন। উপস্থিত থাকতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে দলের সমস্ত বিধায়ক, সংসদ সহ জেলার উচ্চ নেতৃত্বকে। উত্তর দিনাজপুরের করিম চৌধুরী ছাড়া বাকি সমস্ত নেতাই উপস্থিত থাকবেন বলে সমাচার। এখন প্রশ্ন হলো কী বিষয়ে এই জরুরি তলব।

অনেক বিষয়েই আলোচনা থাকতে পারে। কিন্তু মূল আলোচ্য বিষয় হতে পারে আসন্ন পঞ্চায়েত ভোট। গত পঞ্চায়েত ভোট তৃণমূলের বিরুদ্ধে অনেক অভিযোগ ছিল বিরোধীদের। তাদের বক্তব্য ছিল বহু অঞ্চলে বিরোধীরা মনোনয়ন দিতে পারে নি। এ ছাড়া নির্বাচনে সন্ত্রাসের অভিযোগও ছিল বিস্তর। কার্যক্ষেত্রে দেখা গিয়েছিল তৃণমূল সিংহভাগ আসন দখল করা ছাড়াও সমস্ত জেলায় ক্ষমতায় এসেছিলো। অবশ্য এরপরই ছিল লোকসভা নির্বাচন, যেখানে উঠে আসা বিজেপি ১৮টি আসন দখল করেছিল। তৃণমূল ক্ষমতায় আসার পর এটাই ছিল তাদের নৈতিক পরাজয়। কিন্তু আবার ২০২১-এর বিধানসভা নির্বাচনে বিপুল ভোট পেয়ে সঙ্গে ২১৩টি আসন নিয়ে ফের ক্ষমতায় আসে তারা।

এবারের পঞ্চায়েতের আগে স্ট্রাটেজি ঠিক করা দরকার বলেই মনে করেন তৃণমূলের প্রধানরা। সাম্প্রতিক শিক্ষা ক্ষেত্রে অনৈতিক বাতাবরণে সংকট সৃষ্টি হয়েছে দলের। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে জেলে গিয়েছেন প্রাক্তন মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় সহ বহু নেতা। রাজ্যে সক্রিয় সিবিআই, ইডি ইত্যাদি কেন্দ্রীয় এজেন্সি এতেও বদনাম হয়েছে তৃণমূল কংগ্রেসের। এ ছাড়া মূল যে বিষয়টি মমতাকে ভাবাছে তা সম্প্রতি হয়ে যাওয়া সাগরদিঘির নির্বাচনে তৃণমূলের পরাজয়। সংখ্যালঘু অঞ্চলে তৃণমূলের দিক থেকে সংখ্যালঘু ভোট সরে যাওয়াতে চিন্তিত মমতা।

আজকের আলোচনায় উঠে আসবে এই বিষয়গুলি বলেই ধারণা। অনেকেই ভাবছেন হয়তো বিভিন্ন জেলা নেতৃত্বে বদল আসতে পারে কিন্তু আমাদের ধারণা ভোটের এক মাস এ রকম কোনও কঠিন সিদ্ধান্ত নাও নিতে পারেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বরং তিনি হয়তো বিশেষ দায়িত্ব দিতে পারেন কাউকে কাউকে। তবে মনে হয় ফের মমতা নিজেই নিজের হাতে মূল দায়িত্ব রাখবেন এবং তিনিই হবেন মূল চালিকা শক্তি।

11 months ago
TMC: দুর্নীতির বিরুদ্ধে টিএমসির জিরো টলারেন্স! শুক্রবার ডাকা মমতার বৈঠকে আর কী

শুক্রবার কালীঘাটে (Kalighat Meeting) দলের একাধিক শীর্ষ নেতা ও সাংগঠনিক নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠকে বসছেন তৃণমূল কংগ্রেসের (TMC) সভানেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পঞ্চায়েত নির্বাচনের আবহের মধ্যেই এই বৈঠক রাজনৈতিক মহলের কাছে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। বিশেষ করে সাগরদিঘী উপনির্বাচনে পরাজয়-সহ দুর্নীতি-কাণ্ডে দলের একাধিক নেতার নাম জড়ানো। রাজ্য রাজনীতির সঙ্গে জুড়ে থাকা এই ইস্যুতে আলোচনার পাশাপাশি ২০২৪ লোকসভা ভোটের আগে জাতীয় রাজনীতির প্রেক্ষাপটে বিজেপি বিরোধিতায় তৃণমূলের ভূমিকা স্থির করে দিতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) নেতৃত্বে এই বৈঠক।

সম্ভাব্য কীকী বিষয় উঠে আসতে পারে বৈঠকে?

১) সাগরদিঘী উপনির্বাচনের হার পর্যালোচনা শুরু হয়েছে। তার প্রেক্ষিতে অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাস দলের ক্ষতি করছে বলেই মনে করা হচ্ছে। তাই লাগাতার মানুষের কাছে পরিষেবা ও রাজনৈতিকভাবে তৃণমূল কংগ্রেস দল রয়েছে তা বোঝানোর কথা বলা হবে।

২) সংখ্যালঘু এলাকায় ভোটের ফল খারাপ হওয়া নিয়ে রাজনৈতিক মহলে জোর চর্চা। এটা দেখার জন্য ইতিমধ্যেই একাধিক দলের সংখ্যালঘু মুখকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। আগামীকাল পঞ্চায়েতের কাজেও একাধিক সংখ্যালঘু নেতাকে সামনের সারিতে দেখা যেতে পারে।

৩) পঞ্চায়েত ভোট নিয়ে কড়া হচ্ছে দল। প্রার্থী বাছাইয়ে দলের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত তা জানিয়ে দেওয়া হবে আরও একবার। পুরনো কারা ভোটে লড়ার সুযোগ পাবেন সেক্ষেত্রে মাপকাঠি হবে তাদের পারফরম্যান্স। গত ভোটে ও ওই পঞ্চায়েতের কাজে।

৪) পঞ্চায়েত ভোটে দল কোনও অশান্তি মেনে নেবে না৷ অতীত থেকে শিক্ষা নিয়ে প্রশাসন যে এবার কঠোর ভূমিকা পালন করবে তা আরও একবার মনে করিয়ে দেওয়া হবে।

৫) দুর্নীতি প্রশ্নে দলের অবস্থান জিরো টলারেন্স। যে বা যারা এই কাজে যুক্ত থাকবেন দল তাঁদের পাশে থাকবে না। 

৬) দিদির সুরক্ষা কবচ কর্মসূচি থেকে মানুষের চাহিদা কী তা জেনেছে দল। একইসঙ্গে কোথায় কোথায় সমস্যা তাও জেনেছে দল। এই অবস্থায় সেই কাজ শেষ করতে এখন থেকেই ঝাঁপাবে দল। দলের কেউ তাতে বাধা দিলে কড়া শাস্তির নিদান। 

৭) এছাড়া একাধিক প্রচারমূলক কর্মসূচির বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে।

৮) জাতীয় রাজনীতির প্রেক্ষাপটে বিজেপি বিরোধিতায় সরব হবে তৃণমূল। তবে সংসদের ভিতরে ও বাইরে সাধারণ মানুষের অসুবিধাকে তুলে ধরতে চায় শাসক দল। 

৯) কংগ্রেস নিয়ে ছুৎমার্গ না থাকলেও, সাগরদিঘির 'অশুভ' জোটকে প্রচারে রাখতে চায় বাংলার শাসক দল। সেক্ষেত্রে নিজ নিজ শক্তিশালী জায়গায় ফর্মূলায় জোর।

১০) গোয়া, ত্রিপুরা, মেঘালয়ের মতো রাজ্যে ভালো ফল না হলেও সংগঠনের কাজ থেকে পিছিয়ে আসবে না তৃণমূল কংগ্রেস।

সর্বোপরি পঞ্চায়েত ভোটকে অ্যাসিড টেস্ট ধরে নিয়ে লাগাতার মানুষের সমস্যাকে ইস্যু করে রাস্তায় নামার প্রস্তুতি নেওয়া হতে পারে এই বৈঠক থেকে।, এমনটাই ঘাসফুল সূত্রে খবর।

11 months ago


Modi: এবারে নজরে মোদী সরকারের মন্ত্রিপরিষদের বৈঠক

নতুন বছরে অর্থাৎ ২০২৩ সালে প্রথমবারের মতো মোদী সরকারের মন্ত্রিপরিষদের বৈঠক। রবিবারের এই বৈঠকে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী, স্বতন্ত্র দায়িত্বপ্রাপ্ত এবং প্রতিমন্ত্রীরা অংশ নেবেন বলে জানা গিয়েছে। মোদী (PM Narendra Modi) সরকারের মেয়াদের শেষ পূর্ণাঙ্গ বাজেট ২.০-এর আগে এই বৈঠককে বাজেট অধিবেশনের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে।

বলে রাখা ভাল, এবার সংসদের বাজেট অধিবেশন ৩১ শে জানুয়ারি থেকে শুরু হচ্ছে। অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন ১লা ফেব্রুয়ারি সংসদে ২০২৩-২৪ অর্থবর্ষের বাজেট পেশ করবেন। সংসদ বিষয়ক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রহ্লাদ জোশী জানিয়েছিলেন বাজেট পেশ চলবে ৬ এপ্রিল পর্যন্ত।

শোনা গিয়েছে, বাজেট অধিবেশন নিয়ে মন্ত্রিপরিষদের বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী তাঁর মন্ত্রীদের কিছু নির্দেশও দিতে পারেন। প্রধানমন্ত্রী চান, বাজেট পেশের পর তাঁর মন্ত্রীরা যেন সরকারের সর্বোচ্চ জনকল্যাণমূলক পরিকল্পনা জনগণের কাছে পৌঁছে দেন। দেশকে দেওয়া জি-টোয়েন্টির সভাপতিত্ব সংক্রান্ত কর্মসূচি নিয়েও আলোচনা হতে পারে বলে সূত্রের খবর।

one year ago
Nabanna: নবান্নের ১৪ তলায় শাহ-মমতা একান্ত বৈঠক,দুই শিবিরে কী আলোচনা

নবান্নে ইস্টার্ন জনাল কাউন্সিলের (Nabanna Meeting) মিটিং শেষে মধ্যহ্নভোজ সারেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ (Amit Shah at Kolkata)। এরপরেই নবান্নের ১৪ তলায় মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে একান্ত বৈঠক করেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী (Mamata-Shah meeting)। জানা গিয়েছে, আন্তঃরাজ্য সীমান্ত নিরাপত্তা নিয়ে বৈঠকে আলোচনা হয়েছে। পাশাপাশি বিভিন্ন জলাধার থেকে জলছাড়া নিয়ে সমস্যা রয়েছে। এসব বিষয়ে আলোচনা হয়েছে মুখ্যমন্ত্রী-স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলে সূত্রের খবর। গুরুত্বপূর্ণ এই দ্বিপাক্ষিক বৈঠক শেষে কলকাতা বিমানবন্দরে (Kolkata Airport) পৌঁছন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

সেখান থেকে বিএসএফ-র বিশেষ বিমানে গুয়াহাটির উদ্দেশ্যে রওনা দেন তিনি। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শুক্রবার সন্ধ্যায় বারানসী থেকে কলকাতায় এসেছিলেন। শনিবার দুপুরে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে কলকাতা বিমানবন্দরে বিদায় জানাতে আসেন বিজেপি বিধায়ক অগ্নিমিত্রা পাল এবং রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। তাঁদের সঙ্গে ছিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার। এদিকে, রাজ্যর তরফে অমিত শাহকে বিদায় জানাতে কলকাতা বিমানবন্দর উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের দুই মন্ত্রী সুজিত বসু এবং শশী পাঁজা।

one year ago


Nabanna: চিকেনের দাম নিয়ে উদ্বিগ্ন মুখ্যমন্ত্রী! আলু-চিকেনের দাম বাঁধতে নির্দেশ

মুরগির মাংস (Chicken) এবং আলুর দামবৃদ্ধি নিয়ে নবান্নে উদ্বেগ প্রকাশ মুখ্যমন্ত্রীর (CM Mamata)। দাম নিয়ন্ত্রণ সংক্রান্ত বৈঠকে নবান্নে (Nabanna) মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্বেগের সুরে প্রশ্ন, 'চিকেনের দাম একটু বেশি আছে, দাম কমানোর ব্যবস্থা করো। চিকেনের দাম এতো বেশি কেন? আমি পোল্ট্রি করে দিচ্ছি, ইনসেন্টিভ দিচ্ছি, তাও এতো দাম!' তবে তিনি বাজারে ডিমের দাম নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেন এবং ডিম উৎপাদন বাড়াতে পরামর্শ দেন আধিকারিকদের।

এদিন আলুর দাম নিয়ে বাজার-ব্যবসায়ী সমিতির সঙ্গে বিস্তারিত আলোচনা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, 'কাল পর্যন্ত বাজারে আলু কেজি প্রতি ১৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। হোলসেল বাজারে দাম ৯-১০ টাকা/কেজি। কাল পর্যন্ত ২৫ টাকায় আলু বিক্রি হয়েছে, আজ বৈঠক আছে বলে দাম কমেছে। মানুষ একটু আলুসেদ্ধ ভাত খায়। আপনারা মজুত আলু বের না করলে আমরা বেঁচে দেব, যাতে আলু মানুষের কাছে পৌঁছয়। কৃষকদের দিকটা ভাবতে হবে।'

one year ago
Voter: খসড়া ভোটার তালিকা প্রকাশ ৯ নভেম্বর, তার এক সপ্তাহ আগে সর্বদল বৈঠক কমিশনের

খসড়া ভোটার তালিকা (Voter List) প্রকাশ বিষয়ে আলোচনার জন্য সর্বদল বৈঠক ডেকেছে কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিশন (Election)। সূত্রের খবর, আগামী ২ নভেম্বর দুপুরে কমিশনের কলকাতা অফিসে এই বৈঠক হওয়ার কথা। উপস্থিতির জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে সবক’টি স্বীকৃত রাজনৈতিক দলকে (political Party)। এ প্রসঙ্গে উল্লেখ্য, ২০২৩-র জন্য সারা দেশে ভোটার তালিকার খসড়া ৯ নভেম্বর প্রকাশিত হবে। ৮ ডিসেম্বর পর্যন্ত চলবে তালিকা সংশোধনের কাজ। ২০২৩-র বছর ৫ জানুয়ারি চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশ করবে কমিশন।

২০২৩-র জানুয়ারি থেকে পরবর্তী এক বছরে বিভিন্ন রাজ্যের নির্বাচন এবং উপনির্বাচন এই নতুন ভোটার তালিকার ভিত্তিতেই হবে। সেদিক থেকে দেখতে গেলে কমিশনের এই সর্বদল বৈঠক একটি রুটিন প্র্যাকটিস। প্রতিবছর খসড়া ভোটার তালিকা প্রকাশ করার আগে প্রতিটি রাজ্যের রাজনৈতিক দলের সঙ্গে আলোচনায় বসে কমিশন। তারপর প্রয়োজনীয় সংশোধন এবং বিয়োজনের পর চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশিত হয়। দেশের নতুন ভোটারদের হাতে ২৫ জানুয়ারি, ‘জাতীয় নির্বাচক দিবসে’ আনুষ্ঠানিক ভাবে ভোটার কার্ড তুলে দেওয়া হয়।

one year ago
DGP: বাগুইআটি থেকে শিক্ষা, পুলিসের শীর্ষস্তরকে থানার সঙ্গে সমন্বয়য় বাড়াতে নির্দেশ ডিজির

বাগুইআটি (Baguihati) কাণ্ডের মতো ঘটনার পুনরাবৃত্তি যেন কোথাও না ঘটে তা নিশ্চিত করতে রাজ্য পুলিসের ডিজি মনোজ মালব্য ( MONOJ MALOBBO) পুলিস সবস্তরকে  নির্দেশ দিলেন। বাগুইহাটির দুই ছাত্র হত্যার ঘটনার প্রেক্ষিতে রাজ্য পুলিসের মধ্যে সমন্বয় ঘাটতি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বুধবার উষ্মা প্রকাশ করার পরেই পুলিস প্রশাসনের শীর্ষ আধিকারিকরা আজ বৈঠকে বসেন। প্রশাসনিক সূত্রে জানা গিয়েছে, সব জেলার পুলিস সুপার, ডিআইজি রেঞ্জ, আইজি-এডিজি, পুলিস কমিশনারদের ( Police Commissioner) উপস্থিতিতে এক ভার্চুয়াল সমন্বয়ে বৈঠক হয়েছে। সেখানেই পুলিসের মহানির্দেশক ওই নির্দেশ দেন বলে জানা গিয়েছে।

পাশাপাশ পুলিসের বিভিন্ন বিভাগের মধ্যে সমন্বয় বাড়াতে তিনি আজ একাধিক নির্দেশ দিয়েছেন। পুলিস সুপারদের থানাস্তরে নজরদারি বাড়াতে বলা হয়েছে। তাদের নিয়মিত থানা পরিদর্শনের পাশাপাশি ওসি-আইসি পদস্থ আধিকারিকদের সঙ্গে সমন্বয়ে বৈঠকে বসার উপরে জোর দেওয়া হয়েছে। 

থানায় জমা পড়া সমস্ত অভিযোগ গুরুত্ব সহকারে দেখতে রাজ্য পুলিসের মহানির্দেশক পুলিস আধিকারিকদের নির্দেশ দেন। কোনও মামলা বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে ওসি,আইসি পদস্থ আধিকারিকরা তার শীর্ষ কর্তাদের কাছে অবিলম্বে রিপোর্ট করতেও তিনি নির্দেশ দেন। 

অন্যদিকে, আসন্ন উৎসবের মরশুমে রাজ্যের সর্বত্র শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখার ব্যাপারেও পুলিস আধিকারিকদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কোথাও অপ্রীতিকর ঘটনা যাতে না ঘটে পুলিসের উচ্চপদস্থ অফিসারদের সেদিকে নজর রাখতে বলা হয়েছে।


বাগুইহাটির মত ঘটনা যাতে না ঘটে তার জন্য সব রকম পদক্ষেপ করতে হবে।

১) এসপিদের সব সময়ের জন্য থানা গুলোর সঙ্গে যোগাযোগ রাখতে বলা হয়েছে।

২) মাঝে মধ্যেই জেলার ওসি/আইসিদের সঙ্গে বৈঠক করতে হবে এসপিদের।

৩) মাঝে মধ্যেই এসপিদের থানায় ভিজিট করতে হবে।

৪) ওসিদের/আইসিদের নির্দেশ দিতে হবে যে কোনও অভিযোগ আসলে তা গুরুত্ব দিয়ে দেখতে হবে। তেমন ঘটনা হলে ওসি/আইসিদের উপর মহলে জানাতে হবে।

৫) সামনে পুজো আসছে, পুজোটা শান্তিপূর্ণ করতেই হবে। কোনওরকম অশান্তি বা অপ্রীতিকর ঘটনা যেন না ঘটে, তারজন্য সব ব্যবস্থা নিন, এসপিদের নির্দেশ ডিজির।

one year ago


Meet: ডেঙ্গি নিয়ে উদ্বেগ, নবান্নে স্বাস্থ্যসচিবের নেতৃত্বে বৈঠক

ডেঙ্গি(dengue) সংক্রমণের সরকারি রেকর্ডে উদ্বিগ্ন নবান্ন। গত দুবছরের তুলনায় এবছর বেড়েছে ডেঙ্গি আক্রান্তের সংখ্যা। এরপরই ডেঙ্গি নিয়ে আগামিকাল জরুরি বৈঠক ডাকল নবান্ন(nabanna)। সমস্ত সিএমএইচ(CMOH)) ও ডিএমদের(DM) সঙ্গে বৈঠক করবেন স্বাস্থ্য সচিব বলে সূত্রের খবর। ডেঙ্গির পাশাপাশি কোভিড ভ্যাকসিন-সহ(covid vaccine) একাধিক বিষয় নিয়েও হবে বৈঠক। নবান্নের শীর্ষ মহলের নির্দেশে স্বাস্থ্য সচিব(health secretary) বৈঠক ডাকলেন বলে সূত্রের খবর। জানা গেছে, জেলায় জেলায় ডেঙ্গি সংক্রমণ নিয়ে উদ্বিগ্ন নবান্ন। বিশেষ করে হাওড়া ও কলকাতা নিয়ে বিশেষ চিন্তিত নবান্ন।

এদিকে, রাজ্যে ডেঙ্গি পরিস্থিতি নিয়ে নবান্নকে রিপোর্ট দিল রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতর। সূত্রের খবর এই রিপোর্টে বলা হয়েছে,কলকাতা থেকে হাওড়া সহ রাজ্যের ১২ টি পুরসভা এলাকায় বাড়ছে ডেঙ্গি আক্রান্তের সংখ্যা। সূত্রের খবর, এই রিপোর্টে যে ১২ টি পুরসভা এলাকাতে ডেঙ্গি উদ্বেগজনক বলা হয়েছে, তা হল- বালি,পানিহাটি,কামারহাটি,বিধাননগর ,আসানসোল,শিলিগুড়ি,টিটাগড়, ইংরেজবাজার, রিষড়া,রাজপুর সোনারপুর। এই সব জায়গায় পরিস্থিতি উদ্বেগজনক।

চলতি সপ্তাহে রাজ্যে প্রায় ৩১০৪ জন ডেঙ্গি আক্রান্ত বলে নথিভুক্ত হয়েছে। গত বছর গোটা রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৪৫৭ জন। গ্রামীণ এলাকার ১৬ টি ব্লকে ডেঙ্গি আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ায় চিন্তায় স্বাস্থ্য দফতর । ১২ টি জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা বেশি,জলপাইগুড়ি,কোচবিহার, কালিম্পং, দক্ষিণ দিনাজপুর, মালদহ, বীরভূম, রামপুরহাট স্বাস্থ্য জেলা, হুগলি, হাওড়া, দক্ষিণ ২৪ পরগনা, ডায়মন্ড হারবার স্বাস্থ্য জেলা। চলতি সপ্তাহে কলকাতাতে ডেঙ্গি আক্রান্ত হয়েছেন ২৩১ জন। জলপাইগুড়ি জেলাতে সব থেকে বেশি আক্রান্ত। চলতি সপ্তাহে ৭৩১ জন আক্রান্ত ডেঙ্গিতে ।হাওড়াতে চলতি সপ্তাহে ডেঙ্গি আক্রান্ত ৩৭২ জন। এরপরই স্থান কলকাতার।

পাশাপাশি প্রতিটি এলাকা প্রতিদিন পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখতে বিশেষ ড্রাইভ দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলেই সূত্রের খবর।

2 years ago
CM: পার্থ-কাণ্ডের পর মন্ত্রীদের নিয়ে সতর্ক মুখ্যমন্ত্রী, ক্যাবিনেট স্বচ্ছ রাখার পরামর্শ মমতার

রাজ্য মন্ত্রিসভার সম্প্রসারণের পর প্রথম ক্যাবিনেট বৈঠক  (Cabinet Meeting) করলেন মুখ্যমন্ত্রী (CM Mamata)। এই বৈঠকে মন্ত্রীদের আরও স্বচ্ছ এবং সতর্ক হওয়ার পরামর্শ দেন তিনি। পার্থ-কাণ্ডের পর মুখ্যমন্ত্রীর, তাঁর মন্ত্রিসভার সদস্যদের প্রতি এই বার্তা তাৎপর্যপূর্ণ। সূত্রে মারফত এই খবর পাওয়া গিয়েছে।

সূত্রের খবর বৃহস্পতিবার মুখ্যমন্ত্রী বৈঠকে বলেছেন, 'ভালো ভাবে, সতর্ক হয়ে কাজ করুন। কোনও ফাইল সইয়ের আগে খতিয়ে দেখে নিন।' এমনকি, জেলা থেকে কলকাতায় আসা মন্ত্রীরা পাইলট কার এবং বাতি লাগানো গাড়ি নিয়ে ঘুরতে পারবেন না। এমন নির্দেশ নাকি এদিনের ক্যাবিনেট বৈঠকে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

পাশাপাশি এদিনের বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে, প্রতিমন্ত্রীদের জন্যও কাজ ভাগ করে দেওয়া হবে। এযাবৎকাল পূর্ণমন্ত্রীদের জন্য কাজ থাকলেও প্রতিমন্ত্রীদের জন্য সেভাবে ছিল না কাজ। সেই দায়িত্ব এবার ভাগ করতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী। এমনটাই সূত্রের খবর। পাশাপাশি রাজ্যে আগামি দিনে ১৮টি ইন্ডাস্ট্রিয়াল ইউনিট ও ৫টি ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্ক হবে।

৬০০ কোটি টাকা বিনিয়োগে ৪০০০ কর্মসংস্থান হবে রাজ্যে। নবান্নের মন্ত্রিসভার বৈঠকে এই সিদ্ধান্তই হয়েছে। বৃহস্পতিবার নবান্নে জানান অর্থমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য। পাশাপাশি সিদ্ধান্ত হয়েছে, ২১ হাজার রেশন ডিলারেরর সহযোগিতায় ৯.২৫ কোটি মানুষকে পরিষেবা দিতে পারছে সরকার। আগে তাই দুয়ারে রেশন প্রকল্পে ৭৫ টাকা প্রতি কুইন্টাল কমিশন দেওয়া হতো। সরকার সন্তুষ্ট হয়ে এবার ৫০০০টাকা করে প্রতি মাসে কমিশন দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

2 years ago