Breaking News
BJP: ইস্তেহার প্রকাশ বিজেপির, 'এক দেশ এবং এক ভোট' লাগু করার প্রতিশ্রুতি      Fire: দমদমে ঝুপড়িতে বিধ্বংসী অগ্নিকাণ্ড, ঘটনাস্থলে দমকলের একাধিক ইঞ্জিন      Bengaluru Blast: বেঙ্গালুরু ক্যাফে বিস্ফোরণকাণ্ডে কাঁথি থেকে দুই সন্দেহভাজনকে গ্রেফতার করল এনআইএ      Sheikh Shahjahan: 'সিবিআই হলে ভালই হবে', হঠাৎ ভোলবদল শেখ শাহজাহানের      CBI: সন্দেশখালিকাণ্ডে সিবিআই তদন্তের নির্দেশ কলকাতা হাইকোর্টের...      NIA: ভূপতিনগর বিস্ফোরণকাণ্ডে এবার কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ NIA      ED: অবশেষে ইডির স্ক্যানারে চন্দ্রনাথের 'মোবাইল-হিস্ট্রি', খুলতে পারে নিয়োগ দুর্নীতি রহস্যের জট      PM Modi: তৃণমূল মানেই দুর্নীতি-লুট! ভোট প্রচারে সন্দেশখালির পর ভূপতিনগর নিয়ে সরব মোদী      NIA: ভূপতিনগর বিস্ফোরণকাণ্ডে গ্রেফতার আরও ২ , কেন্দ্রীয় এজেন্সির উপর হামলার ঘটনায় উদ্বিগ্ন কমিশন      Sheikh Shahjahan: বিজেপির 'দালাল'রা তাঁর বিরুদ্ধে মিথ্যে বলছে, দাবি শেখ শাহজাহানের     

Kiss

Kajol: প্রতিজ্ঞা ভুলে এই প্রথম ক্যামেরার সামনে চুম্বনের দৃশ্যে কাজল

একটা সময় ছিল যখন অভিনেতা অভিনেত্রীদের অভিনয়ের মাধ্যম ছিল সিনেমা। কিন্তু সময় পেরিয়েছে 'ওটিটি' প্ল্যাটফর্মের উত্তরণ ঘটেছে, ফলে কন্টেন্টের পরিমাণও বেড়েছে। তবে ছবির মতো সেন্সরশিপ এই ওটিটিতে নেই। তাই সাহসী দৃশ্যেও তেমন বেড়াজাল নেই। তবে ওটিটিতে টিকে থাকতে হলে নাকি এইসব দৃশ্যে সাবলীল হতে হবে। যে অভিনেত্রীরা একসময় ইন্ডাস্ট্রিতে এসে প্রতিজ্ঞা করেছিলেন অন্তরঙ্গ দৃশ্যে অভিনয় করবেন না, টিকে থাকার জন্য তাঁরাও এখন এই দৃশ্যে সম্মতি জানাচ্ছেন। তার সাম্প্রতিক উদাহরণ কাজল (Kajol)।

অভিনেত্রী কাজল অভিনয় জগতে প্রায় তিন দশক কাটিয়ে ফেলেছেন। এই এতগুলো বছরে বলিউডের বহু জনপ্রিয় অভিনেতার সঙ্গে কাজ করেছেন তিনি। ভালোবাসার দৃশ্যেও অভিনয় করেছেন কিন্তু ক্যামেরার সামনে চুম্বনের দৃশ্যে অভিনয় করেননি। তবে ওটিটিতে এসে সেই বর্ম এবার খুলে ফেললেন। অভিনেত্রীর নতুন সিরিজ 'দ্যা ট্রায়াল' মুক্তি পেয়েছে কয়েকদিন আগেই। সেই সিরিজে প্রথমবার সহ অভিনেতার ঠোঁটে ঠোঁট রাখলেন অভিনেত্রী।

দ্যা ট্রায়ালে কাজলের বিপরীতে অভিনয় করেছেন এলি খান। সিরিজের চিত্রনাট্য অনুযায়ী কাজলের সুখের সংসার হবে স্বামী সন্তানের সঙ্গে। কিন্তু বেশ কিছুর পরে কাজলের স্বামী ফৌজদারি মামলায় অভিযুক্ত হবেন। অন্যদিকে এলি খানের চরিত্র বিশালের অনুভূতি তৈরী হবে কাজলের জন্য। সেই আবেগ থেকেই শুরু হবে চুম্বনের দৃশ্য। তবে অভিনেতা এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, এক বিলাসবহুল হোটেলে সেই দৃশ্যের শ্যুটিং করা হয়। শ্যুটিংয়ের সময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন কেবল জরুরি ব্যক্তিত্বরা।

9 months ago
Neena Gupta: প্রথমবার চুমুর দৃশ্যে অভিনয়ের পর ডেটল দিয়ে মুখ ধুয়েছিলাম: নীনা গুপ্তা

অভিনেত্রী নীনা গুপ্তা (Neena Gupta) বলিউডের চর্চিত ব্যক্তিত্ব। তাঁর জীবনের সাহসী সিদ্ধান্ত একসময় তাঁকে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু করে রেখেছিল। এত বছর পেরিয়েও নীনার জীবনবোধ প্রভাবিত করে নেটিজেনদের। সম্প্রতি অভিনেত্রী সিনেমায় তাঁর সাহসী দৃশ্যে অভিনয়ের স্মৃতি ভাগ করে নিয়েছেন। অভিনেত্রীর কথা শুনে নেটিজেনদের মধ্যে হাসির রোল পড়েছে।

নীনা গুপ্তাকে আর কিছুদিন পরেই দেখা যাবে লাস্ট স্টোরিজ-২ তে। সাহসী ঠাকুমার চরিত্রে অভিনয় করবেন নীনা। তাঁর চরিত্রের মুখে যে সংলাপ শোনা যাবে, তা এর আগে বোধহয় শোনা যায়নি। সেই দৃশ্যের জের টেনে নীনাকে তাঁর প্রথম চুম্বনের দৃশ্যে অভিনয়ের কথা জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন, 'বহু বছর আগে আমি দিলীপ ধাওয়ানের সঙ্গে একটি ধারাবাহিকে অভিনয় করেছিলাম। ভারতীয় টেলিভিশনে তা প্রথম ঠোঁট থেকে ঠোঁটে চুম্বনের দৃশ্য ছিল। আমি সারা রাত ঘুমোতে পারিনি।'

অভিনেত্রী আরও বলেন,  'এমন নয় যে তিনি আমার বন্ধু ছিলেন। আমরা একে অপরের কাছে অপরিচিত ছিলাম। তিনি ভীষণ সুন্দর ছিলেন। কিন্তু ওই সময় তা জরুরি ছিল না।  কারণ আমি মানসিকভাবে প্রস্তুত ছিলাম না। খুব চিন্তিত ছিলাম এবং নিজেকে এই দৃশ্যের জন্য প্রস্তুত করছিলাম। যেমন কিছু মানুষ কমেডি করতে পারেন না, কিছু মানুষ ক্যামেরায় কাঁদতে পারেন না, তেমনই। তাড়াতাড়ি সেই দৃশ্যে অভিনয় করে আমি ডেটল দিয়ে মুখ ধুয়েছিলাম।'

10 months ago
Delhi Metro: ফের খবরের শিরোনামে দিল্লি মেট্রো! এবারে যুগলের চুম্বনের ভিডিও ভাইরাল

খবরে বারবার উঠে আসে দিল্লি মেট্রোর (Delhi Metro) নাম। দিল্লি মেট্রোতে যেন একের পর এক  কাণ্ড ঘটেই চলেছে, শেষ হওয়ার যেন নামই নেয় না। এর আগে একাধিক ঘটনা ঘটেছে দিল্লি মেট্রোতে। কখনও স্বল্পবসনায় দেখা গিয়েছে মহিলাকে, কখনও কাউকে রিলস বানাতে দেখা গিয়েছে, আবার কখনও দেখা গিয়েছে হস্তমৈথুন করতে। আর এবারে প্রকাশ্যে এল এক যুগলের চুম্বনের (Kissing) ছবি। আর এই ছবি ভাইরাল হতেই নেটিজেনদের ক্ষোভে পড়েছে দিল্লি মেট্রো। এসবের বিরুদ্ধে কেন কোনও পদক্ষেপ নেওয়া হয় না, এই নিয়েই ক্ষোভপ্রকাশ করেছে নেটদুনিয়া।

সম্প্রতি এক যুগলকে দিল্লি মেট্রোর অন্দরে চুম্বন করতে দেখা গিয়েছে। আর এই সেই ঘটনার ছবি এখন ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়। আবার তা দেখে প্রতিক্রিয়াও দিয়েছেন দিল্লি মেট্রো রেল কর্তৃপক্ষ। কিন্তু রেল কর্তৃপক্ষের এই বক্তব্য মেনে নিতে পারেনি নেটিজেনরা। এই ভাইরাল ছবি দেখে দিল্লি মেট্রোর তরফে বলা হয়েছে, 'এই ধরনের অসুবিধার জন্য দুঃখিত। হুডা সিটি সেন্টার স্টেশনে খোঁজ চালানো হয়েছে। কিন্তু এ রকম কোনও যাত্রীর খোঁজ মেলেনি।'

তবে দিল্লি মেট্রোর এমন প্রতিক্রিয়ায় হতাশ নেটিজেনরা। নেটিজেনদের একাংশ মনে করছেন, রেল কর্তৃপক্ষ নজরদারি না করলে এরকম ঘটনা কখনই বন্ধ হবে না।

10 months ago


Viral: ট্রেনের সফরে চুম্বনরত অবস্থায় যাত্রীরা, 'ওয়ো ট্রেন' দেখে হতবাক নেট দুনিয়া

সম্প্রতি একটি ভিডিও ভাইরাল (Viral Video) হয়েছে, যেখানে দেখা যাচ্ছে, একটি ট্রেন (Train) দেখতে ভিড় বহু মানুষের। তবে সেই ট্রেন সাধারণ কোনও ট্রেন নয়, তা আশেপাশের ভিড় দেখেই বোঝা গেল। এমনকি ট্রেন দেখতে যাঁরা এসেছেন, তাঁরা প্রত্যেকেই হাতে মোবাইল ফোনে ক্যামেরা খুলে দাঁড়িয়ে আছে। যাতে সেই বিশেষ ট্রেনটি আসলেই তাঁরা ছবি তুলতে পারে। তবে এমন কী রয়েছে ট্রেনে, যা দেখতে এত উন্মাদনা দর্শকদের মধ্যে। এরপর ট্রেনটি আসতেই সব ধোঁয়াশা কাটল। দেখা গেল, ট্রেনে সাধারণত কাপলরা একে অপরকে চুম্বন করতে ব্যস্ত, তাও আবার গেটের সামনে এসে। এই দৃশ্যই ভাইরাল হতে নেট দুনিয়ায় (Netizens) হইহই পড়ে গিয়েছে।

রেল ট্র্যাকের আশেপাশে মানুষের ভিড় দেখে মনে হয়েছিল, হয়তো ট্রেনটি দেখতে  সুন্দর, যা দেখতে উপচে পড়েছে ভিড়। কিন্তু ট্রেনটি সামনে আসতেই বোঝা গেল, ট্রেন দেখতে নয়, ট্রেনের যাত্রীদের তেমন অন্তরঙ্গ অবস্থায় দেখার জন্যই এই ভিড়। ট্রেন সামনে আসতেই দেখা গিয়েছে, ট্রেনের গেটের সামনে হ্যান্ডেল ধরে রয়েছে, যুবক-যুবতী, আর সেখানেই একে অপরকে চুম্বন করছে তাঁরা। আবার তাঁদের সেই মুহূর্ত ক্যামেরাবন্দি করার জন্য ক্যামেরাম্যানও রয়েছে।

তবে এই ট্রেনটি কোথাকার তা জানা যায়নি। ভিডিওটি virl_india_xyz নামক ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট থেকে শেয়ার করা উচিত। এটিতে এখন পর্যন্ত ৮ লক্ষের বেশি লাইক এসেছে। কমেন্ট এসেছে অগুনতি। কমেন্টে অনেকেই মজা করে লিখেছে, 'এ যেন ওয়ো ট্রেন।' অনেকে লিখেছেন, 'এই ট্রেন কোথাকার, তিনিও যেতে চান সেখানে।' আবার কেউ লিখেছেন, 'রোম্যান্টিকভাবে মৃত্যু।'

12 months ago
Police: নাচতে নাচতে পুলিসকে চুম্বন মদ্যপ বরযাত্রীর, ভাইরাল ভিডিওয় হাসির রোল

এক পুলিসকর্মীকে(Police) জড়িয়ে ধরে চুম্বন করেলেন এক যুবক। এই ঘটনার একটি ভিডিও ভাইরাল(Viral Video) হয়েছে সমাজমাধ্যমে। ভিডিও দেখে নেট নাগরিকরা দারুণ মজা পেয়েছেন। দেখা গিয়েছে, বিয়ে উপলক্ষে বরযাত্রী হয়ে রাস্তার ধারে দাঁড়িয়ে একদল মানুষ নাচছেন। বাজনার তালে তালে তাঁদের উত্তাল নৃত্য দেখতে রাস্তার ধারে দাঁড়িয়েও পড়েছিলেন লোকজন। অনেকে আবার বরযাত্রীর দলকে এড়িয়ে নিজের কাজে যাচ্ছিলেন। ঠিক সেই সময়ই ওই রাস্তা দিয়েই বরযাত্রীদের পাশ কাটিয়ে যাচ্ছিলেন এক পুলিসকর্মী। 

ভিডিওতে দেখা যায়, নাচতে নাচতে পুলিসকর্মীর সামনে চলে আসে এক যুবক। যুবকটি মত্ত (Drunk Person) অবস্থায় ছিলেন। তিনি পুলিসকর্মীর পথ আটকে তাঁকে জাপটে ধরেন এবং তাঁর মুখে চুম্বন করেন। চুম্বনের পরে আবার ওই যুবক নাচতে শুরু করেন। 

যুবকের এই কাণ্ডে পুলিসকর্মী অসন্তুষ্ট হয়ে যুবকের দিকে এগিয়ে যান। কিন্তু যুবক পুলিসকর্মীকে পাত্তা না দিয়ে বাজনার তালের সঙ্গে তাল মিলিয়ে নাচ চালিয়ে যান। তবে বরযাত্রীর সঙ্গে থাকা ওই যুবকের বিরুদ্ধে কোনও পদক্ষেপ নেয়নি পুলিসকর্মী। যুবককে ধমক দিয়ে তিনি নিজের কাজে ফিরে যান। 

one year ago


Belgium: কানাডার বিরুদ্ধে পেনাল্টি বাঁচিয়ে নায়ক কুর্তোয়া, বান্ধবীকে চুম্বন করে কি কাতারে 'ভিলেন'?

এবারের কাতার বিশ্বকাপ (Qatar World Cup 2022) যে অন্য বিশ্বকাপ থেকে অনেকাংশে আলাদা তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। একদিকে যেমন, দুই মহা তারকার শেষ বিশ্বকাপ। পাশাপাশি রয়েছে একাধিক নিয়মের বেড়াজাল। কাতারের নিয়মকানুন একটু বেশি কড়া। প্রকাশ্যে এমনকি, মাঠে চুম্বন গুরুতর অপরাধ। আর সে নিয়মই ভেঙে বসলেন বেলজিয়াম-কানাডা ম্যাচের নায়ক বেলজিয়াম (Belgium) গোলরক্ষক থিবো কুর্তোয়া (Thibaut Courtois)। জয়ের আনন্দে নিয়মকানুন ভুলে হাজার হাজার দর্শকের সামনেই বান্ধবী মিশেল গেরজ়িকে (Mishel Gerzig) চুম্বন করলেন কুর্তোয়া। যা কাতারের আইন বিরুদ্ধ।

বিশ্বকাপের কথা মাথায় রেখে নিয়মে অনেকটা শিথিলতা এনেছে আয়োজকরা। অবিবাহিত দম্পতির একসঙ্গে থাকা কাতারে অপরাধের সামিল। তবে এবার তাতে কিছুটা ছাড় দেওয়া হয়েছে। পর্যটকদের ক্ষেত্রে রয়েছে সেই ছাড়টা। রাস্তায় হাত ধরে হাঁটলে সমস্যা নেই কাতার সরকারের। তবে প্রকাশ্যে ঘনিষ্ঠ হওয়ার উপর রয়েছে কড়া বিধিনিষেধ। এছাড়া সমকামিতার ক্ষেত্রে তিন বছরের জেলের নিদান দেওয়া রয়েছে। যা নিয়ে বিভিন্ন দেশ প্রতিবাদ জানিয়েছিল। এমনকি জার্মানরা ফটোসেশনে এর অভিনব প্রতিবাদ দেখান।



বুধবার রাতে কানাডার বিরুদ্ধে বেলজিয়ামের জয় খুব একটা সহজ ছিল না। ম্যাচের শুরুতেই একটি পেনাল্টি পেয়ে যায় কানাডা। আর পেনাল্টিতে গোল করতে যান কানাডার সেরা ফুটবলার আলফনসো ডেভিস। তাঁর অনবদ্য শট আটকে দেন কুর্তোয়া। হাততালির ঝড় ওঠে স্টেডিয়াম জুড়ে। বেলজিয়াম সমর্থকদের মুখে তখন একটাই নাম কুর্তোয়া। আর এই পেনাল্টি গোল বাঁচানো কতটা গুরুত্ব ছিল, তা ম্যাচের রেজাল্ট বলে দেয়। কারণ  শেষ পর্যন্ত ১-০ ব্যবধানে জিতেছে বেলজিয়াম। এর অর্থ ম্যাচের শুরুতে কানাডা গোল পেলে ফলাফল অন্য রকমই হত। ফলে এদিনের ম্যাচের হিরো থিবো কুর্তোয়া।

মোট তিন পয়েন্ট পকেটে পুরে ম্যাচ শেষে চলে যান বান্ধবীর কাছে। কুর্তোয়ার ঠোঁটে আদরের চুম্বন করে বসেন মিশেল। যদিও প্রত্যেকবারের বিশ্বকাপে এ ঘটনা খুবই সাধারণ। বান্ধবীকে প্রকাশ্যে চুম্বন করার জন্য কুর্তোয়া এবং তাঁর বান্ধবীকে কি শাস্তি পেতে হবে? আশঙ্কা তৈরি হয়েছে ফুটবলপ্রেমীদের একাংশের মনে।

one year ago