Breaking News
Tapas Roy: তৃণমূল ছাড়লেন তাপস রায়, বরাহনগরের বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা বর্ষীয়ান নেতার      Resign: হঠাৎ অবসর বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের, 'রাজনীতি যোগ' জল্পনা তুঙ্গে      Sandeshkhali: সন্দেশখালিতে ফের ফ্য়াক্ট ফাইন্ডিং টিম, শুনবে মহিলা ও বাসিন্দাদের কষ্টের কথা      BJP: প্রথম দফায় ১৯৫ প্রার্থীর নাম ঘোষণা বিজেপির, বাংলার ২০ জনের নাম তালিকায়      Modi: 'রামমোহনের আত্মা সন্দেশখালির মহিলাদের দুর্দশায় কাঁদছে', আরামবাগ থেকে মমতাকে তোপ মোদীর      Suspend: গ্রেফতারির পরেই তৃণমূল থেকে ছয় বছরের জন্য সাসপেন্ড সন্দেশখালির 'বেতাজ বাদশা' শাহজাহান      Sandeshkhali: নিরাপদ সর্দারকে নিঃশর্তে জামিন দিয়ে রাজ্য পুলিসকে তিরস্কার বিচারপতির      Sheikh Shahjahan: ঘর ভাঙচুর, টাকা লুঠ! শেখ শাহজাহানের বিরুদ্ধে নতুন এফআইআর সন্দেশখালি থানায়      Sandeshkhali: অজিত মাইতিকে তাড়া গ্রামবাসীদের, সাড়ে ৪ ঘণ্টা পর অবশেষে আটক পুলিসের      Ajit Maity: উত্তপ্ত সন্দেশখালি! অজিত মাইতির গ্রেফতারির দাবিতে বিক্ষোভ মহিলাদের, বাঁচতে সিভিকের বাড়িতে আশ্রয়     

Gate

Jadavpur: রাত ১০ টা বাজলেই তালা পড়ে যাবে হস্টেলের সব গেটে, নয়া নির্দেশিকা যাদবপুরে

যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের হস্টেলে ছাত্রমৃত্যুর ঘটনায় তোলপাড় রাজ্য রাজনীতি। এখনও অবধি এই মামলায় ১২ জন হাজতে। ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্দরের একাধিক ‘অপ্রিয় সত্য’ সামনে এসেছিল। প্রশ্ন উঠেছিল ছাত্রছাত্রীদের নিরাপত্তা নিয়ে। সিসিটিভি বসানোর দাবিও উঠেছিল। র‌্যাগিং-এর প্রসঙ্গও জোরালো হয়েছে। অবশেষে, টনক নড়ল কর্তৃপক্ষের। কড়া নিয়মে শৃঙ্খলা ফেরাতে যাদবপুরের হস্টেলে রাতে অবাধ যাতায়াত বন্ধ করতে চলেছে কর্তৃপক্ষ। এবার থেকে রাত ১০ টা বাজলেই তালা পড়ে যাবে যাদবপুরের হস্টেলের সব গেটে। গেট বন্ধ থাকবে সকাল ৬টা পর্যন্ত।

এছাড়াও নিয়ম করে দেওয়া হয়েছে, হস্টেলের সমস্ত বোর্ডারদের সঙ্গে সবসময় থাকতে হবে আইডি কার্ড। দেখতে চাওয়া মাত্রই তা দেখাতে হবে। যদি, কোনও ইমার্জেন্সিতে হস্টেলের বাইরে রাতে বেরতে হয়, তবে আগাম তা সুপারকে জানিয়ে রাখতে হবে বলে নির্দেশ।

5 months ago
Titan: শেষ রক্ষা হল না, টাইটানের যাত্রীদের অবশেষে মৃত বলে ঘোষণা মার্কিন উপকূলরক্ষী বাহিনীর

অবশেষে টাইটানিকের (Titanic) মতোই পরিণতি হল টাইটানের (Titan)। টাইটানের যাত্রীদের খুঁজে পাওয়া যাবে তল্লাশি জারি ছিল। কিন্তু শেষ রক্ষা আর হল না। অবশেষে ঘোষণা করা হল যে, টাইটানিক দেখতে যাওয়া টাইটানের পাঁচজন যাত্রীরই মৃত্যু হয়েছে। মার্কিন উপকূলরক্ষী বাহিনীর (U.S. Coast Guard) তরফে এই ঘোষণা করা হয়েছে। তারা অনুমান করেছে, সমুদ্রের নীচে জলের চাপেই টাইটান দুমড়ে-মুচড়ে যায় ও যাত্রীদের মৃত্যু হয়। সূত্রের খবর, মার্কিন সময় বৃহস্পতিবার দুপুর নাগাদ পাওয়া যায় সাবমেরিনের ধ্বংসাবশেষ। প্রসঙ্গত, গত রবিবার থেকে নিখোঁজ ছিল সাবমেরিন টাইটান।

সাংবাদিক সম্মেলন করে মার্কিন উপকূলরক্ষীরা জানিয়েছেন, টাইটানিকের ধ্বংসাবশেষের কাছেই টাইটানের ধ্বংসাবশেষ পাওয়া গিয়েছে। মার্কিন উপকূলরক্ষা বাহিনীর রিয়ার অ্যাডমিরাল জন মউগার জানিয়েছেন, টাইটানিকের ধ্বংসাবশেষের ১৬০০ ফুট দূরে সাবমেরিন টাইটানের ধ্বংসাবশেষ খুঁজে পেয়েছে রোবট। মনে করা হচ্ছে, দুর্ঘটনার সময় ডুবোযানটি ভিতরের দিকে দুমড়েমুচড়ে গিয়েছিল। ফলে যাত্রীদের বেঁচে থাকার কোনও আশা নেই। এছাড়াও ওশানগেটের তরফেও একটি বিবৃতি জারি করে জানানো হয় যে, সাবমেরিনের উপস্থিত ৫ জনেরই মৃত্যু হয়েছে।

উল্লেখ্য, মৃতদের মধ্যে রয়েছেন পাকিস্তানের ধনকুবের শাহজাদা দাউদ ও তাঁর পুত্র সুলেমান, ব্রিটিশ ব্যবসায়ী হামিশ হার্ডিং ও পল-হেনরি নারগিওলে। এছাড়াও এই অভিযানের আয়োজক সংস্থা ওশানগেটের সিইও স্টকটন রাশেরও মৃত্যু হয়েছে টাইটান সাবমেরিনে।

8 months ago
Nabanna: মালদহের স্কুলে বন্দুকবাজ, নড়েচড়ে বসলো নবান্ন! স্কুল দরজায় গার্ড নিয়োগের সিদ্ধান্ত

প্রকাশ্যে আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে মালদহের (Malda) মুচিয়া চন্দ্র মোহন হাইস্কুলে ঢুকে পড়ুয়াদের পণবন্দী করে দেব বল্লভ নামের এক ব্যক্তি। এমনকি এই ঘটনায় ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়েছে গোটা বাংলায়। এই ঘটনার পুনরাবৃত্তি যাতে না হয়, তাই রাজ্যের সমস্ত স্কুলের ছাত্রছাত্রীদের জন্য নয়া সিদ্ধান্ত (New Decision) নিল রাজ্য সরকার। তাই রাজ্যের সমস্ত স্কুলে দারোয়ান (Gatekeeper) নিয়োগ করতে তৎপর নবান্ন (Nabanna)। মালদহের স্কুলে বন্দুকবাজ হানার ঘটনা থেকে শিক্ষা নিয়েই রাজ্যের স্কুলগুলিতে দারোয়ানা নিয়োগ সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য সরকার।  

সূত্রের খবর, এই নিয়ে নবান্নে বৈঠকের পরই দারোয়ান নিয়োগের কথা বলেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। মুখ্যমন্ত্রীর কথাকে মান্যতা দিয়েই স্কুলে দারোয়ান নিয়োগ নিয়ে জোর তৎপর নবান্ন। রাজ্যজুড়ে ৯ হাজারেরও বেশি স্কুলে দারোয়ান নিয়োগ করা নিয়ে শুরু হয়েছে আলোচনা। তবে এই বিষয়টি নিয়ে ইতিমধ্যেই একপ্রস্ত বৈঠক সেরে নিয়েছেন নবান্নের আধিকারিকরা। 

আরও জানা গিয়েছে, তিন বছর আগে নবান্নে দারোয়ান নিয়োগের ফাইল পাঠিয়েছিল স্কুলশিক্ষা দফতর। বিবেচনাধীন হিসেবে অর্থ দফতরেই পড়ে রয়েছে ফাইলটি। তবে মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশের পরেই আবার সেই ফাইলের নড়াচড়া শুরু করল নবান্ন, এমনটাই জানা গিয়েছে।

10 months ago


Donald: প্রতি মামলায় দোষী সাব্যস্ত হলে ১০০ বছরের বেশি জেলে থাকবেন ট্রাম্প!

২০০৬ সালের পর্ণগেট-কাণ্ডে গ্রেফতার হয়েও জামিন পেয়েছেন প্রাক্তন ইউএস প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প (Donald Trump)। কিন্তু তাঁর বিরুদ্ধে থাকা একাধিক মামলায় দোষী প্রমাণিত হলে অন্তত ১০০ বছরের বেশি জেল হেফাজত হতে পারে ট্রাম্পের। এমনটাই মার্কিন আইনে ইঙ্গিত। মঙ্গলবার মধ্যরাতের একটু আগেই নিউ ইয়র্কের ম্যানহাটন আদালতে আত্মসমর্পণ করতে গিয়েছিলেন ট্রাম্প। কিন্তু তার আগেই বিচারকের নির্দেশে নিয়ম মেনে তাঁকে হেফাজতে নেয় পুলিস। পর্ণ তারকা স্টর্মিকে ১ লক্ষ ৩০ হাজার ডলার ‘ঘুষ’ দেওয়ার মামলায় গত সপ্তাহেই তাঁর বিরুদ্ধে চার্জ গঠন হয়েছে।

স্টর্মির দাবি, ২০০৬ সালে তিনি এবং ট্রাম্প শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হয়েছিলেন।  ২০১৬-র মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে তাঁর মুখ বন্ধ রাখতে ঘুষ দিয়েছিলেন ট্রাম্প। ট্রাম্পের প্রাক্তন আইনজীবী ট্রাম্পের হয়ে স্টর্মি এবং অন্য এক মডেল কারেনের কাছে অর্থ পৌঁছে দিয়েছিলেন। এই অভিযোগ স্বীকার করেছেন ট্রাম্পের প্রাক্তন আইনজীবী। যদিও ট্রাম্প এই অভিযোগ অস্বীকার করেন।

এদিকে, কোহেন ইতিমধ্যে ভোটপ্রচার নীতি লঙ্ঘনের দায়ে দোষী সাব্যস্ত হয়ে জেলে।

এদিকে গোটা ঘটনায় রাজনৈতিক প্রতিহিংসা দেখছে ট্রাম্প শিবির। ২০২৪-র মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকানদের তরফে প্রেসিডেন্ট হওয়ার দৌড়ে অনেক এগিয়ে ট্রাম্প। তাই তাঁকে মামলায় ফাঁসিয়ে দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ। এদিকে বুধবার আদালতে আমেরিকার প্রাক্তন প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে ৩৪টি ফৌজদারি অপরাধের অভিযোগ আনা হয়েছে। প্রতিটিতেই নিজেকে নির্দোষ বলে দাবি করেন তিনি।

11 months ago
Gates: সহকারী কেন্দ্রীয় মন্ত্রী, তেলে ফোড়ন দিয়ে খিচুড়ি রাঁধলেন বিল গেটস

বিল গেটস, মাইক্রোসফটের সহ-প্রতিষ্ঠাতা। তিনি নাকি পারেন না এমন কোনও কাজ নেই। সব কাজেই ওস্তাদ নাকি গেটসবাবু। তাহলে কি রান্নার কাজেও ওস্তাদ তিনি? সেটারই একটা ছোট পরীক্ষার ভিডিও ছড়িয়ে পড়ল সমাজমাধ্যমে।

সম্প্রতি কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি নিজের টুইটারে বিল গেটসের সঙ্গে একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন। সেখানে দেখা যাচ্ছে, বিল গেটসকে খিচুড়ি রাঁধতে শেখাচ্ছেন স্মৃতি। কড়াইতে তেল ঢেলে দিলেন মন্ত্রী। আর গরম তেলে ফোড়ন দিলেন বিল। সেই ফোড়ন আবার যত্নসহকারে খিচুড়ির উপর ঢেলে দিলেন বিল। শুধু খিচুড়ি রেঁধেই থামলেন না বিল। তারপর চেখেও দেখলেন খিঁচুড়ির স্বাদ।

এই ভিডিয়ো ছড়িয়ে পড়তেই নেটনাগরিকরা নানারকম মন্তব্য করতে শুরু করেছেন। কেউ লিখেছেন, ‘‘এই খিচুড়ির এবার নাম হবে মাইক্রোসফট খিচুড়ি।’’ এক জন লিখেছেন,‘‘ভারতীয় খাবার যেভাবে বিদেশিদের কাছে পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে, তা দেখে ভাল লাগছে।’’ কিছুদিন আগে বিলকে দেখা গিয়েছিল রুটি বানাতেও। ভিডিওয় দেখা গিয়েছে অনেক খাটনির পর রুটি গোল বানাতে সফল হয়েছিলেন তিনি। রুটির পর এবার খিচুড়ি!


12 months ago


Gates: কোভিশিল্ডের সাইড এফেক্টে মেয়ের মৃত্যু, বিল গেটসের থেকে হাজার কোটির ক্ষতিপূরণ দাবি বাবার

অভিযোগ, কোভিশিল্ড টিকা (Covishield Vaccine) নেওয়ার পর তাঁর মেয়ের মৃত্যু হয়েছে। তাই এক হাজার কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়ে বম্বে হাইকোর্টে (Bombay High Court) মামলা করেন এক ব্যক্তি। সেই মামলায় হাইকোর্ট সেরাম ইনস্টিটিউট অফ ইন্ডিয়া (Serum Institute of India) এবং মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস (Bill Gates), এইমস-র ডিরেক্টর রণদীপ গুলেরিয়া (Randeep Guleria), ড্রাগ কন্ট্রোলার জেনারেল অফ ইন্ডিয়ার (DCGI) প্রধান ভিজি সোমানি (VG Somani) এবং অন্যদের নোটিশ পাঠাল।

অভিযোগকারী দিলীপ লুনাওয়াত নামের ওই ব্যক্তি ঔরঙ্গাবাদের বাসিন্দা। তিনি আদালতে অভিযোগ করেন, কোভিশিল্ড টিকা নেওয়ার পরই নানা পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা গিয়েছে পেশায় চিকিৎসক তাঁর মেয়ের। সে কারণেই মেয়ে স্নেহাল লুনাওয়াতের মৃত্যু হয়েছে বলেও কোর্টে দাবি করেন তিনি।

দিলীপ বাবু জানান, তাঁর মেয়ে ধামনগাঁওয়ের এসএমবিটি ডেন্টাল কলেজ ও হাসপাতালে শিক্ষকতা করতেন। আর ওই হাসপাতালে যাঁরা পড়াতেন তাঁদের সকলকে টিকা নিতে একপ্রকার বাধ্য করা হয়। যে কারণে টিকা নিয়েছিলেন স্নেহালও।

জানা গিয়েছে, স্নেহাল গত বছর ২৮ জানুয়ারি টিকা নিলেও পয়লা মার্চ টিকার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার কারণে মৃত্যু হয় বলে দাবি করেন তাঁর বাবা। দিলীপের আরও দাবি, সরকারের পক্ষ থেকে জনগণকে আশ্বস্ত করা হয়েছিল যে টিকাগুলি নিরাপদ। কিন্তু তার পরেও তাঁর মেয়ে মারা গিয়েছেন।

2 years ago