Breaking News
ED: পরীক্ষা শেষেও শিশুর বেডেই! কালীঘাটের কাকুর কণ্ঠ পেতে নাজেহাল ইডি      ED: আদালতের পথে হাঁটবে ইডি? মিলল না কাকুর কণ্ঠস্বর      Mahua Moitra: লোকসভায় খারিজ মহুয়ার সাংসদ পদ, পাশে মমতা, তোপ বিজেপিকে      ED: শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতিকাণ্ডে প্রাক্তন শিক্ষকের বাড়িতে ইডি হানা!      Ragging: যাদবপুরে ফের র‍্যাগিংয়ের অভিযোগ! প্রথম বর্ষের ছাত্রকে ফোন করে দেওয়া হত হুমকি...      Film Festival: শুরু ২৯তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব, উদ্বোধনে 'বাদশা' নয় ভাইজান      SSKM: বেড নেই এসএসকেএম-এ! দেড় বছরের শিশুকে ফিরিয়ে দেওয়ার অভিযোগ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে      BJP: জাতীয় সঙ্গীত 'অবমাননা' মামলায় জোর ধাক্কা রাজ্যের! বিজেপি বিধায়কদের গ্রেফতারে 'না' হাইকোর্টের      Recruitment Scam: ফের তৃণমূলের দুই কাউন্সিলরের বাড়ি থেকে উদ্ধার নিয়োগ সংক্রান্ত নথি ও অ্যাডমিট কার্ড!      Congress: স্বাধীনতার পর প্রথম তেলেঙ্গানায় সরকার গঠনের পথে কংগ্রেস     

GT

Medinipur: দু'বার অপারেশনের পর অবস্থা খারাপ রোগীর, বিক্ষোভ রোগীর পরিবারের

আবারও হাসপাতালের বিরুদ্ধে উঠেছে ভুল চিকিৎসার অভিযোগ। মেয়েকে সুস্থ করার দাবিতে মন্ত্রীর পায়ে ধরে কাতর আবেদন রোগীর আত্মীয়র। রবিবার সাতসকালে মেদিনীপুর মেডিক্য়াল কলেজ ও হাসপাতালে ঘটেছে এই ঘটনা। 

জানা গিয়েছে, শুক্রবার সন্ধ্য়া ৭ টা নাগাদ মেদিনীপুরের কলগাং এলাকার বাসিন্দা রিঙ্কু রায়ের মেয়েকে অসুস্থ হওয়ায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এরপর রাত ১১ টা নাগাদ কোন কিছু পরীক্ষা না করিয়ে সোজা তাঁকে অপারেশন থিয়েটারে নিয়ে গিয়ে অপারেশন করা হয় বলে অভিযোগ। 

আজ অর্থাৎ শনিবার সকালে আরও একটি অপারেশন করা হয় বলে অভিযোগ বাড়ির লোকের। আর তারপরে এই রক্তপাত বন্ধ না হওয়ায় গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়ে ওই রোগী। তারপরে তাকে নিয়ে গিয়ে ভর্তি করা হয় আইসিইউতে। এদিন ভোরবেলায় ওই রোগীর বাড়ির লোককে জানানো হয় মেয়ের অবস্থা খারাপ। এই কথা শোনা মাত্রই ক্ষোভে ফেটে পড়েন রোগীর বাড়ির লোক। 

অন্য়দিকে বিশেষ কাজে মন্ত্রী বীরবাহা হাসদা এসেছিলেন মেদিনীপুর মেডিক্য়াল কলেজ হাসপাতালে। মন্ত্রীকে দেখা মাত্রই তাঁর কাছে আবেদন জানালেন ওই অসুস্থ মেয়েটির বাড়ির লোক। ইতিমধ্যেই মেদিনীপুর মেডিক্য়াল কলেজ হাসপাতালে যে আউটপোস্ট রয়েছে সেখানে লিখিত অভিযোগ জানিয়েছেন ওই অসুস্থ মেয়েটির বাড়ির লোকজন।

12 hours ago
GTA: উত্তরবঙ্গে উদার মুখ্যমন্ত্রী! ডিএ-র ক্ষেত্রে বিপরীত মেরুতে

উত্তরবঙ্গে GTA-র ক্ষেত্রে গ্র্যাচুইটির টাকা বাড়ানোর ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রী বন্দ্যোপাধ্যায়ের। দক্ষিণবঙ্গে আবার প্রাপ্য ডিএ-র দাবিতে রাজপথে সরকারিকর্মীরা। মুখ্যমন্ত্রী কেন বিমাতৃসুলভ আচরণ করছেন, প্রশ্ন তুলে সুর চড়িয়েছেন আন্দোলনকারীরা। বকেয়া ডিএ প্রদানের ক্ষেত্রে কোষাগার শূন্য আর উত্তরবঙ্গে গ্র্যাচুইটি বৃদ্ধির ঘোষণায় মুখ্যমন্ত্রীর উদ্দেশ্য নিয়ে প্রশ্ন উঠছে।

৯ ডিসেম্বর SLST চাকরীপ্রার্থীদের অবস্থান বিক্ষোভের হাজার দিন। বকেয়া ডিএ-র দাবিতে শহরের রাজপথে সরকারীকর্মীরা। এই যখন অবস্থা তখন উত্তরবঙ্গ সফরে থাকা মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণা ঘিরে তৈরি হয়েছে বিতর্ক। GTA-র ক্ষেত্রে গ্র্যাচুইটির টাকা বাড়ানোর ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর। কিন্তু বঞ্চিত রাজ্যের সরকারিকর্মীরা, সেই প্রতিবাদে দক্ষিণবঙ্গে চলছে অবস্থান বিক্ষোভ। কেন এই পৃথক অবস্থানে বাংলার প্রশাসনিক প্রধান, উঠছে প্রশ্ন। দক্ষিণে যখন বঞ্চনার যন্ত্রণা, তখন উত্তরের মন জয়ের চেষ্টায় কেন এই বিমাতৃসুলভ আচরণ, এই প্রশ্ন তুলছেন ডিএ আন্দোলনকারীরা। উত্তরবঙ্গে তৃণমূলের সংগঠনকে শক্ত ভিতে দাঁড় করাতেই কি উদার মুখ্যমন্ত্রী? আর তাই সরকারীকর্মীরা ডিএ চাইলে বলা হয় কোষাগার ফাঁকা, কটাক্ষ আন্দোলনকারীদের। জিটিএ কর্মীদের মধ্যে পুঞ্জীভূত ক্ষোভ নিরসনে ভোট রাজনীতিকে মাথায় রেখে একটা ঘোষণা করে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী, বলছেন এক আন্দোলনকারী। এই মুখ্যমন্ত্রী বাম সরকারের আমলে বলেছিলেন, যে সরকার ডিএ দিতে পারে না, তার ক্ষমতায় থাকার দরকার নেই। এখন আবার বলছেন ডিএ আবশ্যক নয়। মুখ্যমন্ত্রীর অভিসন্ধি ঘিরে প্রশ্ন তুলছেন এক ডিএ আন্দোলনকারী।

জিটিএ-র জন্য এক ঘোষণা আর সরকারীকর্মীদের জন্য অপর এক ঘোষণা। কেন এই বৈষম্য, প্রশ্ন তুলছে সংগ্রামী যৌথমঞ্চ। মুখ্যমন্ত্রী প্রথম থেকেই মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন। রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধান সবসময় মিথ্যাচার করেন, অভিযোগ এক আন্দোলনকারীর।

yesterday
High Court: মেট্রোর কাজে গাছ কাটা! ভারসাম্য বজায়ের নির্দেশ কোর্টের

ময়দান চত্বরে মেট্রোর কাজের জন্য গাছ কাটার মামলায় মেট্রোর কাজে দায়িত্বপ্রাপ্ত সংস্থা আরভিএনএল, কেন্দ্র ও রাজ্যের কাছে হলফনামা জমা দেওয়ার নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি টিএস শিবজ্ঞানমের ডিভিশন বেঞ্চ। তিন সপ্তাহের মধ্যে হলফনামা জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধান বিচারপতি।

এদিন সওয়াল জবাবের সময় আবেদকারী সংস্থার আইনজীবী জানান, মেট্রোর কাজের দায়িত্বপ্রাপ্ত সংস্থা আরভিএনএল-কে ময়দান এলাকায় গাছ কাটার কারণ জানাতে বলেছিল আদালত। কিন্তু গত শুনানিতেও তারা উত্তর দেয়নি। আমাদের দাবি মেট্রো স্টেশন অবশ্যই মানুষের স্বার্থে। কিন্তু তার জন্য গাছ কাটার কী কারণ।

প্রধান বিচারপতি বলেন, ময়দান কি রাজ্যের তত্ত্বাবধানে? উত্তরে রাজ্যের আইনজীবী মহম্মদ গাল জানান, না, এই ক্ষেত্রে রাজ্যের কোনও বিশেষ ভূমিকা নেই।

আরভিএনএলএর আইনজীবী সাক্ষ্য সেন জানান, এই মেট্রো পথ আর্মির অনুমোদন নিয়ে তৈরি হচ্ছে।মেট্রো প্রচুর দুর্ভোগ সামলেছে এই প্রোজেক্ট করতে গিয়ে। জমি জট থেকে অন্য সমস্ত সমস্যা। এই প্রোজেক্টের তিনটি স্টেশন হবে এই চত্বরে মেশিন সহ অন্যান্য সামগ্রী রাখা ও ব্যবহারের জন্য কিছু গাছের ডাল ও সামান্য কিছু গাছ কাটা হয়ছে। সেই জায়গায় আমরা অতিরিক্ত গাছ বসিয়ে দেবো।

আরভিএনএলএর আইনজীবী সাক্ষ্য সেনের কথা শুনে প্রধান বিচারপতি জানান, মেট্রো কখনই তাদের দায় এড়াতে পারে না। ময়দান এলাকায় প্রচুর জায়গা ।যেখানে গাছ আছে সেটা অনেক বেশি স্পর্শকাতর। মেট্রোকে ভেবে কাজ করতে হবে।আমরা গর্বিত কলকাতা মেট্রো অতি প্রাচীন। এশিয়ার প্রথম। গাছগুলোর জায়গায় পুনরায় নতুন গাছ বসাতে হবে। ব্যালেন্স বজায় রেখে কাজ করতে হবে মেট্রোকে। প্রযুক্তি এখন অনেক উন্নত, প্রযুক্তিকে কাজে লাগাতে হবে। হাইকোর্টের ক্লাবও আছে ময়দান চত্বরে যেখানে বাড়তি নির্মাণ সম্ভব নয়।

উল্লেখ্য, মোমিনপুর থেকে এসপ্ল্যানেড পর্যন্ত মেট্রোর কাজের জন্য ময়দান চত্বরে প্রায় ৭০০ গাছ কাটার চিন্তাভাবনা চলছিল।তাঁর বিরোধিতা করেই পিপল ইউনাইটেড ফর বেটার লিভিং ইন ক্যালক্যাটা নামক একটি বেসরকারি সংস্থা, দেদার গাছ কাটা হচ্ছে ময়দানে, এই অভিযোগ তুলে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিল। ২৬ অক্টোবর এই মামলার শুনানিতে অন্তর্বর্তী স্থাগিতাদেশ দিয়েছিল হাইকোর্টের বিচারপতি মৌসুমী ভট্টাচার্য ও বিচারপতি বিভাস রঞ্জন দে’র ডিভিশন বেঞ্চ। তারপরেই ১৭ নভেম্বর শুক্রবার এই মামলার শুনানি ছিল। শুক্রবার হলফনামা জমা দেওয়ার নির্দেশ দিল প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ।

3 weeks ago


Hoogly: অবাধে চলছে গাছ কাটা, ফের শিরোনামে হুগলি

দিনের পর দিন বেড়েই চলেছে বিশ্ব উষ্ণায়ন। তাল মিলিয়ে বাড়ছে পরিবেশ দূষণের মাত্রা। কিন্তু কিছুতেই যেন মানুষ সচেতন নয়। দিনের পর দিন সামনে আসছে নির্বিচারে সবুজ নিধনের মতো ঘটনা। এবার শিরোনামে হুগলি নলডাঙা এলাকা। ক্ষোভে ফুঁসছেন এলাকাবাসীর একাংশ।

এলাকার এক বাসিন্দার দাবি, গাছ গুলি বাড়তে বাড়তে ইলেক্ট্রিক তারে গিয়ে ঠেকেছে। যার জেরে ঝড় বৃষ্টির দিনে দুর্ঘটনার আশঙ্কা বেশ বেড়ে যায়। এছাড়া বেশ কিছু কীট পতঙ্গের উপদ্রবের কারণেই স্থানীয় পঞ্চায়েতে গাছ কাটার জন্য জানানো হলে স্থানীয় পঞ্চায়েতের তরফে এসে গাছ গুলি ছেটে দেওয়া হয়।

গত মাসেই হুগলির নপাড়া প্রাথমিক স্কুলে গাছ কাটার অভিযোগে, কানাইপুর পঞ্চায়েত সদস্যার স্বামীর দিকে আঙুল তুলে পোস্টার পড়েছিল। ফের হুগলির বুকে সবুজ নিধন। যার জেরে এবার বিজেপির তরফে নলডাঙ্গায় এলাকায় পড়ল পোস্টার। যদিও পঞ্চায়েত সদস্যার দাবি, এলাকাবাসীর স্বার্থেই সমস্ত কাজ করা হয়েছে। তাই বিজেপির দেওয়া পোস্টারে ডোন্ট কেয়ার মনোভাব তৃণমূল পঞ্চায়েত সদস্যার।

a month ago
Tea: বারবার ফোটানো চা খাচ্ছেন? শরীরের কী কী ক্ষতি হতে পারে জানেন?

চা (Tea), বাঙালিদের কাছে কোনও সাধারণ পানীয় নয়, এটি একটি 'ইমোশন'। চা খেতে কে না ভালোবাসে? যাঁরা আসল চা-প্রেমী তাঁরা গরম-শীত, যখন-তখন খেতে পছন্দ করেন। অনেকের আবার দিনের শুরুটা হয় এক কাপ চা দিয়েই। সারাদিনে যে কত কাপ চা পান করেন, এর হিসেবে অনেকেরই থাকে না। অনেকে আবার একবার চা করে রেখে তা বার বার ফুটিয়ে পান করে থাকেন। আবার অনেকেই বেশিক্ষণ ধরে ফোটানো চা খেতে পছন্দ করেন। তবে এখানেই ভুলটা করছেন আপনারা। চা বারবার ফুটিয়ে খাওয়া উচিত কিনা সে ব্যাপারে জানেন কি? বা বেশিক্ষণ ধরে চা ফোটালে তা শরীরের কী কী ক্ষতি করতে পারে, তা সম্পর্কে অনেকেই অবগত নন। তবে এবারে জেনে নিন।

বিশেষজ্ঞদের মতে, চা বারবার ফুটিয়ে খাওয়া উচিৎ নয়। কারণ এতে চায়ে ব্যাকটেরিয়ার সংখ্যা বাড়তে থাকে। ব্যাকটেরিয়ার সংখ্যাও আরও বাড়ে যখন আপনি দুধ চা বানিয়ে রাখেন। এছাড়াও চা-কে আরও বিষাক্ত করে তোলে চিনি। আবার চায়ের গুণাগুণও নষ্ট হয়ে যায়। বারবার গরম করা চা পান করলে চোখের গ্লুকোমা ও স্নায়ুতে প্রভাব ফেলে। আবার হজমশক্তির উপর প্রভাব ফেলে ডায়রিয়া, পেটের নানা সমস্যার সৃষ্টি করে।

আবার বেশিক্ষণ ধরেও চা ফোটানো উচিত নয়। বিশেষজ্ঞদের মতে, বেশিক্ষণ ধরে চা ফোটালে চায়ের মধ্যে থাকা ক্যাফিন ও ট্যানিন নামের দুটি উৎসেচক নষ্ট হয়ে যায়। এতে চায়ের স্বাদ তেতো হয়ে যায়। আর তা শরীরের পক্ষেও ভালো না। এই চা পান করলে খাদ্যনালীতে ক্যানসারের ঝুঁকি বাড়ে। বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ, এক থেকে দু'মিনিটের বেশি চা ফোটানো ঠিক নয়।

2 months ago


Meeting: এশিয়া কাপের ফাইনালে আগে ম্যারাথন বৈঠকে টিম ইন্ডিয়া, দলে এল সুন্দর

এশিয়া কাপ ফাইনালের আগে ম্যারাথন বৈঠক করল টিম ইন্ডিয়া। সেই বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, ওয়াশিংটন সুন্দরকে টিমে নেওয়া হল। তড়িঘড়ি তাঁকে শ্রীলঙ্কায় উড়িয়ে নিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্তের নেপথ্যে, অক্ষর পটেলের চোট। বিসিসিআই জানিয়ে দিয়েছে, এশিয়া কাপের ফাইনালে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে খেলতে পারবেন না অক্ষর। বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ম্যাচে বাঁ হাতে চোট পেয়েছেন তিনি। তাঁর জায়গায় দলে এলেন ওয়াশিংটন সুন্দর। ফাইনালে তাঁকে খেলানো হতে পারে।

অধিনায়ক রোহিত শর্মা, কোচ রাহুল দ্রাবিড় -সহ ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্ট দীর্ঘ বৈঠক করে ওয়াশিংটনকে দলে নেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। শনিবার প্রথমে বৈঠক শুরু হয়েছিল কোচ দ্রাবিড় এবং ব্যাটিং কোচ বিক্রম রাঠৌরের মধ্যে। এরপর যোগ দেন রোহিত এবং অজিত আগরকর। এরপর বোলিং কোচ পরেশ মামব্রে এবং ফিল্ডিং কোচ টি দিলীপও বৈঠকে যোগ দেন। তিনঘণ্টারও বেশি সময় ধরে তাঁরা আলোচনা করেন। রাঠৌর, মামব্রে এবং দিলীপ চলে যাওয়ার পরেও ঘণ্টাখানেক কথা বলেন রোহিত, দ্রাবিড় এবং আগরকার।

বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ম্যাচে ব্যাট করার সময় অক্ষরের হাতে একাধিক বার বল লাগে। সেই চোটের কারণেই ছিটকে গেলেন তিনি।

3 months ago
Dinner: জি ২০ এর নৈশভোজে জায়গা পেল দার্জিলিং টি, হালুয়া, আর কি কি!

শনিবার রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মু নৈশভোজে আমন্ত্রণ করেছেন সদস্য় দেশের রাষ্ট্রনেতাদের। কী থাকছে সেই নৈশভোজের মেনুতে। প্রকাশ্যে এসেছে সেই মেনু কার্ডও। তার মধ্যে জায়গা পেল বাংলার দার্জিলিংয়ের চা। 

এদিন নৈশভোজে থাকছে ভারতীয় ছোঁয়া। জানা গিয়েছে, নৈশভোজের স্টার্টারে থাকছে পাত্রম। বিশেষ জায়গা করে নিয়ে মিলেট। থাকছে ঝাল চাটনি। মেন কোর্সে জায়গা করে নিয়েছে ভানবারনম। কেরালার লাল চাল ও উৎকর্ষ মাশরুম থাকছে। সঙ্গে থাকবে মুম্বইয়ের পাওভাজি, কাশ্মীরে বাকারখানি। শেষপাতে থাকছে, ইলাচি ফ্লেভারের হালুয়া ও মোরোব্বা।

নৈশভোজের পর অতিথিদের জন্য থাকবে কাশ্মীরের কাহওয়া, ফিল্টার কফি ও দার্জিলিং চা।

3 months ago
Fire: ফের বগটুইয়ে তৃণমূল কর্মীর বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেওয়ার অভিযোগ, অল্পের জন্য রক্ষা

বীরভূমের বগটুইয়ে এক তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীর বাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেওয়ার চেষ্টার অভিযোগ উঠল দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে। জানালা দিয়ে ছুড়ে দেওয়া হল জলন্ত পতাকা। তার জেরে বিছানার কিছু অংশ পুড়ে গিয়েছে। তৃণমূল কর্মীর অভিযোগ, রাজনৈতিক কারণেই এই কাজ করা হয়েছে।

জানা গিয়েছে ওই তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীর নাম মুর্শিদা বিবি। শনিবার রাতে তাঁর বাড়ির পিছনের দিকে জানালা দিয়ে জলন্ত পতাকা ঢুকিয়ে দেয় দুষ্কৃতীরা। তার জেরে বিছানার একাংশ এবং বেশ কিছু সামগ্রী সম্পূর্ণ নষ্ট হয়ে গিয়েছে।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় রামপুরহাট থানার পুলিস। পুরো পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে তদন্ত শুরু করেছে পুলিস। মুর্শিদা বিবি জানিয়েছেন, তাঁরা সেসময় ওই ঘরে ছিলেন না। ফলে কে বা কারা ওই ঘটনা ঘটালো তা জানতে পারেননি। তবে রাজনৈতিক কারণেই বাড়িতে আগুন লাগানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন।

বাড়ির সদস্য আলম শেখ জানান, যেহেতু তাঁরা এই কাউকে এই কাজ করতে দেখেননি তাই সরাসরি পুলিশের কাছে কারোর নামে অভিযোগপত্র দায়ের করেননি। যদিও পুরো ঘটনা খতিয়ে দেখে তদন্তের আশ্বাস দিয়েছেন।

5 months ago


Wrestler: কেন্দ্রের সঙ্গে বৈঠকের পর আপাতত স্থগিত কুস্তিগীরদের আন্দোলন

কেন্দ্রের আশ্বাস পেয়ে অবশেষে আন্দোলন স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত কুস্তিগীরদের (Wrestler)। বজরং পুনিয়া, সাক্ষী মালিকদের সঙ্গে প্রায় ৫ ঘণ্টা বৈঠক (Meeting) করেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর (Anurag Thakur)। এরপরেই আন্দোলন বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয় তাঁরা। বেশ কয়েকদিন ধরে ব্রিজভূষণের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ নিয়ে আন্দোলন শুরু করে কুস্তিগীররা। বেশ কয়েকদিন ধরে এই আন্দোলন চলে।

বুধবার আন্দোলনরত কুস্তিগীরদের নিয়ে বৈঠকে বসে কেন্দ্র। বৈঠকে কেন্দ্র আশ্বাস দেয়, ভারতীয় কুস্তি ফেডারেশনের সভাপতি ব্রিজভূষণ শরন সিংয়ের বিরুদ্ধে ১৫ জুনের মধ্যে তদন্ত শেষ হবে। এই আশ্বাস পাওয়ার পর সাক্ষীরা জানিয়েছেন, ততদিন পর্যন্ত আন্দোলন স্থগিত রাখা হবে।

এর আগে হরিদ্বারে পদক বিসর্জন দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন কুস্তিগীররা। পদক বিসর্জন না দিলেও কেন্দ্রকে ৫ দিনের সময়সীমা দেন তাঁরা। এরপরেই কেন্দ্র তাঁদের কথা ভেবে তাদের সঙ্গে বৈঠকে বসে। যদিও এ ঘটনায় অভিযুক্ত ব্রিজভূষণ-এর বাড়িতে তদন্তের জন্য মঙ্গলবার হানা দেয় দিল্লি পুলিস।

6 months ago
IPL Final: বিরিয়ানি থেকে কন্ডোম, আইপিএল ফাইনালে অবাক করা বিক্রির তালিকা

বৃষ্টির জন্য রবিরার ভেস্তে গিয়েছিল আইপিএল-এর ফাইনাল ম্যাচ (IPL Final Match)। ফলে সোমবার গুজরাত টাইটান্স (Gujarat Titans) ও চেন্নাই সুপার কিং-এর (Chennai Super King) খেলা দেখতে মুখিয়ে বসেছিলেন ক্রিকেটপ্রেমীরা। এরপর অবশেষে সোমবার ধোনি ও পান্ডিয়ার খেলা দেখতে পারলেন ভারতবাসী। কিন্তু এই খেলা দেখার মধ্যেই আরও এক কাণ্ড ঘটে গেল, যা নিয়ে তোলপাড় নেটপাড়া। সোমবার ম্যাচ চলাকালীন খাবার সরবরাহকারী সংস্থা সুইগি এমন এক মজাদার টুইট করেছে, যা এখন সমাজমাধ্যমে ভাইরাল। 'সুইগি' থেকে জানানো হয়েছে, ম্যাচের দিন যেমন বিক্রি হয়েছে বিরিয়ানি (Biryani), তেমনি দেদার বিক্রি হয়েছে কন্ডোম। ফলে সমাজমাধ্যমে ঠাট্টা-মশকরা করে নেটিজেনরা বলছেন, 'প্রকৃতপক্ষে কে জিতল ধোনি না বিরিয়ানি?'

সোমবার ম্যাচ চলাকালীন সুইগি টুইট করে জানিয়েছে, 'এই মরশুমে সবথেকে বেশি অর্ডার করা খাবারের মধ্যে ট্রফি জিতেছে বিরিয়ানি। প্রতি মিনিটে ২১২ টি প্লেট অর্ডার করা হয়েছে বিরিয়ানি। মোট ১২ মিলিয়নের মতো বিরিয়ানি প্লেটের অর্ডার এসেছে।' আবার সুইগি থেকে আরও একটি টুইট করা হয়েছে, যেখানে লেখা রয়েছে, '২৪২৩ টি কন্ডোম সুইগির মাধ্যমে ডেলিভার করা হয়েছে। মনে হচ্ছে, আজকের এই ২২ জন খেলোয়াড় ছাড়াও আরও অনেক খেলোয়াড় রয়েছে।' আর এই টুইট নেটাগরিকদের নজরে আসতেই ঠাট্টা-মশকরায় মেতেছে নেটিজেনরা।

6 months ago


Dhoni: আইপিএলে ভারত শ্রেষ্ঠ ধোনির চেন্নাই

এ যেন এক স্বপ্নে লেখা ইতিহাস। শেষ বলে চার, তার আগের বলে ছয় মেরে হার্দিকের মুখ থেকে ম্যাচ ছিনিয়ে এনে ধোনির হাতে তুলে দিল জাদেজা। শেষ ওভারে গুজরাতের মোহিত শর্মা তার আগের চারটি বলে মাত্র ৩ রান দিয়েছিলেন। দেখে মনে হচ্ছিল চ্যাম্পিয়ন হওয়া সময়ের অপেক্ষা গুজরাত টাইটান্সের। মাঠে দাঁড়িয়ে হেসে ফেলেন হার্দিক পাণ্ড্যও। কিন্তু শেষ ২ বলে বদলে গেল খেলার ছবি। শেষ ওভারের পঞ্চম বলে ছক্কা মারলেন রবীন্দ্র জাডেজা। শেষ বলে চার মেরে দলকে জিতিয়ে দিলেন জাডেজা। পঞ্চম বারের জন্য আইপিএল (IPL) চ্যাম্পিয়ন হলেন মহেন্দ্র সিং ধোনি (Mahendra Singh Dhoni)।

প্রথম ইনিংসে সুদর্শন, ঋদ্ধিদের দাপট দেখে মনে হয়েছিল আইপিএল চ্যাম্পিয়ন বোধহয় গুজরাত টাইটান্স। কিন্ত ২ ঘণ্টা বৃষ্টির পরে ব্যাট করতে নেমে চেন্নাই বুঝিয়ে দিয়েছিল দিল্লি কিন্তু দূরই আছে। যদিও ম্যাচ জিততে তৎপর ছিল হার্দিকরা। বৃষ্টির দাপটে ২০ ওভারের খেলা কমে দাঁড়ায় ১৫ ওভারে। লক্ষ্য কমে হয় ১৭১। সেই লক্ষ্য তাড়া করে ৫ উইকেটে ম্যাচ জিতে যায় চেন্নাই।

খেলা শুরু হওয়ার পরে ব্যাট করতে নেমে প্রথম থেকেই মারকুটে ব্যাটিং শুরু করেন চেন্নাইয়ের দুই ওপেনার রুতুরাজ গায়কোয়াড় ও ডেভন কনওয়ে। তাঁরা জানতেন প্রতি ওভারে ১২ রান করে তুলতে হবে তাঁদের। খেলা ১৫ ওভারের হওয়ায় পাওয়ার প্লে-ও কমে হয় ৪ ওভার। পাওয়ার প্লে-তে ৫২ রান করেন দুই ওপেনার। বড় শট খেলা ছাড়া কোনও উপায় ছিল না চেন্নাইয়ের ব্যাটারদের। ৬ ওভারে ওঠে ৭২ রান।

জেতার জন্য ৯ ওভারে ৯৯ রান করতে হত চেন্নাইকে। লক্ষ্য কঠিন ছিল। ভাল বল করছিলেন গুজরাতের স্পিনার নুর আহমেদ। এক ওভারে জোড়া উইকেট নিয়ে চেন্নাইকে বড় ধাক্কা দেন তিনি। প্রথমে ২৬ রানের মাথায় গায়কোয়াড় ও পরে ৪৭ রানের মাথায় কনওয়েকে ফেরান তিনি। এক ওভারেই চেন্নাইয়ের দুই ওপেনার সাজঘরে ফেরেন।

প্রতি ওভারে জরুরি রানরেট বাড়ছিল চেন্নাইয়ের। সেই পরিস্থিতি থেকে দলকে টানলেন শিবম দুবে, অজিঙ্ক রাহানে ও অম্বাতি রায়ডু। বিশেষ করে রাহানে ও রায়ডু ঝোড়ো ইনিংস খেলেন। রাহানের ২৭ ও রায়ডুর ১৯ দলকে জয়ের কাছে নিয়ে যায়। ফাইনালে ব্যাট হাতে ব্যর্থ ধোনি। প্রথম বলেই আউট হয়ে যান তিনি। শেষ ওভারে জিততে দরকার ছিল ১৩ রান। জাডেজার ব্যাটে সেই রান তাড়া করে জিতে যায় চেন্নাই।

6 months ago
IPL: আইপিএল ফাইনালে চেন্নাই বনাম গুজরাত, বৃষ্টি হলে কে জিতবে!

রবিবার আইপিএলের (IPL) মেগা ফাইনাল (Final)। আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদী স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হচ্ছে চেন্নাই সুপার কিংস (CSK) ও গুজরাট টাইটান্স (GT)। ধোনির অভিজ্ঞতা বনাম হার্দিকের সাফল্যের ধারাবাহিকতা। ফাইনালে জিতবে কোন দল ? অপেক্ষার প্রহর গুনছে ক্রিকেট বিশ্ব। এদিকে, মেগা ফাইনালে আহমেদাবাদে কিন্তু বৃষ্টির ভ্রুকুটি থাকছে। ফলে ভেস্তে যেতে পারে ফাইনাল ম্যাচ। কী বলছে আজ আহমেদাবাদে সন্ধ্যার আবহাওয়া ?

আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস অনুযায়ী, রবিবার সন্ধেবেলায় আহমেদাবাদে বৃষ্টির সম্ভাবনা থাকছে প্রায় ৪০ শতাংশ। টানা দু'ঘণ্টা বিক্ষিপ্ত বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। সেইসঙ্গে ঘণ্টায় ৫০ কিমি বেগে বইতে পারে ঝোড়ো হাওয়া। আহমেদাবাদের আকাশ সারাদিন মেঘলা থাকবে। তবে, ভারী নয়, হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনাই থাকছে এদিন। বৃষ্টির কারণে ২০ ওভারের ম্যাচ ভেস্তে গেলে কোন দলকে কীভাবে বিজয়ী ঘোষণা করা হবে, এখন সেই নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। জানা গিয়েছে, কোনও ওভার খেলা না গেল আইপিএল পয়েন্ট টেবিলের উপরে চোখ রাখা হবে। যে দল সবথেকে বেশি পয়েন্ট পেয়েছে, সেই দলকেই শেষপর্যন্ত বিজয়ী ঘোষণা করা হবে।

এবার আইপিএলে কিন্তু সেই চেনা ছন্দে নেই চেন্নাই সুপার কিংস। অধিনায়ক ধোনির ক্ষুরধার মস্তিষ্কে হারছে বিপক্ষ। সৌরভও প্রশংসা করেছেন ধোনির নেতৃত্বের। এবার জিতলে রোহিত শর্মার রেকর্ড ছুঁয়ে ফেলবেন মাহি। দলকে পঞ্চমবার খেতাব এনে দেবেন তিনি। অন্যদিকে, গুজরাট আর একটা ম্যাচ জিতলে চেন্নাই, মুম্বইয়ের সঙ্গে একই আসনে উঠে যাবে। পরপর দুই বছর চ্যাম্পিয়ন হয়েছে এই দুই টিমই।

7 months ago
Jadeja: রবিবার আইপিএলের মেগা ফাইনাল, গুজরাতের মাঠে জাদেজা হতে পারেন অন্যতম অস্ত্র

রবিবার আইপিএলের (IPL) মেগা ফাইনাল। দেড় মাসের টুর্নামেন্টের যবনিকা পতন। আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদী স্টেডিয়ামে নামছে চেন্নাই সুপার কিংস (CSK) ও গুজরাত টাইটান্স (GT)। ম্যাচে কে জিতবে, আগে থেকেই অনুমান করতে রাজি নন ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরাও।

রবিবার আইপিএলের মেগা ফাইনাল। ঘরের মাঠে চেন্নাইয়ের হয়ে খেলতে নামবেন জাদেজা। তাই প্রত্যাশা কিছুটা বেশি। চেন্নাই টিমে দুই ওপেনার ডেভন কনওয়ে ও রুতুরাজ গাইকোয়াড় ফর্মে আছেন। আহমেদাবাদেও এই দুইয়ের উপরই ব্যাটিংয়ে ভরসা রাখছেন ধোনি। টুর্নামেন্টের মাঝের অংশে ভাল ফর্মে ছিলেন অজিঙ্কা রাহানে ও শিবম দুবে।

ফাইনালে তাঁদের ব্যাটের উপরও তাকিয়ে থাকবে টিম। মইন আলি গোটা টুর্নামেন্টে সেভাবে সফল হতে পারেননি। শ্রীলঙ্কার দুই বোলার থিকসানা ও পাথিরানা। এই দুই বোলারকে নিজের হাতে ঘষেমেজে নিয়েছেন মাহি। গুজরাতের ব্যাটিংকে ভাঙার জন্য ফাইনালে তারাই হয়ে উঠতে পারেন চেন্নাইয়ের আসল অস্ত্র।

7 months ago


IPL: মুম্বইকে হারিয়ে আইপিএল ফাইনালে গুজরাত, শুভমান বন্দনায় রোহিত

শুভমান গিলের (Shubman Gill) বিধ্বংসী সেঞ্চুরি। মোহিত শর্মার (Mohit Sharma) একাই ৫ উইকেট। এ মরশুমে আইপিএল জয়ের স্বপ্ন শেষ মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের (MI)। ৬২ রানে জয়ী হার্দিক ব্রিগেড। রবিবার আহমেদাবাদে আইপিএল ফাইনালে চেন্নাই সুপার কিংসের বিরুদ্ধে নামবে গুজরাত টাইটান্স।

শুক্রবার এলিমিনেটার্সের লড়াইয়ে বৃষ্টিতে দেরি করে ম্যাচ শুরু হয়। টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের অধিনায়ক রোহিত শর্মা। প্রথমে ব্যাট করতে নেমে আউট হয়ে যান ঋদ্ধিমান সাহা। কিন্তু বিধ্বংসী মেজাজে ব্যাট করেন শুভমান গিল। ৬০ বলে ১২৯ রান করেন শুভমান গিল। ৩১ বলে ৪৩ রান করেন সুদর্শন। ১৩ বলে ২৮ রান করেন হার্দিক। ২০ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ২৩৩ রান তোলে গুজরাত। 

জবাবে ব্যাট করতে নেমে ২০ বলে ৩০ রান করেন ক্যামেরুন গ্রিন। ৩৮ বলে ৬১ রান করেন সূর্যকুমার যাদব। ১৪ বলে ৪৩ করেন তিলক ভার্মা। তবে গুজরাতের ২৩৩ রান তাড়া করা সম্ভাব হয়নি মুম্বইয়ের। ১৭১ রানেই শেষ হয়ে যায় মুম্বইয়ের ইনিংস। ১৮ ওভার ২ বলে ১৭১ রানে মুম্বই অলআউট হয়ে যায়।

ম্যাচ শেষে রোহিত শর্মা জানান, 'শুভমান ছন্দে আছে। আশা করি ওর ছন্দ বজায় থাকবে। গুজরাতের এই জয়ের জন্য শুভমানকে শুভেচ্ছা।' মুম্বইকে পাঁচবার আইপিএল জেতালেও দেশের জার্সিতে আইসিসি ট্রফি জেতা হয়নি। এবার বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল জয়ের সুযোগ ভারতের কাছে। ঘরের মাঠে ওয়ানডে বিশ্বকাপ। সেই কারণেই শুভমানের ছন্দে থাকার প্রার্থনা করছেন রোহিত।

7 months ago
Shubman: মুম্বইয়ের ত্রাস অপ্রতিরোধ্য গিল, জানালেন জীবনের অন্যতম সেরা ইনিংস এটা

গুজরাতের (GT) বিরুদ্ধে অপ্রতিরোধ্য ইনিংস। বাউন্ডারি এবং ওভার বাউন্ডারি ছাড়া কথাই বললেন না তিনি। যেন একাই ধুয়ে দিলেন গোটা মুম্বইয়ের (MI) বোলারদের। আইপিএলের মরসুমে তৃতীয় সেঞ্চুরি। শুক্রবারের ম্যাচের পর থেকে একটাই নাম আলোচনার কেন্দ্রে। তিনি শুভমন গিল (Shubman Gill)। ৬০ বলে ১২৯ রান করেন তিনি। আর এটাই তাঁর আইপিএল কেরিয়ারের 'সম্ভবত' সেরা ইনিংস বলে মনে করেন শুভমন।

গুজরাত ওপেনার মনে করেন, তিনি তাঁর ব্যাটিংয়ে যে প্রযুক্তিগত পরিবর্তন এনেছেন, তা অনেক লাভ দিয়েছে। তিনি বলেন, 'গত ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর থেকে পরিস্থিতি বদলাতে শুরু করে। গত আইপিএলের আগে আমি চোট পেয়েছিলাম। কিন্তু, খেলাতেই ব্যস্ত থেকেছি, ব্যাটিং নিয়ে কাজ করে গিয়েছি। নিউজিল্যান্ড সিরিজের আগে ও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর কিছু প্রযুক্তিগত পরিবর্তন আনি।'

শুভমন শুক্রবারর ম্যাচ প্রসঙ্গে বলেন, 'প্রতিটা বল ধরে এগোচ্ছিলাম। পরিস্থিতি বোঝা খুব গুরুত্বপূর্ণ। এক ওভারে তিনটে ছয় মারার পরই উপলব্ধি করি, দিনটা আমার ছিল। পিচে ব্যাটারদের জন্য সুবিধা ছিল, আমি শুধু সেটাকে কাজে লাগানোর চেষ্টা করেছি।' তিনি আরও বলেন, ' নিজের ওপর বিশ্বাস রাখা খুব জরুরি।আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ভালো পারফর্ম করার পর আত্মবিশ্বাস ধরে রাখাটা আরও বেশি প্রয়োজন ছিল। সাফল্য অনেক কিছুর মিশ্রণে তৈরি।'

7 months ago