Breaking News
Tapas Roy: তৃণমূল ছাড়লেন তাপস রায়, বরাহনগরের বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা বর্ষীয়ান নেতার      Resign: হঠাৎ অবসর বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের, 'রাজনীতি যোগ' জল্পনা তুঙ্গে      Sandeshkhali: সন্দেশখালিতে ফের ফ্য়াক্ট ফাইন্ডিং টিম, শুনবে মহিলা ও বাসিন্দাদের কষ্টের কথা      BJP: প্রথম দফায় ১৯৫ প্রার্থীর নাম ঘোষণা বিজেপির, বাংলার ২০ জনের নাম তালিকায়      Modi: 'রামমোহনের আত্মা সন্দেশখালির মহিলাদের দুর্দশায় কাঁদছে', আরামবাগ থেকে মমতাকে তোপ মোদীর      Suspend: গ্রেফতারির পরেই তৃণমূল থেকে ছয় বছরের জন্য সাসপেন্ড সন্দেশখালির 'বেতাজ বাদশা' শাহজাহান      Sandeshkhali: নিরাপদ সর্দারকে নিঃশর্তে জামিন দিয়ে রাজ্য পুলিসকে তিরস্কার বিচারপতির      Sheikh Shahjahan: ঘর ভাঙচুর, টাকা লুঠ! শেখ শাহজাহানের বিরুদ্ধে নতুন এফআইআর সন্দেশখালি থানায়      Sandeshkhali: অজিত মাইতিকে তাড়া গ্রামবাসীদের, সাড়ে ৪ ঘণ্টা পর অবশেষে আটক পুলিসের      Ajit Maity: উত্তপ্ত সন্দেশখালি! অজিত মাইতির গ্রেফতারির দাবিতে বিক্ষোভ মহিলাদের, বাঁচতে সিভিকের বাড়িতে আশ্রয়     

ED

Dharmendra: 'নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি লিখেও জবাব পায়নি', কলকাতায় মন্তব্য শিক্ষামন্ত্রীর

বাংলায় চলা শিক্ষায় নিয়োগ দুর্নীতি-কাণ্ডে (Recruitment Scam) ব্যবস্থা নিতে আমি মুখ্যমন্ত্রীকে (CM Mamata) চিঠি লিখেছিলাম। কিন্তু এখনও সেই চিঠির কোনও জবাব পেলাম না। শুক্রবার দক্ষিণেশ্বর মন্দিরে দাঁড়িয়ে এই মন্তব্য করেন কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধান (Union Education Minister)। খড়গপুর আইআইটির অনুষ্ঠানে যোগদানের সঙ্গে বঙ্গ বিজেপি নেতৃত্ব সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি। এদিন সকাল শহরে পা রেখেই দক্ষিণেশ্বরে পুজো দিতে যান কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। এরপরেই মন্দিরে উপস্থিত সংবাদ মাধ্যমের সামনে শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন কেন্দ্রীয় শিক্ষা মন্ত্রী।

তিনি জানান, শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি-কাণ্ডে বাংলায় এতকিছু হয়ে গেল। কোটি কোটি টাকা নয়ছয় হয়েছে, বড় কর্তা, মন্ত্রী গ্রেফতার হওয়ার পরেও রাজ্য সরকার এখনও কুম্ভকর্ণের মতো ঘুমিয়ে যাচ্ছে। আর কত সময় লাগবে তরুণদের ন্যায় পেতে? এসব প্রশ্নের জবাব চেয়ে এবং মুখ্যমন্ত্রীকে ব্যবস্থা নিতে বলে একটা চিঠি পাঠিয়েছিলাম গত অগাস্ট মাসে। কিন্তু এখনও জবাব পাইনি।

তাঁর মন্তব্য, 'এই দুর্নীতি-কাণ্ডে মন্ত্রী, উপাছারজ-সহ সবাই জড়িত। এই দুর্নীতি-কাণ্ড মানুষের দরজা পর্যন্ত পৌঁছে গণতান্ত্রিক উপায়ে এই সরকারকে সরানোই লক্ষ্য।' কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর অভিযোগ, 'বাংলায় নানা খাতে পাঠানো কেন্দ্রীয় প্রকল্পের টাকা নিয়েও দুর্নীতি হয়, সরকার আর পার্টি এক হয়ে যায়। এমনকি, সর্বশিক্ষা অভিযানের টাকাতেও নয়ছয় লক্ষ্য করা গিয়েছে।'

যদিও কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর এই দাবি সর্বৈব মিথ্যা এই দাবি করে কুণাল ঘোষের প্রস্তাব, 'ধর্মেন্দ্র প্রধান ব্যাপম কেলেঙ্কারিতে বিদ্ধ মধ্যপ্রদেশ কিংবা সরকারি সিদ্ধান্তে ১০ হাজার শিক্ষকের চাকরি চলে যাওয়া ত্রিপুরায় গিয়ে এসব বলুন। ডবল ইঞ্জিন সরকার যেখানে যেখানে ইন্যম করেছে সেখানে যান।  বাংলার শিক্ষাব্যবস্থা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আমলে অনেক উন্নতি করেছে। কেন্দ্রীয় রিপোর্ট বলছে। ধর্মেন্দ্র প্রধান সত্যের অপলাপ করেছেন।' কুণাল ঘোষের কটাক্ষ, 'অযোগ্য বঙ্গ বিজেপির নেতারা নিজেদের দুর্বলতা ঢাকতে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে ভুল তথ্য দিয়ে ভুল বলান। ধর্মেন্দ্র প্রধানজি ভালো করে খোঁজ নিক।

one year ago
NIA: দেশবিরোধী কাজে লিপ্ত থাকার অভিযোগ, পিএফআই-র পার্ক সার্কাসের অফিসে এনআইএ তল্লাশি

নাশকতামূলক কাজে যুক্ত থাকার অভিযোগে দেশজুড়ে পপুলার ফ্রন্ট অফ ইন্ডিয়া বা পিএফআই-র (PFI) একাধিক জায়গায় তল্লাশি অভিযান। এনআইএ (NIA) সূত্রে খবর, তিলজলা রোডের এই বাড়ির তিনতলায় একটি কল সেন্টার রয়েছে। সেখানে ইন্টারনেট প্রটোকল সিস্টেম বা আইপিএস ব্যবহার করে, কাদের ফোন করা হত, তা খতিয়ে দেখছে এনআইএ। কলকাতা (Kolkata) থেকেই কি দেশজুড়ে নাশকতার ঘটনায় আর্থিক মদত পিএফআই-র। খতিয়ে দেখার চেষ্টা করছে জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা বা এনআইএ।

এনআইএ সূত্রে খবর, দেশজুড়ে বিভিন্ন হিংসায় মদতের অভিযোগ রয়েছে পপুলার ফ্রন্ট অফ ইন্ডিয়ার বিরুদ্ধে। শুধু কলকাতা নয় কেরল,কর্ণাটক,তামিলাড়ুতে চলছে তল্লাশি অভিযান। বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা নাগাদ তিলজলা রোডের শেখ মোখতারের বাড়িতে যৌথ অভিযানে আসে আসে এনআইএ এবং ইডি। ৫৯-সি তিলজলা রোডের এই বহুতলের চার তলায় বাড়ি রয়েছে শেখ মোখতারের। তিন তলায় অফিস পলুপার ফ্রন্টের। শেখ মোখতারের বাড়িতে তল্লাশির পাশাপাশি চলছে জিজ্ঞাসাবাদ।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক সূত্রে খবর, পপুলার ফ্রন্ট অফ ইন্ডিয়ার সঙ্গে দেশ বিরোধী কার্যকলাপে যুক্ত থাকার অভিযোগ রয়েছে। সেই সূত্র ধরেই সকাল থেকে পার্ক সার্কাস চার নম্বর ব্রিজের কাছে শেখ মোখতারের বাড়িতে তল্লাশি অভিযান এনআইএ-র।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, এখানে একটি কল সেন্টার রয়েছে। বেশ কিছু মানুষের আনাগোনা দেখা যেত এই বিল্ডিংয়ে। ইতিমধ্যে দেশব্যাপী তল্লাশি অভিযানে একাহদিক ব্যক্তিকে আটক করেছে জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা। পার্ক সার্কাসের বিল্ডিংয়ে তল্লাশি চলাকালীন বাইরে মোতায়েন বিশাল সংখ্যক সিআরপিএফ।

one year ago
Delhi: ঘুমন্ত অবস্থায় ফুটপাথবাসীদের পিষলো বেপরোয়া ট্রাক, সীমাপুরীতে মৃত অন্তত ৪

ঘুমন্ত অবস্থায় ফুটপাথবাসীদের পিষে দিল বেপোরোয়া ট্রাক (truck)। মর্মান্তিক এই পথ দুর্ঘটনায় (Road Accident) মৃত্যু হয়েছে কমপক্ষে ৪ জনের। জানা গিয়েছে, বেশ কয়েকজন ফুটপাথের উপর শুয়েছিলেন। তখনই একটি ট্রাক চলে যায় তাঁদের উপর দিয়ে। ২ জনের ঘটনাস্থলেই মৃত্যু (Death) হয়। আর একজন  চিকিৎসা চলাকালীন মারা গিয়েছে। বাকি ৩ জনের অবস্থা অত্যন্ত আশঙ্কাজনক বলে জানা গিয়েছে। ঘটনাটি ঘটে রাজধানী দিল্লির (Delhi) সীমাপুরী এলাকায়।

জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার রাত দু'টো নাগাদ রাস্তার ডিভাইডারে লাইন দিয়ে শুয়ে ঘুমোচ্ছিলেন ফুটপাথবাসী। তখনই প্রচণ্ড গতিতে আসা একটি ট্রাক পিষে দেয় তাঁদের। সিসিটিভি ফুটেজে দেখা গিয়েছে, ঠিক রাত ১টা ৫১ মিনিটে সীমাপুরীর ডিটিসি ডিপো রেডলাইটের কাছে ঘটনাটি ঘটে।

ট্রাকটি না দাঁড়িয়ে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। এখনও অবধি হদিশ মেলেনি ট্রাক ও ট্রাক চালকের। ইতিমধ্যে দিল্লি পুলিস ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

one year ago


Raju Srivastav: দীর্ঘ লড়াই শেষে থেমে গেল হাসি, প্রয়াত কৌতুকশিল্পী রাজু শ্রীবাস্তব

দীর্ঘ লড়াইয়ের পর থেমে গেল হাসি। হাসপাতালেই শেষনিঃশ্বাস (Death) ত্যাগ করলেন ৫৮ বছর বয়সী হাসির জাদুকর। শেষবেলায় ভক্তদের কাঁদিয়ে বুধবার না ফেরার দেশের চলে গেলেন জনপ্রিয় স্ট্যান্ডআপ কমেডিয়ান (Comedian) তথা অভিনেতা রাজু শ্রীবাস্তব (Raju Srivastav)। তাঁর প্রয়াণে শোকস্তব্ধ গোটা বলিউড থেকে দেশবাসী।

গত ১০ অগাস্ট জিমে ওয়ার্কআউট করতে গিয়ে হার্ট অ্যাটাকের (Heart Attack) শিকার হয়েছিলেন রাজু। ট্রেডমিলে ওয়ার্কআউট করার সময় আচমকা বুকে ব্যথা শুরু হয়েছিল কৌতুকশিল্পীর। তারপরেই সেখানে অজ্ঞান হয়ে যান। জিমের প্রশিক্ষক তড়িঘড়ি দিল্লির এইমস হাসপাতালে নিয়ে যান।কোটি কোটি ভক্তের প্রার্থনা ও চিকিৎসকদের অক্লান্ত পরিশ্রমে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার  ১৫দিন পর সাড়া দিয়েছিলেন।  কিন্তু শেষরক্ষা হল না।

১৯৬৩ সালের ২৫ ডিসেম্বর কানপুরে জন্ম হয় শ্রীবাস্তবের। বাবা রমেশচন্দ্র শ্রীবাস্তব ছিলেন কানপুরের প্রখ্যাত কবি। ছেলের নাম তিনি রেখেছিলেন সত্যপ্রকাশ শ্রীবাস্তব। কিন্তু রাজু নামেই সকলে ডাকতেন। ছোটবেলা থেকেই মানুষজনের নকল করতে পারতেন। যে কোনও উপায়ে কাউকে হাসিয়ে দিতে পারতেন। কমেডিয়ান হওয়ার স্বপ্ন দেখতেন রাজু। আর সেই স্বপ্ন পূরণ করতেই পাড়ি দিয়েছিলেন আরব সাগরের তীরে।

উল্লেখ্য, রাজু শ্রীবাস্তব উত্তরপ্রদেশের ফিল্ম বিকাশ পরিষদের চেয়ারম্যান। তাঁর পরিচিতি 'গ্রেট ইন্ডিয়ান লাফটার চ্যালেঞ্জ' থেকে। তাঁকে দেখা গিয়েছিল হৃত্বিক রোশনের সঙ্গে 'ম্যায় প্রেম কি দিওয়ানি হু' ছবিতে। এছাড়াও বম্বে টু গোয়া, বাজিগর, আমদানি আঠানি খরচা রুপাইয়া ছবিতে। এছাড়াও বিগ বসের মত রিয়্যালিটি শো-এর তৃতীয় সিজনেও ছিলেন তিনি। এছাড়াও কমেডি নাইটস উইথ কপিল', 'মজাক মজাক ম্যয়' একাধিক কমেডি শো করেছেন এই কমেডিয়ান।

one year ago
ED: পার্থ-অর্পিতার নামে প্রায় দেড় কোটির জীবন বিমা! প্রিমিয়াম ভরতেন প্রাক্তন মন্ত্রী: ইডি

পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের (Partha-Arpita) নামে দেড় কোটি টাকার জীবন বিমার (Life Insurance) হদিশ পেয়েছে ইডি। চার্জশিটে সেই প্রসঙ্গ উল্লেখ করেছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা (ED)। মোট ৩১টি জীবন বিমা রয়েছে এই দু'জনের নামে। যার এক একটির বার্ষিক প্রিমিয়াম প্রায় ৫০ হাজার টাকা। এই দাবি করেছে নিয়োগ দুর্নীতি-কাণ্ডের অন্যতম তদন্তকারী সংস্থা ইডি। গ্রেফতারির সময় পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের থেকে বাজেয়াপ্ত মোবাইল ঘেঁটেই এই তথ্য পেয়েছে ইডি।

কোর্টের নির্দেশে সেই মোবাইল এখন ফরনেসিক পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। এদিকে, বুধবার শেষ প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রীর সিবিআই হেফাজত। তাই মঙ্গলবার তাঁকে নিজাম প্যালেস থেকে বের করে শারীরিক পরীক্ষার জন্য নিয়ে যাওয়া হয় জোকা ইএসআই হাসপাতালে।

 এদিকে, নিয়োগ দুর্নীতি কাণ্ডের তদন্তে ৫৮ দিনের মাথায় পার্থ-অর্পিতার বিরুদ্ধে চার্জশিট জমা ইডির। জানা গিয়েছে, নিয়োগ দুর্নীতি এবং অর্পিতার দুই ফ্ল্যাট মিলিয়ে ৫০ কোটি টাকা উদ্ধারের ঘটনায় রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রীকে মূল অভিযুক্ত হিসেবে দেখানো হয়েছে। নাম রয়েছে প্রাক্তন মন্ত্রী ঘনিষ্ঠ অর্পিতা মুখোপাধ্যায়েরও। এই দুজনের নামে ছয়টি সংস্থার হদিশ পেয়েছে কেন্দ্রীয় সংস্থা। এই দু'জনের প্রায় ১০৩ কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত হয়েছে। সোমবার ব্যাঙ্কশাল কোর্টে জমা করা চার্জশিটে দাবি করেছে ইডি। ১৭২ পাতার এই চার্জশিটে ৪২ জন সাক্ষীর নাম উল্লেখ করেছে ইডি।

ইতিমধ্যে ২২ জুলাই দিনভর পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের বাড়িতে তল্লাশি চালায় ইডি। এই তদন্তে অর্পিতার টালিগঞ্জ এবং বেলঘরিয়ার ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হয়েছে ৫০ কোটি টাকা নগদ-সহ সোনার গয়না এবং বিদেশি মুদ্রা। গত প্রায় দু'মাস তদন্ত চালিয়ে পার্থ এবং অর্পিতার একাধিক সম্পত্তির হদিশ পেয়েছে ইডি। কয়েক কোটি টাকার এলআইসি পেপার বাজেয়াপ্ত করেছে কেন্দ্রীয় এই তদন্তকারী সংস্থা। নিয়োগ দুর্নীতির টাকায় এই সম্পত্তি কিনা খতিয়ে দেখেই চার্জশিট জমা ইডির।

one year ago


Uttar Pradesh: টয়লেটের মেঝেতে রাখা প্লেটভর্তি ভাত পরিবেশন কবাডি খেলোয়াড়দের, ভাইরাল ভিডিও

অভাবনীয়! স্থানীয় স্পোর্টস কমপ্লেক্সের ( local sports complex) একটি টয়লেটের (toilet) মেঝেতে কাবাডি খেলোয়াড়দের খাবার পরিবেশন করার ভিডিও ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়। ভিডিও প্রকাশ্যে আসতেই এবং রিপোর্ট পাওয়ার পরও উত্তরপ্রদেশ (Uttar Pradesh) সরকার সাহারানপুরের (Saharanpur) জেলার ক্রীড়া কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করেছে।

ভিডিওতে দেখা গিয়েছে,  রান্না করা ভাত ভর্তি একটি বড় প্লেট সাহারানপুরের ডঃ ভীমরাও স্পোর্টস স্টেডিয়ামের একটি টয়লেট কমপ্লেক্সের মেঝেতে রাখা হয়েছিল। সেই রান্না করা ভাত পরে তিন দিনের রাজ্য-স্তরের অনূর্ধ্ব ১৭ মেয়েদের কাবাডি টুর্নামেন্টে অংশ নেওয়া প্রায় ২০০ জন খেলোয়াড়কে পরিবেশন করা হয়েছিল।

সাহারানপুর জেলা ম্যাজিস্ট্রেট অখিলেশ সিং বলেছেন, খেলোয়াড়দের পরিবেশন করা খাবারের বিষয়ে অনিয়ম প্রকাশ্যে এসেছে। যেকারণে জেলা ক্রীড়া কর্মকর্তা অনিমেশ সাক্সেনাকে বরখাস্ত করা হয়েছে। এই বিষয়টি তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এবং দুই-তিন দিনের মধ্যে একটি প্রতিবেদনও জমা দেওয়া হবে বলে তিনি জানান।

যদিও সাহারানপুর জেলা ক্রীড়া আধিকারিক অনিমেশ সাক্সেনা এর স্বপক্ষে যুক্তি দেখিয়েছেন, বৃষ্টির কারণে খাবারগুলি সুইমিং পুলের সংলগ্ন একটি চেঞ্জিং রুমে রাখা হয়েছিল। তিনি দাবি করেন, স্টেডিয়ামে নির্মাণ কাজ চলমান থাকায় চেঞ্জিং রুমে খেলোয়াড়দের খাবার রান্নার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

one year ago
Chandigarh: বিশ্ববিদ্যালয় এমএমএস-কাণ্ডে মূল অভিযুক্তকে স্নানের ভিডিও বানানোর হুমকি প্রেমিকের

চণ্ডীগড় বিশ্ববিদ্যালয়ের (Chandigarh University) ছাত্রীদের স্নানের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় (Social Media) ফাঁস কাণ্ডে উঠে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য। অভিযোগ, ভিডিও করার জন্য ধৃত ছাত্রীকে ব্ল্যাকমেল করত তাঁরই প্রেমিক ও বন্ধু। একপ্রকার বাধ্য হয়েই সহপাঠীদের স্নানের ভিডিও করত ছাত্রী। তিনজনই বর্তমানে পুলিসি হেফাজতে রয়েছে। এ ঘটনার প্রতিবাদে শনিবার গভীর রাতে থেকেই বিপুল সংখ্যক পড়ুয়া বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ অবস্থান শুরু করেন।

এই ঘটনার প্রতিক্রিয়া জানিয়ে পঞ্জাবের (Punjab) স্কুল শিক্ষামন্ত্রী এইচএস বেইনস চণ্ডীগড় বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীদের শান্ত থাকার আবেদন জানিয়েছেন। এবং তাঁদের আশ্বস্ত করেছেন যে, দোষীদের রেহাই দেওয়া হবে না।

রিপোর্ট অনুযায়ী, ওই অভিযুক্ত ছাত্রী তাঁর সহকর্মী, হস্টেল সঙ্গীদের ভিডিও তৈরি করে হিমাচল প্রদেশের সিমলায় থাকা তাঁর প্রেমিকের কাছে পাঠাতেন। তিনি ইন্টারনেটে এমএমএস ক্লিপগুলি আপলোড করেছিলেন বলে অভিযোগ। স্নান করার ক্লিপ অনলাইনে প্রকাশিত হলে ছাত্রীরা কান্নায় ভেঙে পড়েন। কে এই কাজ করেছেন তা বুঝে উঠতে পারছিলেন না।

এই ঘটনায় কয়েকজন ছাত্রী আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিল বলে খবর পাওয়া গিয়েছে। যদিও চণ্ডীগড় বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র কল্যাণ আধিকারিক জানিয়েছেন, কোনও আত্মহত্যার চেষ্টা করা হয়নি। "শুধুমাত্র একটি মেয়ে অজ্ঞান হয়ে গিয়েছিল। তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল এবং এখন স্থিতিশীল। বিষয়টি সাইবার ক্রাইম শাখাকে জানানো হয়েছে।"

প্রসঙ্গত, ঘটনার পর থেকেই উত্তাল চণ্ডীগড় বিশ্ববিদ্যালয়। অশান্তি এড়াতে ৬ দিন বিশ্ববিদ্যালয়ে বন্ধ থাকবে পঠনপাঠন। এছাড়া পড়ুয়াদের সুরক্ষার স্বার্থে হস্টেল নিয়ে একাধিক পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। হস্টেল ওয়ার্ডেনদের বদলি করা হচ্ছে, বদলে যাচ্ছে হস্টেলে ঢোকা-বেরনোর সময়ও।

one year ago
Suvendu: সিবিআই-ইডির বিরুদ্ধে বিধানসভায় প্রস্তাব, 'সম্পূর্ণ বেআইনি পন্থা', শুভেন্দুর খোঁচা

কেন্দ্রীয় এজেন্সি ইডি-সিবিআইয়ের (CBI ED) অতিসক্রিয়তার অভিযোগে বঙ্গ বিধানসভায় পাশ হয়েছে প্রস্তাব।  মমতা সরকারের এই পদক্ষেপের সমালোচনায় সরব রাজ্যের প্রধান বিরোধী দল বিজেপি। বিরোধী দলনেতা বিধানসভায় (Bengal Assembly) জানান, ২০২১-র ৫ মে'র পর থেকে যে ক'টা সিবিআই তদন্ত বাংলায় চলছে, তার সঙ্গে কেন্দ্রীয় সরকার (Modi Government) বা বিজেপির ভূমিকা নেই। সব কোর্ট নির্দেশে তদন্ত চলছে। আমি শাসক দলকে প্রশ্ন করেছিলাম, বাংলায় বাগযুদ্ধ না করে সুপ্রিম কোর্টে (Supreme Court) কেন যাননি? রামপুরহাট, ঝালদা, হাঁসখালি-কাণ্ডে সুপ্রিম কোর্টে যেতে পারতেন। আসলে ডাল মে কুছ কালা হে, তাই ওরা যেতে পারেননি।

তিনি বলেন, 'সুপ্রিম কোর্ট কোনও রায় দিলে, সেটা দেশে রুল হিসেবে কার্যকর হয়। কার্তি চিদম্বরমের মামলায় জুলাই মাসে সুপ্রিম কোর্ট আর্থিক তছরূপ মামলায় ইডির কর্মপদ্ধতিতে সিলমোহর বসিয়েছে। রাজ্যের বিধানসভায় যেভাবে ইডির বিরুদ্ধে প্রস্তাব গৃহীত হয়েছে, সেটা সম্পূর্ণ বেআইনি। আমি অধ্যক্ষকে বলেছি আপনি যেভাবে প্রস্তাব গ্রহণ করালেন, সেটা পরে আদালতে চ্যালেঞ্জ হতে পারে।' 

এদিন বিরোধী দলনেতা বলেন, 'লালকেল্লাতে ভাষণ থেকে দুর্নীতি বিরুদ্ধে মোদীজি যে কথা বলেছেন, সেটা বাংলাকে উদ্দেশ্য করেই। প্রধানমন্ত্রী তো উনার মতো (পড়ুন মুখ্যমন্ত্রী) নিচে নামতে পারবেন না। তাই বুঝিয়ে দিয়েছেন দুর্নীতির বিরুদ্ধে তাঁর সরকারের জিরো টলারেন্স নীতি। আর ২০১৮ সালে সিবিআই তদন্তের ক্ষেত্রে রাজ্য সরকারের অনুমোদনের বিষয়টা মুখ্যমন্ত্রী প্রত্যাহার করেন।'

তিনি জানান, আমাদের অন্য বিধায়করা বিধানসভায় সোচ্চার হয়েছিলেন, যে চোরেদের যারা বীরের সম্মান দেয়, তার চেয়ে লজ্জার আর কিছু নেই। বিজেপি বিধায়ক শঙ্কর ঘোষ বলেছেন সিবিআইয়ের অধিকর্তা নিয়োগে কোনও রাজনৈতিক হস্তক্ষেপ থাকে না। নির্বাচক কমিটিতে সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি থাকেন।'

one year ago


Assembly: মমতার মুখে মোদী স্তুতি, বললেন,'ইডি-সিবিআইয়ের অতিসক্রিয়তায় প্রধানমন্ত্রীর সমর্থন নেই'

সোমবার বিধানসভায় (Assembly) পাশ হয়েছে সিবিআই-ইডির (CBI ED) 'অতিসক্রিয়তায়' অভিযোগে আনা নিন্দা প্রস্তাব। এই প্রস্তাবের পক্ষে ভোট পড়েছে ১৮৯টি এবং বিপক্ষে ভোট পড়েছে ৬৪টি। এদিন বিধানসভায় উপস্থিত ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (CM Mamata) এবং বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। প্রস্তাবের পক্ষে বলতে উঠে মুখ্যমন্ত্রীর মুখে প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা শোনা গিয়েছে। ইডি-সিবিআই যখন, তখন যার তাঁর বাড়ি চলে যাচ্ছে। এই কাজে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর (PM Modi) সমর্থন নেই। বিজেপি নেতারা এসব করাচ্ছে। কেন্দ্রীয় এজেন্সি দিয়ে ধমকানো-চমকানোর চেষ্টা করছে। তিনি জানান সিবিআই-ইডির অতি সক্রিয়তার বিরুদ্ধে আনা নিন্দা প্রস্তাব আদতে কেন্দ্রীয় সংস্থার নিরপেক্ষতা চেয়ে সওয়াল।

বিধানসভায় দাঁড়িয়ে বিজেপির উদ্দেশ্যে এদিন আর কী বললেন মুখ্যমন্ত্রী? 

বাংলার সরকার স্বাধীনচেতা সরকার, চোরের মায়ের বড় গলা

কী দেশ ছিল কী হয়েছে, দু'লাইন পড়তে পারেন না 

শুধু বলেন দেখে নেবো, ২০২৪-এ একেবারে যাবে

গেরুয়া বসন পরে, টাকার পাহাড়ে বসে আছেন

সারদা, নারদায় সুব্রত দা, ববি সবার বাড়িতে অভিযান হয়েছে

বিজেপি আজ ক্ষমতায় আছো, তাই তুমি আজ সাধু হয়েছো

তিন-চার মাসে ১০৮ টা কেস করেছে কেন্দ্রীয় এজেন্সি

ব্যবসায়ীরা পালিয়ে যাচ্ছে, আর এদিকে সকালে নোটিশ, বিকেলে...

নোটিশ, আমি বিশ্বাস করি না নরেন্দ্র মোদী এসব করেছেন বা উনার সমর্থন রয়েছে

বিজেপির নেতারা করাচ্ছেন, আপনারা বুনো ওল হলে, আমরা বাঘা তেঁতুল

২৪-এ কেন্দ্রের বিজেপি সরকার পগারপার, মহারাষ্ট্রে টাকা দিয়ে সরকার ভাঙলেন কোথায় পেলেন এত টাকা?

সব লুটেছে, সরকার ভাঙছে টাকা দিয়ে, আর আপনারা সাধু?

বাংলার জনগণের টাকা, বাংলা থেকে তুলে নিয়ে যাচ্ছো

এরা গান্ধীজির নাম বলে না, প্রধানমন্ত্রীকে সম্মান করে বলছি 

প্রধানমন্ত্রীজি এদের সামলান, গণতন্ত্রের ৩টে হাতিয়ার কব্জা করার চেষ্টা হচ্ছে

সংবাদ ব্যবস্থা, বিচারসভা এবং জনগণ, নোবেল প্রাইজ উদ্ধার করতে পেরেছে সিবিআই? নেতাই পেরেছে? ওদের সাকসেস রেট খুব খারাপ 

one year ago
Patna: বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়াদের সঙ্গে স্থানীয়দের সংঘর্ষ, চললো গুলি- দেদার পাথরবাজি

রবিবার স্থানীয়দের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন পাটনা বিশ্ববিদ্যালয়ের (Patna University) তিন ছাত্র। এরপর বুলেটবিদ্ধ হয়েছেন তিন জনই। পুলিস জানিয়েছে, উভয়পক্ষ থেকেই কয়েক রাউন্ড গুলি ছোঁড়া হয়েছে।  যদিও পড়ুয়ারা এ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছেন, তাঁরা গুলি চালাননি।

ঘটনাটি ঘটেছে, পাটনা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে আম্বেদকর হস্টেলের পড়ুয়া এবং সুলতানগঞ্জ এলাকার স্থানীয়দের মধ্যে। এতে উভয়পক্ষের লোকজন আহত হয়। দু'পক্ষই দুটি এফআইআর দায়ের করে।

স্থানীয় বাসিন্দা ও আম্বেদকর হস্টেলের ছাত্রদের মধ্যে প্রথমে কথা কাটাকাটি শুরু হয়। এরপর ঝগড়া এমন পর্যায়ে পৌঁছয় দুই গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষ  বেঁধে যায়। এরপর পাথর ছোড়াছুঁড়ি শুরু হয়, তারপর গুলি।

ছাত্রাবাসের গুলিবিদ্ধ তিন পাটনা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। পাটনার এসএসপি মানবজিৎ সিং ধিলোন বলেছেন, ঘটনাস্থলে পুলিসবাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে এবং বিষয়টি তদন্ত করছে। তিনি বলেন, বর্তমানে পরিবেশ শান্ত রয়েছে।

one year ago


Saigal: গরু পাচারে এবার সায়গলের মা-স্ত্রীকে দিল্লিতে তলব ইডির, কোর্টে যেতে পারে পরিবার

গরু পাচার মামলায় এবার সায়গল হোসেনের (Saigal Hossain) মা এবং স্ত্রীকে তলব করল ইডি (ED)। এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের দিল্লির সদর দফতরে তাঁদের তলব করা হয়েছে।  গরু পাচার-কাণ্ডের (Cow Smuggling Case) তদন্তে অনুব্রত মণ্ডলের দেহরক্ষী সায়গল হোসেনের নামে বিপুল সম্পত্তি পাওয়া গিয়েছে। সম্পত্তি রয়েছে তাঁর মা এবং স্ত্রীয়ের নামে। সেই সম্পত্তি সংক্রান্ত যে নথি অর্থাৎ আয়ের উৎস, এত সম্পত্তির মালিকানা তাঁরা কী ভাবে হলেন? পাশাপাশি এই সম্পত্তির হস্তান্তর বা হাত বদল সংক্রান্ত তথ্য জানতেই ইডির এই তলব।

যদিও সায়গলের পরিবার সূত্রে খবর, ইডি নোটিসকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হতে চলেছে তাঁরা। এর আগে সায়গলকে নিজেদের হেফাজতে নেওয়ার জন্য দিল্লির কোর্টে তারা আবেদন জানিয়েছিল। কিন্তু সেই আবেদন খারিজ হয়েছে। এবার তাই তাঁর পরিবারের দুই সদস্যকে দিল্লির  সদর দফতরে ডেকে পাঠাল ইডি।

এদিকে, নিয়োগ দুর্নীতি কাণ্ডের তদন্তে ৫৮ দিনের মাথায় পার্থ-অর্পিতার বিরুদ্ধে চার্জশিট জমা ইডির। জানা গিয়েছে, নিয়োগ দুর্নীতি এবং অর্পিতার দুই ফ্ল্যাট মিলিয়ে ৫০ কোটি টাকা উদ্ধারের ঘটনায় রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রীকে মূল অভিযুক্ত হিসেবে দেখানো হয়েছে। নাম রয়েছে প্রাক্তন মন্ত্রী ঘনিষ্ঠ অর্পিতা মুখোপাধ্যায়েরও। এই দু'জনের প্রায় ১০৩ কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত হয়েছে। সোমবার ব্যাঙ্কশাল কোর্টে জমা করা চার্জশিটে দাবি করতে পারে ইডি। এমনটাই সূত্রের খবর।

ইতিমধ্যে ২২ জুলাই দিনভর পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের বাড়িতে তল্লাশি চালায় ইডি। এই তদন্তে অর্পিতার টালিগঞ্জ এবং বেলঘরিয়ার ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হয়েছে ৫০ কোটি টাকা নগদ-সহ সোনার গয়না এবং বিদেশি মুদ্রা। গত প্রায় দু'মাস তদন্ত চালিয়ে পার্থ এবং অর্পিতার একাধিক সম্পত্তির হদিশ পেয়েছে ইডি। কয়েক কোটি টাকার এলআইসি পেপার বাজেয়াপ্ত করেছে কেন্দ্রীয় এই তদন্তকারী সংস্থা। নিয়োগ দুর্নীতির টাকায় এই সম্পত্তি কিনা খতিয়ে দেখেই চার্জশিট জমা ইডির।

one year ago
SSC: 'আমার দায় নেই, দফতর কর্তাদের বিশ্বাস করতাম', নিয়োগ-কাণ্ডে সিবিআইকে জানালেন পার্থ

সিবিআই হেফাজতে (CBI Custody) থাকা পার্থ  চট্টোপাধ্যায়কে (Parth Chatterjee) ৫ ঘন্টা জিজ্ঞাসাবাদ করেন গোয়েন্দারা। সেখানে তিনি বিস্ফোরক মন্তব্য করেন এবং নিয়োগ দুর্নীতি-কাণ্ডের (Recruitment Scam) দায় এড়ান তিনি। শিক্ষা দফতরের আধিকারিকদের অন্ধ বিশ্বাস করেছিলাম। সিবিআই জেরায় এই মন্তব্য করেছেন তিনি। সূত্রের খবর তিনি জানান, শিক্ষা দফতর (Eductaion Scam) থেকে যে ফাইল আসতো শুধুমাত্র সেই ফাইলে সই করতাম। তাই দফতরের করা কোনও দুর্নীতির দায়ভার নিতে তিনি রাজি নয়।

পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের এই স্বীকারোক্তির পরেই শিক্ষা দফতরের আধিকারিকদের তলব করে জিজ্ঞাসাবাদ করতে চায় সিবিআই। প্রয়োজনে প্রাক্তন মন্ত্রীর মুখোমুখি বসিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের সম্ভাবনা।

এদিকে, নিয়োগ দুর্নীতিতে পার্থ-অর্পিতা গ্রেফতারের প্রায় ৬০ দিনের মাথায় চার্জশিট জমা দেবে ইডি। জানা গিয়েছে, নিয়োগ দুর্নীতি এবং অর্পিতার দুই ফ্ল্যাট মিলিয়ে ৫০ কোটি টাকা উদ্ধারের ঘটনায় রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রীকে মূল অভিযুক্ত হিসেবে দেখানো হতে পারে।  সোমবার ব্যাঙ্কশাল কোর্টে চার্জশিট জমা দেবে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা।

ইতিমধ্যে ২২ জুলাই দিনভর পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের বাড়িতে তল্লাশি চালায় ইডি। এই তদন্তে অর্পিতার টালিগঞ্জ এবং বেলঘরিয়ার ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হয়েছে ৫০ কোটি টাকা নগদ-সহ সোনার গয়না এবং বিদেশি মুদ্রা। গত প্রায় দু'মাস তদন্ত চালিয়ে পার্থ এবং অর্পিতার একাধিক সম্পত্তির হদিশ পেয়েছে ইডি। কয়েক কোটি টাকার এলআইসি পেপার বাজেয়াপ্ত করেছে কেন্দ্রীয় এই তদন্তকারী সংস্থা। নিয়োগ দুর্নীতির টাকায় এই সম্পত্তি কিনা খতিয়ে দেখেই চার্জশিট জমা ইডির।

one year ago
APA: 'পার্থ-অর্পিতার ১০৩ কোটি টাকার সম্পত্তির হদিশ', নিয়োগ দুর্নীতির চার্জশিটে দাবি ইডির

নিয়োগ দুর্নীতি কাণ্ডের তদন্তে ৫৮ দিনের মাথায় পার্থ-অর্পিতার বিরুদ্ধে চার্জশিট জমা ইডির। জানা গিয়েছে, নিয়োগ দুর্নীতি এবং অর্পিতার দুই ফ্ল্যাট মিলিয়ে ৫০ কোটি টাকা উদ্ধারের ঘটনায় রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রীকে মূল অভিযুক্ত হিসেবে দেখানো হয়েছে। নাম রয়েছে প্রাক্তন মন্ত্রী ঘনিষ্ঠ অর্পিতা মুখোপাধ্যায়েরও। এই দুজনের নামে ছয়টি সংস্থার হদিশ পেয়েছে কেন্দ্রীয় সংস্থা। এই দু'জনের প্রায় ১০৩ কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত হয়েছে। সোমবার ব্যাঙ্কশাল কোর্টে জমা করা চার্জশিটে দাবি করেছে ইডি। ১৭২ পাতার এই চার্জশিটে ৪২ জন সাক্ষীর নাম উল্লেখ করেছে ইডি।

ইতিমধ্যে ২২ জুলাই দিনভর পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের বাড়িতে তল্লাশি চালায় ইডি। এই তদন্তে অর্পিতার টালিগঞ্জ এবং বেলঘরিয়ার ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হয়েছে ৫০ কোটি টাকা নগদ-সহ সোনার গয়না এবং বিদেশি মুদ্রা। গত প্রায় দু'মাস তদন্ত চালিয়ে পার্থ এবং অর্পিতার একাধিক সম্পত্তির হদিশ পেয়েছে ইডি। কয়েক কোটি টাকার এলআইসি পেপার বাজেয়াপ্ত করেছে কেন্দ্রীয় এই তদন্তকারী সংস্থা। নিয়োগ দুর্নীতির টাকায় এই সম্পত্তি কিনা খতিয়ে দেখেই চার্জশিট জমা ইডির। 

এদিকে, ২১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সিবিআই হেফাজত। নিয়োগ দুর্নীতি-কাণ্ডে এই কেন্দ্রীয় সংস্থার হাতে ইতিমধ্যে তিন প্রাক্তন শিক্ষাকর্তা গ্রেফতার হয়েছেন। তাঁদের সঙ্গে প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রীকে মুখোমুখি বসিয়ে জেরা করতেই পার্থকে নিজেদের হেফাজতে নিয়েছে সিবিআই।

অপরদিকে, গত দু'মাসে একাধিকবার অসুস্থতার যুক্তি দেখিয়ে জামিনের আবেদন করেন পার্থ চট্টোপাধ্যায় কিন্তু প্রতিবার সেই আবেদন খারিজ করে দিয়েছে আদালত।

one year ago


Birbhum: বিশ্বকর্মা পুজো দেখতে গিয়েই বিপত্তি, যৌননিগ্রহের শিকার এক দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্রী

নৃশংস ঘটনা, ঠাকুর দেখতে গিয়ে যৌননিগ্রহের (sexually assaulted) শিকার নাবালিকা! শনিবার ছিল বিশ্বকর্মা পুজো (Vishwakarma Puja)। সেই উপলক্ষে বীরভূমের (Birbhum) নানুর থানার অন্তর্গত সাঁওতা গ্রামের এক নাবালিকা তার বন্ধু-বান্ধবীদের সঙ্গে বাড়ি থেকে বের হয় ঠাকুর দেখার জন্য। ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়।

পরিবার সূত্রে খবর, বন্ধুরা সবাই মিলে কীর্ণাহারে যায় ঠাকুর দেখতে। দ্বাদশ শ্রেণীর ওই ছাত্রী দুপুরে বেরিয়ে বিকাল পর্যন্ত বাড়ি না ফেরায় বাড়ির লোকজন তার সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্ঠা করে। ফোনে ছাত্রী জানায় দ্রুত ফিরে আসছে সে।  কিন্তু এরপর রাত হলেও ওই নাবালিকা বাড়ি ফেরেনি। এরই মধ্যে রবিবার সকালে  রক্তাক্ত এবং সারা শরীরের জামা ছেঁড়া অবস্থায় বাড়ি ফেরে ওই নাবালিকা। তার এই অবস্থা দেখে নাবালিকার মা তাকে বকাবকি শুরু করেন। সহ্য করতে না পেরে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যার পথ বেছে নেয় সে। এরপরই তৎক্ষণাৎ তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পাশাপাশি থানায় অভিযোগ জানানো হয়।

ওই নাবালিকা বাড়ি ফিরে তার পরিবারের সদস্যদের জানিয়েছে, সন্ধ্যাবেলায় সে যখন বাড়ি ফিরছিল, সেই সময় চারজন তার পথ আটকায়। এরপর তাকে তুলে নিয়ে যায়। তাকে কিছু খাইয়ে দেওয়া হয় এবং সে অজ্ঞান হয়ে যায়। সকালবেলায় যখন তার চেতন ফেরে তখন একটি জায়গায় নিজেকে শুয়ে থাকা অবস্থায় দেখতে পায়।  ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে যৌননিগ্রহের অভিযোগ আনা হয়েছে ওই নাবালিকার পরিবারের সদস্যদের তরফ থেকে। পুলিস বিষয়টি তদন্ত করে দেখার আশ্বাস দিয়েছে।

one year ago
Chandigarh: সোশ্যাল মিডিয়ায় ফাঁস ছাত্রীদের আপত্তিকর ভিডিও, গ্রেফতার অভিযুক্ত ছাত্রী

চণ্ডীগড় পুলিস (Chandigarh Police) রবিবার রাজ্যের একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যান্য ছাত্রীদের আপত্তিকর ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় (Social Media) ফাঁস করার অভিযোগে মোহালি (Mohali) থেকে অভিযুক্ত ছাত্রীকে গ্রেফতার (Arrest) করেছে। এ ঘটনার প্রতিবাদে শনিবার গভীর রাতে বিপুল সংখ্যক পড়ুয়া বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ অবস্থান করেন।

জানা গিয়েছে, ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পরে ৮ জন ছাত্রী আত্মহত্যা করার চেষ্টাও করেছে। একজন অসুস্থও হয়ে পড়েন এবং তাঁকে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

এই মামলায় একটি এফআইআর নথিভুক্ত করা হয়েছে। ডিএসপি রুপিন্দর কৌর বলেছেন, অভিযুক্ত ছাত্রীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এই ঘটনার প্রতিক্রিয়া জানিয়ে পঞ্জাবের স্কুল শিক্ষামন্ত্রী এইচএস বেইনস চণ্ডীগড় বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীদের শান্ত থাকার আবেদন জানিয়েছেন। এবং তাঁদের আশ্বস্ত করেছেন যে, দোষীদের রেহাই দেওয়া হবে না।

রিপোর্ট অনুযায়ী, ওই অভিযুক্ত ছাত্রী তাঁর সহকর্মী,  হোস্টেল সঙ্গীদের ভিডিও তৈরি করে হিমাচল প্রদেশের সিমলার একজন ব্যক্তির কাছে পাঠাচ্ছিলেন। যিনি ইন্টারনেটে এমএমএস ক্লিপগুলি আপলোড করেছিলেন বলে অভিযোগ। স্নান করার ক্লিপ অনলাইনে প্রকাশিত হলে ছাত্রীরা কান্নায় ভেঙে পরেন। কে এই কাজ করেছেন তা বুঝে উঠতে পারছিলেন না।

এই ঘটনায় কয়েকজন ছাত্রী আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিল বলে খবর পাওয়া গিয়েছে। যদিও চণ্ডীগড় বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র কল্যাণ আধিকারিক জানিয়েছেন, কোনও আত্মহত্যার চেষ্টা করা হয়নি। "শুধুমাত্র একটি মেয়ে অজ্ঞান হয়ে গিয়েছিল। তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল এবং এখন স্থিতিশীল। বিষয়টি সাইবার ক্রাইম শাখাকে জানানো হয়েছে।"

one year ago