Breaking News
Abhishek Banerjee: বিজেপি নেত্রীকে নিয়ে ‘আপত্তিকর’ মন্তব্যের অভিযোগ, প্রশাসনিক পদক্ষেপের দাবি জাতীয় মহিলা কমিশনের      Convocation: যাদবপুরের পর এবার রাষ্ট্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়, সমাবর্তনে স্থগিতাদেশ রাজভবনের      Sandeshkhali: স্ত্রীকে কাঁদতে দেখে কান্নায় ভেঙে পড়লেন 'সন্দেশখালির বাঘ'...      High Court: নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় প্রায় ২৬ হাজার চাকরি বাতিল, সুদ সহ বেতন ফেরতের নির্দেশ হাইকোর্টের      Sandeshkhali: সন্দেশখালিতে জমি দখল তদন্তে সক্রিয় সিবিআই, বয়ান রেকর্ড অভিযোগকারীদের      CBI: শাহজাহান বাহিনীর বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ! তদন্তে সিবিআই      Vote: জীবিত অথচ ভোটার তালিকায় মৃত! ভোটাধিকার থেকে বঞ্চিত ধূপগুড়ির ১২ জন ভোটার      ED: মিলে গেল কালীঘাটের কাকুর কণ্ঠস্বর, শ্রীঘই হাইকোর্টে রিপোর্ট পেশ ইডির      Ram Navami: রামনবমীর আনন্দে মেতেছে অযোধ্যা, রামলালার কপালে প্রথম সূর্যতিলক      Train: দমদমে ২১ দিনের ট্রাফিক ব্লক, বাতিল একগুচ্ছ ট্রেন, প্রভাবিত কোন কোন রুট?     

Drug

Drugs: মাছের ভেরির আড়ালে চলত আন্তর্জাতিক মাদক ব্যবসা! গুরুতর অভিযোগ শাহজাহানের বিরুদ্ধে

সন্দেশখালির কুখ্যাত বেতাজ বাদশা শেখ শাহজাহানের সঙ্গে অপরাধ জগতের যোগসূত্র ক্রমশ বেড়েই চলেছে। ইডি হামলার পর থেকে শাহজাহানের নামে উঠে এসেছে একাধিক বিস্ফোরক অভিযোগ। আর্থিক তছরুপ থেকে দাদাগিরি। গান পয়েন্টে রেখে গ্রামের মহিলাদের সম্মানহানি থেকে  মাছের ভেড়িও  দখল গান পয়েন্টে রেখে।  এবার শাহজাহানের বিরুদ্ধে  প্রকাশ্যে আন্তর্জাতিক মাদক  ব্যবসা, যা শুনলে চোখ কপালে উঠতে বাধ্য!

প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীররঞ্জন চৌধুরী অবশ্য এ প্রসঙ্গে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা ইডিকেই একহাত নিলেন।  জানালেন পশ্চিমবঙ্গ অবৈধ কারবারের জায়গা।  শুনে কী হবে আমাদের? কুছ করকে দিখাও ইডি ভাই!

ইডি সূত্রে খবর আফগানিস্তান থেকে, পাকিস্তানের বন্দর শহর করাচি হয়ে  তারপর মধ্য প্রাচ্য দুবাই হয়ে মাদক এসে পৌঁছত ভারতের পশ্চিম প্রান্ত গুজরাটে।  সেখান থেকে সেই মাদক এসে পৌঁছত কলকাতা বন্দরে। এখানেই শেষ নয়, ২০২২ সালে আটক হয় প্রায় ৪০কেজি হেরোইন। নাম জড়ায় শাহজাহানের ডান হাত যিনি তাঁর মাদক ডিভিশনের দায়িত্বে ছিলেন সেই শরিফুল মোল্লার। শাহজাহান ও শিবু হাজরার ভেড়ির যৌথ দায়িত্বও পালন করতেন এই শরিফুল মোল্লাই।  ঘটনায় গ্রেফতার হয় শরিফুলের ভাইও।  এই অভিযোগকে কটাক্ষের সুরে বিঁধেছেন বিজেপির রাজ্য সাধারণ সম্পাদক জগন্নাথ চট্টোপাধ্যায়। জানালেন, মাদক ধরা পড়ার পর থেকে শরিফুলের আজও কোনও হদিশ নেই।

বিরোধীদের অভিযোগ, মাদক ধরা পড়ার পর, শেখ শাহজাহানকে দেখা যায় রাজ্যের এক প্রভাবশালী মন্ত্রীর বাড়িতে।  এক নয়, একাধিকবার আর তাই এবার শাহজাহান, শরিফুল ছাড়াও কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্তাহ ইডির নজরে ওই প্রভাবশালী মন্ত্রীও। আর সন্দেশখালির বহিস্কৃত তৃণমূল নেতা শাহজাহানের এই মাদক ব্যবসা থেকে রাজ্যের মন্ত্রীর নাম জড়ানো, সব মিলিয়ে সরগরম বঙ্গের রাজনৈতিক মহল।

2 months ago
Trafficking: ১০ মাস লড়াইয়ের পর মাদক মামলা থেকে মুক্তি বিজেপি নেত্রী পামেলার

মিথ্যা মামলায় ফাঁসিয়ে দেওয়াও চলছে এই রাজ্যে। এমন দাবি করলেন বিজেপি নেত্রী পামেলা গোস্বামী। ২০২১ সালে যাঁর নাম জড়িয়েছিল মাদক পাচার মামলায়। তারপর যদিও আইনি লড়াইয়ে নেমেছিলেন পামেলা। মামলার জল কলকাতা হাইকোর্ট থেকে সুপ্রিমকোর্ট- গড়িয়েছে সর্বত্রই। বহুবার তাঁকে ক্লিনচিট দেওয়া হলেও, রাজ্য সরকারের তরফ থেকে বারবার আদালতের নির্দেশ চ্যালেঞ্জ করে পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে, শুধুমাত্র তাঁকে ফাঁসানোর জন্য। এমনই দাবি করেন পামেলা।

বারবার মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে তাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে, দাবি পামেলার। তবে শেষ পর্যন্ত এই মামলা থেকে সম্পূর্ণরূপে মুক্তি পেলেন পামেলা। তাঁর নামে রইল না আর কোনও অভিযোগ। এদিন, সত্যের এই জয়ই ভাগ করে নেন বিজেপি কর্মী সমর্থকরা। পামেলাকে কেন্দ্রে রেখে, মালা পরিয়ে, হাতে সত্যেমেব জয়তে লেখা প্ল্যাকার্ড নিয়ে চলল মিছিল।

পামেলার আইনজীবীও জানান, এই মামলা বাকিদের বিরুদ্ধে এখনও চললেও, পামেলার বিরুদ্ধে সমস্ত অভিযোগের নিস্পত্তি ঘটেছে।

তবে বিরোধী মহল শুক্রবার খুশি, কারণ সত্যের জয় হয়েছে। মাদক সঙ্গে রাখা এবং পাচারের অভিযোগে যোগ হওয়া কালো দাগ মুছল পামেলার জীবন থেকে। পামেলা যদিও আগেও বলেছিলাম, তাঁকে ফাঁসানো হয়েছে। পুরোটাই রাকেশ সিং ও রাজ্য সরকারের মিলিত চাল। তবে এই পরিকল্পনাতে জড়িয়ে কে বা কারা, তা জানা যাবে মামলার সম্পূর্ণ নিষ্পত্তিতে।

3 months ago
Raiganj: মাদকাসক্তদের স্বর্গরাজ্য কুলিক ফরেস্ট? অন্ধকার নামতেই চুরি-ছিনতাই, প্রশ্নের মুখে প্রশাসন

মাদকাসক্তদের স্বর্গরাজ্য হয়ে উঠেছে উত্তর দিনাজপুরের কুলিক ফরেস্ট। বাড়ছে চুরি ছিনতাইয়ের ঘটনা। রায়গঞ্জের কুলিক পক্ষী নিবাসের সামনে মাদকাসক্তদের দৌরাত্ম্য বাড়ায় ভীত সন্ত্রস্ত স্থানীয় বাসিন্দারা। অভিযোগ, জাতীয় সড়কের দুই পাশে ঘন জঙ্গল থাকায় অন্ধকার নামতেই চুরি ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটাচ্ছে মাদকাসক্তরা।

মাদকাসক্তদের অত্যাচারে আতঙ্কিত জাতীয় সড়কের পাশে থাকা বনবস্তির মানুষজন। নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন এলাকার মহিলারা। অভিযোগ, সমস্যা মেটাতে রায়গঞ্জ পুরসভার পক্ষ থেকে আলোর ব্যবস্থা করা হয়েছিল। কিন্তু মাদকাসক্তরা বৈদ্যুতিক সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয় নিজেদের সুবিধার্থে। প্রশাসনের নজরদারির অভাবে মাদকাসক্তদের দৌরাত্ম্য বেড়েই চলেছে।

প্রশাসন আরও সক্রিয় হোক অভিযোগ স্বীকার করে এমনই দাবি জানিয়েছেন স্থানীয় পঞ্চায়েত সদস্য। 


6 months ago


Arrest: ভারত-নেপাল সীমান্তে ২৫৪ গ্ৰাম ব্রাউন সুগার সহ গ্রেফতার দুই অভিযুক্ত

পাচারের আগেই ভারত-নেপাল সীমান্তে মাদক সহ গ্রেফতার দুইজন পাচারকারী। তল্লাশি চালিয়ে বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে ৫০ লক্ষ টাকার মাদক। পুলিস সূত্রে খবর, ধৃতরা হল মহম্মদ রহিম (২৫) ও মহম্মদ আতারুল (২৩)। দু'জনই বুড়াগঞ্জের কিলাঘাটার বাসিন্দা। 

পুলিস জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার রাতে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে খড়িবাড়ি থানার অন্তর্গত পানিট্যাঙ্কি ফাঁড়ির পুলিস ও এস‌ওজি যৌথ অভিযানে নামে। এরপর  নেপাল সীমান্ত লাগোয়া পানিট্যাঙ্কি নিউ মার্কেটে সন্দেহজনক একটি বাইককে আটক করে পুলিস। তারপর আটক করা বাইটিকে তল্লাশি চালিয়ে বাইকের ভিতর থেকে উদ্ধার হয় ২৫৪ গ্ৰাম ব্রাউন সুগার।  

পুলিসের অনুমান, ধৃতরা পানিট্যাঙ্কিতে মাদক বিক্রি করতে এসেছিল। কিন্তু তার আগেই পুলিস জালে ধরা পড়ে যায় মাদক সহ ওই দুই ধৃত। পুলিস ধৃতদের গ্রেফতার করে খড়িবাড়ি থানায় নিয়ে যায়। শুক্রবার ধৃতদের শিলিগুড়ি মহকুমা আদালতের তোলা হয়।

6 months ago
Drug: পুজোর মধ্যেই বেঙ্গল এসটিএফ-র মাদক বিরোধী অভিযানে মিলল ব্যাপক সাফল্য

মহাপঞ্চমীর উৎসবের মধ্যেই বেঙ্গল এসটিএফ-র মাদক বিরোধী অভিযানে মিলল ব্যাপক সাফল্য। বনগাঁর গাইঘাটাতে হেরোইন তৈরীর কারখানায় বৃহস্পতিবার তল্লাশি চালিয়ে মিলল প্রায় ১৬ কোটি টাকা মূল্যের নিষিদ্ধ মাদক। গ্রেফতার দুই মহিলাসহ মোট চারজন। কোটি কোটি টাকার ক্রুড হেরোইন এনে এই কারখানায় চলতো মিশ্রণ ও পরিশোধন। কলকাতা, হাওড়া ও উত্তর-দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিভিন্ন জায়গায় পাঠানো হতো এখানকার মাদক।

গোপন খবরের ভিত্তিতে বেঙ্গল এসটিএফ-এর একটি টিম বৃহস্পতিবার সকালে পৌঁছয় গাইঘাটা থানার বিষ্ণুপুর গ্রামের উদ্দেশ্যে। সেখানে পৌঁছে থানাগামী পাকা রাস্তার থেকে বাঁদিকে দেড় মিনিট পায়ে হেঁটে গেলে একটি ছোটখাটো খামারবাড়ি। মালকিন চল্লিশোর্ধ্বা কাকলি রায়। ছয়ফুট উঁচু পাঁচিল দিয়ে ঘেরা দোতলা বাড়ির মধ্যে পোলট্রি, ছাগল ও গরুর থাকার ছাউনি।

বাড়িতে মালকিন কাকলি ছাড়াও অভিজিৎ বিশ্বাস, তপন মণ্ডল ও ডলি সর্দার নামের এক মহিলা ছিল। যাঁদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করে। একতলায় মাদক-সংক্রান্ত কিছু না পেয়ে এসটিএফ টিমের সদস্যরা মার্বেল বাঁধানো সিঁড়ি বেয়ে উঠে যায় দোতলায় এবং সেখানেই তাঁদের চক্ষু চড়কগাছ। দোতলার বেডরুম, বাথরুম এবং রান্নাঘরকে রীতিমতো একটি হেরোইন তৈরী করার কারখানায় রূপান্তরিত করা হয়েছে। থরে থরে সাজানো রয়েছে হেরোইনের প্যাকেট, কোনও ঘরে হাই-ভোল্টেজ আলোর নীচেই আলাদা আলাদা পাত্রে রাখা আছে বিশেষ প্রকার লিকুইড মিশ্রিত হেরোইন, শুষ্ক করার জন্য। কোনো ঘরে চলছে ফিল্টারিং, কোনো ঘরে প্যাকেজিং।

 তল্লাশিতে উদ্ধারকৃত দ্রব্যের মধ্যে পাওয়া গিয়েছে, প্রায় আট কিলোগ্রাম হেরোইন, পাঁচ কিলোগ্রাম মোট ওজনের একপ্রকার বিশেষ গুঁড়ো যা মিশিয়ে নেশার মাত্রা বৃদ্ধি করা হয়,দশ কিলোগ্রাম ওজনের এসিটিক এনহাইড্রেট তরল যার সাহায্যে ক্রুড হেরোইন পরিশোধন করা হয়, চল্লিশ কিলোগ্রাম সোডিয়াম কারবোনেট, দুইটি ইলেকট্রনিক ওজন যন্ত্র, একটি মিক্সার গ্রাইন্ডার, প্রচুর সংখ্যক প্লাস্টিক প্যাকেট, একটি সিলিং মেশিন, দুইটি আই-ফোন, তিনটি স্মার্টফোন ইত্যাদি।

এরপরই গ্রেফতার করা হয় দুই মহিলা ও দুই ব্যক্তিকে। তাঁদের জিজ্ঞাসাবাদ করে উঠে আসে চাঞ্চল্যকর তথ্য। জানা গিয়েছে, প্রায় বছরখানেক ধরে চলছে এই কারখানা। মালকিন কাকলি তাঁর ব্যবসায়ী-পার্টনারদের থেকে ক্রুড হেরোইন এনে এই কারখানাতে পরিশোধন ইত্যাদি করে বিভিন্ন পাচারকারীদের মাধ্যমে কলকাতা, হাওড়া, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিভিন্ন ক্লায়েন্টদের কাছে দিত পৌঁছে। বিনিময়ে পেত বিপুল পরিমাণ মুনাফা। এই ঘটনায় গাইঘাটা থানাতে একটি অভিযোগ দায়ের করেছে বেঙ্গল এসটিএফ। অভিযোগের উপর মাদক আইনে মামলা রুজু করা হয়েছে। এই নিষিদ্ধ মাদকচক্রে অন্যান্য জড়িতদের বিরুদ্ধেও চলবে তদন্ত।

7 months ago


Burdwan:নেশামুক্তি কেন্দ্রে এক ব্য়ক্তির অস্বাভাবিক মৃত্যু, শারীরিক অত্যাচারের জেরেই মৃত্যুর অভিযোগ

নেশামুক্তি কেন্দ্রে চিকিৎসাধীন এক ব্য়ক্তির অস্বাভাবিক মৃত্যু ঘিরে চাঞ্চল্য়।শারীরিক অত্যাচারের জেরেই মৃত্যু হয়েছে বলে মৃতের পরিবারের অভিযোগ। মঙ্গলবার এই ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব বর্ধমানের ভাতারের ফায়ারব্রিগেড মোড় এলাকায় উপস্থিত একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা দ্বারা পরিচালিত নেশামুক্তি কেন্দ্রে।পুলিস সূত্রে খবর, মৃত যুবকের নাম জামালউদ্দিন মণ্ডল (৩২)। বাড়ি মঙ্গলকোটের সাকোনা গ্রামে।

জানা গিয়েছে, অতিরিক্ত মাত্রায় ধূমপানের জন্য মৃত ওই ব্য়ক্তিকে তাঁর পরিবারের পক্ষ থেকে ওই নেশামুক্তি কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছিল। এদিন ভোরে ওই নেশা মুক্তি কেন্দ্র থেকে ফোন করে মৃতের পরিবারকে জানানো হয় হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়ায় তাঁকে বর্ধমান মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তড়িঘড়ি পরিবারের সদস্যরা বর্ধমান মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে গেলে তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকেরা। 

মৃতের পরিবারের দাবি, মৃতের মাথায় ও শরীরে একাধিক আঘাতের চিহ্ন ছিল। নেশামুক্তি কেন্দ্রের শারীরিক নির্যাতনের কারণেই এই মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ। ইতিমধ্য়ে ভাতাড় থানায় লিখিত অভিযোগ জানিয়েছে মৃতের পরিবার। অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিস এই পুরো ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। যদিও ঘটনার পর থেকে বন্ধ রয়েছে ওই নেশামুক্তি কেন্দ্র।

7 months ago
Arrest: পুজোর আগে বিপুল পরিমাণ মাদক সহ গ্রেফতার তিন মাদক ব্যবসায়ী

ফের খড়িবাড়ি পুলিসের হাতে আটক ৩ মাদক কারবারি। খড়িবাড়ি থেকে উদ্ধার বিপুল পরিমাণ মাদকদ্রব্য। বাজেয়াপ্ত করা মাদকের বাজার মূল্য প্রায় কুড়ি লক্ষ টাকা। পুলিস সূত্রে খবর, ধৃতরা হল বিমল ঘোষ (৩৯), বিশ্বজিৎ দে (৩০) এবং উসুফ শেখ (৪০)।

পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে, সোমবার রাতে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে খড়িবাড়ির পানিট্যাঙ্কি সংলগ্ন কোয়াটার মোড় এলাকায় রাইসমিলের পাশে অভিযান চালায় পুলিস। এরপর পুলিসকে দেখে অভিযুক্তরা পালানোর চেষ্টা করতেই তাদের পাকড়াও করা হয়। তারপর ধৃতদের আটক করে তল্লাশি চালিয়ে তিন জনের পকেট থেকে আনুমানিক ৬০৯ গ্ৰাম ব্রাউন সুগার উদ্ধার করেছে পুলিস। এরপর আটক তিন জনকে গ্রেফতার করে খড়িবাড়ি থানার নিয়ে যাওয়া হয়। 

মঙ্গলবার ধৃতদের শিলিগুড়ি মহকুমা আদালতে তোলা হয়। এবং মাদক কারবারির সঙ্গে আর কেউ জড়িত রয়েছে কি না তা নিয়ে খতিয়ে দেখছে পুলিস।

7 months ago
Death: নেশামুক্তি কেন্দ্রে এক যুবকের মৃত্য়ু ঘিরে চাঞ্চল্য়, পিটিয়ে খুনের অভিযোগ

নেশামুক্তি কেন্দ্রে যুবকের অস্বাভাবিক মৃত্য়ু ঘিরে চাঞ্চল্য়। ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়িয়েছে সোনারপুরের বনহুগলী এলাকায়। পুলিস সূত্রে খবর, মৃত যুবকের নাম তাপস বিশ্বাস। ওই যুবককে পিটিয়ে খুন করার অভিযোগ তুলেছে তাঁর পরিবারের লোকজন। সেই ক্ষোভে পরিবারের সদস্য়রা ভাঙচুর চালায় ওই নেশামুক্তি কেন্দ্রে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে নরেন্দ্রপুর থানার পুলিস এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। গোটা এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ায় পুলিস মোতায়েন করা হয়েছে। 

পরিবার সূত্রে খবর, বেশ কয়েকদিন ধরে সোনারপুরের চৌহাটি এলাকার বাসিন্দা তাপস বিশ্বাস মানসিক অবসাধে ভুগছিলেন। তারপর তাঁকে দিন ১৫ আগে ওই নেশামুক্তি কেন্দ্রে নিয়ে আসা হয়। এদিন ভোর রাতে হঠাৎ তাঁর শরীর খারাপ করে। তারপর তাঁকে একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যায় ওই নেশমুক্তির কর্তৃপক্ষ। সেখানে যাওয়ার পর তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়। এই ঘটনার খবর মৃতের পরিবারকেও দেওয়া হয়। এরপর পরিবারের লোকজন এসে ভাঙচুর চালায় ওই নেশামুক্তি কেন্দ্রে। প্রায় ৬০ জনের বেশি মানুষ চিকিৎসার জন্য আছেন। ১০ জনের মত মহিলাও চিকিৎসাধীন। এই ঘটনার জেরে সকলেই আতঙ্কিত। 


8 months ago


Congress MLA: মাদক মামলায় গ্রেফতার কংগ্রেস বিধায়ক সুখপাল সিং খইরা

মাদক মামলায় (Drug Case) গ্রেফতার কংগ্রেস বিধায়ক (Congress MLA) সুখপাল সিং খইরা (Sukhpal Singh Khaira)। বৃহস্পতিবার সকালে চণ্ডিগড়ের সেক্টর ৫-এর বাংলোতে তল্লাশি অভিযান চালানোর পর তাঁকে আজ গ্রেফতার করে পঞ্জাব পুলিস। জানা গিয়েছে, পুরনো এক মাদক মামলায় তাঁকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

সূত্রের খবর, কংগ্রেস বিধায়কের বিরুদ্ধে আগেই নারকোটিক্স অ্যান্ড সাইকোট্রপিক সাবস্ট্যান্স আইনে মামলা ছিল। ওই পুরনো মামলার সূত্র ধরেই এ দিন সকালে জালালাবাদ পুলিস তাঁর বাংলোতে তল্লাশি অভিযান চালায়। তল্লাশির পর তাঁকে গ্রেফতার করা হয়।

এদিন সুখপাল সিং খইরার বাড়িতে অভিযান চালানোর সময় ফেসবুকে লাইভ করেন তিনি। সেই ভিডিও-তে দেখা যায়, তিনি পুলিস আধিকারিকদের সঙ্গে বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন। তিনি ও তাঁর পরিবারের সদস্যরা গ্রেফতারির কারণ জিজ্ঞাসা করেন। তখন জালালাবাদের ডিএসপিকে বলতে শোনা যায়, মাদক মামলায় তাঁকে গ্রেফতার করা হয়েছে। কিন্তু সুখপাল দাবি করেন, এই মামলা অনেকদিন আগেই সুপ্রিম কোর্ট খারিজ করে দিয়েছে। তাহলে গ্রেফতারি কীভাবে সম্ভব? এর পর তাঁকে প্রিজন ভ্যানে তোলার সময় তিনি আরও জানান, তাঁর এই গ্রেফতারির পিছনে 'রাজনৈতিক স্বার্থ' জড়িয়ে রয়েছে।

8 months ago
phensedyl: পাচারের সময় ২ হাজার বোতল ফেনসিডিল সহ ৩ পাচারকারীকে গ্রেফতার করল পুলিস

গোপন সূত্রে খবর পেয়ে ২ হাজার বোতল ফেনসিডিল সহ ৩ পাচারকারীকে গ্রেফতার করল পুলিস। মঙ্গলবার সকালে ভীমপুর থানার অন্তর্গত ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত এলাকার ঘটনা। পুলিস জানিয়েছে, গোপন সূত্রে খবর পেয়ে অভিযানে নেমে ৩ পাচারকারী সহ বহুমূল্যের নিষিদ্ধ কাশির সিরাফ ঊদ্ধার করা হয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে ধৃতদের নাম, ধৃতদের নাম সজল হালদার, কৃষ্ণ মন্ডল, এবং আবু বক্কর মন্ডল। আজ অর্থাৎ মঙ্গলবারই ধৃতদের কৃষ্ণনগর দায়রা আদালতে পাঠানো হয়েছে বলে সূত্রের খবর। অভিযুক্তদের হেফাজতে নিয়ে এ ঘটনায় কারা জড়িত আছে তা জিজ্ঞাসাবাদ করে দেখা হবে বলে পুলিস সূত্রের খবর।

পুলিস সূত্রের খবর, মঙ্গলবার আনুমানিক সকাল ৬টা নাগাদ হগোপন সূত্রে পাচারের খবর পায় পুলিস। খবর পেয়ে অভিযানে নেমে পড়ে কর্তব্যরত পুলিসকর্মী। সেসময় নাকা চেকিংয়ে ভীমপুর থানার অন্তর্গত শাকদা বাস স্ট্যান্ড ছেড়ে নতুন পাড়া এলাকার কাছাকাছি দুটি চারচাকা গাড়িকে পুলিসের সন্দেহ হয়। এরপর গাড়ি দুটিকে থামিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ ও তল্লাশি চালিয়ে ২০০০ বোতল ফেনসিডিল সহ তিনজনকে গ্রেফতার করে নদীয়ার ভীমপুর থানার পুলিস। পাশাপাশি পুলিস জানিয়েছে, ধৃতদের থেকে পাওয়া ফেনসিডিলের বাজার মূল্য প্রায় ৩ লক্ষ টাকা। এছাড়া ধৃতরা সবাই নদিয়ার করিমপুরের বাসিন্দা। অভিযুক্তরা কোথা থেকে ফেনসিডিল পাচার করছিল, এবং কোথায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল সেটাও তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিস।

9 months ago


Jadavpur: মাদক নিয়ে প্রবেশ ঠেকাতে এবার নয়া ভাবনা যাবদপুরের, ঘোষণা উপাচার্যের

সম্প্রতি প্রথম বর্ষের এক পড়ুয়ার মৃত্যুর জেরে প্রশ্নের মুখে পড়েছিল যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরাপত্তা। প্রশাসনিক চাপে যা নতুন করে সাজাতে এখন ব্যস্ত বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এই অবস্থায় এবার ক্যাম্পাসের মধ্যে মাদক ঠেকাতে নতুন ভাবনার কথা জানালেন বিশ্ববিদ্যালয়ের অস্থায়ী উপাচার্য বুদ্ধদেব সাউ।

তাঁর দাবি, যাদবপুরের মূল গেটে বসানো হবে এমন এক প্রযুক্তি, যাতে চট করে মাদক নিয়ে ঢোকা আটকানো যাবে। তিনি জানিয়েছেন, ভারতের মাদক বিরোধী আইন মেনেই এই ব্যাপারে ব্যাপারে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। মূলত দেশের বিমানবন্দর গুলিতে যে যন্ত্রের সাহায্য নেওয়া হয়, সেই ধরণের যন্ত্র যাদবপুরে বসানোর ভাবনা করেছেন অস্থায়ী উপাচার্য।

গত ৯ অগাস্টের ঘটনার পর যাদবপুর ক্যাম্পাস নিয়ে বিস্তর অভিযোগ উঠছে। অভিযোগ উঠেছে, ক্যাম্পাসের মধ্যে মাদক সেবনের। এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার স্নেনমঞ্জু বসু জানিয়েছিলেন, আর কোনও ভাবেই মদ ও মাদক নিয়ে ক্যাম্পাসে আসা যাবে না। ধরা পড়লে কড়া সাজা দেওয়া হবে।

9 months ago
Arrest: মাদক কারবারে যুক্ত কারাগার কর্মীকে ফের ৫ দিনের রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন পুলিসের

মাদক কারবারে (Drug dealing) গ্রেফতার (Arrest) হওয়া কারাগার কর্মীর ৯ দিনের পুলিসি রিমান্ড পর্ব শেষ। তাই সোমবার (Siliguri) ধৃতকে ফের একবার জলপাইগুড়ি জেলা আদালতে পেশ করা হল। এনজেপি থানার তরফ থেকে জানা গিয়েছে, ধৃত কারাগার কর্মী মোবারক আলিকে নতুন করে ৫ দিনের রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন জানিয়ে আদালতে পেশ করা হয়েছে। 

পুলিস সূত্রে খবর, চলতি মাসের শুরুতেই বিপুল পরিমাণ মাদক এবং ৫ লক্ষ টাকা সহ এক মাদক পাচারকারীকে ধরে পুলিস। তারপর থেকেই শুরু হয়েছিল তদন্ত। আর সেই তদন্তেই এনজিপি থানার পুলিস কারাগার কর্মী মোবারক আলির জড়িত থাকার কথাটি জানতে পারে। পুলিস আরও জানিয়েছে, যে গাড়িতে করে মাদক পাচার করা হচ্ছিল সেই গাড়িটি ছিল ওই কারাগার কর্মীর। এই তথ্য পাওয়ার পরেই গত সপ্তাহের শুক্রবার মোবারক আলিকে গ্রেফতার করে পুলিস। ওই দিনই অভিযুক্তকে তদন্তের স্বার্থে ৯ দিনের জন্য রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন জানিয়ে আদালতে পেশ করে পুলিস। পুলিসের দাবি, অভিযুক্তকে দফায় দফায় জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদ পর্বেই ধৃতের থেকে প্রায় ৩০০ গ্রাম ব্রাউন সুগার বাজেয়াপ্ত করা হয়।

উল্লেখ্য, আরও জানা গিয়েছে, উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল চত্বরের একটি কোয়াটারে থাকত অভিযুক্ত কারাগার কর্মী। অভিযুক্তর ওই কোয়াটার থেকেই বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে বিপুল পরিমাণের ব্রাউন সুগার। আর সেই ঘটনায় মাটিগাড়া থানায় নতুন করে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

10 months ago
STF: একটি বহুমূল্য লাক্সারি গাড়ি সহ নাটকীয়ভাবে গ্রেফতার দুই মাদক পাচারকারী, উদ্ধার প্রায় ১০ কেজি মাদক

একটি বহুমূল্য লাক্সারি গাড়ি সহ বেঙ্গল এসটিএফের (STF) হাতে গ্রেফতার (Arrest) দুই মাদক (Drug Smuggler) পাচারকারী। রবিবার ভোরে ঘটনাটি ঘটেছে মালদহের (Malda) বৈষ্ণবনগরে জাতীয় সড়কের উপর। অভিযুক্তদের গাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে উদ্ধার বাজারমূল্যের মোট ঊনিশ কোটি টাকার হেরোইন। ধৃতদের বিরুদ্ধে বৈষ্ণবনগর থানায় মাদক আইনে মামলা রুজু করা হয়েছে। ধৃতদের ১৪ দিনের পুলিসি রিমান্ডের নেওয়ার আবেদন জানিয়ে মালদহের চিফ জুডিসিয়াল কোর্টে পেশ করা হয়েছে।

এসটিএফ সূত্রে খবর, ধৃত ওই দুই পাচারকারীর নাম প্রদীপ জাভিয়ার টির্কি (৪১), স্যামুয়েল লুনমিনলুন খুংসাই (২৯)। রবিবার ভোর রাতে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে মালদহের বৈষ্ণবনগরের জাতীয় সড়কে অভিযান চালায় এসটিএফের একটি দল। সেই সময়ই ঝাড়খণ্ডের রেজিস্ট্রেশন নম্বর বহনকারী মডেল এমজি হেক্টরের একটি চার চাকার গাড়ি করে দু'জন আসছিলেন৷ ঠিক তখনই সন্দেহের জেরে মালদহের বৈষ্ণবনগর থানার অধীনে ১৪ মাইল টোল প্লাজার কাছে এনএইচ-৩৪ এ তাদের আটকানো হয়। তারপর পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে তল্লাশির পর এসটিএফের দল তাদের থেকে প্রায় ১০ কিলোগ্রাম হেরোইন উদ্ধার করে। এই ঘটনার পরেই গাড়ির মধ্যে থাকা দুজনকে গ্রেফতার করা হয়।

10 months ago


Siliguri: উর্দির আড়ালে মাদকের কারবার! মাদককাণ্ডে গ্রেফতার এক কারাগার কর্মী

উর্দির আড়ালে মাদকের (Drug Case) কারবার! এমনই চাঞ্চল্যকর অভিযোগ প্রকাশ্যে আসতেই পুলিসের জালে ধরা পড়ল এক কারাগার কর্মী। ঘটনাটি ঘটেছে শিলিগুড়িতে (Siliguri)। মাদককাণ্ডের তদন্তে নেমে গত সপ্তাহের শুক্রবার অভিযুক্তকে গ্রেফতার (Arrest) করে এনজেপি থানার পুলিস (Police)। শনিবার ধৃতকে আদালতে পেশ করে তদন্তের স্বার্থে ৯ দিনের রিমান্ডে নেয় পুলিস। এমনকি এই ঘটনায় আর কে কে জড়িত আছে তা জানতে তৎপর পুলিস। 

পুলিস সূত্রে খবর, ধৃতের নাম মোবারক আলি। বাড়ি শিলিগুড়ি মহকুমার ফাঁসিদেওয়ায়। অভিযুক্ত মোবারক আলি শিলিগুড়ি বিশেষ সংশোধনাগারের অধীনস্থ উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের প্রিজন সেলের দায়িত্ব সামলাচ্ছিলেন।

পুলিস সূত্রে আরও জানা গিয়েছে, চলতি মাসে ধরা পড়ে এক মাদক কারবারি। বিপুল পরিমাণ মাদক বাজেয়াপ্ত করার পাশাপাশি ধৃতের কাছ থেকে আনুমানিক নগদ ৫ লক্ষ টাকা উদ্ধার করেছিল পুলিস। সেই ঘটনার তদন্ত শুরু করতেই পুলিসের নজরে আসে কারাগার কর্মী মোবারক আলি। যদিও এবিষয়ে শিলিগুড়ি মেট্রোপলিটন পুলিসের এডিসিপি শুভেন্দ্র জানিয়েছেন, ঘটনার তদন্ত চলছে। এই ঘটনায় আর কে বা কারা জড়িত আছে তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

10 months ago
Drug: মাদক দ্রব্য় সহ গ্রেফতার এক পাচারকারী, উদ্ধার ১০০ গ্রাম ব্রাউন সুগার

মাদক (Drugs) দ্রব্য় সহ পুলিসের হাতে গ্রেফতার হল এক মাদক পাচারকারী। রবিবার, গভীর রাতে এই ঘটনাটি ঘটেছে রায়গঞ্জ থানার অন্তর্গত শিলিগুড়ি (Siliguri) মোড়ে। পুলিস সূত্রে খবর, ধৃতের নাম লাড্ডু আলম। বাড়ি বিহারের আরারিয়া এলাকায়। 

পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে, রবিবার গভীর রাতে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে শিলিগুড়ি মোড় এলাকায় নাকা তল্লাশি চালায় পুলিস। সেই সময় একটি বাসে তল্লাশি চালাতেই অভিযুক্ত লাড্ডু আলমের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় ১০০ গ্রাম ব্রাউন সুগার। এরপরই তাকে গ্রেফতার করে রায়গঞ্জ থানার পুলিস। রবিবার কালিয়াচক থেকে বাসে চেপে বাড়ি ফেরার সময় মাদক সহ অভিযুক্তকে হাতেনাতে ধরে ফেলে পুলিস। পুলিসের অনুমান, মাদক দ্রব্য়গুলি পাচারের উদ্দেশ্য়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। কিন্তু পাচারের আগেই তল্লাশি অভিযান চালিয়ে মাদক সহ মাদক পাচারকারীকে গ্রেফতার করে পুলিস। 

তবে কোথা থেকে এই মাদক নিয়ে আসা হচ্ছিল তা জানার চেষ্টা করছেন তদন্তকারীরা। পাশাপাশি এই মাদক পাচারের সঙ্গে আরও কেউ যুক্ত রয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখছে পুলিস। 


10 months ago