Breaking News
Bengaluru Blast: বেঙ্গালুরু ক্যাফে বিস্ফোরণকাণ্ডে কাঁথি থেকে দুই সন্দেহভাজনকে গ্রেফতার করল এনআইএ      Sheikh Shahjahan: 'সিবিআই হলে ভালই হবে', হঠাৎ ভোলবদল শেখ শাহজাহানের      CBI: সন্দেশখালিকাণ্ডে সিবিআই তদন্তের নির্দেশ কলকাতা হাইকোর্টের...      NIA: ভূপতিনগর বিস্ফোরণকাণ্ডে এবার কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ NIA      ED: অবশেষে ইডির স্ক্যানারে চন্দ্রনাথের 'মোবাইল-হিস্ট্রি', খুলতে পারে নিয়োগ দুর্নীতি রহস্যের জট      PM Modi: তৃণমূল মানেই দুর্নীতি-লুট! ভোট প্রচারে সন্দেশখালির পর ভূপতিনগর নিয়ে সরব মোদী      NIA: ভূপতিনগর বিস্ফোরণকাণ্ডে গ্রেফতার আরও ২ , কেন্দ্রীয় এজেন্সির উপর হামলার ঘটনায় উদ্বিগ্ন কমিশন      Sheikh Shahjahan: বিজেপির 'দালাল'রা তাঁর বিরুদ্ধে মিথ্যে বলছে, দাবি শেখ শাহজাহানের      Bratya Basu: ব্রাত্যকে মন্ত্রিসভা থেকে সরানোর সুপারিশ রাজ্যপাল বোসের      ED: সাঁড়াশি চাপে শেখ সন্দেশখালির বেতাজ বাদশাহ, 'রাজনৈতিক ষড়যন্ত্র', দাবি শাহজাহানের     

Delhi

Arvind Kejriwal: মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে কেজরিওয়ালের অপসারণের আবেদন খারিজ দিল্লি হাইকোর্টে

আবগারি নীতি মামলায় অরবিন্দ কেজরিওয়ালকে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে অপসারণের আবেদন খারিজ করে দিল দিল্লি হাইকোর্ট। এর আগেও অবশ্য এইরকম আরেকটি আবেদন প্রত্যাখ্যান করেছিল দিল্লি হাইকোর্ট। আদালত এদিন বলেছে, এব্যাপারে পদক্ষেপ নেওয়ার এক্তিয়ার রয়েছে লেফটেন্যান্ট গভফর্নর এবং রাষ্ট্রপতির। এই অবস্থায় আদালত এব্যাপারে আদেশ দিতে পারে না বলে জানিয়েছে দিল্লি হাইকোর্ট।

তবে আদালত এব্যাপারে গুরুত্বপূর্ণ মন্তব্য করেছে। তারা বলেছে, কখনও কখনও ব্যক্তি স্বার্থের থেকে জাতীয় স্বার্থ বড়। তবে এই সিদ্ধান্ত অর্থাৎ মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে তিনি কাজ চালিয়ে যাবেন কিনা, তা নিয়ে সিদ্ধান্ত নিতে হবে কেজরিওয়ালকে। দিল্লি হাইকোর্টে এই আবেদনটি দাখিল করেছিলেন সমাজকর্মী ও হিন্দু সেনার জাতীয় সভাপতি বিষ্ণু গুপ্তা। তিনি আবেদনটি প্রত্যাহার করে বিষয়টি লেফটেন্যান্ট গভর্নররের সামনে বিষয়টি রাখবেন বলে জানিয়েছেন।

দিল্লি হাইকোর্ট এর আগে কেজরিওয়ালকে মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে অপসারণ করতে একটি জনস্বার্থ মামলা খারিজ করে দিয়েছিল। এই জনস্বার্থ মামলা দায়ের করেছিলেন সুরজিৎ সিং যাদব নামে এক ব্যক্তি। এই সপ্তাহের শুরুতে সুপ্রিম কোর্টের প্রাক্তন বিচারপতি অজয় রাস্তোগি বলেছিলেন, মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে কেজরিওয়ালের পদত্যাগ করা উচিত। কারণ তিনি উঁচু পদে রয়েছেন। তিনি যদি হেফাজতে থাকেন, তাহলে হেফাজতে থাকা ব্যক্তির পক্ষে অফিস চালিয়ে যাওয়া ভাল নয়। এব্যাপারে প্রাক্তন বিচারপতি অজয় রাস্তোগি লালু যাদব এবং হেমন্ত সোরেনের কথা উল্লেখ করেছিলেন। তিনি বলেছিলেন, হেফাজতে থাকায়, মুখ্যমন্ত্রীর কাছে কোনও কাগজ নিয়ে যাওয়া যাবে না। তাঁকে দিয়ে স্বাক্ষর করানোও যাবে না।

প্রসঙ্গত, গত ২১ এপ্রিল ইডি গ্রেফতার করে অরবিন্দ কেজরিওয়ালকে। সম্প্রতি, আদালত তাঁকে ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত বিচার বিভাগীয় হেফাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে। ইডির অভিযোগ, দিল্লি আবগারি নীতিতে ব্যাপক অনিয়ম হয়েছিল।

a week ago
Arvind Kejriwal: ডায়বেটিক রোগী কেজরিওয়াল, কমছে ওজন, চাঞ্চল্যকর দাবি দিল্লির মন্ত্রী আতীশির

১২ দিনে সাড়ে ৪ কেজি ওজন কমেছে অরবিন্দ কেজরিওয়ালের। সাড়ে ৬৯ কেজি থেকে এখন তাঁর ওজন ৬৫ কেজি, এই দাবি করেন দিল্লির শিক্ষামন্ত্রী আতীশি মারলেনা।  ডায়বেটিক এক রোগীর জন্য এত কম সময়ে এতটা ওজন কমা, শরীরে নানা জটিলতা আনতে পারে। এভাবেই দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীর শারীরিক জটিলতার সম্ভাবনায় আশঙ্কা প্রকাশ আতীশির। কটাক্ষের সুরে তাঁর মন্তব্য, মিথ্যা মামলা দিয়ে অরবিন্দ কেজরিওয়ালকে জেলে ঢুকিয়েছে বিজেপি। ক্রমেই তাঁর শারীরিক সংকট তৈরি হচ্ছে, অভিযোগ আতীশির।

যদিও তিহাড় জেল কর্তৃপক্ষ আতীশির দাবি নস্যাৎ করে জানিয়েছে অরবিন্দ কেজরিওয়ালের সেরকম কোনও শারীরিক সমস্যা নেই। ওকে যখন তিহাড়ে নিয়ে আসা হয়েছিল, তখনই দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীর ওজন ছিল ৬৫ কেজি, যা এখন একই আছে। পয়লা এপ্রিল তাঁর শারীরিক পরীক্ষা হয়েছে সব স্বাভাবিক রয়েছে। কোর্ট নির্দেশে বাড়ির খাবার খেতে পারছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী। এভাবেই আপের তোলা অভিযোগ খারিজ করেছে তিহাড় জেল কর্তৃপক্ষ। আতীশি যখন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীর স্বাস্থ্য নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করছেন, তখন তাঁর কাছে পৌঁছল আইনি নোটিশ। বিজেপির মুখপাত্র প্রবীণ কাপুরের আইনজীবী এই আইনি নোটিশ পাঠান। আতীশির বিরুদ্ধে মিথ্যা এবং সাজানো বিবৃতি দিয়ে ভাবমূর্তি নষ্টের অভিযোগ তোলা হয়েছে আইনি নোটিশে।

a week ago
Arvind Kejriwal: তিহাড় জেলে কেমন কাটল প্রথম রাত? কী খেতে দেওয়া হল কেজরিওয়ালকে

আবগারি দুর্নীতি মামলায় ইডির হাতে গ্রেফতার অরবিন্দ কেজরিওয়াল। দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীর ঠাঁই হয়েছে তিহাড় জেলে। গরুপাচারকারী মামলায় ধৃত অনুব্রত মণ্ডলও রয়েছেন এই একই জেলে।

তিহাড় জেলে সোমবার বিকেলেই নিয়ে যাওয়া হয়েছে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীকে। জানা গিয়েছে, তিহাড় জেলের ২ নম্বর সেলে রয়েছেন তিনি। তার আগে গোটা সেল স্যানিটাইজ করিয়েছেন জেল সুপার। সেই সঙ্গে নিরাপত্তা নিয়েও জরুরি বৈঠক করেছেন জেল কর্তৃপক্ষ।

তিহা়ড় জেলে প্রথম রাত কাটালেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী। মশার নেট দিয়ে ঢেকে দেওয়া হয়েছে লোহার গারদ। জেল সূত্রে খবর, সকালে ঘুম থেকে উঠে প্রথমেই মেডিটেশন করেছেন কেজরিওয়াল। তার পর নিয়ম মাফিক যোগাভ্যাস। সকাল ৬টা ৪০ মিনিট নাগাদ তাঁকে ব্রেকফাস্ট দেওয়া হয়। ব্রেকফাস্টে দেওয়া হয়েছিল রুটি এবং চা। সেটি খেয়েছেন তিনি। তারপরে দুপুর বারোটায় তাঁকে মধ্যাহ্নভোজ দেওয়া হয়। তারপরে বিকেল ৩টের মধ্যে সব বন্দিদের নিজের নিজের সেলে ফিরতে হয়।

তারপরে বিকেল সাড়ে পাঁচটায় সব বন্দিদের রাতের খাবার পরিবেশন করা হয়। সন্ধে সাতটার মধ্যে যে যার নিজের সেলে চলে আসেন। তবে তিনি যদি যান অন্যান্য কয়েদিদের মতো টেলিভিশন দেখতে পারেন। ভোর ৫টা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত সব বন্দিদের জন্যই জেলে টেলিভিশন দেখার বন্দোবস্ত রয়েছে। কেজরিওয়াল ছাড়াও আবগারি দুর্নীতি মামলায় আম আদমি পার্টির আরও তিন নেতা জেলে রয়েছেন। সত্যেন্দ্র জৈন, মণীশ সিং এবং মণীশ সিসোদিয়া।

2 weeks ago


AAP Protest: কেজরিওয়ালের মুক্তির দাবিতে আপ কর্মীদের বিক্ষোভে রণক্ষেত্র দিল্লি, ধরপাকড় পুলিসের

মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের গ্রেফতারির প্রতিবাদে মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রীর বাসভবন ঘেরাওয়ের ডাক দিয়েছিল আম আদমি পার্টি। সেই মতো সকাল থেকেই প্যাটেল চক এলাকায় জোড়ো হতে শুরু করেছিলেন আপ নেতা-কর্মীরা। বিক্ষোভ ঠেকাতে প্রস্তুত ছিল পুলিসও। কর্মসূচি শুরু হতেই রণক্ষেত্রের আকার নেয় পরিস্থিতি। প্রতিবাদকারীদের আটকাতে শুরু হল ধরপাকড়। দিল্লি পুলিসের হাতে আটক হলেন পঞ্জাবের মন্ত্রী তথা আপ নেতা হরজোৎ সিং বাইন।

আবগারি মামলায় গত কয়েকদিন আগেই ইডির হাতে গ্রেফতার হয়েছেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল। এরপর থেকেই ইডি হেফাজতে রয়েছেন। এখনও পর্যন্ত মুখ্যমন্ত্রী পদ থেকে ইস্তফা দেননি কেজরি। জেলে বসেই সরকার চালাবেন বলেও জানিয়েছেন। এই অবস্থায় আজ স্বাস্থ্য সংক্রান্ত নির্দেশিকা জারি করলেন মুখ্যমন্ত্রী কেজরিওয়াল। যা খুবই গুরুত্বপূর্ণ বলেই মনে করা হচ্ছে।

দিল্লি পুলিস সূত্রে খবর, প্যাটেল চক মেট্রো স্টেশনের আশেপাশে ১৪৪ ধারা জারি করেছে পুলিস। বিক্ষোভকারীদের দাবি, অবিলম্বে অরবিন্দ কেজরিওয়ালকে মুক্তি দেওয়া হোক। বেআইনিভাবে গ্রেফতার করা হয়েছে তাঁদের নেতাকে। আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে অরবিন্দ কেজরিওয়ালকে ভয় পেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। তাঁকে ভোটের প্রচার থেকে দূরে রাখতেই গ্রেফতার করা হয়েছে।

3 weeks ago
Arvind Kejriwal: রাউস অ্যাভিনিউ আদালতে কেজরিওয়াল! গ্রেফতারির প্রতিবাদে আজ দেশজুড়ে প্রতিবাদে আপ

আবগারি দুর্নীতি মামলায় দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীকে গ্রেফতার করেছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। এই মামলায় তাঁকে ন'বার তলব করেছে কেন্দ্রীয় এজেন্সি। কিন্তু, একবারও তিনি হাজিরা দেননি। দিল্লি হাইকোর্টে আগাম জামিনের জন্য রক্ষাকবচ চেয়েছিলেন কেজরিওয়াল। তবে সেই আর্জি খারিজ হতেই বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তাঁর বাসভবনে তল্লাশি চালাতে পৌঁছয় ইডি। ঘণ্টা দুয়েকের জিজ্ঞাসাবাদের পর তাঁকে গ্রেফতার করা হয়। ইডি হেফাজতেই কেটেছে রাত। সকাল হতেই জামিনের আর্জি খারিজ করে দিল সুপ্রিম কোর্ট। আজই, শুক্রবার দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীকে হেফাজতে চেয়ে রাউস অ্যাভিনিউ আদালতে পেশ করে ইডি। রাতে তাঁকে দফায় দফায় জেরা করা হয়েছে। আম আদমি পার্টির পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে কেজরিওয়ালের বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে ৭০,০০০ টাকা পেয়েছে মাত্র তদন্তকারীরা। স্বাভাবিকভাবে ঘটনায় ক্ষুব্ধ আম আদমি পার্টির কর্মী সমর্থকেরা।

এদিকে কেজরিওয়ালের গ্রেফতারির পরেই দিল্লিতে নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে। আজ কেজরিওয়ালের বাড়িতে তাঁর পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে যেতে পারেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। এদিকে দিল্লিতে উত্তেজনা সামাল দিতে আম আদমি পার্টির সদর কার্যালয়ের রাস্তা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। সেই রাস্তা দিয়ে যান চলাচল করতে দেওয়া হচ্ছে না। কেজরিওয়ালের গ্রেফতারির প্রতিবাদে আজ দেশজুড়ে প্রতিবাদে পথে নামছে আম আদমি পার্টি।

জানা গিয়েছে, ইডি সকালে কেজরিওয়ালের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করানোর পর তাঁকে আদালতে পেশ করবে। মুখ্যমন্ত্রী পদে থাকাকালীন কাউকে গ্রেফতার করার ঘটনা এই প্রথম। এর আগে ঝাড়খণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত সোরেনকেও গ্রেফতার করেছে ইডি। তবে সেটা মুখ্যমন্ত্রী পদ থেকে আগে ইস্তফা দিয়েছিলেন, তারপরে ইডি তাঁকে গ্রেফতার করেছিল।

কেজরিওয়ালকে হেফাজতে নিয়ে তাঁকে জেরা করতে চাইছে কেন্দ্রীয় এজেন্সি। পুরো জেরাটি লিখিত হবে এবং তার ভিডিওগ্রাফি করা হবে বলে সূত্রের খবর। এদিকে দিল্লির রাস্তায় নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাত থেকে দিল্লিতে রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন। কেজরিওয়ালের বাড়ির চারপাশে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। সেখানে কোনও রকম জমায়েত করতে দেওয়া হচ্ছে না।

3 weeks ago


Delhi: আবগারি দুর্নীতি মামলায় গ্রেফতার অরবিন্দ কেজরিওয়াল, সুপ্রিম কোর্টে জামিনের আবেদন খারিজ

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় আবগারি দুর্নীতি মামলায় গ্রেফতার হন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। সুপ্রিম কোর্টে ধাক্কা খেল কেজরিওয়ালের জামিনের আর্জি। প্রধান বিচারপতি ডিওয়াই চন্দ্রচূড় শুনলেন না কেজরিওয়ালের জামিনের আর্জি। সেটি তিনি স্পেশাল বেঞ্চে রেফার করে দিয়েছেন। কেজরিওয়ালের আইনজীবী অভিষেক মনুসিংভি জামিনের আর্জি নিয়ে সাত সকালেই হাজির হয়েছিলেন।

কিন্তু প্রধান বিচারপতি ডিওয়াই চন্দ্রচূড় জানান, এই কাণ্ডে গ্রেফতার কবিতার সঙ্গে মামলার শুনানি করা হবে স্পেশাল বেঞ্চে। এদিকে সকাল থেকে ইডির দফতরে দফায় দফায় জেরা করা হচ্ছে কেজরিওয়ালকে। সকালে মেডিকেল টিম গিয়ে কেজিওয়ালের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করেছে।

ভিডিওগ্রাফি করে রাখা হচ্ছে কেজরিওয়ালের জেরার যাবতীয় তথ্য। আজ দুপুর আড়াইটে নাগাদ অরবিন্দ কেজরিওয়ালকে দিল্লির রাউস অ্যাভিিনউ আদালতে পেশ করা হবে বলে জানা গিয়েছে। গতকাল রাতেই কেজরিওয়ালের গ্রেফতারির পর সুপ্রিম কোর্টে জামিনের আর্জি জানিয়েছিল আম আদমি পার্টি। রাতেই জরুরি ভিত্তিতে শুনানির আর্জি জানানো হয়। কিন্তু রাতে আদালত বসেনি।

সকালে তড়িঘড়ি তাই আপ আর্জি নিয়ে হাজির হয়েছিল। কিন্তু প্রধানবিচারপতি ডিওয়াই চন্দ্রচূড় সেটি শুনতে রাজি হননি। তিনি ৩ বিচারপতির স্পেশাল বেঞ্চে সেটি রেফার করে দেন। এখন সেখান সেই বেঞ্চ কি নির্দেশ দেয়। এদিকে কেজরিওয়ালকে হাতে পেরে তৎপর ইডি। আজ আদালতে কেজরিওয়ালকে হেফাজতে চাইবে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। এদিকে কেজরিওয়ালের গ্রেফতারির পর থেকে উত্তাল হয়ে উঠেছে দিল্লি। আম আদমি দফতরের সব রাস্তা বন্ধ করে দিয়েছে দিল্লি পুলিশ। এমনকি সেই মেট্রো স্টেশনও বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। কেজরিওয়ালের বাড়ির চারপাশে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। কোনও রকম জমায়েত হলেই গ্রেফতার করা হচ্ছে। এদিকে আজ দেশজুড়ে প্রতিবাদের ডাক দিয়েছে আম আদমি পার্টি।

3 weeks ago
Sandeshkhali: সন্দেশখালি ঢুকতে বাধা, ভোজেরহাটেই দিল্লির ফ্যাক্ট ফাইন্ডিং টিমকে আটকাল পুলিস

সন্দেশখালির পরিস্থিতির উপর টানা নজর রেখে চলেছে জাতীয় নির্বাচন কমিশন। রবিবার  সন্দেশখালি যাওয়ার পথে পুলিসি বাধার মুখে পড়ে দিল্লির স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার ফ্যাক্ট ফাইন্ডিং টিম। ভোজেরহাটে আটকে দেওয়া হল তাদের। রাস্তায় বসে বিক্ষোভ ওই প্রতিনিধি দলের সদস্যদের। টেনেহিঁচড়ে প্রিজন ভ্যানে তোলা হয়। গ্রেফতার করে নিয়ে যাওয়া হয় ফ্যাক্ট ফাইন্ডিং টিমের সদস্যদের বলে সূত্রের খবর। কেন সন্দেশখালি যেতে বাধা দেওয়া হচ্ছে, প্রশ্ন তাদের।

এদিকে, দিল্লি থেকে চেয়ে পাঠানো হলো সন্দেশখালির প্রতিদিনকার রিপোর্ট। প্রধান নির্বাচন কমিশনার সহ কমিশনের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চ আগামী ৪ মার্চ রাজ্যে আসার কথা রয়েছে। ৫ই মার্চ তারা বৈঠক করবে সমস্ত রাজনৈতিক দল ও জেলা প্রশাসনের সঙ্গে।

প্রতিদিনই উত্তপ্ত হচ্ছে সন্দেশখালি। আইন শৃঙ্খলার পরিস্থিতি অবনতি হওয়ায় জারি করতে হয়েছে ১৪৪ ধারা। রাজ্য মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক অফিস সূত্রে খবর, প্রতিদিনই সন্দেশখালি নিয়ে রিপোর্ট পাঠানো হচ্ছে জাতীয় নির্বাচন কমিশনে। একই সঙ্গে সূত্র মারফত জানা গিয়েছে, চিফ ইলেকশন কমিশনার বৃহস্পতিবারই সিআরপিএফের নোডাল অফিসারের সাথে দীর্ঘ বৈঠক সেরেছেন নির্বাচনের কথা মাথায় রেখে।

গত জানুয়ারি মাসে রেশন দুর্নীতিকাণ্ডে তল্লাশি করতে গিয়ে ইডির আধিকারিকদের কার্যত রক্তাক্ত হয়ে খালি হাতে ফিরতে হয়েছিল কলকাতায়। তারপর থেকে দফায় দফায় উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে সন্দেশখালি। স্থানীয়দের তরফে একাধিক অভিযোগ জমা করা হয়েছে পুলিস প্রশাসনের হাতে। শেখ শাহজাহানের গ্রেফতারির দাবিতে পথে নেমেছেন সন্দেশখালির মহিলারাও। নির্যাতনের কথা জানিয়েছেন প্রকাশ্যে। থানায় অভিযোগও দায়ের করেছেন। এখন অপেক্ষার কবে শান্ত হয় সন্দেশখালি।

2 months ago
Dev: ৮ ঘণ্টা পর জিজ্ঞাসাবাদ শেষে দিল্লির ইডি দফতর থেকে বেরোলেন দেব...

প্রায় ৮ ঘণ্টা পর জিজ্ঞাসাবাদ শেষে দিল্লির ইডি দফতর থেকে বেরোলেন ঘাটালের তৃণমূল সাংসদ দীপক অধিকারী ওরফে দেব। বুধবার সকাল ১১টায় গরু পাচার মামলায় তলব করা হয়েছিল তাঁকে।

হাসিমুখেই রাজধানীর প্রবর্তন ভবন থেকে বেরোতে দেখা যায় দেবকে। সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি জানান, 'আমি হাসতে হাসতে গেছি, হাসতে হাসতে বেরোলাম। আমি একজন আইন মেনে চলা নাগরিক। যতবার ডাকবে ততবার আসবো। যত রকম ভাবে পারব সহযোগিতা করবো।' যদিও কোন মামলায় তিনি এদিন ইডির মুখোমুখি হলেন? সিএন-এর করা এই প্রশ্নের উত্তর তিনি এড়িয়ে গেলেন।

দিল্লিতে ইডির দফতরে ঢোকার আগেও তিনি বলেছিলেন, আমি কোনও চুরি করিনি, তাই ভয় পাইনা। ইডি যতবার তলব করবে ততবার আসব। তবে যদি শ্যুটিংয়ে বড় কিছু কাজ থাকে তাহলেই এই না আসার কথা জানাব। অর্থাৎ ইডির সঙ্গে সহযোগিতার বার্তা দিয়েছেন অভিনেতা দেব।

এর আগে ২০২২-এর ১৫ ফেব্রুয়ারি, গরুপাচার মামলায় দেবকে নিজাম প্যালেসে প্রায় পাঁচ ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ করে সিবিআই। কয়েক মাসের ব্যবধানে ২২ জুন এই মামলাতেই দেবকে দিল্লিতে জিজ্ঞাসাবাদ করে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। এর প্রায় দেড় বছর পর ফের দেবকে তলব করল তারা।

2 months ago


Delhi: সকাল ১১টা, দিল্লির ইডি দফতরে হাজিরা দেবের, তলব গরু পাচার মামলায়

ইডির তলবে সাড়া দিলেন অভিনেতা তথা তৃণমূল সাংসদ দেব। গরু পাচার মামলায় আজ, বুধবার দেবকে তলব করেছিল ইডি। এই নিয়ে তৃতীয় বারের জন্য হাজিরা দিলেন দেব। দিল্লির ইডি দফতর অর্থাৎ প্রবর্তন ভবনে সকাল ১১টায় প্রবেশ করেন তিনি।

এর আগে যতবার তাঁকে তলব করা হয়েছে তিনি তদন্তে সহযোগীতা করেছেন। দেব নিজেও জানিয়েছেন, তাঁকে যতবার ডাকা হবে ততবারই তিনি হাজির হবেন। এর আগে ২০২২-এর ১৫ ফেব্রুয়ারি, গরুপাচার মামলায় দেবকে নিজাম প্যালেসে প্রায় পাঁচ ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ করে সিবিআই। কয়েক মাসের ব্যবধানে ২২ জুন এই মামলাতেই দেবকে দিল্লিতে জিজ্ঞাসাবাদ করে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। এর প্রায় দেড় বছর পর ফের দেবকে তলব করল তারা।

দেব আগেই জানিয়েছিলেন, তিনি কোনও অন্যায় করেননি। তাঁর কোনও ভয় নেই। তদন্তের স্বার্থে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা যতবার তাঁকে ডাকবে ততবার তিনি যাবেন।

2 months ago
Dev: রাজনীতিতে ফিরতেই ফের দেবকে দিল্লিতে ডাক ইডির

রাজনীতিতে ফিরতেই ইডির ডাক পেলেন ম।চলতি মাসের ২১ শে ফেব্রুয়ারি দিল্লিতে ইডির সদর দফতরে হাজির থাকতে বলা হয়েছে অভিনেতা দেবকে। ইডি সূত্রে খবর, গরু পাচার কাণ্ডে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য় তলব করা হয়েছে ঘাটালের সাংসদকে।

বৃহস্পতিবার ইমেল মারফত অভিনেতা দেবকে হাজিরা দেওয়ার নোটিশ পাঠানো হয়েছে বলে সূত্রের খবর। সামনেই লোকসভার নির্বাচন। তার আগেই দেবকে ফের গরু পাচার মামলায় ডেকে পাঠাল ইডি। এর আগে ২০২২ সালে দেবকে গরু পাচারকাণ্ডে দেবকে তলব করেছিল সিবিআই। কলকাতায় সিবিআইয়ের দফতর নিজাম প্যালেসে তাঁকে প্রায় পাঁচ ঘণ্টা ধরে জিজ্ঞাসাবাদ করেছিল সিবিআই। এছাড়াও ২০২৩ সালে দেবের বিরুদ্ধে নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় জড়িত থাকার অভিযোগ উঠেছিল। আর সেই অভিযোগ করেছিলেন বিজেপি বিধায়ক তথা অভিনেতা হিরণ। তাঁর অভিযোগ, গরু পাচারকাণ্ডে ধৃত এনামুল হকের কাছ থেকে পাঁচ কোটি টাকা নিয়েছেন ঘাটালের সাংসদ। 


2 months ago


Metro: মুখ্যমন্ত্রীর দিল্লি সফর, সাময়িক বন্ধ মেট্রোর কাজ!

মুখ্যমন্ত্রীর দিল্লি সফরের জন্য সাময়িক বন্ধ ভিআইপি রোডে চলা অরেঞ্জ লাইনের মেট্রোর কাজ। মেট্রো সূত্রে খবর, দিল্লি সফরে যাওয়ার জন্য ভিআইপি রোড ব্যবহার করবেন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে মেট্রো কাজ বন্ধ রাখার জন্য আবেদন করা হয় বিধাননগর পুলিস কমিশনারেটের পক্ষ থেকে। সেই কারণের সোমবার বেলা ১২ টা থেকে বন্ধ থাকছে মেট্রোর কাজ।

প্রসঙ্গত, বর্ধমান সফর থেকে ফেরার পথে দুর্ঘটনার কবলে পড়েন মুখ্যমন্ত্রী। ড্যাশবোর্ডের ধাক্কার মাথায় সামান্য চোটও পান তিনি। সেই কথা মাথায় রেখেই এবার নিরাপত্তার কোনও খামতি রাখতে নারাজ প্রশাসন। পুলিস সূত্রে খবর, সেই কারণেই মেট্রোর কাজ বন্ধ রাখার জন্য মেট্রো কর্তৃপক্ষকে চিঠি দেওয়া হয়েছে।

মুখ্যমন্ত্রীর নিরাপত্তার স্বার্থে মেট্রো কর্তৃপক্ষ অরেঞ্জ লাইনের কাজ সাময়িক বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেন। কিন্তু নির্মাণ বন্ধের কারণে অনেক সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় বলেই জানান মেট্রো আধিকারিকেরা।

মুখ্যমন্ত্রীর সফরে মেট্রোর কাজ বন্ধ রাখা নিয়ে জোর বিতর্ক শুরু হয়েছে রাজ্য রাজনীতিতে। রাজ্য প্রশাসনকে কড়া আক্রমণ শানিয়েছেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। এক্স হ্যান্ডেলে শুভেন্দু লেখেন, এই লাইনের কাজ বেশ কিছুদিন ধরেই চলছে। হাজার হাজার নয়, প্রতিদিন লক্ষ লক্ষ গাড়ি এই রাস্তার উপর দিয়ে যাতায়াত করে। এর পরেই বিরোধী দলনেতা বিধাননগর পুলিসের উদ্দেশ্যে ২টি প্রশ্ন ছুঁড়ে দেন। লেখেন, নির্মাণ কাজ যদি নিরাপদ না হয়, তাহলে ট্রাফিক বিভাগ জনসাধারণের নিরাপত্তার জন্য আগে কেন পর্যাপ্ত ব্যবস্থা নেয়নি। সাধারণ মানুষের নিরাপত্তা কি চিন্তার বিষয় নয়?

মেট্রো রেলওয়ের নির্মাণ কাজ সাময়িকভাবে বন্ধ রাখার কথা বলে আপনারা মুখ্যমন্ত্রীকে কী বার্তা দিতে চাইলেন? হীরক রানি যেখানেই যাবেন সেখানে সবকিছু বন্ধ হয়ে যাবে?

আর এখানেই ওয়াকিবহাল মহলের মতে, মেট্রোর মত এতো গুরুত্বপূর্ণ কাজ শুধুমাত্র মুখ্যমন্ত্রীর নিরাপত্তার জন্য বন্ধ রাখা যায়। যেখানে দেশের সংবিধান প্রত্যেক নাগরিকের জন্য নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করেছে, সেখানে বিধাননগর পুলিসের এই নির্দেশিকা নিয়ে প্রশ্নটা থেকেই যাচ্ছে। তা বলাই বাহুল্য।

2 months ago
Mahua Moitra: সরকারি বাংলো থেকে মহুয়া মৈত্রকে উচ্ছেদ করতে পাঠানো হল কেন্দ্রীয় সরকারের দল!

সদ্য বহিষ্কৃত সাংসদ মহুয়া মৈত্রের সরকারি বাংলো ছাড়া নিয়ে বেশ কয়েকদিন ধরেই জল্পনা তুঙ্গে। কিছুদিন আগেই কেন্দ্র থেকে নোটিশ পাঠানো হয়েছিল যে, তিনি সরকারি বাংলো না ছাড়লে প্রয়োজনে বলপ্রয়োগ করা হবে। এবারে আজ অর্থাৎ শুক্রবার জানা গিয়েছে, দিল্লির সরকারি বাংলো থেকে উচ্ছেদ করতে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে এক দল পাঠানো হয়েছে। কিন্তু অন্য়দিকে, মহুয়া মৈত্রের দফতরের থেকে জানানো হয়েছে, সেই দল পৌঁছনোর আগেই তিনি বাংলো ছেড়ে দিয়েছেন। মহুয়ার আইনজীবী জানিয়েছেন, শুক্রবার সকাল ১০টা নাগাদ বাংলো খালি করে দেওয়া হয়েছে।

গত বছর মহুয়া মৈত্রের সাংসদ পদ খারিজ করা হলে ডিরেক্টরেট অফ এস্টেটের তরফে তাঁকে একাধিকবার নোটিশ পাঠানো হয়েছে বাংলো খালি করার জন্য। কিন্তু সেই নোটিশকে চ্যালেঞ্জ করে দিল্লি হাইকোর্টে মামলা করেন মহুয়া। তবে তা খারিজও হয়ে যায়। উচ্চ আদালত জানিয়ে দেয়, সরকারি বাংলোয় থাকার অধিকার হারিয়েছেন মহুয়া। কারণ, তাঁকে সাংসদ পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। এরপর ডিরেক্টরেট অফ এস্টেটের তরফেও নোটিশ পাঠানো হয় যে, তিনি বাংলো খালি না করলে বলপ্রয়োগ করে উচ্ছেদ করা হবে। তার পরেই শুক্রবার সকালে কেন্দ্রের দল পৌঁছে যায় মহুয়ার বাংলোর সামনে। কিন্তু মহুয়ার দফতর থেকে জানানো হয়, 'দিল্লির টেলিগ্রাফ লেনে ৯বি নম্বর যে বাড়িটিতে মহুয়া মৈত্র ছিলেন, শুক্রবার সকাল ১০টায় তা সম্পূর্ণ খালি করে দেওয়া হয়েছে। ডিওই-এর আইনজীবীর হাতে বাংলোর জিনিসপত্র তুলে দেওয়া হয়েছে। ডিওই আসার আগেই বাংলো খালি করা হয়েছিল। ফলে কোনও 'উচ্ছেদ' হয়নি।'

3 months ago
ED: ইডির উপর হামলা চালিয়ে টাকা পাচারের চেষ্টা! দিল্লিতে রিপোর্ট ইডির

সন্দেশখালি কাণ্ড নিয়ে তোলপাড় গোটা বাংলা। এখনও হদিশ মেলেনি তৃণমূল নেতা শেখ শাহজাহানের। 'বেতাজ বাদশা'র বিরুদ্ধে উঠেছে নানা অভিযোগ। এমন পরিস্থিতিতেই সন্দেশখালির ঘটনা নিয়ে দিল্লির সদর দফতরে রিপোর্ট পাঠালো এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। দিল্লিতে পাঠানো ইডির রিপোর্টে উল্লেখ রয়েছে, শাহজাহান শেখকে যদি নোটিস দিয়ে তদন্তের আওতায় আনার চেষ্টা করা হত, তবে তিনি সতর্ক হয়ে যেতেন, উদ্দেশ্য সফল হত না। রিপোর্টে ইডি লেখে, শেখ শাহজাহানের বাড়িতে রেশন দুর্নীতির গুরুত্বপূর্ণ নথি ছাড়াও মজুত ছিল কোটি কোটি টাকা। আর ঠিক সেই কারণেই শাহজাহান যাতে একেবারেই সতর্ক না হতে পারেন, তাই ইডি এমন আচমকা হানা দিয়েছিল তাঁর বাড়িতে।

এরপরেই ইডির সংযোজন, যেহেতু ইডির আধিকারিকরা আচমকাই তার বাড়িতে যায়, সেকারণে বাড়িতে থাকা বিপুল পরিমাণ টাকা সরাতে পারেনি শেখ শাহজাহান। আর তাই জন্যেই গ্রামবাসীদের দিয়ে ইডি আধিকারিকদের উপর হামলা চালিয়েছিল বলে রিপোর্টে জানিয়েছে ইডির আধিকারিকরা। ওই সুযোগেই বাড়ি থেকে টাকা পাচার করার চেষ্টা করতে পারেন তৃণমূল নেতা, এমনটাও উল্লেখ করেছে ইডি।

দিল্লির সদর দফতরে সন্দেশখালির ঘটনা নিয়ে পাঠানো রিপোর্টে এমনটাই জানাল ইডির অধিকারিকরা। ইডির অনুমান সঠিক হলে কালো টাকা সরাতে দোর্দন্ডপ্রতাপ নেতা শেখ শাহজাহানপুরো গ্রামকে জড়ো করার মত বুদ্ধি এবং ক্ষমতা দুই রাখে তা বলাই বাহুল্য। এই দাপুটে তৃণমূল নেতার তদন্ত কীভাবে এগিয়ে নিয়ে যায় ইডি, রাজ্যবাসীর চোখ থাকবে সেদিকেই। অবশেষে তাঁকে গ্রেফতার করা হয় কি না, চোখ থাকবে সেদিকেও?

3 months ago


Mahua Moitra: ফের অস্বস্তিতে মহুয়া মৈত্র! দিল্লি হাইকোর্ট থেকে মামলা প্রত্যাহার সদ্য বহিষ্কৃত সাংসদের

গতকাল অর্থাৎ বুধবার সুপ্রিম কোর্টে কিছুটা স্বস্তি পেয়েছিলেন সদ্য বহিষ্কৃত সাংসদ মহুয়া মৈত্র। সাংসদ পদ খারিজ মামলায় কেন তাঁর সাংসদ পদ বাতিল হল সেই ব্যাখ্যা চেয়ে সুপ্রিম কোর্ট নোটিশ পাঠিয়েছে সংসদের সচিবালয়কে। কিন্তু আজ অর্থাৎ বৃহস্পতিবারই দিল্লি হাইকোর্টে স্বস্তি পেলেন না তৃণমূল নেত্রী মহুয়া মৈত্র। এরপরই দিল্লি হাইকোর্ট থেকে মামলাটি প্রত্যাহার করে নেন তিনি।

'টাকা নিয়ে ঘুষ' কাণ্ডে সাংসদ পদ থেকে বহিষ্কৃত হওয়ার পর সরকারি বাংলো খালি করে দিতে বলা হয়েছিল মহুয়া মৈত্রকে। সেই নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে দিল্লি হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন তিনি। কিন্তু বৃহস্পতিবার সেই নির্দেশে স্থগিতাদেশ দিল না আদালত। খারিজ হয়ে গেল মহুয়ার আবেদন। মহুয়াকে কেন্দ্রীয় সরকারের ডিরেক্টরেট অফ এস্টেটসের কাছে আবেদন করার পরামর্শ দিয়েছে আদালত। এরপরই মামলাটি প্রত্যাহার করে নেন মহুয়া।

উল্লেখ্য, ৭ জানুয়ারির মধ্যে বাড়ি খালি করার নোটিশ বাতিলের নির্দেশ চেয়ে মহুয়া মৈত্র হাইকোর্টে একটি পিটিশন দায়ের করেছিলেন। আদালত তাঁর আবেদনের প্রেক্ষিতে জানায়,  ৭ জানুয়ারির পরেও তার সরকারী অবস্থান বজায় রাখার অনুমতি চেয়ে তার সংশ্লিষ্ট সংস্থার কাছে যাওয়া উচিত। আদালত মহুয়াকে তাঁর আবেদন প্রত্যাহারের অনুমতিও দিয়েছে। এর পর তাঁর আইনজীবী মামলাটি প্রত্যাহার করে নেন।

3 months ago
Delhi: দিল্লির এইমসে ভয়াবহ আগুন! ঘটনাস্থলে দমকলের ৭টা ইঞ্জিন, আতঙ্ক ছড়ায় রোগীদের মধ্যে

বৃহস্পতিবার সকালে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে নয়া দিল্লির এইমসে। হাসপাতালের টিচিং ব্লকে আগুন লাগে। সেখান থেকে আশেপাশের বেশ কিছু কামরায় আগুন ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়েই সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় দমকলের সাতটি ইঞ্জিন। কয়েক ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে দমকল। অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় কেউ হতাহত না হলেও, ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

সূত্রের খবর, এদিন ভোরে দিল্লির এইমসের টিচিং বিভাগের দ্বিতীয় তলে আগুন লাগে। নিমেষেই সেই আগুন ভিতরে ছড়িয়ে পড়ে। হাসপাতালের কর্মী প্রথমে কালো ধোঁয়া দেখতে পান। এরপরই দমকলে খবর দেওয়া হয়।

ফায়ার সার্ভিস জানায়, এই অগ্নিকাণ্ডে কোনও হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। বর্তমানে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে। জিনিসপত্রের ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

3 months ago