Breaking News
BJP: ইস্তেহার প্রকাশ বিজেপির, 'এক দেশ এবং এক ভোট' লাগু করার প্রতিশ্রুতি      Fire: দমদমে ঝুপড়িতে বিধ্বংসী অগ্নিকাণ্ড, ঘটনাস্থলে দমকলের একাধিক ইঞ্জিন      Bengaluru Blast: বেঙ্গালুরু ক্যাফে বিস্ফোরণকাণ্ডে কাঁথি থেকে দুই সন্দেহভাজনকে গ্রেফতার করল এনআইএ      Sheikh Shahjahan: 'সিবিআই হলে ভালই হবে', হঠাৎ ভোলবদল শেখ শাহজাহানের      CBI: সন্দেশখালিকাণ্ডে সিবিআই তদন্তের নির্দেশ কলকাতা হাইকোর্টের...      NIA: ভূপতিনগর বিস্ফোরণকাণ্ডে এবার কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ NIA      ED: অবশেষে ইডির স্ক্যানারে চন্দ্রনাথের 'মোবাইল-হিস্ট্রি', খুলতে পারে নিয়োগ দুর্নীতি রহস্যের জট      PM Modi: তৃণমূল মানেই দুর্নীতি-লুট! ভোট প্রচারে সন্দেশখালির পর ভূপতিনগর নিয়ে সরব মোদী      NIA: ভূপতিনগর বিস্ফোরণকাণ্ডে গ্রেফতার আরও ২ , কেন্দ্রীয় এজেন্সির উপর হামলার ঘটনায় উদ্বিগ্ন কমিশন      Sheikh Shahjahan: বিজেপির 'দালাল'রা তাঁর বিরুদ্ধে মিথ্যে বলছে, দাবি শেখ শাহজাহানের     

Coronavirus

Corona: রাজ্যে ফের করোনা আক্রান্তের মৃত্যু, ভয় ধরাচ্ছে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট JN.1

রাজ্যে ফের করোনা আক্রান্তের মৃত্যু। বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে মৃত্যু হল এক বৃদ্ধার। জানা গিয়েছে, দমদমের শরৎ ঘোষ রোডের রবীন্দ্রনগরের বাসিন্দা বছর ৬৩-র বৃদ্ধা। মৃতের নাম মঞ্জু দাস।

বেলেঘাটা আইডি হাসপাতাল সূত্রে খবর, করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে তাঁর। তীব্র জ্বর নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন বৃদ্ধা। তাঁর পরিবারের তরফে জানা গিয়েছে, গত ৮ই জানুয়ারি বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ১৪ তারিখ সকালে মৃত্যু হয় ওই বৃদ্ধার।

এই নিয়ে রাজ্যে করোনায় মৃত্যু হল ৩ জনের। এই বৃদ্ধা জে এন.১ আক্রান্ত হয়েছিলেন কিনা তা এখনও পর্যন্ত জানা যায়নি। নমুনা জিনোম সিকোয়েন্সিংয়ের জন্য পাঠানো হয়েছে।

3 months ago
Corona: রাজ্যে উদ্বেগ বাড়াচ্ছে করোনা! আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ১০০-র গণ্ডি

নতুন বছরের শুরু থেকেই দেশজুড়ে উদ্বেগ বাড়াচ্ছে করোনার নয়া সাব-ভ্যারিয়েন্টে জেএন.১। রেহাই পাচ্ছেনা বাংলাও। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রক সূত্রে খবর, রাজ্যে সক্রিয় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১০০ গণ্ডি পেরিয়েছে।  মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১২৬। বিগত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে আক্রান্ত ১৭ জন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রক সূত্রে খবর, দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৭৭৪ জন। এছাড়াও এক সপ্তাহে লাফিয়ে বেড়েছে করোনায় মৃতের সংখ্যাও। মাত্র কয়েকদিনের মধ্যে ১০টি রাজ্যে নতুন করে কোভিড আক্রান্তের সন্ধান মিলেছে। দেশজুড়ে দাপট দেখাচ্ছে ওমিক্রনের নতুন সাব ভ্যারিয়েন্ট JN.1। বিশেষজ্ঞদের দাবি, এই সাবভ্যারিয়েন্টের ধাক্কায় বিশ্বজুড়ে দেখা দিতে পারে হৃদরোগের মহামারী। হতে পারে স্ট্রোকও। নতুন জাপানি গবেষণায় এমনই দাবি করা হয়েছে।

3 months ago
Corona: রাজ্যে আতঙ্ক বাড়াচ্ছে করোনার নয়া সাব ভ্যারিয়েন্ট...

নতুন বছরের শুরুতেই নয়া করে উদ্বেগ বাড়াচ্ছে করোনা। ইতিমধ্যেই করোনার নয়া সাব-ভ্যারিয়েন্ট জেএন.১-এ আক্রান্ত হয়েছে শতাধিক মানুষ। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী জানা যাচ্ছে, পশ্চিমবঙ্গ সহ গোটা দেশের বেশিরভাগ রাজ্যের উপরেই বসেছে করোনার থাবা। তবে এরাজ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১৩ জন, এমনটাই জানা যাচ্ছে সূত্র মারফত। যাদের মধ্যে ৫ জন ভর্তি রয়েছেন মিন্টোপার্কের এক বেসরকারি হাসপাতালে।

সূত্রের খবর, মিন্টোপার্কের বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি থাকা ওই ৫ জন এসেছিলেন অস্ত্রোপচারের জন্য। তবে নিয়ম মাফিক করোনা পরীক্ষা হওয়ায় তাঁদের করোনা ধরা পড়ে। যাঁরা আক্রান্ত হয়েছেন, তাঁদের সকলেরই বয়স আনুমানিক ৪৫-৬০ বছরের কাছাকাছি। বাকি আরও ৫ জনকে ভর্তি করা হয়েছে বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে। তবে, বছরের শুরু থেকেই করোনার এমন দাপট, কপালে চিন্তার ভাঁজ ফেলছে স্বাস্থ্যদফতরের। নেওয়া হচ্ছে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাও।

অপরদিকে, পশ্চিমবঙ্গ থেকে বেরিয়ে এদেশের বাকি রাজ্যের দিকে তাকালেও করোনা আক্রান্তের যে চিত্রটা দেখতে পাওয়া যাচ্ছে, তা খুব একটা স্বস্তিদায়ক হচ্ছে না। এক ঝলকে দেখে নিন, কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য পরিবার কল্যাণ মন্ত্রক-এর হিসাব অনুযায়ী গত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশের বিভিন্ন রাজ্যে সক্রিয় করোনা আক্রান্তের চিত্র।

১.কেরল - ১৮৬৯ জন আক্রান্ত 

২.কর্ণাটক -১০০০ জন আক্রান্ত 

৩.মহারাষ্ট্র -৬৯৩ জন আক্রান্ত 

৪.তামিলনাড়ু -১৭৫ জন আক্রান্ত

৫.অন্ধ্রপ্রদেশ -১০৯ জন 

৬.গুজরাত -৭৬ জন আক্রান্ত

৭.ছত্তিশগড় -৭১ জন আক্রান্ত

৮.পশ্চিমবঙ্গ -৭০ জন আক্রান্ত

৯.গোয়া -৫৭ জন আক্রান্ত

১০.তেলেঙ্গানা - ৬৫ জন আক্রান্ত

১১.দিল্লি -৪৫ জন আক্রান্ত 

১২.রাজস্থান -৩৭ জন আক্রান্ত

১৩.উত্তর প্রদেশ - ২৫ জন আক্রান্ত

১৪.মধ্যপ্রদেশ -২২ জন আক্রান্ত

১৫.ওড়িশা -২০ জন আক্রান্ত

১৬.পুদুচেরি -১৫ জন আক্রান্ত

১৭.বিহার -১৩ জন আক্রান্ত

১৮.লাদাখ -১১ জন আক্রান্ত

১৯.হরিয়ানা - ৯ জন আক্রান্ত

২০.পঞ্জাব -৮ জন আক্রান্ত

২১.জম্মু এবং কাশ্মীর -৬ জন আক্রান্ত 

২২.হিমাচল প্রদেশ -২ জন আক্রান্ত

২৩.চন্ডিগড় -২ জন আক্রান্ত

২৪.অসম - ১ জন আক্রান্ত

২৫.ঝাড়খণ্ড -১ জন আক্রান্ত 

২৬.মণিপুর -১ জন আক্রান্ত

সূত্রের খবর, দাদরা নগর হাভেলি, লক্ষদ্বীপ, মেঘালয়, মিজোরাম, নাগাল্যান্ড,সিকিম, উত্তরাখণ্ড, ত্রিপুরা, অরুণাচল প্রদেশ, আন্দামান এবং নিকোবর দ্বীপপুঞ্জে এখনও অবধি করোনা আক্রান্তের সংখ্যা শূন্য। তবে দেশজুড়ে বেশিরভাগ রাজ্যে এমন করোনার দাপট, ভাবাচ্ছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য পরিবার কল্যাণ মন্ত্রককে। সঙ্গে এই রাজ্যে স্বাস্থ্য দফতরের তরফেও চলছে হাসপাতাল পরিদর্শন থেকে শুরু করে সঠিক পরিকাঠামোর ব্যবস্থাকরণের কর্মসূচি।পাশাপাশি সক্রিয় করোনা আক্রান্তরা এই মুহূর্তে স্হিতিশীল আছেন বলেও জানিয়েছে স্বাস্থ্য দফতর।

3 months ago


Dengue: শীতেও অব্যাহত! করোনা উদ্বেগের মাঝেই রাজ্যে ডেঙ্গিতে মৃত্যু মহিলার

করোনার নতুন সাব-ভ্যারিয়েন্ট জেএন.১-এর দাপট বেড়েছে রাজ্যজুড়ে। তার মাঝেই ফের ডেঙ্গি আতঙ্ক। গত বছরের শেষ দিনে বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে ডেঙ্গি আক্রান্ত হয়ে এক মহিলার মৃত্যু হয়। হাসপাতাল সূত্রে খবর, ৩০ ডিসেম্বর ভর্তি হন উত্তর ২৪ পরগনার দেগঙ্গার খোরদার বাসিন্দা ওই মহিলা। মৃতের নাম, ফরিদা বিবি, ৪৩ বছর বয়স। তাঁকে বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে ভর্তি করা হয় ৩০ ডিসেম্বর। পরের দিন ৩১ ডিসেম্বর রাত ১১টা ২৫ নাগাদ ডেঙ্গিতে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয় তাঁর। স্বাস্থ্য দফতরের দাবি, এই মুহূর্তে রাজ্যে ডেঙ্গি আক্রান্তের সংখ্যা সর্বনিম্ন।

3 months ago
Corona: বর্ষবরণে চিন্তা বাড়াচ্ছে JN.1, শহর কলকাতায় করোনা আক্রান্ত আরও ৫

নতুন বছরের শুরুতেই নতুন করে উদ্বেগ বাড়াচ্ছে করোনা। ইতিমধ্যেই করোনার নয়া সাব-ভ্যারিয়েন্টে জেএন.১-এ আক্রান্ত হয়েছে শতাধিক মানুষ। এছাড়াও দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬৩৬ জন। এছাড়াও এক সপ্তাহে লাফিয়ে বেড়েছে করোনায় মৃতের সংখ্যাও। গত সাতদিনে মোট ২৯ জনের মৃত্যু হয়েছে দেশজুড়ে।

অন্যদিকে, শহর কলকাতাতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা আরও বাড়ল। মিন্টো পার্কের বেসরকারি হাসপাতালে হদিশ মিলল আরো পাঁচ করোনা আক্রান্তের। প্রত্যেকেই অস্ত্রোপচার করাতে ভর্তি হয়েছিলেন বলে হাসপাতাল সূত্রে খবর। যদিও তাদের শারীরিক অবস্থা এখন স্থিতিশীল।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক সূত্রে খবর, মাত্র সাতদিনের মধ্যে ১০টি রাজ্যে নতুন করে কোভিড আক্রান্তের সন্ধান মিলেছে। দেশজুড়ে দাপট দেখাচ্ছে ওমিক্রনের নতুন সাব ভ্যারিয়েন্ট JN.1ও। বিশেষজ্ঞদের দাবি, এই সাবভ্যারিয়েন্টের ধাক্কায় বিশ্বজুড়ে দেখা দিতে পারে হৃদরোগের মহামারী। হতে পারে স্ট্রোকও। নতুন জাপানি গবেষণায় এমনই দাবি করা হয়েছে।

3 months ago


Corona: গত ৭ মাসে সর্বোচ্চ! বছরের শেষ দিনে নতুন করে কোভিডে আক্রান্ত ৮৪১

বর্ষবরণের জন্য যখন বিশ্ববাসী আনন্দে মেতে উঠেছে, সেসময়ই দেশে নতুন করে মাথাচাড়া দিয়ে উঠছে করোনা। বছরের শেষদিনে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা উদ্বেগের সৃষ্টি করছে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের সর্বশেষ রিপোর্ট অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৮৪১ জন। যা গত ২২৭ দিনের মধ্যে সর্বোচ্চ। ফলে নতুন বছরের শুরুতে আবার কোভিড আতঙ্ক। ফের সেই মাস্ক, ফের সেই করোনা বিধি ফিরবে কিনা সেই ভয় জাঁকিয়ে বসছে সাধারণ মানুষের মনে।

বছর শেষের আগে করোনার নয়া উপপ্রজাতি জেএন.১ ঘিরে আবার আতঙ্ক ফিরেছে দেশে। রবিবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক সূত্রে জানা গিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনায় নতুন করে সংক্রমিতের সংখ্যা ৮৪১। গত ৭ মাসে যা সর্বোচ্চ। শনিবার এই সংখ্যাটা ছিল ৭৪৩। মৃত্যু হয়েছিল ৭ জনের। রবিবার নতুন করে করোনায় ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। মৃতরা কেরল, কর্নাটক, বিহারের বাসিন্দা। করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যাও বাড়তে শুরু করেছে। অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা ৪,৩০৯।

গত ১৯ মে ভারতে নতুন করে ৮৬৫ জন আক্রান্ত হয়েছিলেন। চলতি মাসের ৫ ডিসেম্বর পর্যন্তও দৈনিক কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা দুই অঙ্কে নেমে এসেছিল। কিন্তু করোনা জেএন.১ নতুন ভ্যারিয়েন্ট এবং ঠান্ডা আবহাওয়ার কারণে আবার আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে শুরু করেছে।

4 months ago
Corona: বর্ষবরণের আগে ভয় ধরাচ্ছে করোনা, সক্রিয় কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা চার হাজার ছুঁইছুঁই

নতুন বছর শুরুর আগেই নতুন করে উদ্বেগ বাড়াচ্ছে করোনা (Corona)। ইতিমধ্যেই করোনার নয়া সাব-ভ্যারিয়েন্টে জেএন.১-এ (JN.1) আক্রান্ত হয়েছে শতাধিক মানুষ। এছাড়াও দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৭৪৩ জন। এছাড়াও গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৭জনের।

বছরের শেষে ফের ঊর্ধ্বমুখী কোভিড গ্রাফ। বর্ষবরণের আগেই নতুন করে ভয় ধরাচ্ছে করোনা ও সাব ভ্যারিয়েন্ট জেএন.১। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৭৪৩ জন নতুন করে কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়েছেন। সরকারি তথ্য অনুসারে, দেশে সক্রিয় কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা ৩৯৯৭। মৃত্যু হয়েছে সাত জনের। শনিবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের প্রকাশিত তথ্য অনুসারে, কেরলে তিন জন, কর্ণাটকে দুই জন এবং তামিলনাড়ু ও ছত্তীসগড়ে একজন করে কোভিড আক্রান্তের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে।

উল্লেখ্য, ভারতে মোট ১৭৮ টি জেএন.১-এর কেস ধরা পড়েছে। গোয়াতে নতুন করে ৪৭ জন এই উপপ্রজাতিতে আক্রান্ত হয়েছেন। আর কেরলে ৪৭ জন আক্রান্ত হয়েছেন। তবে হু-এর মতে, কোভিডের অন্যান্য ভ্যারিয়েন্টের থেকে জেএন.১-এ আক্রান্তদের ঝুঁকি অনেক কম।

4 months ago
Corona: উদ্বেগ বাড়াল করোনার বাড়বাড়ন্ত! কলকাতায় করোনায় মৃত্যু বৃদ্ধের

দীর্ঘ সময় নিয়ন্ত্রণে থাকার পর ফের রাজ্যজুড়ে বাড়তে শুরু করেছে করোনার দাপট। শহরের বেসরকারি হাসপাতালে মৃত্যু হল কোভিড আক্রান্ত এক বৃদ্ধের। তাঁর বয়স সত্তরের কাছাকাছি। তিনি একবালপুরের বেসরকারি হাসপাতালে চিকিত্‍সাধীন ছিলেন। বৃহস্পতিবার দুপুর নাগাদ ওই বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। আর রাত সাড়ে ১০টা নাগাদ মৃত্যু হয় তাঁর।

হাসপাতাল সূত্রে খবর, ওই বৃদ্ধের হৃদরোগ ও শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা ছিল।  বৃদ্ধের করোনা টেস্ট করানো হলে বিকেলে তার করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে। তারপরই সেদিন রাতে তিনি মারা যান। মৃত্যুর কারণ হিসেবে ডেথ সার্টিফিকেট উল্লেখ কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট উইথ কোমর্বিডিটি এবং করোনা পজেটিভ।

স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তথ্য অনুযায়ী, এই মুহূর্তে দেশে কোভিড সংক্রমণ পেরিয়েছে ৪ হাজারের গণ্ডি। তার মধ্যে বাংলার পরিস্থিতি কিছুটা ভালো। এখানে সংক্রমণ তুলনায় কম। তবে একজনের মৃত্যুর খবরে আরও সচেতন রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর। সূত্রের খবর, বাংলায় মোট কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা ১৭। অ্যাকটিভ কেস ১০, ৩ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। কোভিড আক্রান্তদের মধ্যে ৬ মাসের এক শিশুও রয়েছে। সে কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পেডিয়াট্রিকস বিভাগে ভেন্টিলেশনে রয়েছে। জানা গিয়েছে, মেনিনজাইটিস উপসর্গ নিয়ে বিহার থেকে হাওড়ায় একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হয়। সেখান থেকে মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে তাকে পাঠানো হয়েছে। বাকি আক্রান্তরা শহরের বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

4 months ago


Corona: দিল্লিতেও হদিশ মিলল জেএন.১-এর, দেশে একদিনে করোনায় আক্রান্ত সাতশোরও বেশি!

ফের কোভিডের (Covid) চোখরাঙানি দেশজুড়ে। গত ২৪ ঘণ্টায় মারণ ভাইরাস করোনায় বলি হলেন ৬জন। তার মধ্যে রয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের এক ব্যক্তিও। গত ২৪ ঘণ্টায় কোভিড আক্রান্ত হয়েছেন ৭০০ জনেরও বেশি। দেশজুড়ে অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যাও চার হাজার ছাড়িয়ে গিয়েছে। আবার ইতিমধ্যে দিল্লিতেও ঢুকে পড়েছে করোনার উপপ্রজাতি জেএন.১।

করোনার নয়া সাব-ভ্যারিয়েন্ট জেএন.১-এর রূপ নিয়ে নতুন করে উদ্বেগ বাড়ছে মানুষের মধ্যে। ভারতেও একাধিক রোগীর দেহে মিলেছে এই ভ্যারিয়েন্ট। গোয়া, কর্নাটক, কেরলের পর রাজধানী দিল্লিতেও মিলল এই ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্তের খোঁজ। গতকাল অর্থাৎ বুধবারই দিল্লির স্বাস্থ্যমন্ত্রী সৌরভ ভরদ্বাজ জানান, দিল্লিতে জেএন.১ সাব ভ্য়ারিয়েন্টে প্রথম আক্রান্তের খোঁজ মিলেছে। এই নিয়ে দেশে জেএন.১ ভ্য়ারিয়েন্টে আক্রান্তের সংখ্যা ১০০ পার করল। এই নয়া সাব-ভ্যারিয়েন্টে দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১০৯ জন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রক সূত্রে খবর, গত ২৪ ঘণ্টায় ছ'জনের মৃত্যু হয়েছে গোটা দেশে। তার মধ্যে দুজন মহারাষ্ট্রে। করোনার থাবায় একজন করে প্রাণ হারিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গ, দিল্লি, কর্নাটক ও কেরলে। গত ২৪ ঘণ্টায় কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা ৭০২। বর্তমানে দেশের অ্যাক্টিভ রোগীর সংখ্যা ৪ হাজারেরও বেশি। ফলে বর্ষবরণের আগেই নতুন করে আতঙ্কের সৃষ্টি করছে করোনা।

4 months ago
Corona: করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট জেএন.১-এ আক্রান্ত ১০৯ জন, দেশে কোভিডে আক্রান্ত আরও ৫২৯ জন

নতুন করে মাথাচাড়া দিয়ে উঠছে করোনা ভাইরাস। করোনার নতুন উপপ্রজাতি জেএন.১-এ সংক্রমণের সংখ্যা বেড়েই চলেঠে। ইতিমধ্যেই গত ২৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত দেশে কোভিডের নয়া স্ট্রেন জেএন.১-এ আক্রান্ত হয়েছেন মোট ১০৯ জন। এছাড়াও গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন আরও ৫২৯ জন। এই মুহূর্তে অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা ৪ হাজার ৯৩। সংক্রমিত হয়ে মারা গিয়েছেন তিনজন। এদের মধ্যে দুজন কর্নাটকের বাসিন্দা এবং একজন গুজরাটের বাসিন্দা বলে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক। আবার কলকাতাতেও বৃদ্ধি পেয়েছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। আজ অর্থাৎ বুধবার আরও ২ করোনা আক্রান্তের হদিশ মিলেছে। দুইজনেই কলকাতার দুই বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এ নিয়ে চলতি সপ্তাহে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৭।

দেশে কোভিডের নতুন ভ্যারিয়েন্ট জেএন.১-এর সংক্রমণ ক্রমশ বৃদ্ধি পেয়েই চলেছে। ফলে দেশজুড়ে উদ্বেগ বাড়াচ্ছে করোনার নতুন এই সাব ভ্যারিয়েন্ট। উদ্বেগ রয়েছে মহারাষ্ট্র, কর্নাটক, কেরালা নিয়ে। কর্নাটকে কোভিডের জেএন.১-এ আক্রান্ত হয়েছেন মোট ৩৪ জন। তার মধ্যে কেবলমাত্র বেঙ্গালুরুতেই ২০ জনের শরীরে থাবা বসিয়েছে জেএন.১। গুজরাটে জেএন.১-এ আক্রান্ত হয়েছেন ৩৬ জন। গোয়াতে করোনার নয়া স্ট্রেনে আক্রান্তের সংখ্যা ১৪, মহারাষ্ট্রে ৯, কেরালায় ৬, রাজস্থান এবং তামিলনাড়ুতে ৪ এবং তেলঙ্গানায় ২।

এদিন কলকাতাতে যে দু'জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন, তারা শহরের দুটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। এদের মধ্যে একজন বছর ৫৫-এর মধ্য বয়স্ক মহিলা। মুকুন্দপুরের একটি হাসপাতালে ভর্তি। এর পাশাপাশি একজন ৭২ বছরের বৃদ্ধ করোনায় আক্রান্ত। তিনি ভর্তি রয়েছেন আনন্দপুরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে। এই দুজনই কলকাতার বাসিন্দা। তবে বাংলায় এখনও পর্যন্ত নতুন ভ্যারিয়েন্ট জেএন.১-এ আক্রান্তের খোঁজ মেলেনি।

4 months ago


Corona: বাড়ছে করোনা আতঙ্ক! দেশে করোনার অ্যাকটিভ কেস ৪ হাজার পার, দেশজুড়ে সতর্কতা

করোনা নিয়ে ফের নতুন করে উদ্বেগ বাড়ছে দেশে। করোনার নতুন উপপ্রজাতি ইতিমধ্যেই বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে পড়েছে। যার মধ্যে ভারতও এক দেশ, যেখানে ক্রমশ ছড়িয়ে পড়ছে নয়া উপপ্রজাতি জেএন.১। জানা গিয়েছে, ভারতে এক দিনে ৬২৮ টি নতুন কোভিড সংক্রমণ ধরা পড়েছে। দেশে অ্যাকটিভ কেসের সংখ্যা পার করল ৪ হাজারের গণ্ডি। বড়দিন, বর্ষবরণের ভিড়কে মাথায় রেখে দেশজুড়ে সতর্কতা অবলম্বন করছে প্রশাসনও। রাজ্যগুলিকে প্রস্তুত থাকার পরামর্শ দিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক। একইসঙ্গে তাদের সবরকম সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী মনসুখ মান্ডব্য।

করোনার নয়া সাব-ভ্যারিয়েন্ট জেএন.১-এর রূপ নিয়ে নতুন করে উদ্বেগ বাড়ছে মানুষের মধ্যে। তারই মধ্যে সোমবার স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তরফে জানানো হল, দেশে অ্যাকটিভ কেসের সংখ্যা ৪ হাজার পেরিয়ে গেল। বর্তমানে কোভিডের সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৪ হাজার ৫৪। ২৪ ঘণ্টা আগে যা ছিল ৩,৭৪২। এর মধ্যে অ্য়াকটিভ কেসের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি কেরলে। এই রাজ্যেই প্রথম জেএন.১-এর হদিশ পাওয়া গিয়েছিল। একদিনে সেখানে অ্যাকটিভ কেস বেড়েছে ১২৮। যার জেরে শুধু কেরলেই সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৩০০০ টপকে গেল।

উল্লেখ্য, গোয়ায় ৩৪টি, মহারাষ্ট্র থেকে ৯, কর্ণাটক থেকে ৮, কেরালা থেকে ৬, তামিলনাড়ু থেকে ৪ এবং তেলেঙ্গানা থেকে ২ জনের শরীরে করোনার নতুন এই ভ্যারিয়েন্ট ধরা পরেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় সংক্রমিত হয়ে মারা গিয়েছেন ১ জন। ফলে দেশে কোভিডে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে হল ৫ লক্ষ ৩৩ হাজার ৩৩৪। যদিও এর মধ্য়ে স্বস্তি দিচ্ছে সুস্থতার হার। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনামুক্ত হয়েছেন ৩১৫ জন।

4 months ago
Corona: বড়দিনের আগেই ফের ঊর্ধ্বমুখী দেশের করোনার গ্রাফ, গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত ৪

বড়দিনের আগেই দেশজুড়ে আবার করোনা আতঙ্ক। চোখ রাঙাচ্ছে মারণ ভাইরাসের নয়া সাব-ভ্যারিয়েন্ট JN.1। শনিবার স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তরফে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টাতেই দেশের করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৭৫২ জন। চলতি বছর ২১ মে’র পর এটাই দৈনিক সর্বোচ্চ সংক্রমণ। শুক্রবারের রিপোর্ট অনুযায়ী, একদিনে আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৬৪০। অর্থাৎ গত ২৪ ঘণ্টায় তা অনেকটাই লাফিয়ে বেড়েছে। আর এর জেরেই অ্যাকটিভ কেসের সংখ্যা বেড়ে হল ৩৪২০। একদিনে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৪ জনের।

স্বাস্থ্যমন্ত্রক আরও জানাচ্ছে, ১৭টি রাজ্যে নতুন করে উদ্বেগ বাড়াচ্ছে কোভিড-১৯। যার শীর্ষে রয়েছে কেরল। সেখানে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ২ জনের। রাজস্থান ও কর্ণাটকে ১ জন করে মৃত্যু হয়েছে। সব মিলিয়ে করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে হল ৫ লক্ষ ৩৩ হাজার ৩৩২ জন।

4 months ago
Corona: রাজ্যে ফের করোনার হানা! আক্রান্ত শিশু সহ ৩, বাড়ছে সংক্রমণ

রাজ্যে ফের কোভিডের থাবা। নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন তিন জন। এদের মধ্যে রয়েছে একটি ৫ মাসের শিশুও। কলকাতা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি শিশুটি বিহারের বাসিন্দা। সে কোন প্রজাতির করোনাভাইরাসে আক্রান্ত তা জানতে ক্যালকাটা স্কুল অফ ট্রপিক্যাল মেডিসিনে জিনোম সিকুয়েন্সিং জন্য পাঠানো হয়েছে। বাকিদের নমুনা পাঠানো হয়েছে কল্যাণীর ইনস্টিটিউট অফ ভাইরোলজিতে।

স্বাস্থ্য ভবন সূত্রে খবর, রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৮। মেডিক্যাল কলেজে একটি ৫ মাসের শিশু এবং শহরের দু’টি নামি বেসরকারি হাসপাতালে দু’জন কোভিড পজিটিভ চিহ্নিত হয়েছেন। তিনজনই বিভিন্ন উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন। জ্বর-সর্দির উপসর্গ থাকায় করোনার আরটিপিসিআর পরীক্ষা করানো হয়। রিপোর্ট পজিটিভ আসে।

উল্লেখ্য, বেশ কিছুদিন ধরেই কোভিড সংক্রমণ নিয়ে ক্রমশ বাড়ছে উদ্বেগ। সিঙ্গাপুরে এবং বেশ কিছু দেশে নতুন করে বাড়তে শুরু করেছে কোভিড সংক্রমণ। দাপট দেখাচ্ছে কোভিডের নতুন সাব-ভ্যারিয়েন্ট JN.1।

4 months ago


Corona: করোনার নয়া সাব-ভ্যারিয়েন্টে সংক্রমিত দেশের ২১ জন, গত ২৪ ঘণ্টায় ৬০০-র বেশি আক্রান্ত

করোনা (Corona Virus) নিয়ে ফের নতুন করে উদ্বেগ বাড়ছে দেশে। করোনার নতুন উপপ্রজাতি ইতিমধ্যেই বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িে পড়েছে। যার মধ্যে ভারতও এক দেশ, যেখানে ক্রমশ ছড়িয়ে পড়ছে নয়া উপপ্রজাতি জেএন.১। জানা গিয়েছে, ইতিমধ্যে দেশের ৩ রাজ্যে ২১ জনের শরীরে করোনার নতুন উপপ্রজাতি জেএন.১  উপস্থিতির প্রমাণ মিলেছে। আবার গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে ৬০০ জনের বেশি। ফলে রাজ্যগুলিকে প্রস্তুত থাকার পরামর্শ দিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক। একইসঙ্গে তাদের সবরকম সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী মনসুখ মান্ডব্য।

দেশের করোনার নতুন উপপ্রজাতি জেএন.১-এর ফলে ফের মাথাচাড়া দিয়ে উঠছে করোনা। তিন রাজ্যে এই উপপ্রজাতিতে আক্রান্ত ব্যক্তিদের খোঁজ পাওয়া গিয়েছে। তালিকায় রয়েছে কেরল, মহারাষ্ট্র, গোয়া। তিন রাজ্যের মধ্যে গোয়ায় আক্রান্ত সবচেয়ে বেশি, ১৯ জন। বাকি দুজন মহারাষ্ট্র ও কেরলের বাসিন্দা।

করোনার নতুন উপপ্রজাতি মোকাবিলায় বুধবার সব রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের সচিবদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী মনসুখ মান্ডব‍্য। বৈঠকের পর কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জানিয়েছেন, "কেন্দ্র ও রাজ্যের সরকারকে একজোট হয়ে কাজ করতে হবে। আমাদের প্রত্যেককে সতর্ক থাকতে হবে। তবে ভয় পাওয়ার দরকার নেই।"

4 months ago
Pirola: নতুন করে ভয় ধরাচ্ছে করোনার নতুন রূপ 'পিরোলা', কতটা ক্ষতিকারক এই ভ্যারিয়েন্ট

ফের নতুন করে আতঙ্ক ছড়াচ্ছে করনোর (CoronaVirus) নতুন রূপ। নয়া রূপে ফিরে আসছে কোভিড (Covid19)। সম্প্রতি বিএ.২.৮৬ (BA.2.86) নামের এই ভাইরাসের অস্তিত্বের সন্ধান পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (World Health Organisation)। নতুন এই প্রজাতির ভাইরাস 'ওমিক্রন'-এরই আরেক রূপ। জানা গিয়েছে, নতুন এই 'ভ্যারিয়েন্ট'-এর নাম দেওয়া হয়েছে 'পিরোলা' (Pirola)। সূত্রের খবর, ডেনমার্ক, ইজরায়েল, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং ব্রিটেন সহ মোট ছটি দেশে এখন পর্যন্ত এই ভাইরাসের হদিশ এবং উপস্থিতি টের পাওয়া গিয়েছে।

Yale Medicine Report-এর প্রকাশিত গবেষণাপত্র অনুযায়ী, বিশ্বের একাধিক দেশে ইতিমধ্যেই করোনার 'পিরোলা' রূপের সন্ধান মিলেছে। করোনার ওমিক্রনের এক্সবিবি.১.৫ (XBB.1.5) রূপের সঙ্গেও যদি তুলনা করা হয়, সেই নিরিখেও পিরোলার স্পাইক প্রোটিন কমপক্ষে ৩০ বার চরিত্র বদল করেছে। জানা গিয়েছে, এর আগে করোনার এই রূপ আমেরিকায় দাপট দেখিয়েছে। তাই করোনার পিরোলা রূপকে ঘিরেও নতুন করে উদ্বেগ দেখা দিয়েছে। তবে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, পিরোলা সম্পর্কে এখনও সম্পূর্ণ তথ্য জানা বাকি। এছাড়াও কতটা ক্ষতিকারক এই ভাইরাস, তা এখনও বোঝা যায়নি। ফলে করোনার এই রূপ নিয়ে গবেষণা করা হচ্ছে।

7 months ago