Breaking News
Tapas Roy: তৃণমূল ছাড়লেন তাপস রায়, বরাহনগরের বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা বর্ষীয়ান নেতার      Resign: হঠাৎ অবসর বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের, 'রাজনীতি যোগ' জল্পনা তুঙ্গে      Sandeshkhali: সন্দেশখালিতে ফের ফ্য়াক্ট ফাইন্ডিং টিম, শুনবে মহিলা ও বাসিন্দাদের কষ্টের কথা      BJP: প্রথম দফায় ১৯৫ প্রার্থীর নাম ঘোষণা বিজেপির, বাংলার ২০ জনের নাম তালিকায়      Modi: 'রামমোহনের আত্মা সন্দেশখালির মহিলাদের দুর্দশায় কাঁদছে', আরামবাগ থেকে মমতাকে তোপ মোদীর      Suspend: গ্রেফতারির পরেই তৃণমূল থেকে ছয় বছরের জন্য সাসপেন্ড সন্দেশখালির 'বেতাজ বাদশা' শাহজাহান      Sandeshkhali: নিরাপদ সর্দারকে নিঃশর্তে জামিন দিয়ে রাজ্য পুলিসকে তিরস্কার বিচারপতির      Sheikh Shahjahan: ঘর ভাঙচুর, টাকা লুঠ! শেখ শাহজাহানের বিরুদ্ধে নতুন এফআইআর সন্দেশখালি থানায়      Sandeshkhali: অজিত মাইতিকে তাড়া গ্রামবাসীদের, সাড়ে ৪ ঘণ্টা পর অবশেষে আটক পুলিসের      Ajit Maity: উত্তপ্ত সন্দেশখালি! অজিত মাইতির গ্রেফতারির দাবিতে বিক্ষোভ মহিলাদের, বাঁচতে সিভিকের বাড়িতে আশ্রয়     

Bus

Accident: দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ, সপ্তমীতে বড়সড় ক্ষয়ক্ষতি এড়ালো ধুপগুড়ি

সপ্তমীর দিনেই বড়সড় দুর্ঘটনার (accident) হাত থেকে রেহাই পেল ধুপগুড়ি (Dhupaguri)। বর্তমানে ধুপগুড়িবাসীর কাছে পথ দুর্ঘটনা যেন নিত্যদিনের সঙ্গী। একের পর এক দুর্ঘটনার খবরের শিরোনামে ধুপগুড়ি। কবে মিলবে রেহাই? কবেই বা প্রশাসন তত্পর হবে? এখন সেটাই দেখার।

জানা যায়, সপ্তমীর সকালে ধুপগুড়ি-ফালাকাটাগামী জাতীয় সড়ক সংলগ্ন নিউ মার্কেট (new market) এলাকায় একটি সরকারি বাসের (bus) সঙ্গে একটি বেসরকারি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ওভারটেক করতেই গিয়েই দ্রুত গতির সরকারি বাসের পিছনে ধাক্কা মারে বেসরকারি বাস। মুহূর্তে ভিড় জমে যায় ঘটনাস্থলে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসে ধুপগুড়ি থানার আইসি-সহ বিরাট পুলিস বাহিনী।

পুলিসের তৎপরতায় দ্রুত দুর্ঘটনাগ্রস্ত বাস দু'টিকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। ঘটনার পর ব্যাপক যানজট ও পথ অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে। পুলিস দ্রুত যানজটের সমস্যা মিটিয়ে দেয় পুলিস এবং যান চলাচল স্বাভাবিক করে।

স্থানীয় ও পুলিস সূত্রে খবর, দুর্ঘটনার ভয়াবহতা মারাত্মক হলেও কিন্তু কোনও হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। গোটা ঘটনার তদন্ত করছে ধুপগুড়ি থানার পুলিস (police)।

one year ago
Puja Bus: পুজোয় রাতভর বাস পরিষেবা, একাধিক রুটে মঙ্গলবার পর্যন্ত বিকেল ৫টের পর বন্ধ অটো

অতিমারী (Corona India) গত দু'বছর ম্লান করেছিল পুজোর (Durga Puja) জাঁকজমক এবং আনন্দ। অনেক রাত পর্যন্ত রাস্তায় মানুষ থাকলেও, সেভাবে পাওয়া যায়নি পরিবহণ (Transport)। কিন্তু এ বছর বাধ ভেঙে দেওয়া আনন্দ। নেই সেই নিষেধাজ্ঞা। ফলে কোথাও দ্বিতীয়া, কোথাও আবার প্রতিপদ থেকেই রাস্তায় মানুষ। আগেভাগে এই ভিড় আন্দাজ করে প্রস্তুত প্রশাসনও (Police)। পুজো যত এগোবে, তত রাজপথে বাড়বে মানুষের ঢল। তাই পরিবহণ দফতর সূত্রে খবর, পুজোর সময় সরকারি বাসের পাশাপাশি বাড়ানো হয়েছে বেসরকারি বাস। বেসরকারি বাস মালিক সংগঠন নিজে উদ্যোগ নিয়েছে পুজোর রাতগুলোতে পরিবহণ স্বাভাবিক রাখার। ভোররাত পর্যন্ত পাতাল রেল এবং শহরের পথে পর্যাপ্ত বাস থাকলেও প্যান্ডেল হপিং শেষে বাড়ি ফেরা দুষ্কর হবে না আম জনতার।

জানা গিয়েছে, শহর ও শহরতলি মিলিয়ে সরকারি এবং বেসরকারি মিলিয়ে প্রায় এগারশো বাস রাস্তায় নামবে।। শুধু দিনে নয়, রাতেও কলকাতার রাস্তায় চলবে সরকারি বাস। এদিকে, পুজোর মানুষের ভিড় সামাল দিতে এবং যানজট এড়াতে এবারও অটোর গতিরুদ্ধ করছে প্রশাসন। কলকাতা পুলিস নিয়ন্ত্রণাধীন এলাকায় সকালের দিকে অটো চললেও, কোথাও দুপুর আবার কোথাও বিকেলের পর মিলবে না এই তিন চাকা। যে সব জায়গায় যানজটের সম্ভাবনা বেশি, সে সব রুটে বিকেল ৩টের পর থেকেই বন্ধ অটো।

তবে মফস্বল এবং শহরতলির সব রুটে পুজোর দিনগুলিতে অটো চলবে। কলকাতা পুলিস নিয়ন্ত্রণাধীন এলাকায় কোথাও বিকেল ৫টার পর মিলবে না অটো। ষষ্ঠী থেকে নবমী এই নিয়ম চালু। রাসবিহারী, চেতলা, উল্টোডাঙা, উত্তর- দক্ষিণ কলকাতার একাধিক রুটে স্তব্ধ তিন চাকা। দর্শনার্থীদের পথ নিরাপত্তা, সুষ্ঠু যান নিয়ন্ত্রণের স্বার্থে এই সিদ্ধান্ত বলে পুলিস সূত্রে খবর।

one year ago
Kerala: পকসো আইনে এক ব্যক্তিকে ১৪২ বছরের জেল! শিশু নিগ্রহের অপরাধ

কেরলের (Kerala) পাথানামথিট্টার (Pathanamthitta) একটি পকসো আদালত (Pocso court) ৪১ বছর বয়সী এক ব্যক্তিকে ১৪২ বছরের জেল-সহ সশ্রম কারাদণ্ড ঘোষণা করে। এবং ১০ বছরের একটি শিশুকে দুই বছরের জন্য যৌন নির্যাতনের (sexually assaulting) করার জন্য ৫ লক্ষ  টাকা জরিমানা করা হয়েছে ওই ব্যক্তিকে।

যৌন অপরাধ থেকে শিশুদের সুরক্ষা (পকসো) আদালত লোকটিকে শাস্তি প্রদান করে। এবং বলে অভিযুক্ত যদি জরিমানা না দেয় তবে তাকে আরও তিন বছরের কারাদণ্ড ভোগ করতে হবে। এই ঘটনা এখনও পর্যন্ত জেলার একটি পকসো মামলায় অভিযুক্তকে দেওয়া  সর্বোচ্চ শাস্তি।

আনন্দন পিআর ওরফে বাবু নামে ওই ব্যক্তিকে ১৪২ বছর জেল হেফাজত থাকতে হবে। ২০ মার্চ, ২০২১-এ, তিরুভাল্লা পুলিস তার বিরুদ্ধে ২০১৯  থেকে ২০২১ সালের মধ্যে একটি ১০ ​​বছর বয়সী শিশুকে একাধিকবার নৃশংসভাবে যৌন নির্যাতন করার জন্য একটি মামলা দায়ের করে। বাবু আত্মীয় ছিল ওই শিশুর। এবং শিশুটির বাবা-মায়ের সঙ্গে একই বাড়িতে থাকতেন।

পাথানামথিট্টা জেলা পুলিশ বলেছে, "মামলায় প্রধান পকসো প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট জেসন ম্যাথিউস প্রসিকিউশনের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন। সেখানে সাক্ষীর বক্তব্য, মেডিকেল রেকর্ড এবং প্রমাণ প্রসিকিউশনের পক্ষে শক্তিশালী ছিল। হরিলাল, যিনি তিরুভাল্লা থানার পরিদর্শক ছিলেন, মামলাটি নথিভুক্ত করেন এবং তদন্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন।"

one year ago


Accident: নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সোজা পুকুরে বাস ডুবতেই আর্তনাদ, দুর্ঘটনা হলদিয়ায়

সাত সকালেই ভয়ানক দুর্ঘটনা (Accident) হলদিয়ায়। হলদিয়ার চকদ্বীপা হাইস্কুলের কাছে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি যাত্রী বোঝাই বাস (bus) উল্টে গিয়ে পড়ে পুকুরে। ঘটনায় সকাল থেকেই চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়। স্থানীয়রা জানান, বাসের সামনের অংশ পুকুরে ডুবে গিয়েছে। ভেতরে কম করেও প্রায় ৪০ থেকে ৪২ জন যাত্রী ছিলেন। এলাকার লোকজনই খবর পেয়ে ছুটে গিয়ে উদ্ধার কাজে হাত লাগায়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পুলিস (police)।

স্থানীয় সূত্রে আরও জানা যায়, এদিন বাসটি যাত্রী নিয়ে সকালে বালুঘাটা থেকে কুকুড়াহাটির দিকে রওনা দিয়েছিল। তবে বাসটির প্রচণ্ড গতি থাকায় চালক কোনওভাবে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন। এরপরই ঘটে এঘটন। বাস উল্টে সোজা পুকুরে গিয়ে পড়ে। বাসের সামনের অংশ জলে ডুবতে শুরু করে। ভেতর থেকে যাত্রীদের আর্তনাদ শুনে ছুটে আসেন স্থানীয়রা। ভেতরে প্রায় ৪৫ জন যাত্রী ছিল বলে প্রাথমিকভাবে অনুমান। তাঁদের মধ্যে ৫-৬ জন মহিলা, ৪ জন শিশুও রয়েছে। সব যাত্রীরাই জখম বলে মনে করছেন স্থানীয়রা।

ইতিমধ্যেই বাসটিকে তোলার জন্য ক্রেন নিয়ে আসা হয়েছে প্রশাসনের পক্ষ থেকে। যে কয়েকজনকে উদ্ধার করা গিয়েছে তাঁদেরকে তড়িঘড়ি স্থানীয় স্বাস্থ্য কেন্দ্র এবং হলদিয়া হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বেপরোয়া গতির জন্যই এই দুর্ঘটনা বলে প্রাথমিকভাবে মনে করছে পুলিস৷

one year ago
Accident: খারাপ আবহাওয়ায় কুলুতে খাদে বাস, মৃত ৭, স্থানীয়দের চেষ্টায় উদ্ধার বহু

হিমাচলের (Himachal) কুলুতে (kullu) ভয়াবহ দুর্ঘটনা (Accident)। নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পর্যটক বোঝাই একটি গাড়ি খাদে পড়ে যায়। দুর্ঘটনায় ৭ জন পর্যটকের মৃত্যু (Death) হয়েছে। একই সঙ্গে এই ঘটনায় ১০ জন গুরুতর আহত হয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। ঘটনার পর তড়িঘড়ি আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে (Hospital) ভর্তি করা হয়েছে। কুলুর বাঞ্জার উপত্যকা এলাকায় রবিবার রাত সাটে আটটা নাগাদ ঘটে এই দুর্ঘটনা। দুর্ঘটনায় আহত ১০ জনের মধ্যে ৫ জনকে কুলুর জোনাল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে এবং বাকি ৫ জনকে বাঞ্জাররে একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিস সূত্রে খবর, রাতে খারাপ আবহাওয়ার কারণেই এই ভয়াবহ দুর্ঘটনা ঘটে। গাড়িটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে যায়। গভীর রাত পর্যন্ত চলে উদ্ধার অভিযান। আহতদের সবাইকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাঁদের পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে।  রাত ১১টা ৩৫ মিনিটে ত্রাণ ও উদ্ধার কাজ শেষ হয়। নিহতদের মধ্যে রয়েছে ৫ জন পুরুষ এবং ২ জন মহিলা। যাত্রীদের মধ্যে তিনজন আইআইটি বারানসীর ছাত্র বলে প্রাথমিক তদন্তে জানিয়েছে পুলিস।

কুলুর পুলিস সুপার গুরদেব সিং জানিয়েছেন, রবিবার রাতে কুলু জেলার বাঞ্জার উপত্যকার ঘিয়াগি এলাকায় একটি টেম্পো ট্রাভেলার নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে যায়। এই দুর্ঘটনায় নিহত পর্যটকদের বাড়ি রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ, দিল্লি ও হরিয়ানাতে। তবে, কারও নাম ও পরিচয় জানা যায়নি। অন্ধকারের মধ্যেও উদ্ধারকাজ চালিয়ে ১০ জনকে প্রাণে বাঁচানোর জন্য পুলিস ও প্রশাসন ও স্থানীয় মানুষজনকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন স্থানীয় বিধায়ক সুরেন্দর সৌরি।

one year ago


Taratala: তারাতলা ব্রিজে স্কুল বাসে আগুন! বরাত জোরে বাঁচলেন চালক-খালাসি

ভরদুপুরে কলকাতার (Kolkata) বুকে ঘটে গেল ভয়াবহ এক দুর্ঘটনা (accident)। সোমবার তারাতলা ব্রিজের (Taratala Bridge) উপর চলন্ত স্কুল বাসে আগুন লেগে যায়। গোটা ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়ায় এলাকায়।

স্থানীয় সূত্রে খবর, তারাতলার দিক থেকে একটি স্কুল বাস বেহালার দিকে যাচ্ছিল। কিন্তু যাওয়ার সময় তারাতলা ব্রিজের উপরে হঠাৎই স্কুলের ওই বাসে আগুন লাগে। ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়। তড়িঘড়ি খবর দেওয়া হয় পুলিস ও দমকলে।

স্কুল বাসের চালক জানান, বাসের মধ্যে কোনও স্কুলপড়ুয়া ছিল না সেই সময়। আগুন লাগার সঙ্গে সঙ্গে বাসের ড্রাইভার ও খালাসী নেমে যান। তবে স্কুল বাসটি সম্পূর্ণভাবে আগুনে বসিভূত হয়ে গিয়েছে।

ঘটনায় দমকলের একটি ইঞ্জিন এসে আগুন নেভানোর কাজ করে। তবে প্রাথমিক অনুমান, শর্ট সার্কিট থেকেই এই আগুন লেগেছে।

one year ago
Tala Bridge: টালা ব্রিজে শুরু প্রাইভেট কার-স্কুটি-বাইক চলাচল, বাস-ট্রাক কবে থেকে?

উদ্বোধনের দু'দিনের মাথায় ছোট চার চাকার যান চলাচল শুরু হল টালা ব্রিজে (Tala Bridge reopen)। শনিবার সকাল প্রায় ১০টা নাগাদ শুরু হয়েছে যান চলাচল। আপাতত ভারী পণ্যবাহী ট্রাক এবং বাস (Bus-Truck) চলবে না সেতুতে। তবে সূত্রের খবর, পুজোর (Durga Puja 2022) আগেই বাস চলাচলে অনুমতি দিতে পারে প্রশাসন। এদিকে, প্রায় তিন বছর বন্ধ থাকার পর ফের জন সাধারণের জন্য খুলে গেল চার লেনের টালা ব্রিজ। নবনির্মিত এই ব্রিজে এখনই ভারী যান চলাচল নিষিদ্ধ। আপাতত পায়ে হেঁটে এবং ছোট দু'চাকার যান নিয়ে এই ব্রিজে ওঠা যাবে। বৃহস্পতিবার এক অনুষ্ঠানে রিমোট কন্ট্রোলে নবনির্মিত টালা ব্রিজে খুলে দেন মুখ্যমন্ত্রী। এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের দুই মন্ত্রী শশী পাঁজা, অরূপ বিশ্বাস-সহ মেয়র ফিরহাদ হাকিম স্থানীয় বিধায়ক অতীন ঘোষ। উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের মুখ্যসচিব, কলকাতার নগরপাল এবং ডিজিপি।

ব্রিজ উদ্বোধন করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, 'মাঝেরহাট ব্রিজ ভেঙে যাওয়ার পরে একটা সমস্যা বুঝতে পেরেছিলাম। টালা ব্রিজ যখন ভাঙা শুরু হয় ভাবতে পারিনি এত তাড়াতাড়ি কাজ হয়ে যাবে। স্থানীয় মানুষদের ফুটপাথ, সিড়ি, সার্ভিস রোড নিয়ে যা সমস্যা আছে পূর্ত দফতরকে বলবো দেখে নিতে। এই ব্রিজ নির্মাণে ৫০৪ কোটি টাকা খরচ হয়েছে। ব্রিজ ভাঙতে রেল নিয়েছে ৯০ কোটি টাকা। এখনই কোনও এখনো ভারী গাড়ি যাবে না।'

তিনি জানান, কলকাতায় ট্রাফিক জ্যাম কমে গিয়েছে। আগামীতে আরও কমবে। কলকাতায় আরও কয়েকটা উড়ালপুল হবে। টালা থেকে ডানলপ,পাইকপাড়া থেকে শিয়ালদহ। রাজ্যে চারটে নতুন বিমানবন্দর হচ্ছে। কোচবিহার,বালুরঘাট,মালদা এবং পুরুলিয়া।

one year ago
Robbery: ছেলের মাথায় বন্দুক ঠেকিয়ে ব্যবসায়ীর বাড়িতে ডাকাতির ঘটনায় চাঞ্চল্য জগৎবল্লভপুরে

ব্যবসায়ীর ৪ বছরের ছেলের মাথায় বন্দুক ঠেকিয়ে ডাকাতির (Robbery) ঘটনায় চাঞ্চল্য। জগৎবল্লভপুরের (Jagatvallabhpur) বড়গাছিয়া সকাল বাজারের ঘটনা। তদন্তে জগৎবল্লভপুর থানার পুলিস (Jagatvallabhpur police station)।

অভিযোগ, শুক্রবার ভোররাতে একদল দুষ্কৃতী সুজিত কাঁড়ার নামে এক ব্যবসায়ীর (Businessman) বাড়িতে দরজা ভেঙে ঢোকে। দুষ্কৃতীরা প্রথমেই ব্যবসায়ীর ছেলের মাথায় আগ্নেয়াস্ত্র ঠেকিয়ে প্রাণে মারার হুমকি দেয়। চিৎকার করলেই ছেলেকে মেরে ফেলবেন বলে ভয় দেখায়। এরপর টাকা, গয়না লুঠ করে নিয়ে যায়।

ব্যবসায়ী বলেন, দুষ্কৃতীদের বাধা দিতে গেলে তাঁকে লোহার রড দিয়ে মাথায় আঘাত করে। মাথা ফেটে রক্ত বেরোতে থাকে তাঁর। এমনকি ডাকাতি করে পালাবার সময় দড়ি দিয়ে পরিবারের লোকদের হাত-পা বেঁধে দেয়। পুলিসকে খবর না দেওয়ার জন্য শাসানিও দিয়ে যায় বলে অভিযোগ করেছেন দুস্কৃতীদের বিরুদ্ধে।

উল্লেখ্য, জগৎবল্লভপুর এলাকায় সাম্প্রতিক কালে একের পর এক এইরকম মারধর করে ডাকাতির ঘটনায় আতঙ্কিত সেখানকার মানুষ।

one year ago


Narendrapur: আট বছরের মেয়েকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ উঠল বাবার বিরুদ্ধে, ঘটনায় চাঞ্চল্য

শেষমেশ নিজের মেয়ে! বাবার যৌন লালসার শিকার আট বছরের মেয়ে। দিনের পর দিন মেয়েকে যৌন নির্যাতন (sexual abuse) করার অভিযোগ উঠল বাবার বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে নরেন্দ্রপুর থানা (Narendrapur Police station) এলাকায়।

জানা গিয়েছে, স্ত্রী বছর চারেক আগে স্বামী ও মেয়েকে ছেড়ে চলে যান। সেইথেকে বাবার কাছেই থাকত মেয়ে। সম্প্রতি প্রায় প্রতি রাতেই আট বছরের মেয়ের উপর যৌন নির্যাতন করত বাবা বলে অভিযোগ আনেন বাড়ির মালিকের মেয়ে। বিষয়টি যাতে কাউকে না বলে তারজন্য নাবালিকাকে মারধরও করা হত বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

পুলিস সূত্রে খবর, অভিযুক্ত তাঁর মেয়েকে নিয়ে ভাড়া থাকতেন। অভিযুক্ত বাবাকে গ্রেফতার (Arrested) করেছে নরেন্দ্রপুর থানার পুলিস। এবং তাঁর বিরুদ্ধে পকসো আইনে (POCSO Act) মামলাও রুজু করা হয়েছে।

one year ago
Crime: ফের পশ্চিম মেদিনীপুরে নাবালিকাকে যৌননিগ্রহ, গ্রেফতার ৫

ফের পশ্চিম মেদিনীপুর (West Medinipur) জেলায় নাবালিকাকে যৌননিগ্রহের (Sexual abuse) অভিযোগ। গড়বেতা থানা এলাকায় নাবালিকাকে যৌননিগ্রহের অভিযোগ মদ্যপ যুবকদের বিরুদ্ধে। অভিযোগের ভিত্তিতে গ্রেফতার (Arrest) করা হয়ছে ৫ জনকে।

মাসখানেক আগেই ডেবরায় নাবালিকাকে যৌননিগ্রহের  ঘটনা ঘটেছিল। এরপর একই অভিযোগ ওঠে আনন্দপুর থানা এলাকাতেও। এবার ফের যৌননিগ্রহের অভিযোগ পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার গড়বেতা থানা (Garbeta police station) এলাকায়। বৃহস্পতিবার রাতে মাঠে শৌচকর্ম করতে গিয়েছিল ১৩ বছরের ওই নির্যাতিতা নাবালিকা। সে সময় মাঠের মধ্যেই তাঁকে নিগ্রহ করা হয় বলে অভিযোগ।

শুক্রবার সকালে ওই নাবালিকা অসুস্থবোধ করলে পরিবারের সদস্যদের কাছে গোটা বিষয়টি জানায় সে। শুক্রবার দুপুরে তাঁকে ভর্তি করা হয় মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে। এরপর থেকে এখনও মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের মাতৃমা ভবনে চিকিৎসাধীন ওই নাবালিকা।

অপরদিকে, বাড়ির মেয়ের মুখে গোটা ঘটনা শুনে শুক্রবার বিকেলে গড়বেতা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন নির্যাতিতার পরিবারের লোকেরা। পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে  ৫ জনকে শনিবার গ্রেফতার করে গড়বেতা থানার পুলিস।

জানা গিয়েছে, ধৃতদের মধ্যে একজন নাবালক। শনিবার বিকেলে ধৃতদের মধ্যে ৪ জনকে পেশ করা হয় মেদিনীপুর আদালতে। একজন নাবালক হওয়ার কারণে তাকে জুভেনাইল জাস্টিস বোর্ডের সামনে পেশ করা হয়। ধৃতদের প্রত্যেককেই ৫ দিনের পুলিসি হেফাজতের নির্দেশ দেয় মেদিনীপুর আদালত।

one year ago


Narendrapur: ঘরের তালা ও আলমারির লকার ভেঙে ব্যবসায়ীর বাড়িতে দুঃসাহসিক চুরি

নিখুঁত পরিকল্পনা। ব্যবসায়ী (Businessman) ও তাঁর পরিবারের অনুপস্থিতিতে বাড়ির আলমারির তালা ভেঙে লকার থেকে প্রায় তিন লক্ষ টাকার সোনার গহনা (gold jewelry) এবং নগদ ৩৫ হাজার টাকা চুরির (Steal) অভিযোগ উঠেছে। এরপরই নরেন্দ্রপুর থানায় (Narendrapur Police Station)অভিযোগ দায়ের করা হয়। ঘটনাটি ঘটে নরেন্দ্রপুর থানার অন্তর্গত নতুন দিয়ারা এলাকায়।

অভিযোগ, গত শনিবার সন্ধ্যায় ব্যবসা দেখভালের জন্য কলকাতায় চলে আসেন আরতি রায় ও তাঁর স্বামী সুরজিৎ রায় তাঁদের একমাত্র মেয়েকে নিয়ে। সেখানে তাঁদের একটি দোকান রয়েছে। সোমবার রাত দশটা নাগাদ তাঁরা বাড়ি ফিরে দেখেন সদর দরজার তালা ভাঙ্গা। তখন তড়িঘড়ি ঘরে ঢুকে দেখেন আলমারি ভাঙ্গা অবস্থায় পড়ে রয়েছে। আলমারির লকারে রাখা সোনার গহনা ও টাকা সব উধাও।

উল্লেখ্য, আলামারির পাশেই পড়ে ছিল ছেনি, দা। সেগুলো দিয়েই আলমারি ভাঙা হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। মেয়ের বিয়ের জন্য রাখা ছিল চুরি হয়ে যাওয়া কয়েক লক্ষ টাকার সোনার গহনা এবং নগদ ৩৫ হাজার টাকা। এরপর  তাঁরা নরেন্দ্রপুর থানায় লিখিত অভিযোগ জানান। অভিযোগ পেয়ে তদন্ত শুরু করেছে নরেন্দ্রপুর থানার পুলিস।

2 years ago
Tamil Nadu: প্রেম, সন্তান প্রসব এবং সদ্যোজাতকে ঝোপে ফেলা আসা! চাঞ্চল্য তামিলনাড়ুর গার্লস স্কুলে

নৃশংস, ভয়ানক এই শব্দগুলিও কম এই ঘটনার ক্ষেত্রে। একাদশ শ্রেণির ছাত্রীর সঙ্গে দশম শ্রেণির ছাত্রের প্রেম (Love Relation), সেখান থেকে তৈরি শারীরিক সম্পর্ক। যার জেরে অন্তঃসত্ত্বা (Pregnent) হয়ে পড়েন ওই ছাত্রী। এরপর স্কুলের রেস্টরুমে মধ্যেই জন্ম দেন সন্তানের। সবচেয়ে আশ্চর্যের বিষয়, জন্মানোর পরই নবজাতককে(baby) ফেলে আসেন স্কুল ঝোপে। চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি তামিলনাড়ুর (TamilNadu) কাড্ডালোর জেলার এক বালিকা হাইস্কুলের। ঘটনায় রীতিমতো হইচই পড়ে গিয়েছে এলাকায়।

জানা গিয়েছে, ওই ছাত্রীর পরিবারের লোক এবং বন্ধুদের থেকে এ কথা লুকিয়ে গিয়েছিলেন। কিন্তু ঝোপের মধ্যে ওই সদ্যজাতকে দেখতে পান স্কুলেরই এক ছাত্রী। এরপর স্কুলের সহকারী প্রধান শিক্ষককে সে কথা জানান। এরপরই তড়িঘড়ি স্কুল কর্তৃপক্ষ খবর দেন পুলিসে।

পুলিস এসে ঘটনার তদন্ত করতেই বেরিয়ে আসে আসল সত্য। প্রথমে উদ্ধার করে নবজাতকের মৃতদেহ। পুলিসের সন্দেহ যায় স্কুলের ছাত্রীদের উপরই। সমস্ত ছাত্রীদের জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে পুলিস। তখনই একাদশ শ্রেণির ওই ছাত্রী স্বীকার করে নেয় সন্তান জন্মের কথা।

জিজ্ঞাসাবাদ করে জানা গিয়েছে, তাঁর প্রেমিকের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কের জেরে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছেন তিনি। তাঁর প্রেমিক একটি বেসরকারি স্কুলে দশম শ্রেণির ছাত্র। এর পরই ওই ছাত্রকে আটক করে পুলিস। তাকে জুভেনাইল জাস্টিস বোর্ডের সামনে হাজির করা হয়েছিল। এবং পর্যবেক্ষণ হোমে রাখা হয়েছে তাকে। ওই ছাত্রীকে চিকিৎসার জন্য কামারাজ সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিস জানিয়েছে, ভারতীয় দণ্ডবিধির বেশ কয়েকটি ধারা এবং পকসো আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে ব্যাপক শোরগোল পড়েছিল তামিলনাড়ুর  গ্রামের ওই সরকারি স্কুলে।

2 years ago
Raiganj: যুবতীকে দীর্ঘদিন ধরে উত্যক্ত ও কটুক্তি করার অপরাধে খুঁটিতে বেঁধে শাস্তি অভিযুক্ত যুবককে

দীর্ঘদিন ধরে এক যুবতীকে উত্যক্ত ও কটুক্তি (Harassment and abuse) করার অভিযোগে এক যুবককে বাড়ির সামনে দীর্ঘক্ষণ খুঁটিতে বেঁধে রাখলো যুবতীর বাড়ির লোক। আর এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে রায়গঞ্জের (Raiganj)  পূর্ব কলেজপাড়া এলাকায়। অভিযুক্ত ওই যুবকের নাম গৌরাঙ্গ রায় (Gauranga Roy)।

যুবতীর মায়ের অভিযোগ, প্রায় দু বছর ধরে তাঁর মেয়েকে নানা ভাবে উত্যক্ত ও কটুক্তি করার পাশাপশি বেশ কয়েকবার ধরালো অস্ত্র দিয়ে মেরে ফেলারও চেষ্টা করেছে অভিযুক্ত যুবক। বর্তমানে যুবতীর বিয়ে হয়ে গেলেও ওই যুবক নানা ভাবে তাঁকে বিরক্ত করতে থাকে। বুধবার রাতে যুবতী তাঁর স্বামীর সঙ্গে বাইরে বের হলে দুজনকেই মারধর করে অভিযুক্ত যুবক বলে অভিযোগ।

এরপরই যুবতীর বাড়ির লোক ও প্রতিবেশীরা ক্ষিপ্ত হয়ে ওই যুবককে বাড়ির সামনেই দীর্ঘক্ষণ খুঁটিতে বেঁধে রাখেন। এই ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়ায় এলাকায়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসে রায়গঞ্জ থানার পুলিস। এই ঘটনায় অভিযুক্ত যুবককে আটক করেছে পুলিস।

2 years ago


Purulia: স্বর্ণব্যবসায়ীর বাড়িতে উদ্ধার পরিচারিকার রক্তাক্ত দেহ, আহত ব্যবসায়ীর স্ত্রীও

এক স্বর্ণ ব্যবসায়ীর (Gold Businessman) বাড়ি থেকে পরিচারিকার রক্তাক্ত দেহ উদ্ধারের (Deadbody) ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে পুরুলিয়া (Purulia) শহরের দর্জি পাড়া এলাকায়। রহস্যজনক ভাবে ওই স্বর্ণ ব্যবসায়ীর স্ত্রীকেও ক্ষত বিক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় পুরুলিয়া সদর থানার পুলিস (Police)।

জানা গিয়েছে, মৃত পরিচারিকার নাম পার্বতী বাদ্যকর। বয়স ৫০। আহত স্বর্ণ ব্যবসায়ীর স্ত্রী নন্দিতা দাস কর্মকার। রবিবার ওই পরিচারিকার রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার করে পুরুলিয়া দেবেন মাহাতো গভর্নমেন্ট মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের মর্গে পাঠায় পুলিস। আহত ওই স্বর্ণ ব্যবসায়ীর স্ত্রীকেও উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। বর্তমানে তাঁর অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাঁকে অন্যত্র স্থানান্তরিত করা হয়েছে।

পুলিস ও প্রতিবেশীদের প্রাথমিক অনুমান, এটা খুনের ঘটনা। ওই বাড়িতে কর্মরত দুই রাজ কাঠমিস্ত্রি এই খুনের ঘটনার সঙ্গে যুক্ত থাকতে পারে বলে মনে করছেন স্থানীয়রা। যদিও ওই অভিযুক্ত দুজনই পলাতক।

পুলিস গোটা বিষয়টি খতিয়ে দেখছে। ঘটনার নেপথ্যে অন্য কোনও রহস্য লুকিয়ে রয়েছে কিনা তা জানার চেষ্টা চালাচ্ছে।

2 years ago
Anandpur: দুষ্কৃতী ডেরা থেকেই কলকাতার সিপিকে ফোন অপহৃত ব্যবসায়ীর, আনন্দপুর থানার তৎপরতায় ধৃত ৩

ব্যবসার কাজে দিল্লি থেকে কলকাতায় এসে অপহৃত হয়ে প্রায় ৪ দিন মাদুরদহে নজরবন্দি। অবশেষে উপস্থিত বুদ্ধির জোরে কলকাতার পুলিস কমিশনারকে ফোন। সিপির নির্দেশ এবং আনন্দপুর থানার সক্রিয়তায় দুষ্কৃতী ডেরা থেকে উদ্ধার দিল্লির ব্যবসায়ী অশোক থাপা। টানটান এই চিত্রনাট্য কোনও ওয়েব সিরিজের নয়, বরং বাস্তবের কলকাতার। এই ঘটনায় কলকাতা পুলিসের হাতে গ্রেফতার তিন। প্রাথমিক তদন্তের পর পুলিস জানতে পেরেছে ব্যবসায়িক শত্রুতার জের এই ঘটনা। 

কলকাতা পুলিস সূত্রে খবর, দক্ষিণ দিল্লির বাসিন্দা বছর ৫৫-র প্রৌঢ় অশোক থাপা।  তিনি পাইপ লাইনের ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত। দিন পনেরো আগে ব্যবসার কাজে কলকাতা আসেন এবং ইডেন গার্ডেন্সের সামনে থেকে তাঁকে অপহরণ করা হয়। এরপর ছ’দিন ধরে শহরেই আটকে রাখা হয়েছিল অশোকবাবুকে। খানিকটা নিজের উপস্থিত বুদ্ধির জোরে অপহরণকারীদের হাত থেকে মুক্তি পেলেন অশোক।

ধৃতদের জেরা করে পুলিস জানতে পেরেছে, অশোক থাপাকে দু’দিন ধরে কলকাতার একটি হোটেলে আটকে রাখা হয়েছিল। তারপর চারদিন তাঁকে রাখা হয়েছিল মাদুরদহের একটি পরিত্যক্ত গুদামে। সেখান থেকে দুষ্কৃতীদের চোখ এড়িয়ে সটান কলকাতার পুলিস কমিশনারকে ফোন করেন তিনি। গুগল থেকে খুঁজে বার করেন নম্বর। এরপরই তাঁর অবস্থান চিহ্নিত করে ওই গুদামের কাছে পৌঁছে যায় আনন্দপুর থানার পুলিশ। উদ্ধার করে প্রৌঢ়কে।

যে তিন জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে, তাঁদের নাম আলি, শাহানওয়াজ এবং শম্ভু। এঁরা সকলেই কুন্তল গুছাইত নামের এক ব্যক্তির লোক বলে জানিয়েছে পুলিশ। তাদের দাবি, এই কুন্তলের সঙ্গেই দিল্লিতে ব্যবসায় আর্থিক লেনদেন সংক্রান্ত গোলমাল ছিল অপহৃত অশোক থাপার। সেই কারণেই ব্যবসায়ীকে আটকে রেখে লক্ষাধিক টাকা চেয়েছিলেন দুষ্কৃতীরা। ধৃতদের বিরুদ্ধে অপহরণের মামলা রুজু করা হয়েছে। তদন্ত করছে পুলিস।


2 years ago