Breaking News
Abhishek Banerjee: বিজেপি নেত্রীকে নিয়ে ‘আপত্তিকর’ মন্তব্যের অভিযোগ, প্রশাসনিক পদক্ষেপের দাবি জাতীয় মহিলা কমিশনের      Convocation: যাদবপুরের পর এবার রাষ্ট্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়, সমাবর্তনে স্থগিতাদেশ রাজভবনের      Sandeshkhali: স্ত্রীকে কাঁদতে দেখে কান্নায় ভেঙে পড়লেন 'সন্দেশখালির বাঘ'...      High Court: নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় প্রায় ২৬ হাজার চাকরি বাতিল, সুদ সহ বেতন ফেরতের নির্দেশ হাইকোর্টের      Sandeshkhali: সন্দেশখালিতে জমি দখল তদন্তে সক্রিয় সিবিআই, বয়ান রেকর্ড অভিযোগকারীদের      CBI: শাহজাহান বাহিনীর বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ! তদন্তে সিবিআই      Vote: জীবিত অথচ ভোটার তালিকায় মৃত! ভোটাধিকার থেকে বঞ্চিত ধূপগুড়ির ১২ জন ভোটার      ED: মিলে গেল কালীঘাটের কাকুর কণ্ঠস্বর, শ্রীঘই হাইকোর্টে রিপোর্ট পেশ ইডির      Ram Navami: রামনবমীর আনন্দে মেতেছে অযোধ্যা, রামলালার কপালে প্রথম সূর্যতিলক      Train: দমদমে ২১ দিনের ট্রাফিক ব্লক, বাতিল একগুচ্ছ ট্রেন, প্রভাবিত কোন কোন রুট?     

Bihar

Nitish Kumar: ৫ বছরের মেয়াদে তৃতীয়বার মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নীতীশ কুমারের, শপথ ২ উপমুখ্যমন্ত্রীরও

৫ বছরের মেয়াদে তৃতীয়বার মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিলেন নীতীশ কুমার। রবিবার বিকেল ৫টায় হবে শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান। এবার তাঁর সঙ্গে শপথ নিলেন দুই উপমুখ্যমন্ত্রীও। ২ জনেই বিজেপির বিধায়ক। সম্রাট চৌধুরী এবং বিজয় সিনহা এবার উপমুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিলেন। শপথ অনুষ্ঠানে উপস্থিত জেপি নাড্ডা।

লোকসভা নির্বাচনের আগে বড় ধাক্কা ইন্ডিয়া ব্লকে। নীতীশ কুমারের শিবির ত্যাগে শুধু ইন্ডিয়া ব্লক নয়, বিহারে মহাজোট ভেঙে দিয়েছে। রবিবার সকালে পটনায় রাজভবনে রাজ্যপাল রাজেন্দ্র আরলেকারের কাছে পদত্যাগ পত্র জমা দেন জেডিইউ সুপ্রিমো। নীতীশ কুমারের এই শিবির ত্যাগে কংগ্রেসও কার্যত দিশেহারা।

এদিন কংগ্রেসের নেতারা এতটাই ক্ষুব্ধ যে, তারা নীতীশ কুমারকে গিরগিটির সঙ্গে তুলনা করে বলেছেন, জনগণ তাঁকে কখনই ক্ষমা করবে না। কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক জয়রাম রমেশ নিজের এক্স হ্যান্ডেলে নীতীশ কুমারকে বিশ্বাসঘাতকদের বিশেষজ্ঞ বলে বর্ণনা করেছেন। তিনি বলেছেন, এই বিশেষজ্ঞ এবং যারা তাদের নাচিয়েছে, তাদেরকে জনগণ ক্ষমা করবে না। কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক আরও বলেছেন, এটা স্পষ্ট যে প্রধানমন্ত্রকী ও বিজেপি ভারত জোড়ো ন্যায় যাত্রাকে বয় পাচ্ছেন। সেখান থেকে দৃষ্টি সরাতে এই রাজনৈতিক নাটক বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

সর্বসাকুল্যে এই নিয়ে নবমবার বিহারের মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ েনবেন নীতীশ কুমার। প্রতিবারই কোনও না কোনও কৌশলে পাল্টি খেয়ে নিজের মুখ্যমন্ত্রীর পদটি ঠিক বাঁচিয়ে গিয়েছেন নীতীশ। কখনও বিজেপির হাত ধরে তো কখনও আরজেডির হাত ধরে। দাবার চালের মতো চাল চেলেই নিজে গদি রক্ষা করেছেন জেডিইউ সুপ্রিমো।

২০০০ সাল থেকে বিহারের মুখ্যমন্ত্রী পদে রয়েছেন নীতীশ কুমার। কখনও বিজেপির সমর্থনে তো কখনও আরজেডির সমর্থনে। ২০১০ সাল পর্যন্ত বিজেপির সমর্থন নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী পদে থেকেছেন নীতীশ কুমার। ২০১৫ সালে ২ বার মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নেন আরজেডির সমর্থনে। ২০১৭ এবং ২০২০ তে আবার বিজেপির সমর্থন নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী পদে বসেন তিনি। ২০২২ সালে আবার আরজেডির সমর্থনে মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ। তারপরে আবার ২০২৪ সালে বিজেপির সমর্থন নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিতে চলেছেন তিনি। যদিও ভোটকুশলী প্রশান্ত কিশোর দাবি করেছেন বিজেপির সঙ্গে নীতীশের এই জোট স্থায়ী হবে না। ২০২৪-র লোকসভা ভোট আসতে আসতে তিনি আবার বিজেপির সঙ্গ ছেড়ে আরজেডিতে যোগ দেবেন। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য একটা সময়ে জেডিইউতে যোগ দিয়েছিলেন প্রশান্ত কিশোর। কিন্তু নীতীশের সঙ্গে মনোমালিন্যার জেরে তিনি জেডিইউ ছেড়ে বেরিয়ে আসেন।

5 months ago
Bihar: একই দিনে ইস্তফা আবার মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নীতীশের, মহাজোট ছেড়ে ফের NDA-এর পথে...

বিহারে রাজনৈতিক সংকট ফের তুঙ্গে। আবারও পাল্টি খেয়েছেন নীতীশ কুমার। ইন্ডিয়া ছেড়ে নীতীশ যোগ দিচ্ছেন বিজেপি শাসিত এনডিএ-তে। আজ, রবিবার বিকেল সাড়ে ৩টের সময় ফের বিহারের মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিতে চলেছেন নীতীশ কুমার। তবে এবার আরজেডির সঙ্গে জোট গড়ে নয়। ফের বিজেপির সঙ্গে জোট গড়ে সরকার গড়তে চলেছেন তিনি। ইতিমধ্যে রাজ্যপালের কাছে ইস্তফা দিয়ে রাজভবন থেকে বেরোলেন জেডিইউ সুপ্রিমো নীতিশ কুমার।

সকাল ১০টা থেকে বিজেপি বিধায়কদের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিলেন তিনি। জানা গিয়েছে, বিজেপির সঙ্গে জোট ঘোষণার পরেই তিনি মুখ্যমন্ত্রী পদে ফের শপথ নেবেন। তার আগে বিকেল ৩টে নাগাদ পাটনায় পৌঁছবেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা।

শনিবার থেকেই তোড়জোর শুরু হয়ে গিয়েছিল। ইন্ডিয়া জোট ভেঙে বেরিয়ে আসার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন নীতীশ কুমার, এই নিয়ে গত কয়েকদিন ধরেই জল্পনা শুরু হয়েছিল। শেষ পর্যন্ত তাতেই সিলমোহর পড়ল। গতকাল নিজের মন্ত্রিসভা থেকে আরজেডির সব মন্ত্রীদের বরখাস্ত করে বিধানসভা ভেঙে দেন নীতীশ কুমার। তারপরেই জল্পনা শুরু হয় বিজেপির সঙ্গে জোট গড়া নিয়ে। শেষ পর্যন্ত সেই বিজেপির সঙ্গে হাত মিলিয়েই ফের সরকার গড়তে চলেছেন তিনি।

5 months ago
Birthday: অটল বিহারীর ৯৯তম জন্মবার্ষিকীতে 'সুশাসন দিবস' উদযাপন বঙ্গ বিজেপির

দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী তথা বিজেপির বর্ষীয়ান নেতা অটল বিহারী বাজপেয়ীর ৯৯ তম জন্মবার্ষিকীতে দেশ জুড়ে পালিত হচ্ছে সুশাসন দিবস। শহর কলকাতাতেও হয়নি তার অন্যথা। এনআরএস মেডিক্যাল কলেজ থেকে শুরু করে সল্টলেকের ইজেডসিসি হলে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন পালন বঙ্গ বিজেপির।দিনটিকে সুশাসন দিবস হিসেবে পালন করার এই মহান কর্মকাণ্ডে সামিল  বিজেপি রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার, সাংসদ দিলীপ ঘোষ সহ একাধিক বিজেপি নেতৃত্ব।

দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারী বাজপেয়ীর জন্মদিন উপলক্ষে সল্টলেকের ইজেডসিসি হলে আয়োজিত হল একটি বিশেষ অনুষ্ঠান। প্রয়াত প্রধানমন্ত্রীর ছবিতে মাল্যদান ও উনার স্মৃতিচারণের মধ্য দিয়ে সম্পন্ন হল অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার, সাংসদ দিলীপ ঘোষ। মূলত দেশে সুশাসন প্রতিষ্ঠা করতে চেয়েছিলেন অটল বিহারী বাজপেয়ী। যে মন্ত্রকে সঙ্গে নিয়ে আগামীর দিকে এগিয়ে চলার বার্তা দিলেন বিজেপি নেতৃত্ববর্গ।

সল্টলেকের সেই ছবি ধরা পড়ল এনআরএস মেডিক্যাল কলেজের সামনেও।বড়দিনের সকালে রাজ্য স্বাস্থ্য সেলের তরফে হাসপাতালের সামনে এদিন অটল বিহারী বাজপেয়ীর ছবিতে মাল্যদান ও গরীব দুঃস্থদের হাতে কেক তুলে দেওয়ার মধ্যে দিয়ে উদযাপিত হল সুশাসন দিবস। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিজেপি মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্য স্বয়ং।

ভারতীয় জনতা পার্টির অন্যতম স্তম্ভ অটল বিহারী বাজপেয়ী। যার চিন্তাধারাকে সঙ্গে নিয়ে এগিয়ে চলেছ দল। দেশের সর্বত্র সুশাসন প্রতিষ্ঠা করাই তাদের মহান কর্তব্য বলে মনে করে গেরুয়া শিবির। ৯৯ তম জন্মবার্ষিকীতে অটলজির প্রতি দেশের এই শ্রদ্ধা নিবেদন আবারও মনে করিয়ে দিল দেশের প্রতি তাঁর আত্মত্যাগ।

6 months ago


North-East Express: বিহারে লাইনচ্যুত কামাক্ষ্যাগামী ট্রেনের প্রতিটি কামরাই! দুর্ঘটনায় মৃত অন্তত ৪

করমণ্ডল এক্সপ্রেস দুর্ঘটনার রেশ এখনও কাটেনি, এরই মধ্যে ফের ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনা (Train Accident)। বুধবার রাতে বিহারের (Bihar) বক্সারে লাইনচ্যুত হয়ে যায় আনন্দ বিহার-কামাক্ষ্যা নর্থ ইস্ট এক্সপ্রেস ট্রেন। দুর্ঘটনায় অন্তত ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে ও ৭০ জন আহত হয়েছেন বলে সূত্রের খবর। বৃহস্পতিবার বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতিশ কুমার মৃতদের পরিবারের জন্য ৪ লক্ষ টাকা ও আহতদের জন্য ৫০ হাজার টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়ার ঘোষণা করেছেন।

সূত্রের খবর, ১১ অক্টোবর, বুধবার রাত ৯টা ৩৫মিনিট নাগাদ বিহারের বক্সারের রঘুনাথপুর রেল স্টেশনের কাছেই লাইনচ্যুত হয়ে যায় আনন্দ বিহার-কামাক্ষ্যা নর্থ ইস্ট এক্সপ্রেস ট্রেনটি। একটির উপর আরেকটি কামরা উঠে যায়। প্রাথমিকভাবে জানা গিয়েছিল, ট্রেনটির চারটি কামরা লাইনচ্যুত হয়েছে, কিন্তু পরে জানা গিয়েছে, ট্রেনটির প্রায় প্রতিটি কামরাই ট্র্যাকের উপরে নেই। কিছু কামরা গড়িয়ে পড়েছে রেললাইনের পাশের ট্র্যাকে। আবার কয়েকটি কামরা বেঁকে দাঁড়িয়ে রয়েছে। ট্রেনের বগির নীচ থেকে চাকা ভেঙে পাশে পড়ে থাকতেও দেখা যায়। উপড়ে গিয়েছে রেললাইনও।

গতকাল রাতে এই ঘটনা হওয়ার পরই দুর্ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন স্থানীয়রা। গতকাল রাত থেকেই শুরু হয় উদ্ধারকাজ। এ দিন সকালে শুরু হয় রেললাইন মেরামতির কাজ। এদিকে, রেল দুর্ঘটনার জেরে একাধিক ট্রেন বাতিল করে দেওয়া হয়েছে। রুটও বদলে ফেলা হয়েছে। তবে কীভাবে এই ঘটনাটি ঘটল, তার তদন্ত চলছে। যেভাবে ট্রেনের কামরাগুলো লাইনচ্যুত হয়েছে তাতে মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলেও আশঙ্কার করা হচ্ছে।

8 months ago
Atal Bihari Park: অটল বিহারী পার্কের নাম বদলে কোকোনাট পার্ক! বিজেপির তীব্র কটাক্ষের মুখে বিহার সরকার

বিহারের (Bihar) পাটনার এক পার্কের নাম ছিল 'অটল বিহারী বাজপেয়ী পার্ক' (Atal Bihari Vajpayee ark)। কিন্তু সেই নামই পরিবর্তন করল বিহার সরকার। আর এই ঘটনার পরই বিজেপির তীব্র কটাক্ষের মুখে নীতীশ সরকার। জানা গিয়েছে, এই পার্কের নাম বদলে রাখা হয়েছে কোকোনাট পার্ক (Coconut Park)। এই নাম পরিবর্তন করে সেই পার্কের উদ্বোধনও করলেন রাজ্য়ের পরিবেশমন্ত্রী তেজ প্রতাপ যাদব (Tej Pratap Yadav)। জানা গিয়েছে, এই নাম বদলের ঘোষণা করেছেন উপমুখ্যমন্ত্রী তেজস্বী যাদব (Tejashwi Yadav)।

পাটনার কনকরবাগে অবস্থিত অটল বিহারী বাজপেয়ী পার্কটি। জানা গিয়েছে, এই পার্কের নাম আগে ছিল কোকোনাট পার্ক। কিন্তু পরে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারী বাজপেয়ীর মৃত্যুর পর তাঁকে শ্রদ্ধা জানাতেই এই পার্কের নামকরণ তাঁর নামে করা হয়। কিন্তু পার্কের নাম আগের নামে করা হলে এর তীব্র প্রতিবাদ করেছে বিজেপি।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নিত্যানন্দ রাই বিহার সরকারের এই কাজের নিন্দা করে একে 'আপত্তিকর' ও 'বড় অপরাধ' বলে উল্লেখ করেছেন। তিনি মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমারকে তেজস্বী যাদবের এই সিদ্ধান্ত বদলানোর জন্য পরামর্শ দেন। নয়তো নীতিশ কুমারের নামও একদিন বদলে দেবেন তেজস্বী যাদব, এমনটাই সংবাদমাধ্যমে জানান বিজেপি সাংসদ নিত্যানন্দ রাই। তিনি আরও জানান, এই পার্কে অটলজির মূর্তিও রয়েছে। আর তিনি সারা ভারতবাসী বিশেষ করে বিহারীদের মনে রাজ করেন। ফলে নীতীশ কুমারকে গভীরভাবে চিন্তা করতে বলেন ও এই সিদ্ধান্ত বদলানোর জন্য তেজস্বী যাদবকে নির্দেশ দেওয়ার কথা বলেন।

10 months ago


Viral: ‘বাবা, আমি জীবিত!’ শেষকৃত্যের পর এল নিখোঁজ ‘মৃত’ মেয়ের ভিডিও কল!

শেষকৃত্যের পরে মৃত (Death) মেয়েই ভিডিও কল করল বাবাকে (Alive)। শুধু তাই নয় ভিডিও কল করে রীতিমতো কথা বলে জানিয়েছে, সে এখনও জীবিত। শুনতে অবাক লাগলেও ঠিক এই ঘটনাটিই ঘটেছে বিহারের (Bihar) পাটনায়। এক সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন থেকে জানা গিয়েছে, প্রায় এক মাস আগে অংশু কুমার নামের এর তরুণী নিখোঁজ হয়েছিল। এই ঘটনায় পুলিসেও খবর দেওয়া হয়েছিল। তবে অনেক খোঁজাখুঁজির পরেও পুলিস ওই তরুণীকে খুঁজে বার করতে পারেনি। 

 পুলিস সূত্রে খবর, এই ঘটনার কয়েক দিনের মধ্য়েই একটি জলাশয় থেকে ওই তরুণীর জামাকাপড় পরানো একটি দেহ উদ্ধার হয়। মুখটি ক্ষতবিক্ষত হওয়ায় পোকাশ দেখেই মেয়েকে চিনে ফেলে অংশুর পরিবার। তারপরে তার শেষকৃত্যও সম্পন্ন করেন। আর এই ঘটনার পরেই ফোন আসে মেয়ে অংশুর।   

পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই দেহ অংশুর নয়। অংশু তাঁর প্রেমিকের সঙ্গে পালিয়ে গিয়েছেন। তাঁর মৃত্যুর খবরে পরিবার ভেঙে পড়েছে শুনে সরাসরি বাবাকে ভিডিয়ো কল করে তিনি বলেন, “বাবা, আমি বেঁচে আছি।”  


10 months ago
Police: স্বাধীনতা দিবসের দিন চটুল গানের তালে উদ্দাম নাচ পুলিস আধিকারিকদের!

১৫ অগাস্ট সারা দেশজুড়ে উদযাপন করা হয়েছে স্বাধীনতা দিবস (Independence Day)। কিন্তু এরই মধ্যে এক ভিডিও সমাজমাধ্যমে ভাইরাল (Viral Video) হয়েছে, যেখানে দেখা গিয়েছে, পতাকা উত্তোলন করে তার সামনেই উদ্দাম নেচে চলেছেন পুলিস আধিকারিকরা। অভিযোগ উঠেছে, তাঁরা স্বাধীনতা দিবসের দিন এক ভোজপুরী গানে অশ্লীল অঙ্গ-ভঙ্গিতে নেচেছেন। আর সেই ভিডিও নজরে পড়তেই ঘটনাটির তদন্ত করা হচ্ছে। জানা গিয়েছে, ঘটনাটি বিহারের (Bihar) বক্সারের এক ফায়ার স্টেশনের।

অভিযোগ, ১৫ অগাস্ট, মঙ্গলবার স্বাধীনতা দিবসের দিন বিহারের এক ফায়ার ব্রিগেড স্টেশনে ভোজপুরী চটুল গানে নেচেছেন ফায়ার ব্রিগেডে পুলিস আধিকারিকরা। সেই নাচের ভিডিও সমাজমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে, যেখানে দেখা গিয়েছে, পতাকা উত্তোলন করা হয়েছে। কিন্তু সেখানে কোনও দেশাত্মবোধক গান না চালিয়ে, নাচ করা হচ্ছে ভোজপুরী গানে। গায়ে পুলিসের ইউনিফর্ম পরেই চটুল গানে উদ্দাম নেচে চলেছেন পুরুষ ও মহিলা আধিকারিকরা। আর এই দৃশ্যই ক্যামেরাবন্দি করে সমাজমাধ্যমে দিতেই তা মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়। ধেয়ে আসে কটাক্ষ।

এই ভিডিওকে ঘিরে বিতর্ক শুরু হওয়ার পরেই বিষয়টিকে নিয়ে নড়েচড়ে বসেছে কর্তৃপক্ষ। এই ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে বলে সূত্রের খবর। এও জানানো হয়েছে যে, এই ঘটনাটি কতটা সত্যি, তার উপর ভিত্তি করেই কড়া পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

10 months ago
Bihar: গ্রামের বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন করে প্রেমিকের সঙ্গে অভিসার কিশোরীর, হাতেনাতে ফল

ভালোবাসার (Love) টানে মানুষ কত কিছুই না করেন! প্রেমিকের সঙ্গে দেখা করতে যাবেন, কিন্তু কেউ যাতে টের না পায়। আর তার জন্যই এমন এক কাণ্ড করে বসলেন কিশোরী, যা দেখে হতবাক গ্রামবাসীরা। প্রেমিকের সঙ্গে দেখা করতে যাবেন, তাই রোজ রাতে গ্রামের বিদ্যুৎসংযোগ বিচ্ছিন্ন করত কিশোরী। কিন্তু এমনটা এক সপ্তাহ চলার পর পরে অবশেষে নিজেই বিপদে পড়ল সে। এই ঘটনাটি বিহারের পশ্চিম চম্পারন জেলার বেতিয়া এলাকার।

স্থানীয় সূত্রে খবর, বেতিয়ার বাসিন্দা প্রীতি কুমারীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে রাজকুমারের। প্রতি রাতেই তার সঙ্গে দেখা করতে যেত প্রীতি। কিন্তু তার আগে পরিকল্পনা করে তার গ্রামের বিদ্যুৎসংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দিত, যাতে কেউ দেখতে না পায়। অন্যদিকে এই বিষয়ে কিছুই জানতেন না গ্রামবাসীরা। বিরক্ত হয়ে যান গ্রামবাসীরা। রোজ রোজ রাতে বিদ্যুৎ চলে যাওয়ায় তিতিবিরক্ত হয়ে যান তাঁরা। ইলেকট্রিক অফিসে এই বিষয়ে অভিযোগ করা হলও কোনও কাজে দেয়নি তা। ফলে রোজ রাতে বিদ্যুৎ চলে যাওয়ার পিছনে কী কারণ, তা খুঁজতে একদিন বেরিয়ে পড়েন গ্রামবসীরা। আর তখনই হাতেনাতে ধরা পড়ে প্রীতি ও রাজকুমার। এরপরই বিদ্যুৎ যাওয়ার আসল কারণ জানতে পারেন গ্রামবাসীরা।

এরপরই প্রীতি ও রাজকুমারকে ধরার পর গ্রামবাসীরা চড়াও হন তাদের উপর। অন্যদিকে রাজকুমারের দলও আসে ও গ্রামবাসীদের মধ্য়ে ধস্তাধস্তি শুরু হয়। সেই ভিডিওই সোশ্যাল মিডিয়ায় পরে ভাইরাল হয়। এরপর জানা যায়, গ্রামবাসীরা প্রীতি ও রাজকুমারকে মন্দিরে নিয়ে গিয়ে তাদের বিয়ে দিয়ে দেন।

11 months ago


Bihar: খেলতে গিয়ে ৪০ ফুট গভীর কূপে পড়ে গেল এক শিশু, তরপর যা হল...

খেলতে গিয়ে ৪০ ফুট গভীর কূপে (Well) পড়ে গেল বছর তিনেক একটি শিশু (Child)। ঘটনাটি ঘটেছে বিহারের (Bihar) নালন্দায়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিস ও বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী এবং দমকল আসে। দ্রুত শুরু হয়েছিল উদ্ধারকাজ। এই ঘটনাকে ঘিরে শোরগোল পড়ে গিয়েছে। 

জানা গিয়েছে, সকালে ঘুম থেকে উঠে ক্ষেতের মধ্য়ে দৌড়ে বেড়াচ্ছিল তিন বছরের ছোট্ট শিবম। আর পাশেই কাজ করছিল তার মা। আচমকাই শিবমের বন্ধুদের চিৎকার শুনে ছুটে এসে তিনি দেখেন, ক্ষেতের পাশেই পরিত্যক্ত একটি গভীর কূপের মধ্য়ে পড়ে গিয়েছে তার ছেলে। সঙ্গে সঙ্গে খবর দেওয়া হয় পুলিসকে। এরপর বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী এসে উদ্ধারের কাজ শুরু করে। গর্তের ভিতরে শিশুটির যাতে অক্সিজেনের অভাব না হয়, সেই কারণে কৃত্রিম উপায়ে অক্সিজেন পাঠানোর ব্যবস্থাও প্রস্তুত করে রাখা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে খবর, কয়েক বছর আগে এলাকারই এক কৃষক ওই কূপটি খুঁড়েছিলেন। কিন্তু কাজ হয়ে যাওয়ার পরেও তা মাটি দিয়ে ভরাট না করায় গর্ত হয়েই পড়েছিল। যার ফলে খেলতে গিয়ে অসাবধানতাবশত সেই গর্তে পড়ে যায় ওই শিশুটি। ভারতে চাষের কাজে জলের প্রয়োজনে কূপ খোঁড়ার চল বহু প্রাচীন। যার ফলে অনেক ক্ষেত্রেই কূপে পড়ে যাওয়ার এই ঘটনা ঘটে।

11 months ago
China: ফের ভারতে অনুপ্রবেশের চেষ্টা দুই চিনা নাগরিকের, বিহার পুলিসের হাতে আটক

বৈধ কাগজপত্র ছাড়া ভারতে অনুপ্রবেশের চেষ্টা করায় আটক দুই চিনা নাগরিক (Chinese citizens)। শনিবার বিহারের (Bihar) পূর্ব চম্পারন জেলার রক্সৌল থেকে ওই সন্দেহভাজন দু-জনকে আটক করে বিহার পুলিস। অভিযোগ, ভারত-নেপাল সীমান্ত দিয়ে ধৃত দুই চিনা (China) নাগরিক অবৈধভাবে ভারতে প্রবেশের চেষ্টা করছিল।

বিহারের পূর্ব চম্পারন জেলার পুলিস সুপার জানান, ভারত-নেপাল সীমান্ত দিয়ে অবৈধভাবে ভারতে প্রবেশের চেষ্টাকারী দু-জনকে চিনা নাগরিক হিসেবে শনাক্ত করা হয়েছে। তিনি জানিয়েছেন, যে দুইজন সন্দেহভাজন ধরা পড়েছে তাঁরা চিনা নাগরিক। একজনের নাম ঝাও জিং এবং অপরজনের নাম ফু কাং।

পূর্ব চম্পারন পুলিসের সুপারিনটেনডেন্ট কান্তেশ কুমার মিশ্র রবিবার সাংবাদিক বৈঠক করে এই কথা জানান। তিনি বলেন, চিনের পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশ জিয়াংজির বাসিন্দা ঝাও জিং এবং ফু কাং। দুই চিনা নাগরিককে শনিবার রাত ৮টা ৪৫ মিনিটে রৌক্সল শহরে ভারতীয় কাস্টমস অফিসের হাতে ধরা পড়ে। তারপর কাস্টমস অফিসের তরফে খবর দেওয়া হয় পুলিসকে। তাদের কাছ থেকে কোনও বৈধ কাগজপত্র পাওয়া যায়নি। তাঁরা বৈধ কাগজপত্র ছাড়াই সীমান্ত অতিক্রম করার চেষ্টা করছিল। কিন্তু কী উদ্দেশ্য নিয়ে তাঁরা সীমান্ত পার করে, তা জানা যায়নি। তদন্তকারী অফিসাররা জিজ্ঞাসাবাদ করছেন।

জানা গিয়েছে, এর আগে ২ জুলাই প্রথমবার নেপাল সীমান্ত পেরিয়ে ভারতে অনুপ্রবেশের চেষ্টা করেছিল এই দুই চিনা নাগরিক। সেই সময় ধরা পড়ার পর জিজ্ঞাসাবাদ করে ছেড়ে দেওয়া হয় কয়েক ঘণ্টা পর। ফের ভিসা ছাড়া ভারতে প্রবেশের চেষ্টা করে তারা।

11 months ago


Bihar: ঘুমন্ত অবস্থায় ছাত্রের বুকের উপর পা দিয়ে চেপে স্কুল শিক্ষক! দৃশ্য দেখে আতঙ্কে বাকি ছাত্ররা

ঘুমন্ত অবস্থায় স্কুলের ছাত্র (Student), তারই বুকের উপর চেপে বসেছেন স্কুলের প্রধান শিক্ষক। এমনই ভয়ঙ্কর দৃশ্য সিসিটিভি ক্যামেরায় ধরা পড়তেই হইহই পড়ে যায়। জানা গিয়েছে, ঘটনাটি বিহারের (Bihar) মুঙ্গেরের এক স্কুলের। সেখানে এক ছাত্রের উপর হেনস্থা করার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে সেই স্কুলের প্রধান শিক্ষক ও তাঁর স্ত্রীকে।

বিহারের মুঙ্গেরে নির্মলা ইন্টান্যাশনাল রেসিডেন্সিয়াল পাবলিক স্কুলের প্রধান শিক্ষক রাম নাথ মণ্ডল। তিনি ও তাঁর স্ত্রী নির্মলা দেবী এই স্কুলের দায়িত্বে রয়েছেন। এই স্কুলে পড়োশোনার পাশাপশি ছাত্রদের থাকা-খাওয়ারও ব্যবস্থা রয়েছে। তাদের সেই স্কুলেরই এক ১২ বছরের ছাত্র ম্যাথিউ রাজনের উপর এই অত্যাচার করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ভাইরাল সিসিটিভি ফুটেজে দেখা গিয়েছে, রাতের দিকে ঘুমিয়ে ছিল ম্যাথিউ। সেই সময় সেখানে প্রধান শিক্ষক রাম নাথ এসে তাকে মারতে শুরু করে ও পরে তার বুকের উপর উঠে যায় সে। পা দিয়েই সেই নাবালকের বুকে চাপ দিতে থাকে রাম নাথ। আর এই ভয়াবহ দৃশ্য দেখেই হতভম্ব হয়ে রয়েছে বাকি ছাত্ররা।

এরপর ম্যাথিউের শারীরিক অবস্থা খারাপ হয়ে পড়ে। পরে এই বিষয়ে তার পরিবার জানতে পারলে ও এই ভিডিও ভাইরাল হতেই অভিযোগ দায়ের করা হয় রাম নাথ ও তাঁর স্ত্রীর বিরুদ্ধে। ম্যাথিউয়ের বাবা রমেশ কুমার জানান, একদিন তার ছেলের হাত থেকে এক কীটনাশকের বোতল অন্য ছাত্রের মুখে পড়ে যায়। এই ঘটনায় তাকে মারধরও করেন প্রধান শিক্ষকের স্ত্রী নির্মলা দেবী। কিন্তু এতেও শান্তি না হলে ম্যাথিউকে শাস্তি দিতে পরে হেনস্থা করে প্রধান শিক্ষকও।

11 months ago
Momo: মোমো খাওয়ার বাজি ধরে ১৫০ টি মোমো একাই খেলেন যুবক, এরপরই মৃত্যু!

কে কত বেশি মোমো (Momo) খেতে পারে, তাই নিয়েই বাজি। আর তাতেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়লেন এক ২৫ বছরের যুবক। ঘটনাটি বিহারের (Bihar) সিওয়ান জেলার। জানা গিয়েছে, বন্ধুদের সঙ্গে হাজার টাকার বিনিময়ে ১৫০ টি মোমো খাওয়ার বাজি ধরা হয়েছিল। সেই বাজি মেনে নিয়ে সেই মত শুরুও হয় মোমো খাওয়া। কিন্তু এরপরেই মৃত্যু হয় সেই যুবকের। কিন্তু মৃতের বাবার দাবি, বন্ধুদের কোনও ষড়যন্ত্রের কারণেই তাঁর ছেলের মৃত্যু হয়েছে।

বিহারের সিওয়ান জেলার জ্ঞানী মোরের এক দোকানে বিপিন কুমার নামে এক যুবক তাঁর বন্ধুদের সঙ্গে মোমো খাওয়ার বাজি ধরেন। বন্ধুদের মধ্যে ঠিক হয়েছিল, যে যত বেশি মোমো খেতে পারবেন, তিনি হাজার টাকা জিতে নেবেন। এরপর সেই মোমো খাওয়ার প্রতিযোগিতা শুরু হতেই একের পর এক মোমো খেতে থাকেন বিপিন। অবশেষে তিনি ১৫০ টি মোমো খেয়ে ফেলেন। কিন্তু মোমো খাওয়ার পরই তিনি অজ্ঞান হয়ে পড়েন। এরপর তাঁকে তড়িঘড়ি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়।

অন্যদিকে বিপিনের পরিবার দাবি করেছে, বিপিনের মোমোতে বিষ দিয়ে তাঁকে মেরে ফেলেছে তাঁর বন্ধুরা। কারণ বিপিনকে হাসপাতালে ভর্তি করানোর পর যখন তাঁক মৃত বলে ঘোষণা করা হয়, তখনও তাঁর পরিবারকে কেউ এই বিষয়ে জানায়নি। ফলে তাঁরা পুলিসের কাছে অভিযোগ দায়ের করেছেন। বর্তমানে তাঁর মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে ও রিপোর্ট আসার পরই জানা যাবে তাঁর মৃত্যুর আসল কারণ। পুলিস এই ঘটনার তদন্ত করছে।

11 months ago
Viral: নকল চুল পরে বিয়ে, তাও দ্বিতীয়বার! মঞ্চেই মার খেলেন পাত্র, ভাইরাল ভিডিও,

মাথায় চুল না থাকা সত্ত্বেও পরচুলা পরে বিয়ের (Marriage) পিঁড়িতে বসলেন বর। তবে পরচুলা পরে টাক ঢাকা গেলেও মিথ্যে দিয়ে সত্য কখনোই ঢাকা যায় না। পরচুলা পরে তার উপর বেশ ভালো করেই পড়েছিলেন বিয়ের পাগড়ি। কিন্তু বিয়ে শুরুর আগেই ফাঁস হয়ে গেল বরের সব গোপন রহস্য। বিয়ের আসরেই বরের টাক আবিষ্কার করে ফেলেন কনের পরিবারের সদস্যেরা। টেনে খুলে দেওয়া হয় তাঁর পাগড়ি। দ্বিতীয়বার বিয়ে করতে আসা পাত্র সম্পর্কে পাত্রীর বাড়ির লোক সত্যি জানতে পারা মাত্রই ক্ষিপ্ত হয়ে বিয়ের মঞ্চেই বরকে মারধর করেন। এই ঘটনাটি ঘটেছে বিহারে (Bihar)। পুরো ঘটনাটি ধরা পড়েছে ভিডিওতে (Video)। ইতিমধ্যে সমাজমাধ্য়মে ভাইরাল (Viral) সেই ভিডিও। 

ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, বরের সাজে বসে থাকা এক যুবককে মারধর করছেন কয়েকজন মিলে। সঙ্গে চলছে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ। তবুও ওই যুবক চুপ হয়ে বসে আছেন। মাঝে মাঝে দেখা গিয়েছে হাত জোড় করে কনের আত্মীয়দের কাছে কিছু অনুরোধ করছেন। কিন্তু কেউ তাঁর কথা শুনছেন না। যুবককে দুই হাতে পরচুলা চেপে ধরে রাখতেও দেখা গিয়েছে। যদিও এই ভিডিওর সত্যতা যাচাই করেনি সিএন ডিজিটাল।

সম্প্রতি এই ভিডিও দেখা মাত্রই নেটাগরিকেরা নানান মন্তব্য করছেন। তবে অনেকেই বলছেন, সত্য গোপন করে মিথ্যের আশ্রয় নেওয়া একদমই উচিত হয়নি।

11 months ago


Bihar: প্রেমিকের সঙ্গে নিজের স্ত্রীকে বিয়ে দিলেন স্বামী! তারপর যা হল...

বলিউডের জনপ্রিয় ছবি 'হম দিল দে চুকে সনম' ছবিটির কথা সবার মনে আছে তো? কারণ এই সিনেমার মতই এক ঘটনা ঘটেছে বিহারেও (Bihar)। সেখানে এক স্বামী তাঁর স্ত্রীকে বিয়ে দিলেন প্রেমিকের সঙ্গে। জানা গিয়েছে, বিহারের নওয়াদা জেলার এক মহিলার বিয়ে হয়েছে অনেক দিন আগেই কিন্তু ভুলতে পারেননি তাঁর পুরনো প্রেমিককে। ফলে বিয়ের পরও সেই প্রেমিকের সঙ্গে রীতিমতো যোগাযোগ রাখতেন তিনি। এরপর তা জানাজানি হতেই সেই মহিলার বর কোনও ঝামেলা না করেই সেই প্রেমিকের সঙ্গে নিজের স্ত্রীকে বিয়ে দিলেন। আর সেই দৃশ্য সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

স্থানীয় সূত্রে খবর, সেই মহিলার স্বামী কাজের সূত্রে বাড়ির বাইরে গিয়েছিলেন। আর সেই সুযোগেই রাতের অন্ধকারে সেই মহিলা তাঁর প্রেমিকের সঙ্গে দেখা করতে যান। এরপর তাঁদের হাতে-নাতে ধরে ফেলে গ্রামবাসীরা। সেই প্রেমিককে বেধড়ক মারধরও করেন তাঁরা। তারপর তাঁর স্বামী আসতেই পুরো ব্যাপারটা জানতে পেরেই তাঁর স্ত্রীকে বিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। দেখা যায়, এক শিবমন্দিরে নিয়ে গিয়ে প্রেমিক সেই মহিলাকে সিঁদুর পরিয়ে দিচ্ছেন। আর এই ভিডিওই এখন সমাজমাধ্যমে ভাইরাল। উল্লেখ্য, সেই প্রেমিকেরও আগেই বিয়ে হয়েছিল ও তাঁর তিন সন্তানও রয়েছে। ফলে এই ঘটনা কোনও সিনেমার থেকে কম কিছু নয়।

12 months ago
Bihar: নদীর ধারে রিলস বানাতে মগ্ন, অন্যদিকে জলে তলিয়ে গেলেন ৩ বন্ধু, টের পেল না কেউই!

বন্ধুর সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে নদীর ধারে রিলস বানাতে ব্যস্ত, আর এই অবস্থায় নদীতে তলিয়ে গেল তিন বন্ধু। তবে বিপদের আঁচ টের করতে পারেননি বাকি বন্ধুরা। কিন্তু যখন তাঁরা বুঝতে পারলেন, তখন অনেকটাই দেরী হয়ে যায়। এই মর্মান্তিক ঘটনাটি বিহারের (Bihar) পূর্ব চম্পারন জেলার মোতিহারির (Motihari)। গত রবিবার টিকুল্যা (tikulya) ধাবা ঘাটে ঘটে এই দুর্ঘটনাটি।

সূত্রের খবর, সত্যম নামে এক বন্ধুকে দেখতে গিয়েছিলেন সাত জন বন্ধু। এরপর মোতিহারির টিকুল্যা ধাবা ঘাটে তাঁরা রিলস বানাতে, আড্ডা দিতে ও সেলফি তুলতে আসেন তাঁরা। তবে তাঁদের মধ্যে তিনজন বন্ধু নদীতে নামেন ও অন্যদিকে বাকি চারজন নদীর ধারে দাঁড়িয়েই রিলস বানাতে ব্যস্ত হয়ে পড়েন। আর ঘটে যায় দুর্ঘটনা। তিনজন যে কখন জলে তলিয়ে যান, বাকিরা সেটা বুঝতেই পারেননি। এরপর যখন বুঝতে পারেন যে, নদীতে কিছু হয়েছে, তখন তাঁরা চেষ্টা করেও তাঁদের বাঁচাতে পারেননি।

এরপরই দুর্ঘটনাস্থলে পৌঁছয় মোতিহারির পুলিস। তাঁরা নদী থেকে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। যাঁরা প্রাণ হারিয়েছেন, তাঁদের নাম  প্রিন্স কুমার (১৪), আকচার কুমার (১৪) ও মনজিৎ কুমার (১৫)। তাঁরা প্রত্যেকেই জামালিয়ার বাসিন্দা বলে জানিয়েছেন পুলিস। বাকি চারজনের মধ্যে এক বন্ধু গোলু বলেন, তাঁরা এক তিন চাকার গাড়িতে করে এসেছিলেন বন্ধু সত্যমের সঙ্গে দেখা করতে। তখনই রিলস বানাতে তাঁরা নদীর পাড়ে গিয়েছিলেন। আর এরপরেই তাঁরা তাঁদের তিন বন্ধুকে হারিয়ে ফেলেন।

12 months ago