Breaking News
Abhishek Banerjee: বিজেপি নেত্রীকে নিয়ে ‘আপত্তিকর’ মন্তব্যের অভিযোগ, প্রশাসনিক পদক্ষেপের দাবি জাতীয় মহিলা কমিশনের      Convocation: যাদবপুরের পর এবার রাষ্ট্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়, সমাবর্তনে স্থগিতাদেশ রাজভবনের      Sandeshkhali: স্ত্রীকে কাঁদতে দেখে কান্নায় ভেঙে পড়লেন 'সন্দেশখালির বাঘ'...      High Court: নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় প্রায় ২৬ হাজার চাকরি বাতিল, সুদ সহ বেতন ফেরতের নির্দেশ হাইকোর্টের      Sandeshkhali: সন্দেশখালিতে জমি দখল তদন্তে সক্রিয় সিবিআই, বয়ান রেকর্ড অভিযোগকারীদের      CBI: শাহজাহান বাহিনীর বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ! তদন্তে সিবিআই      Vote: জীবিত অথচ ভোটার তালিকায় মৃত! ভোটাধিকার থেকে বঞ্চিত ধূপগুড়ির ১২ জন ভোটার      ED: মিলে গেল কালীঘাটের কাকুর কণ্ঠস্বর, শ্রীঘই হাইকোর্টে রিপোর্ট পেশ ইডির      Ram Navami: রামনবমীর আনন্দে মেতেছে অযোধ্যা, রামলালার কপালে প্রথম সূর্যতিলক      Train: দমদমে ২১ দিনের ট্রাফিক ব্লক, বাতিল একগুচ্ছ ট্রেন, প্রভাবিত কোন কোন রুট?     

Barrackpore

Barrackpore: তোলা চেয়ে না পাওয়ায় ব্যারাকপুরে ব্য়বসায়ীকে খুনের চেষ্টা দুস্কৃতীদের, গ্রেফতার ১

তোলাবাজির টাকা না পাওয়ায় ব্যবসায়ীকে ভোজালি দিয়ে কুপিয়ে খুনের চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে দুস্কৃতীদের বিরুদ্ধে। ঘটনায় আক্রান্ত ব্য়বসায়ী। রবিবার এই চাঞ্চল্য়কর ঘটনাটি ঘটেছে ব্যারাকপুর সদর বাজার এলাকায়। বর্তমানে ওই ব্য়বসায়ী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। 

জানা গিয়েছে, গৌরব রায়-এর কাছে মোটা টাকা তোলা চায় সোনু সাউ নামক এক ব্য়ক্তির লোকজন। অভিযোগ, তোলা দিতে অস্বীকার করায় সোনু তার দলবল নিয়ে ঝাপিয়ে পড়ে এবং ভোজালি দিয়ে এলোপাথাড়ি কোপাতে শুরু করে। এরপর চিৎকার-চেঁচামেচি শুনে স্থানীয় বাসিন্দারা ছুটে এলে সোনু তার দলবল নিয়ে ঘটনাস্থল ছেড়ে পালিয়ে যায়। এই ঘটনায় ব্যারাকপুর থানার পুলিস একজনকে গ্রেফতার করেছে। এছাড়াও এমন ঘটনায় ব্যাপক আতঙ্ক ছড়িয়েছে ব্যারাকপুর থানা এলাকায়।

5 months ago
Raj: তথ্যচিত্র তৈরির কাজে প্রাক্তন সাংসদ তড়িৎ বরণ তোপদারের বাড়িতে রাজ চক্রবর্তী

পেশায় রসায়নের শিক্ষক। অনেক ছোট থেকেই বামপন্থী রাজনীতিতে হাতেখড়ি। ছয়বার ব্যারাকপুর লোকসভা আসনে জিতে সংসদে গিয়েছেন। নয়ের দশকে শিল্পাঞ্চলের বেতাজ বাদশা সিপিএম নেতা তড়িৎ তোপদার। এখন তাঁর জীবন অনেকটাই নিষ্প্রভ। সেই চড়াই-উতরাইয়ের গল্প নিয়েই তথ্যচিত্র তৈরি করছেন ব্যারাকপুরের বর্তমান বিধায়ক রাজ চক্রবর্তী। 

শুক্রবার ব্যারাকপুরে তড়িৎ তোপদারের বাড়ি যান রাজ চক্রবর্তী। ব্যারাকপুরের বদলে যাওয়ার ইতিহাস শুনেছেন, বোঝার চেষ্টা করেছে। তবে তথ্যচিত্রের বিষয় কী, তা নিয়ে মুখ খোলেননি কোনও পক্ষই।

ছাত্র জীবন থেকেই রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়েন তড়িৎ তোপদার। ১৯৯৭ সালে ব্যারাকপুরের মন্মথনাথ বয়েজ স্কুলের শিক্ষক পদ থেকে অবসর নেওয়ার পর রাজনীতি তাঁর ধ্যানজ্ঞান ছিল। প্রাক্তন সাংসদকে নিয়ে বর্তমান বিধায়ক রাজ চক্রবর্তীর তথ্যচিত্র কী নিয়ে হবে, তা নিয়ে জল্পনা থেকেই গেল।

8 months ago
Train: সপ্তাহের শুরুতেই রেল অবরোধ, বন্ধ শিয়ালদহ মেইন শাখায় সমস্ত ট্রেন চলাচল

রেল ওভারব্রিজ তৈরির দাবিতে সোমবার সকালে ব্যারাকপুর (Barrackpore) স্টেশনে অবরোধ। নিত্যযাত্রীদের অবরোধের (Blockade) জেরে সপ্তাহের প্রথম দিনই শিয়ালদহ মেইন শাখায় ট্রেন (Train) চলাচল স্তব্ধ হয়ে গিয়েছে। ব্যস্ত সময় ভোগান্তির মুখে পড়েছেন একাধিক যাত্রী। রেলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, দ্রুত ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হবে।

২০২০ সালে আমফান ঝড়ে ব্যারাকপুর রেল স্টেশনের মাঝে ওভারব্রিজ ক্ষতিগ্রস্ত হয়। রেলের তরফ থেকে জানানো হয়, সেই ওভারব্রিজটি নতুন করে বানানো হবে। ভেঙে দেওয়া হয় ওভারব্রিজটি। ৩ বছর কেটে গেলেও তা এখনও পর্যন্ত কার্যকর হয়নি বলে অভিযোগ অবরোধকারীদের। যার ফলে নিত্যযাত্রীদের সমস্যায় পড়তে হচ্ছে। সেই প্রতিবাদেই অবরোধ করেন ব্যারাকপুরের নিত্য়যাত্রীরা।

সোমবার নাগরিক প্রতিরোধ মঞ্চ-এর ব্যানারে ফুট ওভারব্রিজের দাবিতে রেল রোকোর ডাক দেওয়া হয়ষ ব্যারাকপুর শাখার তরফে স্টেশন চত্বরে মিছিল করেন অবরোধকারীরা। এরপরই ১৪ নম্বর গেটে অবরোধ শুরু করা হয়। আন্দোলনকারীরা ব্যারাকপুর স্টেশন ম্যানেজারের ঘরের সামনেও বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন।

11 months ago


Arrest: ব্যারাকপুরে সোনার দোকানে খুনের ঘটনায় গ্রেফতার ২, পুলিসকে তোপ সাংসদ অর্জুনের

ব্যারাকপুরে (Barrackpore) সোনার দোকানে ডাকাতি করতে বাধা দেওয়ায়, দুষ্কৃতীদের (Criminal) হাতে খুন হয় ওই দোকান মালিকের ছেলে। এ ঘটনায় প্রায় দেড়দিন পর পুলিসের (Police) হাতে আটক ৩ অভিযুক্ত। তাঁদের মধ্যে ২ জনকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের পর গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিস। যদিও এ ঘটনায় পুলিসকে ফের তোপ দেন ব্যারাকপুরের সাংসদ অর্জুন সিং।

পুলিস জানিয়েছে, এ ঘটনায় তল্লাশিতে নেমে পুলিস সিসিটিভি ফুটেজ দেখে ৩ জনকে আটক করেছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের পর ২ জনকে গ্রেফতার করেছে। পুলিস জানিয়েছে, ওই দুই অভিযুক্তের নাম, সফি খান এবং জামসেদ আনসারি। পুলিস সূত্রে আরও খবর, ধৃতদের থেকে উদ্ধার হয়েছে ঘটনায় ব্যবহৃত একটি মোটরবাইক। এছাড়া সফিকে রহড়া থেকে এবং জামসেদকে বীরভূমের মূরারই থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে তদন্তকারীরা অফিসাররা।

ওদিকে ব্যারাকপুরে সোনার দোকানে ডাকাতির ঘটনার প্রতিবাদে আগামীকাল অর্থাৎ শনিবার ব্যারাকপুর ও পলতা স্বর্ণ ব্যবসায়ীরা ২৪ ঘণ্টা দোকান বন্ধ রাখা এবং একটি প্রতিবাদ মিছিলের ডাক দেওয়া হয়েছে। শুক্রবার সাংসদ অর্জুন সিং দাবি করেন, যেখানে সাধারণ মানুষের নিরাপত্তা নেই, সেখানে নিজের ভি,ভি আইপি নিরাপত্তা নিয়ে লজ্জিত তিনি। শুক্রবার সকালে তিনি আরও বলেন, 'আমার নিরাপত্তা নিয়ে চলতে লজ্জা হয়। ব্যারাকপুরের সাংসদ হয়ে সাধারণ মানুষকে নিরাপত্তা দিতে পারছি না, আমি নিজে নিরাপত্তা নিয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছি! অপরাধীরা নিরাপত্তা পাচ্ছে। আর সাধারণ মানুষ গুলি খেয়ে মরছেন!  জলজ্যান্ত একটি নিরীহ ছেলেকে মেরে দিলো!'

12 months ago
Barrackpore: ব্যারাকপুর যেন সিনেমার মির্জাপুর, ঘটনার দেড় দিন পর গ্রেফতার এক অভিযুক্ত

ব্যারাকপুর (Barrackpore) যেন সিনেমার মির্জাপুর (Mirzapore)। ঠিক যেমন মির্জাপুর সিনেমাটিতে খুন কোনও বড় বিষয় নয়, কখনও রাস্তায়, কখনও বাড়ি ঢুকে খুন হচ্ছে, কখনও বা দোকানে ঢুকে খুন। ঠিক যেমনটা ব্যারাকপুরে। ব্যারাকপুরে সোনার দোকানে খুনের ঘটনায় ৪০ ঘণ্টা পার, শুক্রবার সকাল ১১টা নাগাদ সানি নামক এক অভিযুক্তকে (Accused) হাওড়া স্টেশন থেকে গ্রেফতার করে তদন্তকারীরা। গতকাল অর্থাৎ বৃহস্পতিবার থেকেই ঘটনার তদন্তে নেমেছে সিআইডির টিম। ফিঙ্গারপ্রিন্ট বিশেষজ্ঞরা। সূত্রের খবর, তদন্তে নেমে পুলিস স্থানীয় সিসিটিভি ফুটেজ ও স্থানীয়দের জিজ্ঞাসাবাদ করে দুষ্কৃতীদের থেকে তথ্য জোগাড়ের চেষ্টা চালাচ্ছে। সূত্রের খবর, পুলিসকে ভাবাচ্ছে দুষ্কৃতীদের ডাকাতির ধরন। ব্যারাকপুর কমিশনারেটের এক গোয়েন্দা আধিকারিকের মতে, দুষ্কৃতীদের লক্ষ্য নীলাদ্রিকে খুন করাও হতে পারে। যদিও সেটা স্পষ্ট হবে অভিযুক্তকে জিজ্ঞাসাবাদের পর।

বুধবার সন্ধ্যায় সোনার দোকানে ডাকাতির ঘটনায় দোকান মালিকের ছেলে নীলাদ্রির দুস্কৃতীদের গুলিতে মৃত্যু হয়। দুষ্কৃতীদের গুলিতে গুরুতর আহত আরও দুই ব্যক্তি। গোটা ঘটনায় পুলিসের ভূমিকা নিয়ে বারবার প্রশ্ন তুলেছে ব্যারাকপুরের সাংসদ  অর্জুন সিং। অর্জুন সিংয়ের দাবি পুলিস তাঁর ভূমিকা সঠিক ভাবে পালন করছে না। পুলিসের উপরে ক্ষোভ উগরে দিয়ে অর্জুন বলেন, '৪০ কেজি ভুরি নিয়ে হাঁটাচলা করতে পারে না, তাঁরা আবার ডাকাত ধরবে।' শুধু সাংসদ নয়, পুলিসের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে স্থানীয়রাও ও মৃতের বাবা অর্থাৎ ওই সোনার দোকান মালিক।

সোনার দোকানে খুনের ঘটনাস্থল থেকে ব্যারাকপুর কমিশনারেট অফিসের দূরত্ব ১.৫ কিমি, টিটাগড় থানার দূরত্ব ৩.৩ কিমি, এছাড়া রহড়া থানার দূরত্ব ২.৮ কিমি। এছাড়া ব্যারাকপুর স্টেশনের দূরত্ব মাত্র ২০০ মিটার। এ অবস্থায় বিশেষ জনবহুল এলাকায় এমন ঘটনা কিভাবে ঘটল? প্রশ্ন উঠছে পুলিসের ভূমিকা নিয়েও। 

12 months ago


Arjun: '৪০ কেজির ভুঁড়ি নিয়ে অপরাধী ধরবে?' ব্যারাকপুরে শুটআউটের ঘটনায় পুলিসকে তোপ সাংসদ অর্জুনের

ব্যারাকপুরে (Barrackpore) ডাকাতি ও খুনের ঘটনায় পুলিসকেই (Police) দায়ী করলেন ব্যারাকপুরের সাংসদ অর্জুন সিং (Arjun Singh)। বুধবার সন্ধ্যায় গুলিতে একজনের মৃত্যু হয়েছে। এবার এ ঘটনায় সাংসদ অর্জুন সিং বলেন, 'পুলিস ভুঁড়ি নিয়ে দৌড়াতে পারে না, চোর ধরবে কি ?' তাঁর অভিযোগ, প্রকৃত অপরাধী ধরা পড়ছেন না। তাঁদের অনেকের মাথায় রাজনৈতিক নেতাদের হাত আছে। আর পুলিশও সম্পূর্ণ ব্যর্থ। এতে রাজ্যের শাসকদলের ক্ষতি হচ্ছে বলে মন্তব্য করেন বিজেপির টিকিটে সাংসদ হয়ে তৃণমূলে ফেরা অর্জুন।

বুধবার সন্ধ্যায় ব্যারাকপুরের আনন্দপুরী এলাকায় সোনার দোকানে ডাকাতিতে বাধা দিতে গিয়ে দুষ্কৃতীদের গুলিতে মৃত্যু হয় ব্যবসায়ীর পুত্রের। গুরুতর আহত হয়েছেন আরও দু’জন। এ নিয়ে বৃহস্পতিবার ব্যারাকপুরের সাংসদ বলেন, 'পরিস্থিতি দেখে মনে হচ্ছে, পুলিশের ভূমিকা সঠিক নয়। পুলিশ-প্রশাসনের উপর মানুষের যে ক্ষোভ তৈরি হচ্ছে, তাতে আমাদের দলের ক্ষতি হবে।' একধাপ এগিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘আগেকার পুলিশ অফিসার দেখে অপরাধীরা অপরাধ করতে ভয় পেত। কিন্তু এখনকার পুলিশ অফিসারেরা অপরাধীদের শায়েস্তা করতে ব্যর্থ। ছোট ছোট বিষয় পুলিশের একাংশ অতি সক্রিয়। কিন্তু অপরাধীরা যে মুক্তাঞ্চল বানিয়ে ফেলছে, তা দেখেও আমরা কিছু করতে পারছি না।’ অর্জুন জানান, এতে সাংসদ হিসেবে তিনি দুঃখিত।

ব্যারাকপুরে সোনার দোকানে ডাকাতির ঘটনা নিয়ে অর্জুন বলেন, 'এক মাসের মধ্যে দুটো খুন হয়ে গেল! এক জন ব্যবসায়ী মারা গেলেন। এক জন মাত্র ৪ লক্ষ টাকা ধার নেওয়ার পর খুন হলেন। আর টিটাগড় থানার ভূমিকাও ঠিক নয়।'

12 months ago
Woman: সম্পত্তির জন্যই কি খুন! ব্যারাকপুরে মহিলার মৃত্যুতে প্রোমোটার যোগের তদন্তে পুলিস

সম্পত্তির জেরে এক মহিলাকে খুনের অভিযোগ প্রোমোটারের (Promoter) বিরুদ্ধে। শুক্রবার ঘটনাটি ঘটেছে ব্যারাকপুর (Barrackpore) শিউলি গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত তেলিনিপাড়া এলাকায়। ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়েছে গোটা এলাকায়। ওই মহিলার মৃতদেহ (Death) আটকে রেখে বিক্ষোভ বাসিন্দাদের। পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃত মহিলার নাম সাথী ঘোষ।

জানা গিয়েছে, ব্যারাকপুর দেবপুকুর এলাকায় সাথী ঘোষ ও তার পরিবারের লোকজনদের জমি প্রমোটিংয়ের জন্য নেয় এলাকার স্থানীয় প্রোমোটার বিধান রায়। সাথী ঘোষের জায়গায় প্রোমোটিং এর জন্য তার পরিবারের লোকজনদের তেলিনিপাড়ায় একটি বাড়িতে ভাড়া করে রাখেন ওই প্রোমোটার। বেশ কয়েকদিন ধরে সাথী ঘোষের কোন খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। তাঁর নামে মোহনপুর থানায় নিখোঁজের ডাইরি করে তার পরিবারের লোকজন। 

শনিবার অবশেষে ভাড়া বাড়ির ওপরের ঘর থেকে খোঁজ সাথী ঘোষের মৃতদেহ। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে মৃতদেহ উদ্ধার করে মোহনপুর থানার পুলিস। স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ প্রোমোটার বিধান রায় সাথী ঘোষকে খুন করে ঝুলিয়ে দিয়েছে। ঘটনার পর থেকে পলাতক অভিযুক্ত ওই প্রোমোটার। পুলিস এসে মৃতদেহ উদ্ধার করে নিয়ে যাওয়ার সময় মৃতদেহ আটকে রেখে বিক্ষোভ দেখায় এলাকার স্থানীয় বাসিন্দারা। এই মৃত্যুর পিছনে সম্পত্তি নাকি অন্য কোনও শত্রুতা? তা খতিয়ে দেখছে পুলিস। 

one year ago
Barrackpore: শহরের উষ্ণতম দিনে বরফে মোড়া টক জল-আর ফুচকা, টপাটপ মুখে পুড়ছে ব্যারাকপুর

গ্রীষ্মের তাপে (Heat) যখন পুড়ছে বাংলা (Bengal), তখন সরকার বারবার করে সতর্কতা (Caution) জারি করেছে ঠান্ডা পান করুন। নিষ্প্রয়োজনে ঘরের বাইরে বেরোবেন না। এ অবস্থায় সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে সবাই তেলে ভাজা অর্থাৎ ভাজাটাই এড়িয়ে চলছে। কিন্তু ব্যারাকপুরের চিত্রটা ঠিক উল্টো। তাহলে ব্যারাকপুরের চিত্রটি ঠিক কি?

শনিবারও রাজ্যের তাপমাত্রা ছিল ৪১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গ্রীস্মের সবচেয়ে উত্তপ্ত দিন ছিল গতকাল অর্থাৎ শনিবার। শনিবার বিকেলে ব্যারাকপুর স্টেশন সংলগ্ন এলাকায় দেখা গেল একটি ফুচকার দোকানে ভীষণ লাইন। গরমে যখন সাধারণ মানুষ তেলেভাজা এড়িয়ে চলছেন সেই সময় ওই ফুচকার দোকানে এত ভিড় দেখে অবাক হওয়ার জোড়। এই ভিড়ের আসল কারণ কি? এগিয়ে খোঁজ নিতে দেখা গেল, এই ফুচকার যে টক জল অর্থাৎ ফুচকার সঙ্গে যে টক জলটি দেওয়া হয় সেটিতে বরফ মেশানো, অর্থাৎ টক জলটি বেশ ঠান্ডা।

স্বাভাবিকভাবেই গ্রীষ্মকালীন বাজারে এই অভিনব উদ্যোগ মন কেড়েছে সকলেরই। ব্যারাকপুরের ওই ফুচকা দোকানীর নাম পবন শাউ। শনিবার পবন সিএন-ডিজিটালের প্রতিনিধিকে জানিয়েছেন, ফুচকার ওই টক জলে বরফ দেওয়ার কোন বৈজ্ঞানিক কারণ অবশ্য নেই, কিন্তু এই তীব্র গরমে যখন সাধারণ মানুষ তেলেভাজা এড়িয়ে চলছেন, তখন এই বরফ মেশানো টক জলের কুচকায় অনীহা করছেন না কেউই। শনিবার তিনি আরও জানিয়েছেন, ঠান্ডা টক জলের ফলে বিক্রিও অনেকটা বেড়েছে। শনিবার বিকেলে ওখানে ফুচকা খাচ্ছিলেন সুদেষ্ণা চৌধুরী নামের এক তরুণী। তিনি জানান, গরমে কিছু খাওয়াই যাচ্ছে না, কিন্তু ফুচকার সঙ্গে এই ঠান্ডা টক জলের কম্বিনেশনটা দারুন। স্বাদও দারুন। পাশাপাশি ওখানে দাঁড়িয়ে ফুচকা খাচ্ছিলেন, বছর পঞ্চাশের এক ব্যক্তি সুমন সেন, ব্যারাকপুরের বাসিন্দা সুমন শনিবার বলেন, 'ঠান্ডা টক জলের ফুচকা, বেশ দারুন লাগছে।'


one year ago


Khardaha: অফিসারের সামনে নিগ্রহ যুবককে, সিভিকের বিরুদ্ধে বিচার চেয়ে সিপির দ্বারস্থ পরিবার

প্রথমে সামনে এসেছিল খড়দহ থানার পুলিসের (Khardaha Police) রাস্তার উপরে দাঁড়িয়ে প্রকাশ্যে লরি ও ট্রাক থেকে টাকা তোলার ছবি। এবার সরাসরি ছিনতাইয়ের অভিযোগ উঠল খড়দহ থানার পুলিসের বিরুদ্ধে। শনিবার এমনই এক অভিযোগ করা হয় ব্যারাকপুর পুলিস কমিশনারের দফতরে।

অভিযোগ, সোদপুর সুখচর গীর্জা এলাকার বাসিন্দা এক যুবক রাস্তায় বিস্কুট কিনতে বেরিয়ে পুলিসের নিগ্রহের শিকার হন। এমনকি গোটা রাত থানার লকআপে কাটাতে হয় তাঁকে। শুধু তাই নয় যুবকের ও তাঁর পরিবারের মারাত্মক অভিযোগ, তাঁকে মারধর করা হয় এবং তাঁর থেকে আড়াই হাজার টাকা ছিনতাই করে নিয়ে নেওয়া হয়। এই অভিযোগ নিয়ে শনিবার ব্যারাকপুর পুলিস কমিশনারের দ্বারস্থ হয় সোদপুর সুখচর গীর্জা এলাকার পাঁজা পরিবার।

পরিবার সূত্রে দাবি, পাঁজা পরিবারের সন্তান সমন্বয় পাঁজা গত ১৪ তারিখ রাতে পাশের বাড়ি থেকে বিস্কুট আনতে বেরিয়েছিলেন। অভিযোগ, সেই সময় খড়দহ থানার একটি টহলদারী অটোতে দুইজন সিভিক ভলেন্টিয়ার ও একজন অফিসার এসে পৌঁছায় ওই স্থানে। এরপরেই শুরু হয় নিগ্রহের পর্ব। সমন্বয়ের দাবি, অটোর মধ্যে থেকে কেউ তাঁর মুখে বারবার টর্চ মারতে থাকেন। তখন সে বলেন যে, আলো তাঁর মুখে না মেরে, রাস্তায় একটু আলো ফেললে খুব ভালো হয়। এই কথা শোনা মাত্রই ওই অটো থেকে দুই জন সিভিক ভলেন্টিয়ার বেরিয়ে আসেন এবং তার ঘাড় ধরে অশ্লীল ভাষা ব্যবহার করতে থাকেন। এর প্রতিবাদ করলে তাঁকে বলপূর্বক অটোতে তুলে নেন।

অভিযোগ, অটোতে একজন খাকি উর্দি পড়া অফিসার বসে ছিলেন। কিন্তু তিনি দুইজন সিভিক ভলেন্টিয়ারদের সংযত থাকতে বলেননি বরং নির্বাক দর্শক হয়ে সেদিন সঞ্চালকের ভূমিকা পালন করছিলেন। এরপরেই তাঁকে অটোর মধ্যে চড় থাপ্পর মারে এবং অভব্য ভাষার ব্যবহার করে বলে দাবি সমন্বয়ের।  এরইমধ্যে তাঁর মোবাইল থেকে আড়াই হাজার নগদ টাকা নিয়ে নেয় পুলিস বলে অভিযোগ।

সমন্বয়ের মা অভিযোগ জানিয়ে বলেন, তাঁর ছেলেকে ওই রাতে খড়দহ থানায় নিয়ে গিয়ে সারারাত লকআপে আটকে রাখে। থানার তরফে বলা হয়, সকালে ছেড়ে দেওয়া হবে তাঁর ছেলেকে। সকাল আটটার পর তাঁর স্বামী খড়দহ থানায় গেলে, থানার ডিউটি অফিসার বলে তাঁর ছেলেকে কোর্টে পাঠানো হবে। সমন্বয়ের মা, তাঁর ছেলেকে বিনা কারণে মারধর করে জোরপূর্বক গাড়িতে তুলে দেওয়া এবং মিথ্যা মামলা দেওয়ার পাশাপাশি পুলিস যে নির্মম অত্যাচার করেছে তাঁর সুবিচার চেয়েছেন অভিযোগ পত্রে।

তিনি আরও অভিযোগ করেন যে, থানার আধিকারিকেরা এই সমস্ত সিভিক ভলেন্টিয়ারদের দিয়ে রাতের অন্ধকারে সাধারণ মানুষদের উপর অন্যায় করছেন। রোজ তাঁদের বাড়ির সামনের রাস্তায় দাঁড়িয়ে সিভিক এবং পুলিস অফিসার গাড়ি থেকে বেআইনিভাবে টাকা তুলছে। সেটারও প্রতিকার চেয়েছেন তিনি।

one year ago
Auto:ব্যারাকপুর কমিশনারেট এলাকায় বেআইনি অটো সরাতে নির্দেশ কোর্টের, বড় দায়িত্ব সিপিকে

শিক্ষায় নিয়োগ দুর্নীতির পর এবার বেআইনি অটো সরাতে বড়সড় নির্দেশ দিলেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। ব্যারাকপুর কমিশনারেট এলাকায় বেআইনি অটোদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ। প্রশাসনকে এই নির্দেশ দিয়ে আগামি ৩১ জানুয়ারি মামলার পরবর্তী শুনানি ধার্য করেছেন বিচারপতি।

ব্যারাকপুরের সিপি আলোক রাজোরিয়াকে কোর্টের নির্দেশ, একটা বৈঠক ডেকে প্রশাসনকে বেআইনি অটো খুঁজে বের করে তাঁদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে। নাম-ঠিকানা আছে, তাই খুঁজতে অসুবিধা হবে না। যে ২৫ জনের নাম-ঠিকানা পাওয়া গিয়েছে, তাঁদের আগে ব্যবস্থা নিতে হবে। যারা পুলিসের সঙ্গে সহযোগিতা করছে না, তাঁদের খুঁজে বের করতে হবে। আগামী ৯ জানুয়ারির মধ্যে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ। পুলিসকে আরও সচেতন হয়ে বেআইনি অটোগুলিকে খুঁজে বের করে আইনানুগ ব্যবস্থার নির্দেশ। আবেদনকারীকে দিতে হবে হলফনামা। 

RTO প্রদীপ মজুমদার সশরীরে উপস্থিত থেকে জানান, ৩২ জনকে তাঁরা আপাতত চিহ্নিত করতে পেরেছেন। যার মধ্যে দু'জনের কাছে পারমিশন ছিল। বাকিদের মধ্যে ৫ জন পারমিশন তৈরি করতে দিয়েছে। বাকি ২৫ জনকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। তাঁদের খুঁজে বের করে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের। ৩১ জানুয়ারি মামলার পরবর্তী শুনানি, পুলিসকেও রিপোর্ট দিতে হবে।


one year ago


Natagarh: পুলিস সেজে দুঃসাহসিক ডাকাতি! খোয়া গেল লক্ষাধিক টাকার অলংকার, তদন্তে পুলিস

ভর দুপুরেই দুঃসাহসিক ডাকাতি! এক স্বর্ণ ব্যবসায়ীর গাড়ি থামিয়ে পুলিস (police) পরিচয় দিয়ে ছিনতাই লক্ষাধিক টাকা অলংকার (ornaments)। ঘটনাটি নিউ ব্যারাকপুর (New Barrackpore) থানার অন্তর্গত এপিসি কলেজের সামনে ঘটে। দিনেদুপুরে এমন ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়। 

জানা গিয়েছে, ঘোলা থানার অন্তর্গত নাটাগড় (Natagarh) মহেন্দ্র নগরের বাসিন্দা এক স্বর্ণ ব্যবসায়ী স্বপন রায় বিশেষ কাজে মধ্যমগ্রামে (Madhyamgram) এসেছিলেন। রবিবার কাজ সেরে ফেরার পথে আনুমানিক ১২ টা ২০ নাগাদ এপিসি কলেজের সামনে দুজন ব্যক্তি পুলিস পরিচয় দিয়ে নাকা চেকিংয়ের নাম করে স্বপন বাবুর গাড়িটি আটকায়। প্রথমে কাগজপত্র দেখতে চায়, পরবর্তীকালে স্বপন বাবুর কাছ থেকে একটি হীরের আংটি, গলায় সোনার চেন, হাতের ব্রেসলেট সব খুলে একটি কাগজের মুড়ে তা সরিয়ে রাখার পরামর্শ দেন। এরপর নিজের হাতেই ওই দুই ব্যক্তি সোনার গহনাগুলি কাগজে মুড়ে গাড়ির মধ্যে রেখে ওনাকে চলে যেতে বলেন। কিছুক্ষণ পরে স্বপন বাবু যখন গাড়িতে খোঁজ করেন তাঁর অলংকারের, তখন শুধুমাত্র সাদা কাগজটি ছাড়া কোনও গহনার চিহ্ন ছিল না। এরপরই স্বপন বাবু বুঝতে পারেন যে তিনি প্রতারিত হয়েছেন।

পরবর্তীকালে তিনি নিউ ব্যারাকপুর থানায় গিয়ে পুরো ঘটনার বর্ণনা দিয়ে লিখিত অভিযোগ করেন। অভিযোগের ভিত্তিতে পুরো ঘটনার তদন্তে নিউ বারাকপুর থানার পুলিস। 

2 years ago
Gold: বেলঘড়িয়া এক্সপ্রেসওয়েতে দক্ষিণেশ্বরের কাছে গাড়ি থেকে উদ্ধার ১১ কেজি সোনা

পুজোর আগে বড়সড় সাফল্য ব্যারাকপুর পুলিস কমিশনারেটের (Barrackpore Police)। বেলঘড়িয়া এক্সপ্রেসওয়ে (belgharia Expressway) থেকে ১১ কেজি সোনা (Gold Seize) উদ্ধার বেলঘড়িয়া থানার পুলিস। কমিশনারেট সূত্রে এমনটাই খবর। জানা গিয়েছে, বেলঘড়িয়া থানা তল্লাশি চালিয়ে ১১ কেজি সোনা একটি হুন্ডাই গাড়ি থেকে বাজেয়াপ্ত করেছে। পুলিস গাড়ির চালক-সহ চারজনকে গ্রেফতার করেছে। দক্ষিণেশ্বর সংলগ্ন ময়লাখলা এলাকায় বেলঘড়িয়া এক্সপ্রেসওয়ে ধরে যাওয়ার পথে টহলদারী পুলিসের সন্দেহ হওয়ায়, গাড়ি চেকিং করতেই ব্যাগের মধ্যে থেকে সোনার বাটগুলি উদ্ধার হয়। যার বাজারমূল্য কয়েক কোটি টাকা। এই ঘটনায় নেতাজিরঞ্জন পাওয়ার, ময়ূর মনোহর পাটিল, গণেশ চৌহান এবং সুরজিৎ মুখার্জিকে গ্রেফতার করেছে পুলিস। কোথা থেকে আসছিল আর কোথায় যাচ্ছিল, সেটা তদন্তাধীন। এমনটাই জানিয়েছে বেলঘড়িয়া থানার পুলিস।


এদিকে, দিন তিনেক আগেই  কলকাতা বিমানবন্দরে উদ্ধার সোনা। শুল্ক দফতরের হাতে প্রায় ১ হাজার গ্রামের বেশি ওজনের সোনা-সহ আটক সিঙ্গাপুর ফেরত এক ভারতীয়। ধৃত যাত্রীর নাম মুকেশ আগরওয়াল।

শুল্ক দফতরের তরফে জানানো হয়েছে, কলকাতা বিমানবন্দর শাখার আধিকারিকেরা গোপন সূত্রে খবর পেয়ে সিঙ্গাপুর ফেরত এক ভারতীয় নাগরিককে আটক করেন। এরপরে তল্লাশি চালিয়ে ওই যাত্রী থেকে ২৭টি গোল্ড কয়েন ও তিনটি গোল্ড বার উদ্ধার করা হয়। যার ওজন প্রায় ১১৪০ গ্রাম। এর বাজার মূল্য ৫৬লক্ষ ৭৮হাজার ৬৯৪টাকা।


2 years ago
Suspend: দুধের গাড়ি থেকে টাকা নেওয়ার অভিযোগে সাসপেন্ড খড়দহ থানার দুই পুলিস অফিসার

কাগজপত্র ঠিক না থাকায় দুধের গাড়ি চালককে কেস না দিয়ে টাকা নেন বলে অভিযোগ খড়দহ থানার (Khardah police station) দুই পুলিস অফিসারের বিরুদ্ধে। সেই অভিযোগের তদন্তে নেমে ওই দুই পুলিস অফিসারকে সাসপেন্ড (suspend) করল বারাকপুর পুলিস কমিশনারেট (Barrackpore Police Commissionerate)।

সূত্র মারফত খবর, চেকিং-এর সময় সোদপুর (Sodepur) বি টি রোডে একটি দুধের গাড়ি থামিয়ে তার কাগজপত্র দেখতে চায় খড়দহ থানার সাব-ইন্সপেক্টর সুজয় সরকার ও কনস্টেবল তাপস দাস। গাড়ির কাগজপত্রে কিছু ভুল থাকায় কেস না দিয়ে টাকা দাবি করে বসেন সাব ইন্সপেক্টর। সেইমতো রফা করে টাকাও নেন সাব-ইন্সপেক্টর সুজয় সরকার।

এরপর গাড়ির মালিক খড়দহ থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক ও ব্যারাকপুর পুলিস কমিশনারেটের পুলিস কমিশনারকে বিষয়টি জানান। গাড়ির  মালিকের অভিযোগের ভিত্তিতে সাব ইন্সপেক্টর ও কনস্টেবলের বিরুদ্ধে বিভাগীয় তদন্ত শুরু হয়।

তদন্তে দোষী প্রমাণিত হওয়ার পরে বৃহস্পতিবার সাব ইন্সপেক্টর সুজয় সরকার ও কনস্টেবল তাপস দাসকে সাসপেন্ড করল বারাকপুর পুলিস কমিশনার। পুলিস অফিসারদের মধ্যে স্বচ্ছ ভাবমূর্তি আনার জন্যই এই ধরনের সিদ্ধান্ত বলে জানা গিয়েছে।

2 years ago