Breaking News
Abhishek Banerjee: বিজেপি নেত্রীকে নিয়ে ‘আপত্তিকর’ মন্তব্যের অভিযোগ, প্রশাসনিক পদক্ষেপের দাবি জাতীয় মহিলা কমিশনের      Convocation: যাদবপুরের পর এবার রাষ্ট্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়, সমাবর্তনে স্থগিতাদেশ রাজভবনের      Sandeshkhali: স্ত্রীকে কাঁদতে দেখে কান্নায় ভেঙে পড়লেন 'সন্দেশখালির বাঘ'...      High Court: নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় প্রায় ২৬ হাজার চাকরি বাতিল, সুদ সহ বেতন ফেরতের নির্দেশ হাইকোর্টের      Sandeshkhali: সন্দেশখালিতে জমি দখল তদন্তে সক্রিয় সিবিআই, বয়ান রেকর্ড অভিযোগকারীদের      CBI: শাহজাহান বাহিনীর বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ! তদন্তে সিবিআই      Vote: জীবিত অথচ ভোটার তালিকায় মৃত! ভোটাধিকার থেকে বঞ্চিত ধূপগুড়ির ১২ জন ভোটার      ED: মিলে গেল কালীঘাটের কাকুর কণ্ঠস্বর, শ্রীঘই হাইকোর্টে রিপোর্ট পেশ ইডির      Ram Navami: রামনবমীর আনন্দে মেতেছে অযোধ্যা, রামলালার কপালে প্রথম সূর্যতিলক      Train: দমদমে ২১ দিনের ট্রাফিক ব্লক, বাতিল একগুচ্ছ ট্রেন, প্রভাবিত কোন কোন রুট?     

America

Born: রাস্তায় হাঁটতে হাঁটতেই সন্তানের জন্ম মাদকাসক্ত তরুণীর, ভাইরাল সেই ভিডিও

পথে চলতে চলতেই সন্তানের জন্ম (Born) দিলেন এক তরুণী। এর আগেও চলতি পথে কিংবা ট্রেনে-বাসে হঠাৎ প্রসববেদনা উঠে সন্তানের জন্ম দেওয়ার কথা শোনা গিয়েছে। তবে পথে হাঁটতে হাঁটতে সন্তান জন্ম দেওয়া ঘটনা কিন্তু তেমন শোনা যায় নি। এমনি এক ভিডিও সমাজমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে।

ভিডিয়োটিতে দেখা গিয়েছে, আমেরিকার কোনও একটি শহরের ইউনিয়ন স্কোয়্যারের রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিলেন এক অন্তঃসত্ত্বা (Pregnent) তরুণী। কিন্তু সেই মুহূর্তে সন্তান প্রসব করার মতো অবস্থা ছিল না তাঁর। তবে সব কিছু সময় দিনক্ষণ দেখে তো আর হয় না। পথে হাঁটতে হাঁটতে হঠাৎ থমকে গিয়ে রাস্তার উপর শুয়ে পড়েন ওই তরুণী। তাঁকে দেখে আশপাশ থেকে ছুটে আসেন পথচারীরা। তাড়াতাড়ি করে সদ্যোজাত এবং ওই তরুণীকে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। কিন্তু চিকিৎসকরা ওই তরুণীকে পরীক্ষা করে জানিয়েছেন, তিনি মাদকাসক্ত ছিলেন। তার প্রভাবেই এমন অসাবধানতায় সন্তান প্রসব করেন তিনি। জানা গিয়েছে, এখন মা ও শিশু দু’জনেই সুস্থ আছে।

one year ago
Crocodile: কুমিরের সঙ্গে ‘বক্সিং’ যুবকের! ভয়ঙ্কর এই ভিডিও ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়

কুমিরের সঙ্গে বক্সিং (Boxing) এক যুবকের। সমাজমাধ্যমে ভাইরাল (Viral) এই অবাক করা কাণ্ড। ঘটনাটি ঘটেছে আমেরিকার (America) ফ্লোরিডায়। ভিডিওটিতে দেখা গিয়েছে, একটি নৌকার মধ্যে উঠে পড়েছিল এক বিশাল কুমির (Crocodile)। কুমিরটিকে বারবার তাড়ানোর চেষ্টা করছেন এক যুবক। ওই যুবককে কুমিরের অনেকটা কাছে যেতে দেখা গেল। যে কোনও মুহূর্তে কুমিরটি আক্রমণ করতে পারত ওই যুবকটিকে। এটা জানার পরেও ঝুঁকি নিয়ে কুমিরটিকে তাড়ানোর চেষ্টা করেন তিনি। 

কুমিরটিকে তাড়ানোর নানা রকম চেষ্টা করলেও কিছুতেই নৌকা থেকে নামছিল না। তারপর দেখা গেল, যুবক কুমিরের সঙ্গে ‘বক্সিং’ শুরু করছেন। রীতিমতো বক্সিং করার পর অন্য এক যুবক এসে কুমিরের লেজ ধরে উল্টে ফেলে দিল জলের মধ্যে। ‘@হিউম্যানআরমেটাল’ নামে টুইটার অ্যাকাউন্টে ভিডিওটি শেয়ার করা হয়েছে। ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার পর নেটনাগরিকরা যুবকের এই ধরনের কাজের জন্য নানান মন্তব্য করেন এবং অনেকরকম প্রশ্ন তুলেছেন।

এরকম বহু ভিডিও সমাজমাধ্যমের পাতায় ঘোরাঘুরি করে। যা দেখে সত্যি অবাক হওয়ারই কথা। 

one year ago
US: ফের বিধ্বংসী টর্নেডো আছড়ে পড়েছে আমেরিকায়, মৃত অন্তত ২২

ফের শক্তিশালী টর্নেডো আছড়ে পড়ছে আমেরিকায় (America)। গত দু’দিনে টর্নেডোর দাপটে বিপর্যস্ত সেদেশের বহু শহর। মৃত বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২২-এ, আহত বহু। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে বলেই আশঙ্কা করা হচ্ছে। ভেঙে পড়েছে বহু বাড়ি। ভয়ংকর ঝড় ও প্রবল বৃষ্টিতে লন্ডভন্ড হয়ে গিয়েছে দক্ষিণ এবং পশ্চিম-মধ্য আমেরিকা।

গত সপ্তাহেও বিধ্বংসী টর্নেডো ধেয়ে এসেছিল আমেরিকায়। সেই সময় ২৬ জন মারা গিয়েছিলেন। আর এবারেও ফের টর্নেডোয় তছনছ হয়ে গিয়েছে আমেরিকার বহু জায়গা। স্থানীয় হাওয়া অফিস সূত্রে জানানো হয়েছে, টর্নেডোর প্রভাবে ঝড়ের গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ১৭০ থেকে ১৮০ কিলোমিটার। সূত্রের খবর, শুক্রবারই টর্নেডো আছড়ে পড়েছিল। এরপর শনিবারও সারাদিন ঝড়-বৃষ্টি এককথায় তাণ্ডব চালিয়েছে টর্নেডো। সূত্রের খবর, আমেরিকার আর্কানসাস, মিসিসিপি, আলবামা-সহ বহু প্রদেশ ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। ভেঙেছে বাড়ি, নিখোঁজ বহু।

এছাড়াও এই বিপর্যয়ের ফলে বিচ্ছিন্ন হয়ে গিয়েছে বিদ্যুৎ পরিষেবা। সূত্রের খবর, প্রায় ৬ লক্ষ ১০ হাজার বাড়িতে শনিবার থেকে বিদ্যুৎ নেই। ফলে তাঁদের বিদ্যুৎহীন অবস্থায় থাকতে হচ্ছে। আবার সেদেশে জারি করা হয়েছে জরুরি অবস্থা। আমেরিকার বেশ কিছু জায়গায় জাতীয় আবহাওয়া পরিষেবার তরফে টর্নেডো নিয়ে সতর্কও করা হয়েছে। তবে কবে আমেরিকার এই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসবে তা স্পষ্ট জানা যায়নি।

one year ago


America: নেই দক্ষতা,নেই শিক্ষাও তবু এই ব্যক্তির বার্ষিক আয় ১ কোটির বেশি!

সবার ধারণা জীবনে বড় হতে গেলে, অর্থ উপার্জনের জন্য কোনও দক্ষতা বা পড়াশোনা শেখা অত্যন্ত জরুরি। কোনও দক্ষতা বা পড়াশোনা ছাড়া জীবনে অর্থ উপার্জন করা যায় না। তবে এই ধারণা ভুল প্রমাণ করে দিলেন আমেরিকার লস অ্যাঞ্জেলেসের এক ব্য়ক্তি। ৩৮ বছর বয়সী এই ব্যক্তির নাম কোরি রকওয়েল। এই ব্যক্তির উপার্জন শুনলে আকাশ থেকে পড়বেন আপনিও। জানা গিয়েছে, কোরির বার্ষিক আয় ১ কোটিরও উপরে। কিন্তু কীভাবে এই আয়?

কোরি রকওয়েল নিজের জীবনের কথা বলতে গিয়ে বলেন, 'তিনি বুঝে গিয়েছিলেন যে তিনি ৯-৫ চাকরির জন্য নয়। এমন চাকরি তিনি করতে পারবেনই না। ফলে তিনি চেয়েছিলেন লস অ্যাঞ্জেলেস থেকে বেরোতে ও অন্য কোথাও চলে যেতে।' জানা গিয়েছে, তাঁর না ছিল কোনও দক্ষতা, না কোনও শিক্ষা। ফলে তিনি কী করবেন জীবনে তা নিয়ে বড় সমস্যায় পড়েছিলেন তিনি। এরপর তিনি সুপার মার্কেটে চাকরি করলেও সেটি করতে পারেননি। পরে একদিন তাঁর কাছে খোঁজ আসে এক খনিতে কাজের জন্য। মাইনিং টেম্প এজেন্সি জিওটেম্পস তাঁকে নেভাদায় ছয় মাসের জন্য কাজ করার জন্য বলেছিল।

কিন্তু কোরি এই খনিতে প্রায় ১ বছর কাজ করেন। এরপর তিনি মাটির নীচে কপার খনিতে কাজ করতে শুরু করেন ও এটাই তাঁর পরবর্তীতে জীবন হয়ে দাঁড়ায়। তিনি এই কাজ করেই বছরে ১ লক্ষ ৬০ হাজার ডলার অর্থ উপার্জন করেছেন বলে জানান তিনি। তিনি আরও জানিয়েছেন, তিনি সকাল ৬টা থেকে বিকেল ৬ টা পর্যন্ত মাটির নীচে খনির মধ্যে থাকলেও তাঁর এই কাজই পছন্দ। এককথায় তিনি তাঁর কাজকে ভালোবাসেন।

one year ago
America: ধর্মীয় স্থানে গুলি চালনা ক্যালিফোর্নিয়ায়, জখম দুই! তদন্তে পুলিস

আমেরিকার (America) গুরুদ্বারে চলল গুলি, গুরুতর জখম দু'জন। সূত্রের খবর, প্রাথমিক অনুমান করা হয়েছে যে, এই ঘটনা বিদ্বেষমূলক ঘটনার সঙ্গে জড়িত নয়। তবে তাঁদের গুরুতর জখম অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হলেও অবস্থা বেশ আশঙ্কাজনক। ক্যালিফোর্নিয়ার স্যাক্রেমেন্টোর একটি গুরুদ্বারে রবিরার বেলা আড়াইটে নাগাদ এই ঘটনা ঘটেছে। সেখানে দুই ব্যক্তির মধ্যে কোনও ঝামেলার কারণেই এই ঘটনা। তবে ঠিক কোন বিষয়ে এই ঘটনা গোলা-গুলি পর্যন্ত গড়ায়, তা এখনও জানা যায়নি।

স্যাক্রেমেন্টোর শেরিফ সংবাদমাধ্যম জানিয়েছেন, ক্যালিফোর্নিয়ার স্যাক্রেমেন্টোর এক গুরুদ্বারে দুজন মানুষ একে অপরকে গুলি করে। এই দুই ব্যক্তি একে অপরকে চিনতেন ও কোনও কারণে ঝগড়ার কারণেই তাঁরা একে অপরকে গুলি করেছেন। ঘটনাটিকে 'হেট ক্রাইম' হিসাবে বিবেচনা করেনি মার্কিন পুলিস। তবে বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে।

স্যাক্রেমেন্টো কাউন্টি শেরিফের দফতরের মুখপাত্র অমর গান্ধী দাবি করেছেন, ঝামেলাটি তিনজনের মধ্যে শুরু হয়েছিল। তার জেরেই গুলি চলেছে। প্রথম সন্দেহভাজন ব্যক্তি দ্বিতীয় সন্দেহভাজনের বন্ধুকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। পাল্টা দ্বিতীয় সন্দেহভাজন ব্যক্তি প্রথমজনকে লক্ষ্য করে গুলি চালিয়ে সেখান থেকে পালিয়ে যান। তিনি আরও জানিয়েছেন, ওই ঘটনায় যাঁরা যুক্ত ছিলেন, তাঁরা প্রত্যেকেই একে অপরকে চিনতেন বলে মনে করা হচ্ছে।

one year ago


Lottery: লটারি জিতে খুলে গেল ভাগ্যের চাকা! রতন টাটাকেও ছাড়িয়ে গেলেন যুবক

লটারি (Lottery) জিতেই ঘুরল ভাগ্যের চাকা। মাত্র কয়েক মিনিটের মধ্যেই পেয়ে গেলেন কয়েক হাজার কোটি টাকা। লটারির জোরে রাতারাতি ভাগ্যের চাকা ঘুরে গিয়েছে আমেরিকার (America) এডউইন ক্যাস্ত্রোর। ভারতের শিল্পপতি রতন টাটাকেও (Ratan Tata) ছাড়িয়ে গেল এই যুবক। ক্যাস্ত্রোর লটারিতে জেতা অর্থের পরিমাণ ২০০ কোটি ডলার। ভারতীয় মুদ্রায় যার অঙ্ক ১৬ হাজার ৪০৭ কোটি টাকা। টাকার পরিমাণের জন্য ক্যাস্ত্রোকে ঘিরে হইচই শুরু হয়ে গিয়েছে। তাবড় তাবড় ধনী ব্যক্তিদেরও টক্কর দিয়েছেন এই যুবক। অর্থের নিরিখে বিশ্বের অন্যতম ধনী ব্যক্তি রতন টাটাকেও পিছনে ফেলে দিয়েছেন তিনি। 

জানা গিয়েছে, আমেরিকার ক্যাস্ত্রো লটারির টিকিট কিনেছিলেন। আর সেই লটারির জোরে রাতারাতি ভাগ্যের চাকা ঘুরে গিয়েছে ক্যাস্ত্রোর। তিনি পেয়ে গিয়েছেন জ্যাকপট। গেল বছরেই নভেম্বরে লটারিতে বাজিমাত করেছেন ওই যুবক। তবে লটারির পুরস্কারমূল্যের পুরো টাকাটা হাতে পাননি ক্যাস্ত্রো। কর এবং অন্যান্য ক্ষেত্রে কাটছাঁট করে তাঁর হাতে এসেছে দাঁড়িয়েছে ৯৯ কোটি ৭০ লক্ষ ডলার। যা ভারতীয় মুদ্রায় ৮ হাজার ১৮০ কোটি টাকা। এত টাকা পেয়েছেন শুনে স্বাভাবিক ভাবেই হকচকিয়ে গিয়েছিলেন ওই যুবক। কিন্তু পরে লটারি জয়ের উত্তেজনা সামলে এই টাকা কী ভাবে খরচ করবেন, সে নিয়ে আগাম পরিকল্পনাও করেছেন তিনি।

আরও জানা গিয়েছে, টাকা পাওয়ার পর ৩০ বছর বয়সি ওই যুবক একটি বিলাসবহুল বাড়ি কিনেছেন। ওই বিলাসবহুল বাড়িটির দাম ৩ কোটি ডলার। ভারতীয় মুদ্রায় যার অঙ্ক ২৪৫ কোটি ৮৯ লক্ষ টাকা। তবে বাড়িটি কেনার সময় ৫০ লক্ষ ডলার ছাড় পেয়েছেন ওই যুবক। শেষে আড়াই কোটি ডলারে কিনেছেন ওই বাড়িটি। এমনকি যে এলাকায় নতুন বাড়ি কিনেছেন ক্যাস্ত্রো, সেটি অভিজাত এলাকা। ক্যালিফোর্নিয়ার হলিউড হিলস এলাকায় বাড়ি কিনেছেন তিনি। হলিউডের অধিকাংশ তারকার বাড়ি ওই এলাকাতেই রয়েছে। ক্যাস্ত্রোর ১৩ হাজার ৫৭৮ বর্গফুটের ওই প্রাসাদোপম বাড়িটিতে রয়েছে এলাহি বন্দোবস্ত। ওই বাড়িতে রয়েছে জিম, মুভি থিয়েটার, সুইমিং পুল এবং একটি বিশাল বড় গ্যারাজ। যেখানে একসঙ্গে কমপক্ষে ৭টি গাড়ি রাখা যেতে পারে।  

লটারি জয়ের এমন অনেক ঘটনায় সামনে এসেছে বহুবার। তবে এত পরিমাণ টাকা জেতার খবর আগে শোনা যায়নি।

one year ago
Sillicon: আর্থিক মন্দার প্রকোপ, ক্যালিফোর্নিয়ায় তালা ঋণ প্রদানকারী ব্যাঙ্কে

বিশ্বের আর্থিক অবস্থা একেবারে শোচনীয়। আগামী দিনগুলিতে কী ঘটতে চলেছে তা নিয়ে চিন্তিত বিশেষজ্ঞ মহল। এই আর্থিক মন্দা (Financial Crisis) যে ভয়াবহ আকার নিচ্ছে তার প্রমাণ মিলল আবার। বন্ধ হয়ে(Shut Down) গেল আমেরিকার (America) সিলিকন ভ্য়ালি ব্য়াঙ্ক (Silicon Valley Bank)। বিশ্বের অন্য়তম বড় বড় প্রযুক্তি সংক্রান্ত স্টার্টআপ সংস্থাকে ঋণ দিয়েছে এই সিলিকন ভ্যালি ব্যাঙ্ক। শুক্রবার চরম আর্থিক সঙ্কটের জেরে আনুষ্ঠানিকভাবে দেউলিয়া ঘোষণা করেছে ব্যাঙ্কটি। ওই ব্যাঙ্কের গচ্ছিত অর্থ অধিগ্রহণ করেছে ক্যালিফোর্নিয়া সরকার।

আচমকা আমেরিকার ষোড়শ বৃহত্তম ব্যাঙ্ক বন্ধ হয়ে যাওয়ায় অনিশ্চয়তার মুখে পড়েছেন বিনিয়োগকারী-আমানতকারীরা। বিশ্ব শেয়ার বাজারেও ব্যাপক ধস নেমেছে এই ব্যঙ্কের বন্ধের কথা প্রকাশ্যে আসতেই। ক্যালিফোর্নিয়ার ব্যাঙ্কিং রেগুলেটর এফডিআইসি-র তরফে জানানো হয়েছে, আমানতকারীদের জন্য সিলিকন ভ্যালি ব্যাঙ্কের সমস্ত অফিস ও ব্রাঞ্চ আগামী ১৩ মার্চ খুলে দেওয়া হবে। আগামী সোমবারের মধ্যেই তাঁরা ব্যাঙ্কের ইন্সুরেন্স করা ডিপোজিট বা গচ্ছিত টাকা সম্পূর্ণ তুলে নেওয়ার সুবিধা পাবেন।

সূত্রের খবর, ২০২২ সালের ৩১ ডিসেম্বরের হিসেব ধরা হলে সিলিকন ভ্যালি ব্যাঙ্কের মোট সম্পদ ছিল প্রায় ২০৯ বিলিয়ন ডলার। এর মোট সম্পত্তির পরিমাণ ১৭৫.৪ বিলিয়ন ডলার। জানা গিয়েছে, স্টার্টআপ-কেন্দ্রিক-সিলিকন ভ্যালি ব্যাঙ্কের ক্যালিফোর্নিয়া এবং ম্যাসাচুসেটসে ১৭টি শাখা রয়েছে।

উল্লেখ্য, আমেরিকার এই ব্যাঙ্ক বন্ধের খবরের প্রভাব পড়েছে গোটা বিশ্বেই। ভারতও এক্ষেত্রে তার ব্যতিক্রম নয়। এ খবর আসার পর ব্যাঙ্কিং খাতের বেঞ্চমার্ক স্টক ইনডেক্স হঠাৎ করে ৮.১% কমে যায়। এই পতন গত তিন বছরের মধ্যে একদিনে সবচেয়ে বড় পতন। এছাড়া শেয়ার বাজারেও পড়েছে বড়সড় প্রভাব।

one year ago
Flight: ফের বিমানে মদ্যপ যাত্রীর প্রস্রাব-কাণ্ড, ছাত্রের ভবিষ্যত ভেবে ক্ষমা করলেন সহযাত্রী

ফের বিমানে প্রস্রাবকাণ্ড। এবার নিউইয়র্ক (New York) থেকে নয়া দিল্লিগামী (New Delhi) আমেরিকান এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে (American Airlines flight) এক মদ্যপ যাত্রীর প্রস্রাব সহযাত্রীর গায়ে পড়েছে বলে অভিযোগ। দিল্লির ইন্দিরা গান্ধি ইন্টারন্যাশনাল (আইজিআই) বিমানবন্দর সূত্র খবর, ফ্লাইটটি অবতরণ করার পরে অভিযুক্তকে হেফাজতে নেওয়া হয়েছিল। পুলিসের ডিসিপি, আইজিআই বিমানবন্দর জানিয়েছেন, অভিযুক্তের নাম আর্য ভোহরা। অভিযুক্ত মার্কিন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র। ভোহরার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে জানান ডিসিপি।

AA292 আমেরিকান এয়ারলাইন্সের ফ্লাইটটি শুক্রবার রাত ৯:১৬ মিনিটে নিউইয়র্ক থেকে যাত্রা শুরু করে। ১৪ ঘণ্টা ২৬ মিনিট পর শনিবার রাত ১০:১২ মিনিটে দিল্লির বিমানবন্দরে অবতরণ করে। বিমান সংস্থা সূত্রে জানা গিয়েছে, অভিযুক্ত ছাত্র মত্ত অবস্থায় বিমানে ঘুমিয়ে পড়েছিলেন। মাঝ আকাশে ঘুমন্ত অবস্থাতেই প্রস্রাব করে ফেলেন তিনি। তা গড়িয়ে গিয়ে পড়ে পাশে বসা এক ব্যক্তির গায়ে। তিনি সঙ্গে সঙ্গে বিমানকর্মীদের ডেকে বিষয়টি জানান।

যদিও অভিযোগকারী, ছাত্রের ভবিষ্যতের কথা ভেবে অভিযোগ দায়ের করতে চাননি। অভিযুক্ত যুবকও ক্ষমা চেয়ে নেন। কিন্তু বিমান কর্তৃপক্ষ বিষয়টি নিয়ে বিবেচনা করে দেখেন। ফ্লাইট অবতরণ করার পর যুবককে দিল্লি পুলিস হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করে।

অসামরিক বিমান পরিবহণের নিয়ম অনুযায়ী, কোনও যাত্রী যদি বিমানে আপত্তিজনক আচরণের জন্য দোষী সাব্যস্ত হন, তবে নির্দিষ্ট সময়ের জন্য তাঁর বিমানে যাতায়াতে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হবে। এক্ষেত্রেও সেই নিয়ম প্রযুক্ত হয়েছে। ভারতীয় ছাত্রকে নিষিদ্ধ করেছে বিমান সংস্থা আমেরিকান এয়ারলাইন্স।

one year ago


Attack: আমেরিকার পর এবার দক্ষিণ আফ্রিকা, বার্থ ডে পার্টিতে বন্দুকবাজের হামলায় মৃত ৮

আমেরিকায় (America) একের পর এক বন্দুকবাজের (Gunmen) হামলা। বন্দুকধারীর গুলিতে নিহত হয়েছেন বহু। এবার হামলাস্থল আর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র নয়, দক্ষিণ আফ্রিকার (South Africa)পূর্ব কেপ প্রদেশে হামলা চালায় হামলাকারীরা। সূত্রের খবর, জন্মদিনের পার্টি (Birthday Party) চলছিল সে সময়। আচমকা বন্দুকধারীরা ঢুকে এলোপাথারি গুলি চালাতে শুরু করে। সেই হামলায় মারা গিয়েছেন আট জন আর তিনজন গুরুতর আহত হয়েছেন।

সাউথ আফ্রিকান পুলিস সার্ভিস (এসএপিএস) এক বিবৃতিতে বলেছে, দুই হামলাকারী এই নৃশংস হামলা চালিয়েছে। ঘটনাটি রবিবার গ্যাকবেরহা, কোয়াজাকেলের একটি বাড়িতে ঘটেছে। হামলার পর বন্দুকধারীরা পালিয়ে যায়। এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করা যায়নি। পরিস্থিতি এবং হামলার সম্ভাব্য উদ্দেশ্য নিয়ে তদন্ত চলছে বলে জানিয়েছেন এসএপিএস।

উল্লেখ্য, গত বছর একইভাবে বন্দুকবাজরা হামলা চালিয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকায়। জুলাই মাসে, বন্দুকধারীদের কয়েক ঘণ্টার হামলায় ১৯ জন মারা গিয়েছিলেন। এবারও আরেকবার হামলার ঘটনায় আতঙ্কে সাধারণ মানুষ।

one year ago
America: যান্ত্রিক গোলযোগে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন, আমেরিকার আকাশ থেকে তড়িঘড়ি নামলো সব বিমান

যান্ত্রিক গোলযোগের(Technical Glitch) কারণে আমোরিকার সমস্ত বিমান তড়িঘড়ি নামিয়ে ফেলার নির্দেশ এফএএ-র। আমেরিকার(United States) পরিবহণ বিভাগ (Transport) ফেডারেল অ্যাভিয়েশন অ্যডমিনিস্ট্রেশন (FAA) এর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে,'যান্ত্রিক গোলযোগের কারণে বিমানের (plane) কোনও খবর ঠিকমতো পৌছানো সম্ভব হচ্ছে না। যার দরুন এই সময় কোনও বিমানকেই ছাড়া হবে না।' যদিও পরিস্থিতি ধীরে ধীরে স্বাভাবিকের পথে। উড়ান অবতরণের সবুজ সংকেত মিললেও, আকাশে ওড়ার চূড়ান্ত সিলমোহর দেয়নি এফএএ।

বিমান-চালক সহ বিমানে উপস্থিত অন্য সদস্যদের বিমানবন্দরের খবর এবং বাইরের যেকোনও সমস্যার বিষয়ে বিমানের কাছে খবর পাঠাত এই এফএফএ বা ফেডারেল অ্যাভিয়েশন অ্যডমিনিস্ট্রেশন। প্রযুক্তিগত সমস্যার কারণে এই ধরনের খবর বিমান পর্যন্ত পৌছনো সম্ভব হয়ে উঠছে না বলেই জানিয়েছেন তাঁরা।

ভারতীয় সময় অনুযায়ী বুধবার বিকেল ৪টে নাগাদ আমেরিকার প্রায় ৪০০টির বেশি বিমান সময়ের থেকে বেশ কিছুক্ষণ দেরিতে চলেছে। ফলে আমেরিকার পরিবহণ বিভাগকে বিমানযাত্রীদের রোষের মুখে পড়তে হয়।

লস্ এঞ্জেলস ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট ওরফে ল্যাক্স-এর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, বুধবার অনেক সকাল থেকেই প্রযুক্তিগত সমস্যার কারণে বিমান চলাচলে সমস্যা দেখা দিয়েছে। এফএএ এই সমস্যা দ্রুত মেটানোর চেষ্টা করছে। বিমানযাত্রীদেরকেও অনুরোধ করা হচ্ছে তাঁরা যেনো বিমান ওঠা বা নামার তথ্যগুলি পর্যবেক্ষণ করেন। আমরা তাঁদেরকেও সমস্ত খবর প্রেরণ করব এফএএ যেমনটা বিমান চালনার ক্ষেত্রে করে থাকে।' 


one year ago


Cyclone: এখনও দাপট থামায়নি ‘বম্ব সাইক্লোন', কার্যত বরফস্তূপে পরিণত হয়েছে আমেরিকা, মৃত বেড়ে ৮৭

যতদূর চোখ যায় কেবল বরফ আর বরফ। সাদা চাদরে মুড়ে রয়েছে আমেরিকা। ‘বম্ব সাইক্লোন’-র (Bomb Cyclone) দাপটে বিপর্যস্ত আমেরিকা (America)। দেশের বিস্তীর্ণ এলাকা জুড়ে শুরু হয়েছে তুষার ঝড়। তাপমাত্রা (Temperature) নেমে গিয়েছে হিমাঙ্কের ৪০ থেকে ৪৫ ডিগ্রি নীচে। সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বিদ্যুৎ পরিষেবা। বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়েছে বহু এলাকা। প্রতিবেদন লেখা অবধি জানা গিয়েছে নিউ ইয়র্কে ২৭ জন এবং সমগ্র মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে কমপক্ষে ৬০ জন তুষার ঝড়ে প্রাণ হারিয়েছেন। বরফের আস্তরণে ঢেকেছে রাস্তাঘাট।

স্থানীয় কর্মকর্তারা সোমবার জানিয়েছেন, উদ্ধার অভিযান অব্যাহত রয়েছে। বুফালোর আশেপাশের তুষার আবদ্ধ অঞ্চল খনন করে রাস্তা পরিষ্কারের চেষ্টা চলছে। যাতে গাড়ি, বাস, অ্যাম্বুলেন্স যাতায়াত করতে পারে। চিকিৎসার ক্ষেত্রে কোনওরকম প্রভাব না পড়ে। কর্তৃপক্ষ হাসপাতাল পরিবহন হিসেবে হাই-লিফট ট্রাক্টর মোতায়েন করেছে।


উল্লেখ্য,ঠান্ডায় প্রায় জমে যাওয়ার মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। এরফলে রাস্তাঘাটের অবস্থা এমন যে, বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীও দুর্যোগ কবলিতদের উদ্ধারে বাধা পাচ্ছে। লক্ষাধিক বাড়ি ও ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে গিয়েছে। বর্তমানে এক লাখেরও বেশি মানুষ ব্ল্যাকআউট এবং বিদ্যুৎ বিভ্রাটের সম্মুখীন হচ্ছে। বুফালোতে বড়দিনে ১৬% বাসিন্দাদের ঘরে বিদ্যুৎ ছিল না বলে জানা গিয়েছে।

one year ago
Cyclone: বড়দিনেও ‘বম্ব সাইক্লোন’-এ বিপর্যস্ত আমেরিকা, মৃত বেড়ে ৩৪

বড়দিনে (Christmas) ‘বম্ব সাইক্লোন’-র (Bomb Cyclone) দাপটে বিপর্যস্ত আমেরিকা (America)। দেশের বিস্তীর্ণ এলাকা জুড়ে শুরু হয়েছে তুষার ঝড়। তাপমাত্রা নেমে গিয়েছে হিমাঙ্কের নীচে। তাপমাত্রার পারদ রয়েছে মাইনাস ১১ থেকে মাইনাস ২৩ ডিগ্রির মধ্যে। তুষার ঝড়ের জেরে বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়েছে বহু এলাকা। ইতিমধ্যেই প্রাণ গিয়েছে অন্তত ৩৪ জনের। রাস্তাঘাট বরফের চাদরে মুড়ে রয়েছে। কোথাও ৮ ফুট, কোথাও বা ১০ ফুট পুরু বরফের আস্তরণ।

উল্লেখ্য, সবচেয়ে খারাপ অবস্থা নিউ ইয়র্ক, বুফালো, পেনসিলভ্যানিয়া, নর্থ ক্যারোলিনা ও কেন্টাগির এলাকার। মার্কিন আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, এখানে ঘূর্ণিঝড় হ্যারিকেনের গতিতে আছড়ে পড়ে তুষারঝড় ‘বম্ব সাইক্লোন’। এর জেরে ভেঙে পড়ে বহু গাছ ও বিদ্যুতের খুঁটি। চলতি সপ্তাহ জুড়েই বইবে এই তুষারঝড়। ঘটনায় সতর্কতা জারি করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। শুধু তাই নয়, বম্ব সাইক্লোনের জেরে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে একাধিক বাড়ি। রাস্তাঘাটে বন্ধ হয়ে গিয়েছে যান চলাচল।

আবহাওয়াবিদদের আশঙ্কা, বম্ব ঘূর্ণিঝড়ে আরও প্রাণহানির ঘটনা ঘটতে পারে। বরফের স্তূপের কারণে বাসিন্দারা বাড়ির ভিতর আটকে পড়েছে।  লক্ষাধিক বাড়ি ও ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে গিয়েছে। বর্তমানে এক লাখেরও বেশি মানুষ ব্ল্যাকআউট এবং বিদ্যুৎ বিভ্রাটের সম্মুখীন হচ্ছে। বুফালোতে বড়দিনে ১৬% বাসিন্দাদের ঘরে বিদ্যুৎ ছিল না বলে জানা গিয়েছে।

উল্লেখ্য, এই ঘূর্ণিঝড়কে কয়েক দশকের মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড় হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়েছে। বছরের সবচেয়ে ব্যস্ত সময়ে লক্ষ লক্ষ আমেরিকান ঘর বন্দি। দুর্যোগের কারণে বন্ধ রাখা হয়েছে বুফালোর নিয়াগারা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর। বাতিল করা হয়েছে ২ হাজার ৩৬০টি উড়ান। সোমবার পর্যন্ত এখানে কোনও বিমান ওঠা-নামা করবে না বলে জানিয়েছে প্রশাসন।

one year ago
Winter: বরফঝড়ের পূর্বাভাস! তাপমাত্রার রেকর্ড পতন আমেরিকায়, বিপাকে ফেলবে ফ্রস্টবাইট

বড়দিনের (Christmas Day) আনন্দে মেতে উঠেছিল গোটা আমেরিকাবাসী (America)। প্রায় সকলের ঘরে ঘরে বেজে উঠেছিল ক্রিসমাসের গান। তার মধ্যেই সতর্কবার্তা দিল ন্যাশনাল ওয়েদার সার্ভিস (NSW)। তাপমাত্রা ক্রমশ কমছে আমেরিকায়। সপ্তাহ শেষে আরও নামতে চলেছে তাপমাত্রার পারদ। এমনকি বরফঝড়ের সম্ভাবনার কথাও বলেছে ন্যাশনাল ওয়েদার সার্ভিস।

উল্লেখ্য, দেশের কিছু অংশে তাপমাত্রা -৪৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস বা তারও নিচে নামতে পারে। তাপমাত্রার রেকর্ড পতন হবে আমেরিকা-মেক্সিকো সীমান্ত, ফ্লোরিডায়। ইতিমধ্যে দুর্যোগ পরিস্থিতির কারণে কয়েক হাজার বিমান বাতিল করা হয়েছে। আবহাওয়াবিদদের মতে, সপ্তাহান্তে আমেরিকাবাসীকে সব থেকে বিপাকে ফেলবে ফ্রস্টবাইট।

ডেস মোয়ানস, আইওয়া শহরে একপ্রকার অসম্ভব হয়ে পড়বে বাড়ির বাইরে বেরোনো। এতটা তাপমাত্রার পতনের কারণে রক্ত চলাচল কমে যেতে পারে। বিশেষত নাক, গাল, পা এবং হাতের আঙুলে। এরফলে ক্ষতের সৃষ্টি হয়। এমনকি মৃত্যু পর্যন্ত ঘটতে পারে।

প্রসঙ্গত, শুক্রবার আমেরিকায় শৈত্যঝড় ‘বম্ব সাইক্লোন’-এ পরিণত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এর ফলে তীব্র বেগে ঠান্ডা হাওয়া বইবে। ইতিমধ্যে মিনিয়াপোলিস, শিকাগো, কানসাস সিটি, সেন্ট লুই, ইন্ডিয়ানাপোলিস, ক্লিভল্যান্ড, ডেট্রয়েটে সতর্কতা জারি করা হয়েছে। তার মধ্যে মিনিয়াপোলিস, শিকাগো এবং উত্তর ও পশ্চিম মিশিগানে তুষারঝড়ের পূর্বাভাসও রয়েছে। ঘণ্টায় ঝড়ের গতি হতে পারে প্রায় ৫৭ কিলোমিটার।

one year ago


Philadelphia: ফের বন্দুকবাজদের হামলা আমেরিকায়, এলোপাথাড়ি গুলিতে আহত ১০ জন

ফের বন্দুকবাজদের হামলা আমেরিকায় (America)। চলেছে এলোপাথাড়ি গুলি (Shoot)। ঘটনায় কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছে। গুলিবিদ্ধ সকলকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার রাতে ফিলাডেলফিয়ায় (Philadelphia)।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, শনিবার রাতে ফিলাডেলফিয়ার কেনসিংটন এবং অ্যালেঘেনিতে এলোপাথাড়ি গুলি চালায় বন্দুকবাজের দল। পুলিস ঘটনাস্থলে আসার আগেই চম্পট দেয় বন্দুকবাজের দল। ১০ জন গুরুতর আহত অবস্থায় রাস্তায় লুটিয়ে পড়েন। এখনও অবধি কোনও মৃত্যুর খবর মেলেনি।

আহতদের উদ্ধার করে নিকটবর্তী হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পুলিস জানিয়েছে, এখনও আহতদের পরিচয়পত্র জানা যায়নি। এই দুর্ঘটনার পিছনে কী কারণ, কারা রয়েছে, মূল মাস্টারমাইন্ড কে সবটাই তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। প্রতিবেদন লেখা অবধি ঘটনায় কায়কে গ্রেফতার করা হয়নি।

তবে, এই ঘটনা প্রথম নয়। আমেরিকায় বহুবার এর আগেও বন্দুকবাজের জামলা চলেছিল। বহু মানুষের মৃত্যু হয়েছে। বহু পরিবার তাঁদের স্বজনকে হারিয়েছেন। ওবামা, ট্রাম্প বা বাইডেন কেউই এর সমাধান করতে পারছেন না।

2 years ago
America: আমেরিকার বোস্টনে উড়ল ২২০ ফুট উচ্চতার ভারতের পতাকা

আমেরিকার (America) বোস্টনের (Boston) আকাশে ভারতের পতাকা (US-India flag)। তাও ২২০ ফুট উচ্চতার। যা সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে বলাই যায়। ভারতের ৭৬ তম স্বাধীনতা দিবস (Independence Day) উপলক্ষে এই আয়োজন করা হয়েছিল। আজ অবধি যা কোনওদিন হয়নি।

ইন্ডিয়ান ডে প্যারেডে ৩০ টিরও বেশি দেশের হাজার হাজার লোক অংশগ্রহণ করেছিল। ওই প্যারেডে দেশাত্মবোধক গন্ধ এবং গানের মাধ্যমে ভারত ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র উভয়ের বৈচিত্র্যকে প্রতিফলিত করা হয়েছে।

প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেট খেলোয়াড় আর পি সিং-এর নেতৃত্বে এটি ম্যাসাচুসেটস এবং নিউ ইংল্যান্ডের অনেক রাজনীতিবিদ এবং এই অঞ্চলের অনেক বিশিষ্ট ভারতীয়-আমেরিকানরা এখানে উপস্থিত হয়েছিলেন।

প্যারেডের আয়োজক তথা ফেডারেশন অফ ইন্ডিয়ান অ্যাসোসিয়েশন-নিউ ইংল্যান্ড বলেন, "বোস্টনে প্রথমবারের মতো ইন্ডিয়া ডে প্যারেড একটি ঐতিহাসিক সাফল্য ছিল। সমস্ত কৃতিত্ব শহরের ভারতীয়-আমেরিকানদের এবং স্বেচ্ছাসেবকদের যাঁরা দিনরাত পরিশ্রম করেছিলেন। "

বোস্টনে ইন্ডিয়া ডে প্যারেডের আরেক আয়োজক মিস্টার সিং বলেছেন যে, তিনি সারা বিশ্বে "আজাদি কা অমৃত মহোৎসব"-এর ৭৫ বছর উদযাপনের জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর আহ্বান দ্বারা অনুপ্রাণিত হয়েছিলেন। আমেরিকার স্বাধীনতা সংগ্রাম শুরু করার জন্য বোস্টন পরিচিত। তাই, আমরা এই ঐতিহাসিক শহরে এটিকে জমকালোভাবে উদযাপন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।"

2 years ago