৩০ মে, ২০২৪

Convocation: যাদবপুরের পর এবার রাষ্ট্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়, সমাবর্তনে স্থগিতাদেশ রাজভবনের
CN Webdesk      শেষ আপডেট: 2024-04-24 16:43:07   Share:   

যাদবপুরের পর এবার পশ্চিমবঙ্গে রাষ্ট্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন বাতিল করল রাজভবন। রাজভবন সূত্রে খবর, ভোটের কথা মাথায় রেখেই স্থগিত এই কনভোকেশন বা সমাবর্তন। যদিও ওয়েবকুপার দাবি রাজ্যের চাপেই এই বেআইনি সমাবর্তন অনুষ্ঠান বাতিল করেছেন রাজ্যপাল।

সূত্রের খবর, গতকাল অর্থাৎ মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে একটি চিঠি দিয়ে এই কনভোকেশন বাতিলের কথা জানানো হয় রাজভবনের তরফে। প্রসঙ্গত, আগামী ২৭ এপ্রিল এই সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হওয়ার হওয়ার কথা ছিল। যদিও সূত্রের খবর, রাজ্যকে না জানিয়েই রাজ্যপাল নিয়োজিত অন্তর্বর্তী উপাচার্য রাজকুমার কোঠারি এই কনভোকেশন অনুষ্ঠানের পরিকল্পনা করেন। এরপরেই রাজ্যের উচ্চশিক্ষা দফতরের তরফে একটি বিবৃতি প্রকাশ করে ওই সমাবর্তনকে বেআইনি বলে দাবি করা করা হয়। এরপর রাজভবনের তরফেও ওই সমাবর্তন বাতিল করা হয়েছে। লোকসভা ভোট সম্পন্ন হওয়া অবধি স্থগিত পশ্চিমবঙ্গ রাষ্ট্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন অনুষ্ঠান, এমনটাই সূত্রের খবর।   

এ প্রসঙ্গে পশ্চিমবঙ্গ রাষ্ট্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্তর্বর্তী উপাচার্য রাজকুমার কোঠারি জানালেন, ভোটের জন্যই স্থগিত করা হয়েছে সমাবর্তন। ভোট ছাড়া অন্য কারণ নেই। যদিও ওয়েবকুপার রাজ্য সহ-সভাপতি মণিশঙ্কর মণ্ডল জানালেন, সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মোতাবেক রাজ্য জানিয়েছে অস্থায়ী উপাচার্যের সময়কালে কোনও কনভোকেশনই বৈধ নয়। 

সমগ্র ঘটনায় তৃণমূলের শিক্ষক সংগঠন ওয়েবকুপার দাবি একপ্রকার রাজ্যের চাপেই এই বেআইনি সমাবর্তন অনুষ্ঠান বাতিল করেছেন রাজ্যপাল। যদিও এই তত্ব মানতে নারাজ রাজভবন। তাঁদের দাবি নির্বাচনের কারণেই স্থগিত সমাবর্তন। সবমিলিয়ে এই ঘটনায় যে ফের একবার কি প্রকাশ্যে রাজ্য-রাজভবন সংঘাত? সমাবর্তনের সঙ্গে জুড়ে পড়ুয়াদের ভবিষৎ। এবার কনভোকেশন বাতিল হওয়ায় কি বঞ্চিত রাষ্ট্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা?


Follow us on :