২১ এপ্রিল, ২০২৪

Modi: কৃষ্ণনগরে ভাষণ শুরু করেই ক্ষমা প্রার্থানা প্রধানমন্ত্রীর, তৃণমূলকে তীব্র তুলধনা...
CN Webdesk      শেষ আপডেট: 2024-03-02 12:57:09   Share:   

লোকসভা ভোটের প্রচারের দ্বিতীয় দিনে কৃষ্ণনগরে জনসমুদ্র প্রধানমন্ত্রীর সভায়। যা দেখে উচ্ছ্বসিত নরেন্দ্র মোদী সহ বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা। ভাষণের শুরুতেই মোদী সভায় উপস্থিত সকলের কাছে ক্ষমা চেয়ে নেন। কারণ, শনিবার কৃষ্ণনগরের যে গভর্নমেন্ট কলেজের ময়দানে মোদীর সভার আয়োজন করা হয়েছিল, তা ছোটো হয়ে গিয়েছে। তিনি সবাইকে যে যেখানে রয়েছেন, সেখানেই উপস্থিত থেকে ভাষণ শুনতে অনুরোধ করেন। 

এরপর প্রধানমন্ত্রী কৃষ্ণ নাম নিয়ে শুরু করেন বক্তৃতা। তৃণমূলকে তীব্র কটাক্ষ করেন তিনি। নরেন্দ্র মোদী বলেন, 'তৃণমূল মানে দুর্নীতিবাজ, পরিবারতন্ত্র, বিশ্বাসঘাতক'। বাংলাকে গরিব করে রাখতে চায়। সেই কারণেই তৃণমূল সরকার দরিদ্রদের জন্য় প্রকল্প চালু করতে দিচ্ছে না। এই তৃণমূলকে ভোটের মাধ্য়মে শিক্ষা দিতে হবে। এমনকি তৃণমূল বাংলার মানুষকে নিরাশ করছে। এতদিন রাজ্য় সরকার চায়নি সন্দেশখালির দোষী গ্রেফতার হোক। তৃণমূল সন্দেশখালির মায়েদের আর্তি শোনেনি। কিন্তু সন্দেশখালির পাশে দাঁড়িয়েছে বিজেপি। তাই তৃণমূল অপরাধীকে ধরতে বাধ্য় হয়েছে। সন্দেশখালি প্রসঙ্গে তৃণমূলের বিরুদ্ধে এমনটাই বললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। 

এমনকি মোদীর গলায় শোনা যায় বাংলাও। তিনি বাংলায় বলেন, মোদীর গ্যারান্টি মানে, সেই গ্যারান্টি পূর্ণ হওয়ার গ্যারান্টি। তিনি বলেন, পশ্চিমবঙ্গকে প্রথম এইমসের গ্যারান্টি দিয়েছিলাম। তা হয়েছে। কল্যাণীতে এইমস তৈরি হওয়ায় তৃণমূল সরকার মুশকিলে পড়েছে। তৃণমূল সরকার এই বড় হাসপাতাল পরিবেশগত অনুমতি দিতে বাধা দিচ্ছে। তিনি আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্প পশ্চিমবঙ্গে চালু করতে বাধা দেওয়ার অভিযোগ করেছেন তৃণমূলের বিরুদ্ধে।



Follow us on :