২৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪

ED: সন্দেশখালি-বনগাঁ কাণ্ডে দায়ী রাজ্য পুলিস! একাধিক মামলা দায়ের, কড়া বিবৃতি ইডির
CN Webdesk      শেষ আপডেট: 2024-01-08 20:21:05   Share:   

সন্দেশখালি ও বনগাঁর ঘটনা নিয়ে এবারে রাজ্য পুলিসকে বিঁধে বিবৃতি জারি করল ইডি। সন্দেশখালি এবং বনগাঁ- এই দুই জায়গাতেই রেশন বণ্টন দুর্নীতির তদন্তে এসে চরম হেনস্থার শিকার হতে হয় ইডি আধিকারিকদের। পুলিস সুপারকে বিষয়টি জানানোর পরেও কেমন করে অফিসারদের উপর হামলা হল, তা নিয়েই এবারে রাজ্য পুলিসের বিরুদ্ধে নিষ্ক্রিয়তা অভিযোগ তুলে ক্ষোভ উগরে দিয়েছে ইডি। ইডির মতে, দুই ক্ষেত্রেই পুলিসের ভূমিকা অতি নিষ্ক্রিয়। তাই এবারে পুলিসের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা দায়ের করেছে ইডি।

দুর্নীতির তদন্ত করতে এসে সন্দেশখালিতে শেখ শাহজাহানের বাড়িতে গিয়ে তার অনুগামীদের হাতে মার খেতে হয়েছে ইডি আধিকারিকদের। গুরুতর আহত হয়েছেন ইডির আধিকারিকরা। ভেঙেছে ইডির গাড়ির কাঁচ। অপরদিকে বনগাঁর ঘটনায় কাউকে আঘাত না পেতে হলেও সেক্ষেত্রেও গাড়ির কাঁচ ভাঙা হয়েছে। আর এই দুই তুমুল শোরগোল ফেলে দেওয়া ঘটনার পর এবার পুলিসের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক ইডি। ইডির প্রেস বিবৃতিতে দেখা গেল দুটি ঘটনা নিয়েই পুলিসের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে ইডি।

সন্দেশখালির ক্ষেত্রে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার বিবৃতি, শেখ শাহজাহানের বিরুদ্ধে খুনের চেষ্টা-সহ একাধিক অভিযোগ থাকলেও, লঘু ধারায় মামলা রুজু করেছে রাজ্য পুলিস। খুনের চেষ্টার ধারা দেওয়া হয়নি। অধিকাংশই জমিনযোগ্য ধারায় মামলা। এখানেই ইডির প্রশ্ন, ঘটনা যেখানে এত গুরুতর, সেখানে জামিনযোগ্য ধারায় কীভাবে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে মামলা করে পুলিস? ঘটনায় পুলিসি নিষ্ক্রিয়তা প্রকট। তবে এই সন্দেশখালি নিয়েই মুখ খুললেন বর্তমানে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে গঙ্গাসাগর সফররত রাজ্য পুলিসের ডিজি রাজীব কুমার। তিনি বলেন, "যারা যারা আইন নিজের হাতে তুলে নিয়েছেন তাদের প্রত্যেকের বিরুদ্ধে কঠিনতম পদক্ষেপ করা হবে। আর যারা আইন ভেঙেছেন তাদের বিরুদ্ধেও।"

অপরদিকে বনগাঁয় শঙ্কর আঢ্যর গ্রেফতারির সময় যে ঘটনা ঘটে, তার পরে পুলিসের বিরুদ্ধে আরও জোরালো অভিযোগ তুলে মামলা দায়ের করেছে ইডি। ইডির প্রশ্ন, যেখানে শঙ্কর আঢ্যর বাড়িতে তদন্তে আসার কথা ইমেইলের মাধ্যমে ইডির তরফে সকাল ৮টা ৪৫ নাগাদ পাঠানো হয়েছিল, পরে বিকেল ৪টে নাগাদ বনগাঁর এসপিকেও জানানো হয়েছিল। সেখানে শঙ্কর আঢ্যর বাড়ির সামনে ওই ভিড়, এবং সেই ক্ষুব্ধ জনতার ইডি আধিকারিক সহ সিআরপিএফ জওয়ানদের আক্রমণ, অভব্য ব্যবহার- কীভাবে মুখ বুজে সহ্য করল পুলিস? কেনই বা করল? ইডির অভিযোগ, ওই ভিড়কে একবারের জন্যেও আটকায়নি পুলিস। নেতার অনুগামীরা ইডি অধিকারিক, সিআরপিএফ জওয়ানদের উপর ইঁট ছুড়েছে, ইডির গাড়িও ক্ষতিগ্রস্থ করেছে, তবুও বাধা দিতে ব্যর্থ পুলিস। আর এই অভিযোগের ভিত্তিতেই পুলিসের বিরুদ্ধে মামলা করল ইডি।

সবমিলিয়ে পুলিসের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক মন্তব্যের সঙ্গে মামলা দায়ের করেছে ইডি। আর সবটাই তাঁরা জানাল তাঁদের প্রেস রিলিজের মাধ্যমে। এরপর পুলিসের বিরুদ্ধে কী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়, সেটাই দেখার।


Follow us on :