০২ মার্চ, ২০২৪

Murshidabad: সাতদিন নিখোঁজ থাকার পর পুকুর থেকে উদ্ধার যুবকের দেহ, খুনের অভিযোগ পরিবারের
CN Webdesk      শেষ আপডেট: 2024-01-28 13:53:28   Share:   

জলাশয় থেকে উদ্ধার এক যুবকের মৃতদেহ। বড়ঞা থানা থেকে ঢিল ছোড়া দূরত্বে এমন চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে। সকাল থেকেই মৃতদেহ রেখে দফায় দফায় চলে বিক্ষোভ। প্রথমে বড়ঞা গ্রামীণ হাসপাতালে মৃতদেহ রেখে বড়ঞা থানার ওসি অতনু দাসকে ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখান মৃতের পরিবার। পরে বড়ঞা থানা ঘেরাও করে প্রতিবাদ দেখান যুবকের আত্মীয় ও গ্রামবাসীরা।

পুলিস সূত্রে খবর, মৃত ওই যুবকের নাম অভিজিৎ সাহা। বয়স ২৬। তাঁর বাড়ি বড়ঞা থানার ববরপুর গ্রামে। মৃতের বাবার অভিযোগ, যুবককে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে গিয়ে খুন করা হয়েছে। প্রায় সাত দিন ধরে নিখোঁজ ছিল অভিজিৎ সাহা নামের এই যুবক। আর তাঁর মৃতদেহ উদ্ধার হল রবিবার।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, এক মহিলার সঙ্গে যুবকের কয়েক বছর ধরে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। ওই মহিলার বাড়ি বড়ঞা থানার পাশেই। মৃতের পরিবারের অভিযোগ, এই মৃত্যুর পিছনে রয়েছে ওই মহিলার হাত। আর এই অভিযোগ পুলিসকে বারবার জানিয়েও কোন সঠিক পদক্ষেপ নেয়নি পুলিস।

মৃতের পরিবারের আরও দাবি, যুবকের নিখোঁজের একদিন বাদেই ওই মহিলার কাছে থেকে উদ্ধার হয় মৃত এই যুবকের পড়নে থাকা জ্যাকেট ও মোবাইল ফোন। পুলিসকে সেই কথাও জানানো হয়েছিল। কিন্তু পুলিস ওই মহিলাকে আটক করেও ছেড়ে দেয়। পুলিসের বিরুদ্ধে তদন্তে নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগ এনেছেন মৃতের মা-বাবা ও পরিবারের লোকজন।

রবিবার যুবকের দেহ জলাশয় ভাসতে দেখেই ক্ষোভে ফেটে পড়েন মৃতের পরিবার ও গ্রামবাসী। গ্রামবাসীরা অভিযোগ করেন, সঠিক সময় পুলি্স যদি তদন্ত করত তাহলে হয়তো যুবকের মৃত্যু হতো না। অবিলম্বে মূল অভিযুক্তের শাস্তি সহ ঘটনার সম্পূর্ণ তদন্তের দাবি জানিয়েছেন মৃতের মা ও বাবা।


Follow us on :