০৫ মার্চ, ২০২৪

Arrest: পণের দাবিতে বউমাকে খুনের অভিযোগ! গ্রেফতার শ্বশুর, চাঞ্চল্য পশ্চিম মেদিনীপুরে
CN Webdesk      শেষ আপডেট: 2024-01-23 13:31:28   Share:   

পণ চেয়ে না পাওয়ায় গৃহবধূ খুনের অভিযোগ উঠেছে শ্বশুরবাড়ির বিরুদ্ধে। ঘটনায় গ্রেফতার এক অভিযুক্ত। অভিযোগ, মেয়ের বাপের বাড়ি থেকে পাঁচ লক্ষ টাকা চেয়েছিল শ্বশুরবাড়ির লোক। আর তা নিয়েই নিত্যদিন অশান্তি হত। চাঞ্চল্য়কর ঘটনাটি ঘটেছে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার দাসপুরে।

জানা গিয়েছে, বছর চারেক আগে দাসপুরের ডিহিপলশা এলাকার বাসিন্দা সুদীপা খামরুই (দাস) এর সঙ্গে কেলেগোদা এলাকার বাসিন্দা নির্মল দাসের বিয়ে হয়। সুদীপার বাপের বাড়ির অভিযোগ, মেয়ের শ্বশুরবাড়ি থেকে বারংবার টাকা চাওয়া হত। যা নিয়ে বিয়ের পর থেকে সংসারে অশান্তি লেগেই থাকত। এই নিয়ে দুই পরিবারের তরফে মিটিং করে সমস্যার সমাধানের চেষ্টা করা হয়। তার মধ্য়েই হঠাৎ সুদীপার শ্বশুরবাড়ির লোকজন তাঁর বাপের বাড়িতে খবর দেয় তাঁদের মেয়ের শরীর অসুস্থ। 

এরপর তড়িঘড়ি সুদীপার বাপের বাড়ির সদস্যরা সোনাখালী গ্রামীণ হাসপাতালে গিয়ে দেখেন সাদা কাপড়ে ঢাকা অবস্থায় মেঝেতে শুয়ে রয়েছে তাঁদের মেয়ে। এই বিষয়ে দাসপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন সুদীপার বাপের বাড়ির লোকজন। লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে দাসপুর থানার পুলিস গ্রেফতার করে সুদীপার শ্বশুর গোবিন্দ দাসকে। আর কারা কারা এই মৃত্যুর সঙ্গে জড়িত রয়েছে সেদিকে নজর রাখছেন পুলিস। 


Follow us on :