২১ এপ্রিল, ২০২৪

Nadia: আত্মহত্যা নাকি আক্রমণ? উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা চলাকালীন শৌচালয় থেকে উদ্ধার রক্তাক্ত ছাত্রী
CN Webdesk      শেষ আপডেট: 2024-02-22 16:40:20   Share:   

সকল ছাত্রছাত্রীর মুখে একটাই কথা, ভীষণ কঠিন হয়েছে উচ্চমাধ্যমিকের পদার্থবিদ্যার প্রশ্ন। বৃহস্পতিবার ক্লাসরুমে পরীক্ষা চলছে। অন্যদিকে গলায় ওড়নার ফাঁস, হাত কাটা অবস্থায় বাথরুম থেকে উদ্ধার ছাত্রী। আত্মহত্যার চেষ্টা উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার্থীর? স্বভাবিকভাবেই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে নদিয়ার সেনপাড়া স্কুলে।

জানা গিয়েছে, নদিয়া সেনপাড়া স্কুলে উচ্চমাধ্যমিকের সিট পড়েছিল নদিয়ার জগন্নাথ স্কুলের ওই ছাত্রীর। বিগত কয়েকদিনে পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে মিটলেও বাধ সাধে বৃহস্পতিবার। জানা যায়, ওইদিন, পদার্থবিদ্যার পরীক্ষার প্রশ্নপত্র পেয়ে প্রায় এক ঘণ্টা বাদে শৌচালয়ে যেতে চায় ওই ছাত্রী। শৌচালয়ে গেলেও, প্রায় ১৫ মিনিট পরও খোঁজখবর না আসায় খুঁজতে বেরোয় পরীক্ষকেরা। শৌচালয়ের দরজা খুলে উদ্ধার হয় গলায় ওড়নার ফাঁস, হাত কাটা অবস্থায় ওই ছাত্রীকে। সঙ্গে সঙ্গে তাকে নিয়ে যাওয়া হয় করিমপুর গ্রামীণ হাসপাতালে। খবর দেওয়া হয় অভিভাবকদের কাছে। আপাতত স্থিতিশীল ছাত্রী।

যদিও, আত্মহত্যার কথা অস্বীকার পরিবারের। পরীক্ষার হলে আক্রোশ থেকেই ওই ছাত্রীকে মারধরের অভিযোগ পরিবারের। তবে ঠিক কী কারণে হল এই ঘটনা। আত্মহত্যা নাকি আক্রমণ? সেই সব নিয়েই তদন্তে নেমেছে করিমপুর থানার পুলিস।


Follow us on :