৩০ মে, ২০২৪

Sports: চতুর্থ টেস্টের আগে সতর্ক ভারত, আহমেদাবাদেও কি স্পিনিং ট্র্যাক?
CN Webdesk      শেষ আপডেট: 2023-03-05 13:11:08   Share:   

প্রসূন গুপ্ত: তিনটি টেস্ট ভারতের মাটিতে হয়ে গেলো অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে। গত দুই শতাব্দী ধরে বলতেই হবে ক্রিকেট বিশ্বে অজিরাই সেরা। কিন্তু এহেন অস্ট্রেলিয়ানদের সঙ্গে টক্কর তো ভারত দিয়েছে। বছর দুয়েক আগে ভাঙাচোরা দল নিয়ে তাদের মাটিতে সিরিজ জয় করেছিল সফরকারী ভারত। এবারও ভারতের মাটিতে অস্ট্রেলিয়াকে ৩টি টেস্টের মধ্যে দুটিতে পরাজিত করে অবশেষে পরাজিত হতে হয়েছে টিম ইন্ডিয়াকে। অজিদের নতুন টেস্ট অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ।

কোনও টেস্টই আড়াই বা তিন দিনের বেশি গড়ায়নি বিদঘুটে ঘূর্ণি পিচের কল্যাণে। এমন উইকেট বা পিচ করা হয়েছে যে স্পিনারদের বল লাট্টুর মতো ঘুরেছে। দুই দলের কেউই সুবিধা করতে পারেনি। ক্রিকেট বিশ্বে এই নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে যে এ কেমন উইকেট?

এই ঘূর্ণি পিচ যে এর আগে কখনও হয়নি তা নয়, কিন্তু অনেকের মতে এ যেন ধানক্ষেতের মতো উর্বর মাঠ। প্রথম বল থেকেই বল ঘুরছে। এই নিয়ে অবশ্য রবি শাস্ত্রী প্রমুখদের বক্তব্য, অস্ট্রেলিয়ায় গেলে কি ওরা স্পোর্টিং পিচ দেবে? সেখানে তো সবুজ পিচ ফাস্ট বোলারদের চারণভূমি!

কিন্তু এটা মোটেই সঠিক যুক্তি নয়। ফাস্ট বোলারদের পিচে গাভাস্কার থেকে তেন্ডুলকররা অজস্র রান করেছেন। উইকেট পেয়েছেন কপিল দেব থেকে আজকের শামিরা। বাস্তবিক অর্থে আজকে ভারতের হাতেও সত্যিকারের ফাস্ট বোলার রয়েছে অন্তত এক ডজন। যাদের মধ্যে হাফ ডজন নিয়মিত টেস্ট বা ওয়ান ডে খেলছেন। নিশ্চয় ভারত স্পিনিং ট্র্যাক করতেই পারে, কিন্তু তাই বলে এমন উইকেট যেখানে খেলা তিন দিনের মধ্যে শেষ হয়ে যায়!

বুমেরাং হয়েছে গত ইন্দোরের টেস্ট। অস্ট্রেলিয়া এবারের সফরে ৪ স্পিনার নিয়ে এদেশে এসেছিল, আজ তাঁরাই ভয়ঙ্কর হয়ে উঠেছে। এমনটি দাঁড়িয়েছে যারা আগে টস জিতবে বা পিচ দেখে ব্যাট করবে, তারাই ম্যাচের সিকন্দর হবেন।


কামিন্স দেশে ফিরে যাওয়ার দায়িত্বে এসেছেন প্রাক্তন অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ। তিনি দেখিয়ে দিলেন ভারতের মাটিতে এবং স্পিনিং ট্র্যাকে কীভাবে জিততে হয়। চতুর্থ টেস্ট আহমেদাবাদে ৯ মার্চ থেকে। এর আগে হোলি উৎসব কাজেই হালকা মেজাজে রয়েছেন খেলোয়াড়রা। চতুর্থ টেস্টে জিতলে বিশ্ব টেস্ট ক্রিকেটের ফাইনালে যেতে পারবে ভারত। অন্যদিকে অস্ট্রেলিয়া ইতিমধ্যেই ফাইনালে চলে গিয়েছে। রোহিত শর্মা ভাবছেন কী? 


Follow us on :