ব্রেকিং নিউজ
bir-congress-leader-police-threat-controversy
Congress: 'গুলিতে ঝাঁঝরা করে দিন পুলিসকে!' কংগ্রেস নেত্রীর মন্তব্যে বিতর্ক বাংলার রাজনীতিতে

Post By : সিএন ওয়েবডেস্ক
Posted on :2022-11-26 16:09:35


'অলীক কুনাট্য রঙ্গে, মজে লোক রাঢ়ে বঙ্গে' সেই কবে এই কথা লিখে গিয়েছিলেন মাইকেল মধুসূদন। আর সেটাই এখন প্রতি পদে সত্যি হচ্ছে এই বাংলায়। শব্দ, দৃশ্য, বায়ু তো বটেই, সেই সঙ্গে এখন আকছার বাক্য দূষণের সাক্ষীও হচ্ছে রবীন্দ্র, বঙ্কিম, নজরুলের দেশ। আর সেক্ষেত্রে অবশ্যই প্রেক্ষাপট রাজনৈতিক মঞ্চ। রাজনৈতিক (Politics) নেতাদের বেলাগাম মন্তব্যের ঠেলায় যেন প্রাণ ওষ্ঠাগত আম বাঙালির। আর এবার অভিযোগ হাত শিবিরের দিকে। বীরভূমের (Birbhum) এক দলীয় সভায় পুলিসের (Police) প্রতি কড়া মন্তব্য কংগ্রেস নেত্রীর (Congress), আর এই কথা ঘিরেই এখন তুমুল চর্চা রাজ্য রাজনীতিতে।

আসন্ন পঞ্চায়েত নির্বাচনকে পাখির চোখ করেই কোমড় বাঁধছে সব রাজনৈতিক দল। সেখানে পিছিয়ে নেই কংগ্রেসও। আর তাই একের পর এক সভা সমাবেশে মজেছে তাবড় নেতৃত্ব থেকে কর্মী-সমর্থকরা। সেরকমই পঞ্চায়েত ভোটকে সামনে রেখে হাঁসন বিধানসভা এলাকায় এক পথসভার আয়োজন করেছিল প্রদেশ কংগ্রেস। আর সেখানেই রাজ্য পুলিসকে উদ্দেশ্য করে বিতর্কিত মন্তব্য করে বসলেন পশ্চিমবঙ্গ প্রদেশ কংগ্রেস নেত্রী সুব্রতা দত্ত। "রাজ্যের পুলিস তৃণমূলের পুলিস, অথচ আপনার আমার টাকায় তাদের মাইনা হয়। পুলিসকে ভয় পাবেন না। পুলিসকে টেনে হিঁচড়ে নিয়ে যাবেন বলবেন এখানে সন্ত্রাস হচ্ছে এখানে দাঁড়ান। পুলিসকে কপালে গুলি নয় সারা বডি ঝাঁঝরা করে দেবো দরকার হয় আমাদের দু-চারটে বডি পড়বে পড়ুক" এমন ভাষাতেই পুলিসকে রীতিমতো হুমকি দিলেন কংগ্রেস নেত্রী। আর এই মন্তব্যের ভিডিও সামনে আসতেই তা নিয়ে বিতর্ক তুঙ্গে। অবশ্য এই মন্তব্য নিয়ে বিন্দুমাত্র অনুতপ্ত নয় কংগ্রেস নেত্রী সুব্রতা দত্ত, উল্টে তাঁর সাফাই, ঘটনা কিছুই ঘটেনি। এরই সঙ্গে প্রসঙ্গ টেনে চাকরিপ্রার্থীদের আন্দোলন নিয়ে তিনি পুলিসের কামড়কে কটাক্ষ করলেন।

উল্লেখ্য, বিজেপির নবান্ন অভিযানকে ঘিরে তুমুল ঝামেলায় এক পুলিস আক্রান্তর ঘটনা ঘটায় পুলিসকে আন্দোলনকারীদের কপালে গুলি করা উচিত ছিল বলে বেফাঁস মন্তব্য করে বসেন তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। আর তারই কিছুটা পুনরাবৃত্তি ঘটল এদিনের ঘটনায়। তবে এবার বক্তার নিশানায় রইলেন খোদ আইন রক্ষকরাই। অবশ্য ঘটনার পর সমালোচনায় সামিল অন্য দলের নেতৃবৃন্দ। কংগ্রেস নেত্রীকে 'অ্যান্টি-সোশ্যাল' আখ্যা দিয়ে রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম বলেন, "কোনও নেত্রী এই কথা বলতে পারেন না। গুলি মারার কথা একটা পরিপ্রেক্ষিত, এটাকে রাজনীতিকরণ করা হচ্ছে। পুলিসকে ধন্যবাদ এত সহ্য করার জন্য।"

অপরদিকে এবিষয়ে বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার বলেছেন, "প্রদেশ কংগ্রেস তার আবার সভানেত্রী! এদের কথার এতো গুরুত্বই দেবেন না।" তবে এই ঘটনার পর রাজ্যের রাজনৈতিক বিতর্কের পারদ যে ঊর্ধ্বমুখী তা বলা বাহুল্য।






All rights reserved © 2021 Calcutta News   Home | About | Career | Contact Us

এই সংক্রান্ত আরও পড়ুন