১৪ জুন, ২০২৪

Mamata: রেলমন্ত্রীর অনুরোধেও কাজ হল না! 'জয় শ্রী রাম' শুনে মঞ্চেই উঠলেন না মমতা
CN Webdesk      শেষ আপডেট: 2022-12-30 19:24:54   Share:   

ভিক্টোরিয়া-কাণ্ডের পুনরাবৃত্তি হাওড়া স্টেশনে। মুখ্যমন্ত্রীর (CM Mamata) সামনেই বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের 'জয় শ্রী রাম' (Jay Shree Ram) স্লোগান। আর তাতেই শুক্রবার সরগরম রাজ্য রাজনীতি। এই ঘটনার প্রতিবাদে এবং উষ্মা দেখিয়ে বন্দে ভারত ট্রেনের (vande Bharat Train) সূচনা অনুষ্ঠানের মূল মঞ্চে উঠতে অস্বীকার করেন মুখ্যমন্ত্রী। মূল মঞ্চের পাশে বাঁধা মঞ্চ বসেই সপার্ষদ অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছেন তিনি। যদিও তাঁকে মঞ্চে আসতে অনুরোধ করেন রেলমন্ত্রী এবং শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী সুভাষ সরকার। কিন্তু সেই অনুরোধ ফিরিয়ে দেন মমতা।

এদিকে, এদিন আহমেদাবাদ থেকে ভার্চুয়ালি বন্দে ভারত ট্রেনের সূচনা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তাঁর মাতৃ বিয়োগের কারণে ঘোষিত সূচিতে সামান্য বদল ঘটে। এই অনুষ্ঠান উপলক্ষে হাওড়া স্টেশনে উপস্থিত ছিলেন রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব, রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোস, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। আর মুখ্যমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে তোলা জয় শ্রীরাম স্লোগান ঘিরে চর্চা তুঙ্গে।

এই ঘটনা প্রসঙ্গে রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব বলেন, 'মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীকে আমরা আমন্ত্রণ জানিয়েছি। উনাকে ধন্যবাদ এসেছিলেন। রাগ মতো কিছু হয়নি। যারা কর্মী-সমর্থক, তাঁরা উৎসাহে স্লোগান দিয়েছি। এটা কোনও বড় কথা নয়। উনি মঞ্চে এসে বসেননি, এটাও মুখ্যমন্ত্রীর ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত।


পাল্টা কলকাতার মেয়র তথা রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমের তপ,'সৌজন্য বিজেপি জানে না। যেখানে সেখানে রাম নাম নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে অপমান করছে না, বরং শ্রী রামকে অপমান করছে। অসভ্য, বর্বর দল বিজেপি সভ্যতা জানে না। ওরা কী রামের পেটেন্ট নিয়ে রেখেছে? কিছু লুম্পেনদের নিয়ে গিয়ে অনুষ্ঠানে ভিড় করায়।'

একইভাবে আক্রমণাত্মক রাজ্যের অপর এক মন্ত্রী সুজিত বসু। তিনি জানান, সব বিষয়ের পরিমিত বোধ থাকে। যেটা করেছে সেটা খারাপ, বাংলার কৃষ্টি, সংস্কৃতির সঙ্গে মেলে না। একটা উদ্বোধনী প্রোগ্রামে মুখ্যমন্ত্রী গিয়েছেন, সেখানে সংযত থাকা জরুরি।'

থেমে থাকেননি রাজ্য বিজেপির সভাপতি সুকান্ত মজুমদার। তাঁর খোঁচা, 'একটা বড় প্রকল্প ৭ হাজার ৮০০ কোটি টাকার কাজ বাংলা তথা মুখ্যমন্ত্রীকে উপহার দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। এটা ফেডারাল কাঠামোর জন্য একদম সামঞ্জস্য পূর্ণ নয়। এই ঘটনার আমরা তীব্র নিন্দা করছি। একটা ভালো উনার মঞ্চে নিচে বসার অভ্যাস তৈরি হচ্ছে। আগামি দিনে মঞ্চের নিচেই বসতে হবে।' 


Follow us on :