০২ মার্চ, ২০২৪

Sadhvi Niranjan Jyoti: 'ধরনা দিতে চেয়েছিল, অভিষেকই দেখা করেননি', বাংলায় এসে বিস্ফোরক সাধ্বী নিরঞ্জন জ্যোতি
CN Webdesk      শেষ আপডেট: 2024-01-03 16:50:32   Share:   

'তৃণমূল ধরনা দিতে চেয়েছিল, আমার সঙ্গে দেখা করতে চায়নি। কেন্দ্র কোনও প্রকল্পের টাকা আটকাতে চায়নি। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রতিনিধিরা নথি নিয়ে যাননি, রাজনীতি করতে গিয়েছিলেন', বাংলায় এসে এবারে বিস্ফোরক অভিযোগ করলেন কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়ন প্রতিমন্ত্রী সাধ্বী নিরঞ্জন জ্যোতি। ২০২৪ এই পাখির চোখ লোকসভা নির্বাচন। বছর শেষ হওয়ার আগেই বাংলায় এসেছিলেন শাহ-নাড্ডা জুটি। এবার কলকাতায় আসেন কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়ন প্রতিমন্ত্রী সাধ্বী নিরঞ্জন জ্যোতি। আর বাংলায় আসতেই একের পর এক তোপ দাগলেন রাজ্যের শাসকদলকে।

২০২৪ এই পাখির চোখ লোকসভা নির্বাচন। বছর শেষ হওয়ার আগেই বাংলায় এসেছিলেন শাহ-নাড্ডা জুটি। এবার কলকাতায় আসেন কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়ন প্রতিমন্ত্রী সাধ্বী নিরঞ্জন জ্যোতি। বুধবার সকালে তাঁকে নিউটাউনের ওয়েস্টিন হোটেল থেকে বেরোতে দেখা যায়। এরপর বাংলায় এসে কলকাতার কালীঘাট মন্দির এবং দক্ষিণেশ্বর মন্দিরে পুজো দিতে দেখা যায় তাঁকে। সঙ্গেই বাংলার মানুষদের জন্য সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়েই তাঁর গলায় শোনা যায় নতুন বছরে সকলের জন্য শুভেচ্ছা।

এরপরই বাংলার শাসকদলকে দুর্নীতিগ্রস্থ বলে মন্তব্য করলেন সাধ্বী। প্রসঙ্গত, দিল্লিতে যখন রাজ্যের কাছে কেন্দ্রের বকেয়া চাইতে যায় তৃণমূল, তখন সাধ্বী নিরঞ্জন জ্যোতির সঙ্গেই দেখা করতে গিয়েছিলেন তাঁরা। কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়ন প্রতিমন্ত্রী তাঁদেরকে সময় দিলেও, বাংলার মানুষের সমস্যা শোনার জন্য আড়াই ঘণ্টা অপেক্ষা করলেও তৃণমূলের প্রতিনিধিরা দেখা করেননি তাঁর সঙ্গে, এমনটাই জানালেন সাধ্বী নিরঞ্জন জ্যোতি। তিনি বলেন, "ওঁরা প্রথমে বলেছিল ৫ জন আসবে, রাজি হয়েছিলাম। তারপর বলেছিল, ১৫ জন আসবে, তাতেও রাজি হয়েছিলাম। তারপর মহুয়া মৈত্র বলেছিল একা দেখা করবে, আমি বলেছিলাম ব্যক্তিগতভাবে নয়, সমস্যা সমাধানে বৈঠক চাই। আড়াই ঘণ্টা অপেক্ষার পর কেউ দেখা করতে এল না, উল্টে বলল, আমি দেখা করিনি। আসলে বৈঠক করতে নয়, ধরনা দিতেই দিল্লি এসেছিল তৃণমূল।" বাংলায় এসে এভাবেই শাসকদলের প্রতি তোপ দাগলেন কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়ন প্রতিমন্ত্রী সাধ্বী নিরঞ্জন জ্যোতি।

কলকাতায় এসে দিল্লি যাওয়া নিয়ে তৃণমূলের প্রতি এহেন মন্তব্যে বাংলার রাজ্য রাজনীতি যে ফের তোলপাড় হল, তা বলাই বাহুল্য। এখন দেখার এ মন্তব্যের কী প্রতিক্রিয়া দেয় শাসক শিবির।


Follow us on :