২১ এপ্রিল, ২০২৪

Kunal Ghosh: শনিবার ব্রিগেড নিয়ে পথে কুণাল
CN Webdesk      শেষ আপডেট: 2024-03-02 11:10:59   Share:   

প্রসূন গুপ্ত: শুক্রবার প্রধানমন্ত্রী কলকাতায় এলেন এবং একটি প্রকল্প উদ্বোধন করে রাজনৈতিক জনসভা করলেন আরামবাগে। তুলোধোনা করলেন রাজ্যসরকারকে। সব শেষে কলকাতায় ফিরে রাজভবনে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে প্রায় এক ঘন্টা বৈঠক করলেন। যদিও বিরোধী নেতা শুভেন্দু অধিকারী তাঁর চিরায়ত ভঙ্গিতে অসংসদীয় ভঙ্গিতে মমতাকে আক্রমণ করলেন কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী বৈঠক থেকে বেরিয়ে জানালেন যে, নিছকই গল্প করে এলেন তিনি। এ নিয়ে মিডিয়া মহল দিনভর খবরে রাখতেই পারত মোদী সফরকে কিন্তু সকালেই তাতে বিতর্কিত মন্তব্য করে খবরের নির্যাস অনেকটাই গিলে ফেললেন তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক তথা মুখপাত্র কুণাল ঘোষ।  

ইতিমধ্যেই সে সংবাদ জনসমক্ষে এসেছে কিন্তু শনিবার সকালেই বেশ কিছুক্ষন কথা হলো কুণাল ঘোষের সঙ্গে। জানা গেলো নতুন তথ্য।কুণাল এই প্রতিবেদককে জানালেন যে, ভুল কী বলেছি ? ভেবেই বলেছি সব। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অনেক লড়াই করে আজ বাংলার দায়িত্বে। দিদির এই কাজকে সর্বদা আমাদের সৈনিকদের মেনে চলতে হবে। কিন্তু কি জানেন যখন বেনিয়ম দেখি তখন এই নেত্রীর জন্য খারাপ লাগে। 

কুণাল আরও বললেন, যে কোনও নেতার দলের সচ্ছতা মেনে চলা উচিত। মুখপাত্র হিসাবে যখন বিরোধীদের সমালোচনা করছি, তখন দেখছি দলের বড় নেতা কেন্দ্রের নেতা মন্ত্রীদের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলছেন। এটা তো দলনেত্রীর সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা। এই নেতা রাজ্যে এসে দলের কোন স্ট্রাটেজি মানছেন ? একটা স্কুলের মধ্যে রাজনৈতিক অফিস হবে কেন ? কেন দলের টিকিট নিয়ে রাজ্যসভায় যাওয়ার পরে এক বিখ্যাত অভিনেতা বিজেপিতে চলে যায় এবং তিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কুবাক্য বলার পরেও দলের এক শ্রেণীর অভিনেতা/পরিচালক তাঁকে নিজেদের ছবিতে নিয়ে তাঁর সঙ্গে পাবলিসিটিতে নামেন ? 

এ গুলো কি নেত্রীকে খাটো করা নয়। 'অনেক কারণে আমি দায়িত্ব ছাড়তে চলেছি, জানালেন কুণাল'। তিনি বললেন যে , দল ছাড়ার প্রশ্নই নেই। শনিবার বেলা একটায় আমি আমাদের সাথীদের নিয়ে মিছিল করছি আসন্ন ব্রিগেড অভিযানকে নিয়ে। কুণাল আজকেও প্রধানমন্ত্রীর প্রচারে ঢুকে পড়লেন যে, নতুন ঘটনা নিয়ে। খবর কেটে দেওয়ার বিষয়ে ওস্তাদ কুণাল ঘোষ।


Follow us on :