০২ মার্চ, ২০২৪

ED: সন্দেশখালি নিয়ে ফের রিপোর্ট তলব রাজ্যপালের, বৈঠক শেষে কী বার্তা দিলেন ইডি ডিরেক্টর
CN Webdesk      শেষ আপডেট: 2024-01-10 11:59:25   Share:   

রেশন বণ্টন দুর্নীতি মামলায় সন্দেশখালিতে তদন্ত করতে গিয়ে ইডি অফিসারদের হামলার শিকার হতে হয়। বনগাঁতে ইডি আধিকারিকরা জখম না হলেও সেখানে তাদের গাড়ি ভাঙচুর করার অভিযোগ ওঠে। আর রাজ্যে এসব ঘটনার পরই সোমবার মধ্যরাতে কলকাতায় আসেন ইডির ডিরেক্টর রাহুল নবীন। মঙ্গলবার ইডি আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠকের পর রাজভবনে রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোসের সঙ্গে দীর্ঘক্ষণ রুদ্ধদ্বার বৈঠক হয়েছে তাঁর। আর সেই বৈঠকের পরই এবার রাজ্যের মুখ্যসচিব, স্বরাষ্ট্রসচিব ও রাজ্য পুলিসের ডিজিকে ডেকে পাঠালেন রাজ্যপাল বোস। সূত্র মারফত এমনটাই জানা যাচ্ছে। রাজভবন সূত্রে খবর, রাজ্যের কাছ থেকে রেশন দুর্নীতি মামলার বিস্তারিত রিপোর্ট নিয়ে মুখ্যসচিব, স্বরাষ্ট্রসচিব ও ডিজিকে আসতে বলেছেন রাজ্যপাল। এছাড়াও পরবর্তীতে অভিযানে গেলে কী কী করতে হবে, তা আধিকারিকদের বুঝিয়ে দিয়েছেন ইডি-র ডিরেক্টর রাহুল নবীন।

সন্দেশখালি ঘটনার থেকে শিক্ষা নিয়ে আরও সতর্কতার সঙ্গে তৎপর হওয়ার নির্দেশ ইডি ডিরেক্টরের। সমস্ত দুর্নীতির তদন্ত গতি বাড়ানোর নির্দেশ দিলেন তিনি। গতকাল সিজিও কমপ্লেক্সে ইডি আধিকারিকদের নিয়ে বৈঠকে এমনই নির্দেশ দিয়েছেন ডিরেক্টর রাহুল নবীন। ইডি অফিসার ছাড়াও, মঙ্গলবার সিআরপিএফ, সিআইএসএফ আধিকারিকদের কাছে এই হামলা প্রসঙ্গে কী খবর রয়েছে, তাও জানতে চান ইডি ডিরেক্টর। এই ধরনের ঘটনার মোকাবিলা করার জন্য কী ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া উচিত, সেই বিষয়ে এনআইএ আধিকারিক ইনকাম ট্যাক্স আধিকারিকদের সঙ্গেও আলোচনা করেছেন ইডি ডিরেক্টর।

সন্দেশকালীর ঘটনায় শাহজাহানকে নিয়ে রাজ্য পুলিসের ভূমিকা অসন্তোষ প্রকাশ ইডি-এর। রাজ্য পুলিসের ডিজির কড়া বার্তার পরও যে ধারায় শাহজাহানের বিরুদ্ধে এফআইআর রুজু করেছে রাজ্য পুলিস, তাতে শাহজাহানকে আটকে রাখা কতটা সম্ভব, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে ইডি অভ্যন্তরে। এত বড় ঘটনার পরে ও শাহজাহানের বিরুদ্ধে জামিনযোগ্য ধারায় মামলা করায় পুলিসের ভূমিকা প্রশ্নের মুখে। এই অবস্থায় গত শুক্রবারের ঘটনায় শাহজাহান শেখের বিরুদ্ধে পুলিস কঠোরও কোন ব্যবস্থা নিতে চাইছে না বলেই মনে করছে ইডি। তাই এই বিষয়ে আইনজীবীদের সঙ্গে পরামর্শ করছেন কেন্দ্রীয় তদন্তকারী আধিকারিকরা।

এছাড়াও রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোস ইডি কর্তার সঙ্গে বৈঠকের পর ফের ডিজি ও মুখ্য সচিব, ও স্বরাষ্ট্রসচিবকে তলব করেছেন। রাজভবন সূত্রের খবর, গত সপ্তাহে সন্দেশখালি কাণ্ডের দিনই ডিজি, মুখ্যসচিব ও স্বরাষ্ট্রসচিবকে তলব করেন রাজ্যপাল। সে সঙ্গেই গোটা ঘটনায় একটি রিপোর্টও চেয়ে পাঠান। এবার ইডির ডিরেক্টর রাহুল নবীনের সঙ্গে বৈঠকের পর কার্যত অ্যাকশন রাজ্যপালের। রাজভবনে সূত্রের খবর, দ্রুত তাঁদেরকে দেখা করতে বলা হয়েছে রাজ ভবনের তরফে। অন্যদিকে মঙ্গলবারই রাজ্যের কাছে সন্দেশখালি ঘটনা নিয়ে রিপোর্ট করেছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। মঙ্গলবার গঙ্গাসাগর থেকে কলকাতায় ফিরেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। চার দিনের মধ্যে রিপোর্ট দিতে বলা হয়েছে কেন্দ্রীয় মন্ত্রকের তরফে। এই বিষয়ে আজ নবান্ন কী সিদ্ধান্ত নেয় সেটাই দেখার।


Follow us on :