বাংলায় এনআরসি, সিএবি হতে দেব নাঃ মমতা

0
598

যখন সংসদে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পেশ করছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ তখন কয়েকশো কিলোমিটার দূরে বাংলার খড়গপুরে এক সভা থেকে এই বিল নিয়ে কেন্দ্রকে তুলোধোনা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল (সিএবি) ও জাতীয় নাগরিকপঞ্জি (এনআরসি) একই মুদ্রার এপিঠ-ওপিঠ বলেই তোপ দাগলেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি খড়গপুরের সভা থেকেই বাংলার জনগনকে আরও একবার জানিয়ে দিয়েছেন, এই বাংলায় তিনি কোনওভাবেই এনআরসি হতে দেবেন না। জানিয়ে দিলেন, একজনকেও দেশছাড়া হতে দেবেন না। নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল আসলে দেশভাগের নামান্তর বলেও উল্লেখ করেন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর কথায়, ‘আমরা ভাগাভাগি হতে দেব না, কাউকে দেশ থেকে তাড়াতে দেব না। এনআরসি, সিএবি নিয়ে অযথা ভয় পাবেন না। মনে রাখবেন, আমরা যতদিন আছি ততদিন এসব হবে না’। উল্লেখ্য, নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলে (সিএবি) বলা হয়েছে, পাকিস্তান, আফগানিস্তান, বাংলাদেশ থেকে আসা অ-মুসলিমদের শরণার্থীদের নাগরিকত্ব দেওয়া হবে। ফলে অসমে যে ১২ লক্ষ হিন্দু এনআরসি থেকে বাদ পড়েছেন, তাঁদের পক্ষ নিয়েই বারবার সরব হয়েছেন তৃণমূলনেত্রী। এই প্রসঙ্গ তুলে জোরদার প্রচার চালিয়ে সদ্যসমাপ্ত তিনটি বিধানসভার উপনির্বাচনেই জিতেছে তৃণমূল কংগ্রেস। ফলে লোকসভায় নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল (সিএবি) বেশ হতেই ফের একবার গলা চড়ালেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সামনেই বেশ কয়েকটি পুরসভায় ভোট, তারপর ২০২১ সালে বিধানসভা নির্বাচন। ফলে এই সিএবি ও এনআরসি-ই যে রাজ্যে বিজেপির আগ্রাসনের বিরুদ্ধে তাঁর তুরুপের তাস হতে চলেছে সেটা আবার বুঝিয়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী।

SHARE