রাজীবেই ভরসা 

0

প্রসূন গুপ্ত

গত বছর ৩টি বিধানসভার দুটি আসনে শেষ মুহূর্তে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল রাজ্যের মন্ত্রী রাজীব বন্দ্যেপাধ্যায়, বিজেপির ররমরমা উত্থানে তিনি কালিয়াগঞ্জ ও করিমপুর আসন দুটি জিতিয়ে আনতে পেরেছিলেন। তারপর আর সেভাবে রাজীবকে সংগঠনে পাওয়া যায়নি। এবার ফের উপনির্বাচন বাংলার দুই বিধানসভা কেন্দ্রে। তার মধ্যে ফালাকাটা আসনটির দায়িত্ব দেওয়া হলো তাঁকে। আসনটি ছিল তৃণমূলের। কিন্তু লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির কাছে পিছিয়ে ছিল ক্ষমতাসীন দলটি। ৩ নভেম্বর বিহার বিধানসভার নির্বাচনের সাথেই এ দুটি আসনে লড়াই হবে। CN ওয়েব পোর্টালকে একান্ত সাক্ষাৎকারে রাজীব জানালেন “ওই এলাকার মানুষকে বোঝাতে হবে। তাদের যদি কোনো ক্ষোভ থাকে তবে সেটা মেটাতে হবে। ওভাবেই আগের বছর আমি কাজ করেছিলাম”। ফালাকাটার দায়িত্বে তো ছিলেন ঋতব্রত, তবে রাজীবের ভূমিকা কী, প্রশ্নের উত্তরে জানান ” ঋতব্রত জেলার দায়িত্বে আছেন, আমার দায়িত্ব ভোটের”। পূর্ববঙ্গীয় উদ্বাস্তুদের মাঝে খাস এদেশি রাজীব কী করতে পারেন? তিনি বলেন, “এখানে বাঙাল ঘটির ব্যাপার নেই, মানুষের সাথে মানুষের ভাষায় কথা বলতে হবে। উন্নয়নের কথা বোঝাতে হবে। আর তাছাড়া কালিয়াগঞ্জের ভোটের সময়ে আমি কিছুটা রাজবংশী ভাষাও শিখেছি। গানও গেয়েছি”। সব ঠিক আছে বলে, প্রস্তুতির কাজে চলে গেলেন সঙ্গীত প্রেমী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়।