গুরুংকে ‘স্বাগত’ জানিয়ে টুইট তৃণমূলের

0

বুধ সন্ধ্যায় আচমকাই জন সমক্ষে হাজির হলেন পলাতক বিমল গুরুং। যার বিরুদ্ধে পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ UAPA ধারা সহ একাধিক ধারায় মামলা রুজু করে গরু খোঁজা খুঁজছিল। সেই গুরুংই এবার প্রথমে হাজির হলেন সল্টলেকে গোর্খাভবনের সামনে। তবে সেখানে ঢুকতে না পেরে অন্যত্র সাংবাদিক সম্মেলন করলেন প্রকাশ্যেই। ঘোষণা করলেন এবার তিনি মোদির হাত ছেড়ে দিদির হাত ধরবেন। সারা মিলতে লাগল ঘন্টা কয়েক। রাতেই তৃণমূলের তরফে টুইট করে গুরুংকে স্বাগত জানানো হল। অনেকটাই আগাম ঠিক করে রাখা চিত্রনাট্যের মতো।

 

বুধবার রাতে তৃণমূলের তরফে টুইটে লেখা হল, ‘শান্তির প্রতি বিমল গুরুংয়ের আস্থা’কে স্বাগত জানিয়েছে তৃণমূল। সঙ্গে ধন্যবাদ জানিয়েছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বের প্রতি আস্থা জ্ঞাপনের জন্য। পাশাপাশি এও লেখা হয়েছে, ‘বিজেপির বিশ্বাসযোগ্যতাহীন চেহারা ও গোর্খাল্যান্ড ইস্যুতে তাদের নোংরা রাজনীতি বাংলার মানুষের সামনে প্রকাশ্যে চলে এসেছে। আমরা নিশ্চিত GTA, রাজনৈতিক দলগুলি-সহ পাহাড়ের সমস্ত পক্ষ নাগরিক সমাজের সঙ্গে হাত মিলিয়ে মাতৃভূমির শান্তি ও সমৃদ্ধির লক্ষ্যে একযোগে কাজ করব’। রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, শাসকদলের মনোভাবে পরিষ্কার, আগাম বোঝাপড়ার পরই উদয় হলেন ‘পলাতক’ বিমল গুরুং। এখন দেখার তাঁর বিরুদ্ধে মামলাগুলির কী হয়।