আগামী ২ থেকে ৩ ঘণ্টার মধ্যে দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টির পূর্বাভাস

কলকাতাঃ আগামী ২ থেকে ৩ ঘণ্টার মধ্যে বৃষ্টির পূর্বাভাস। কোথাও কোথাও বজ্রবিদ্যুত্‍-সহ বৃষ্টি হবে বলে জানাল আলিপুর আবহাওয়া দফতর।

শনিবার সকালে ঝলমলে আকাশ দেখা গেলেও,পরে মেঘলা আকাশ। ফলে কিছুক্ষণের মধ্যেই দক্ষিণবঙ্গের বেশ কিছু জেলায় বৃষ্টির নামবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর। বিশেষ করে কলকাতা, দুই ২৪ পরগনায় ,হাওড়া, হুগলি ও পূর্ব মেদিনীপুরে বৃষ্টির পূর্বাভাস।

শুক্রবার সকাল থেকেই কলকাতাসহ একাধিক জেলায় বৃষ্টি শুরু হয়। দুপুর থেকেই  কলকাতা ,পূর্ব -বর্ধমান,হাওড়া,হুগলি ও দক্ষিণ ২৪ পরগনার সুন্দরবন এলাকায়  বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি হয়েছে। বৃষ্টিপাতের পরিমাণ ১৯.৯ মিমি। দক্ষিণবঙ্গের ৫ জেলায় বৃষ্টির পূর্ভাবাস দিয়েছিল আলিপুর আবহাওয়া দফতর।  

দক্ষিণবঙ্গে বর্ষার আগমনের জেরেই দফায় দফায় বৃষ্টি হচ্ছে। বেশকয়েকদিন ধরেই শহর কলকাতায় ভ্যাপসা গরম । যার জেরে চরম অস্বস্তিতে ছিল সাধারণ মানুষ। তাই দক্ষিণবঙ্গে বর্ষা ঢুকতেই  কিছুটা স্বস্তি মিলছে বলা যায়।

বর্ষা আসছে ৪৮ ঘন্টার মধ্যে সাথে ভরা কোটালও

কলকাতাঃ সাধারণত জ্যৈষ্ঠ মাসের শেষেই বর্ষা প্রবেশ করে  কিন্তু গত কয়েক বছর ধরে তা ক্রমশই পিছিয়ে যাচ্ছিলো | এই পিছিয়ে যাওয়ার অন্যতম কারণ নাকি দূষণ | এবারের বিষয়ে একদমই আলাদা | গত বছর এবং এই বছর কড়া বিধিনিষেদের কারণে বা লকডাউন হওয়াতে দূষণ হয়েছে কম |

২০২০তে বর্ষা এসেছিলো জুনের প্রথম সপ্তাহেই | এবারে আগামী ৪৮ ঘন্টার মধ্যে বর্ষা আসছে বলে বিশেষজ্ঞদের মত | আবহাওয়া দপ্তরের মতে ভারী বৃষ্টি হবে এবং তার সঙ্গে ভরা কোটাল | অর্থাৎ অমাবস্যার সময়ে যদি বা সমুদ্রের জল উপচে পড়বে বাংলার বুকে | ক্ষতিগ্রস্থ হতে পারে দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন স্থান | জাল দাঁড়াতে পারে হয়তো বন্যার ধাক্কাও আস্তে পারে | ফলে রাজ্য সরকার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিচ্ছে |    

আগামী ২-৩ ঘন্টার মধ্যেই প্রবল বৃষ্টিতে ভাসবে বাংলা

কলকাতাঃ কলকাতাসহ অন্যান্য জেলাতে কম বেশি বৃষ্টি হচ্ছে দুদিন ধরে। বইছে ঝড়ো হাওয়া। গতকালের ঝড়-বৃষ্টিতে বাজ পড়ে ২৭ জনের মৃত্যু হয়েছে রাজ্যে। আজও আর কিছুক্ষণের মধ্যেই বৃষ্টি নামবে,এমনটাই জানাচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর।
 
আজ অর্থাৎ বৃহস্পতিবার আগামী ২-৩ ঘন্টার মধ্যে কয়েকটি জেলার দিকে ঝড় ধেয়ে আসছে। ঝড়ের সাথে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে,  কিছুক্ষণের মধ্যেই বৃষ্টিতে ভিজতে পারে মালদা,মুর্শিদাবাদ,পশ্চিম বর্ধমান এবং নদিয়া।  ৩০-৪০ কিলোমিটার বেগে ঝোড়ো বাতাস বইতে পারে।  

উল্লেখ্য, গতকাল বাজ পড়ে মোট ২৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে হুগলিতে ৯ জন, পূর্ব মেদিনীপুরে মৃত্যু হয়েছে ২ জনের। মুর্শিদাবাদে মৃত্যু হয়েছে ৯ জনের।

এদিকে আবহাওয়া দফতর সূত্রে কবর, আগামী ১১ জুন নিম্নচাপের হাত ধরে বাংলায় বর্ষা ঢুকবে। ইতিমধ্যেই কেরলে বর্ষা ঢুকে পড়েছে। ১১ জুন নাগাদ উত্তর বঙ্গোপসাগরে বাংলা ও ওড়িশা উপকূলের কাছে একটি নিম্নচাপ তৈরি হতে চলেছে।

দিনশেষে রাজ্য জুড়ে শুরু স্বস্তির বৃষ্টি

কলকাতাঃ দিনভর গরমে হাঁসফাঁস অবস্থার পর এল স্বস্তির বৃষ্টি। কলকাতা, হাওড়া,উত্তর ২৪ পরগণা,দক্ষিণ ২৪ পরগণাসহ বেশ কিছু জেলায় শুরু হয়েছে বৃষ্টি।

রবিবার ভোর হতে না হতেই ছিল রোদের দাপট। বেলা গড়াতেই প্যাচপ্যাচে গরমে নাজেহাল দশা ছিল রাজ্যবাসীর। গতকালও একই অবস্থা ছিল। দিনশেষে বৃষ্টিতে স্বস্তি। গতকাল বৃষ্টিপাতের পরিমাণ ছিল ০.৮ মিমি।
 
আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানিয়েছিল, রাজ্যের কয়েকটি জেলায় বিক্ষিপ্ত বৃষ্টির সম্ভাবনা। উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতেও ভারি বৃষ্টির পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছিল।

রবিরাব দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল  ৩৭.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি। যা স্বাভাবিকের চেয়ে ৩ ডিগ্রি বেশি। আর সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৯.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি। তাপমাত্রা বেশি থাকার ফলে বজায় ছিল আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তি।

আগামী ১১ জুন একটি নিম্নচাপ তৈরি হবে উত্তর বঙ্গোপসাগরে। তার জেরেই দক্ষিণ পশ্চিমী মৌসুমী বায়ু প্রবেশ করবে বাংলায়। সাধারণত জুনের ৮ থেকে ১৫ জুনের মধ্যে বাংলায় আসে বর্ষা। সেই অনুযায়ী স্বাভাবিক সময়েই বাংলায় বর্ষা ঢুকবে। ইতিমধ্যেই উত্তরবঙ্গে বর্ষা চলে এসেছে।




কেমন যাবে ছুটির দিনের আবহাওয়া

কলকাতাঃ গরমে একেবারে হাঁসফাঁস অবস্থা বঙ্গবাসীর। ভোর হতে না হতেই রোদের দাপট। বেলা গড়াতেই প্যাচপ্যাচে গরমে নাজেহাল দশা। এই পরিস্থিতিতে স্বস্তির কোনও খবর শোনাতে পারল না আবহাওয়া দফতর।

আলিপুর আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর, আজ রবিবার শহর কলকাতা ও তার সংলগ্ন এলাকায় বৃষ্টির তেমন পূর্বাভাস নেই। তবে রাজ্যের কয়েকটি জেলায় বিক্ষিপ্ত বৃষ্টির সম্ভাবনা দক্ষিণবঙ্গের জন্য ভালো খবর না থাকলেও,উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতেও ভারি বৃষ্টির পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে।

হাওয়া অফিস জানাচ্ছে, রবিরাব দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকবে  ৩৭.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের চেয়ে ৩ ডিগ্রি বেশি। আর সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকবে ২৯.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি। তাপমাত্রা বেশি থাকার সঙ্গে বজায় থাকবে আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তি। গতকাল বৃষ্টিপাতের ০.৮ মিমি।

 তবে স্বস্তির খবর, আগামী ১১ জুন একটি নিম্নচাপ তৈরি হবে উত্তর বঙ্গোপসাগরে। তার জেরেই দক্ষিণ পশ্চিমী মৌসুমী বায়ু প্রবেশ করবে বাংলায়। সাধারণত জুনের ৮ থেকে ১৫ জুনের মধ্যে বাংলায় আসে বর্ষা। সেই অনুযায়ী স্বাভাবিক সময়েই বাংলায় বর্ষা ঢুকবে।

দিনভর জারি থাকবে অস্বস্তিকর গরম

কলকাতাঃ গরমে একেবারে হাঁসফাঁস অবস্থা বঙ্গবাসীর। ভোর হতে না হতেই রোদের দাপট। বেলা গড়াতেই প্যাচপ্যাচে গরমে নাজেহাল দশা। এই পরিস্থিতিতে স্বস্তির খবর শোনালো আবহাওয়া দফতর।

আলিপুর আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর, আজ রাজ্যের কয়েকটি জেলায় বিক্ষিপ্ত বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।দুই ২৪ পরগনা, হাওড়া, হুগলি, ঝাড়গ্রাম, দুই মেদিনীপুরে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টি হতে পারে। দক্ষিণবঙ্গের পাশাপাশি উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতেও বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে।

 আবহাওয়া দফতর আরও জানিয়েছে, আগামী ১১ জুন একটি নিম্নচাপ তৈরি হবে উত্তর বঙ্গোপসাগরে। তার জেরেই দক্ষিণ পশ্চিমী মৌসুমী বায়ু প্রবেশ করবে বাংলায়। সাধারণত জুনের ৮ থেকে ১৫ জুনের মধ্যে বাংলায় আসে বর্ষা। সেই অনুযায়ী স্বাভাবিক সময়েই বাংলায় বর্ষা ঢুকবে।

আজ শহরে আকাশ আংশিক মেঘলা থাকবে। এদিন সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকতে পারে ৩৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছে। শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকতে পারে ২৯ ডিগ্রি সেলসিয়াসের। গতকাল কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি। শহরে বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বাধিক ৮৮ শতাংশ, ন্যূনতম ৫২ শতাংশ। সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন আর্দ্রতার পরিমাণ তা স্পষ্ট করছে,দিনভর জারি থাকবে অস্বস্তিকর গরম। আবহাওয়াবিদদের মতে, বর্ষা যত এগিয়ে আসে বাতাসে আর্দ্রতার পরিমাণ তত বৃদ্ধি পায়। সেটাই হচ্ছে।


আজও বৃষ্টির সম্ভাবনা

কলকাতাঃ আগামী তিনদিন প্রাক বর্ষার বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে রাজ্যে। কোথাও কোথাও বজ্রবিদ্যুত্‍ সহ বৃষ্টি হতে পারে। বইতে পারে ঝোড়ো হাওয়া। এমনটাই পূর্বাভাস আলিপুর আবহাওয়া দফতরের।

আবহাওয়া দফতর  সূত্রে খবর,  বিহার সংলগ্ন উত্তরবঙ্গে অবস্থান করছে ঘূর্ণাবর্ত। পাশাপাশি বঙ্গোপসাগর থেকে প্রচুর জলীয় বাষ্প ঢুকছে পশ্চিমবঙ্গে। তার জেরে, আগামী তিন দিন দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। দক্ষিণবঙ্গের নদীয়া, পূর্ব বর্ধমান, উত্তর ২৪ পরগনা, মুর্শিদাবাদ, বীরভূমে তুলনামূলক বেশি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। বৃষ্টি থেকে রেহাই পাবে না উত্তরবঙ্গও।   

আজ বুধবার সকাল থেকেই কলকাতায় আকাশের মুখ ভার। গতকালের পর আজও বৃষ্টির সম্ভাবনা।  শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকবে ৩৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছে। শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা  ২৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গতকাল শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৫.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৭.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। কলকাতায় বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বাধিক ৯৪ শতাংশ, ন্যূনতম ৬৫ শতাংশ।

আগামীকাল কেরলে বর্ষা ঢোকার কথা। আর এ রাজ্যে তার ৭-১০দিন পর বর্ষা আসবে।  


বর্ষা স্বাভাবিক এ বছর

সম্প্রতি বেশ কয়েকটি ঝড় হয়ে গিয়েছে পশ্চিমবঙ্গে, তার মধ্যে ভয়ঙ্কর ইয়াস তো রয়েইছে। গত কয়েকদিন ধরে মাঝে মধ্যেই বৃষ্টি হচ্ছে এবং নিয়মিত হারে বাংলার বিভিন্ন প্রান্তে বিশেষ করে উত্তরবাংলায় । আবহাওয়া দপ্তর প্রাপ্ত খবর এ বছর সময়ের আগেই বর্ষা আসতে চলেছে বর্তমান অবস্থা তাই প্রমান করে । যদিও ইয়াস ঝড়ে পূর্ব মেদিনীপুর সহ দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ফসলের বেশ ক্ষতি হলেও শেষ পর্যন্ত এই বৃষ্টির পরিমান বাংলায় যথেষ্ট ফসল ফলবে । করোনা আবহে কৃষকরা চিন্তায় ছিল । কিন্তু বৃষ্টির ধরন এবারে শস্য ফলাবে বলেই ধারণা আবহাওয়াবিদদের । তারা জানাচ্ছে নিয়মিত ভাবেই বৃষ্টি হবে এই বছর ।      


প্রাক-বর্ষার বৃষ্টি শুরু বাংলায়, কেমন থাকবে তাপমাত্রা

রাত থেকেই শুরু হয়েছে বৃষ্টি। বইতে পারে ঝোড়ো হাওয়া। কলকাতার পাশাপাশি বৃষ্টি শুরু হয়েছে দক্ষিণবঙ্গ এবং উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন জেলায়ও।  

                                                                                                                                                                                                                                                                      আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে,উত্তর ২৪ পরগণায় ৩০ থেকে ৪০ কিমি বেগে ঝোড়ো হাওয়া এবং হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা। বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টিও হতে পারে।

কেরলে সোমবার ঢুকছে মৌসুমী বায়ু। যার ফলে প্রাক বর্ষার বৃষ্টি শুরু হয়েছে। বঙ্গোপসাগরেও এগিয়ে এসেছে দক্ষিণ পশ্চিম মৌসুমী বায়ু। এর জেরেই আবহাওয়াবিদরা মনে করছেন এবার বাংলায় সময় মতোই প্রবেশ করবে বর্ষা।

আজ সোমবার কলকাতা ও পার্শ্ববর্তী এলাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকবে ৩৫.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সর্বনিম্ম তাপমাত্রা থাকবে ২৬.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি।যা স্বাভাবিকের থেকে ১ ডিগ্রি নীচে। বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বাধিক ৯০ শতাংশ, ন্যূনতম ৬৩ শতাংশ। তবে আগামী দুয়েক দিনে তাপমাত্রা বাড়তে পারে। এমনটাই পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া দফতর।


আগামী কয়েক ঘন্টার মধ্যে আসছে বৃষ্টি

আলিপুর আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস অনুযায়ী,আগামী কয়েক ঘন্টার মধ্যে  কলকাতা, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা, পূর্ব মেদিনীপুর, হাওড়া, হুগলি, পুরুলিয়া, ঝাড়গ্রাম, পশ্চিম মেদিনীপুর, বাঁকুড়া, দুই বর্ধমান, বীরভূম, মুর্শিদাবাদ, নদিয়ার মতো দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। অন্যদিকে সোমবার থেকে দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি সহ প্রায় গোটা উত্তরবঙ্গেই বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টি হতে পারে।

কলকাতায় রবিবারের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে, আর সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি ছিল। গতকাল কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৪.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস আর সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৭.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।  যা স্বাভাবিকের থেকে ১ ডিগ্রি বেশি।