১১ মাস পর ১০০ শতাংশ প্যাসেঞ্জার ট্রেন চালানোর অনুমতি পূর্ব রেলকে

করোনা অতিমারীর জেরে লকডাউনে দীর্ঘ সময় বন্ধ ছিল যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল। এরপর আনলক পর্বে ধাপে ধাপে কিছু ট্রেন চালু করা হলেও পুরোপুরি স্বাভাবিক হয়নি যাত্রীবাহী ট্রেন পরিষেবা। রেলমন্ত্রকের দাবি, সারা দেশে ৬৫ শতাংশ মেল-এক্সপ্রেস ট্রেন চলছে বর্তমানে। বিভিন্ন শাখায় ও রেল জোনে লোকাল ও প্যাসেঞ্জার ট্রেন পরিষেবা শুরু হলেও তা স্বাভাবিক হয়নি এখনও। এরজন্য যাত্রীদের ক্ষোভ তৈরি হচ্ছে বিভিন্ন এলাকায়, বিশেষ করে প্রত্যন্ত অঞ্চলে। পূর্ব রেল সূত্রে খবর, আগামী ১০ দিনের মধ্যে তাঁদের ১০০ শতাংশ প্যাসেঞ্জার ট্রেন চালানোর অনুমতি দিয়েছে রেল বোর্ড।


পূর্ব রেল জানিয়েছে, বর্তমানে তাদের ১৩০টি প্যাসেঞ্জার ট্রেন পরিষেবা দিচ্ছে। আগামী ১০ দিনের মধ্যে আরও ১৭০টি প্যাসেঞ্জার ট্রেন চালু করে দেওয়া হবে। যে সমস্ত শাখায় ট্রেন বাড়বে সেগুলি হল, শিয়ালদা-লালগোলা, আসানসোল-বর্ধমান, আসানসোল-যসিডি, আসানসোল-সাঁইথিয়া, রামপুরহাট-বর্ধমান, রামপুরহাট-বাহারওয়া, অজিমগঞ্জ-কাটোয়া, অজিমগঞ্জ-বাহারওয়া, বর্ধমান-সাহেবগঞ্জ, সাহেবগঞ্জ-তিনপাহাড়, নবদ্বীপ-মালদহ। এই সমস্ত শাখায় খুব কম সংখ্যক ট্রেন চলছিল, বা একেবারেই চালু করা হয়নি কোনও ট্রেন। এবার এই সমস্ত প্যাসেঞ্জার ট্রেনই পুনরায় আগের টাইমটেবিলে চলাচল করবে বলে জানিয়েছেন পূর্ব রেলের কর্তারা। অপরদিকে, স্বল্প দূরত্ব সহ অন্যান্য মেল এক্সপ্রেস ট্রেনও ধাপে ধাপে চালু করছে রেলমন্ত্রক।