TOKIYO OLYMPIC: ৪১ বছর পর সেমিফাইনালে ভারতীয় হকি

এই মুহূর্তে হকিতে বিশ্বের তিন নম্বর ভারত। ক্রমতালিকায় ষষ্ঠ স্থানে ব্রিটেন। কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে পাঁচটি ম্যাচের মধ্যে দুটিতে ড্র করে তারা। ১৯৮৮ সালের পর অলিম্পিক্স হকিতে পদক জেতেনি ব্রিটেন। ২০১২ সালে লন্ডন অলিম্পিক্সে ব্রোঞ্জ পদকের লড়াইয়ে হেরে যায় তারা। এদিকে গ্রেট ব্রিটেনের বিরুদ্ধে জিতলেই সেমিফাইনালে পৌঁছে যাবেন মনপ্রীতরা।

৪১ বছর পর ফের অলিম্পিক্সের সেমিফাইনালে ওঠার সুযোগ ভারতের সামনে। উল্টো দিকে থাকা গ্রেট ব্রিটেনের বিরুদ্ধে ২০১৮ সালের কমনওয়েলথ গেমসে দু’বার মুখোমুখি হয় ভারত। গ্রুপ ম্যাচে ব্রিটেনকে ৪-৩ গোলে হারিয়ে দিলেও ব্রোঞ্জ পদকের লড়াইয়ে ১-২ গোলে হেরে যায় তারা।অলিম্পিক্সে ১৯০টি ম্যাচে জিতেছে ভারত। গ্রুপ পর্বে অস্ট্রেলিয়ার কাছে ১-৭ ব্যবধানে হারতে হলেও বাকি ম্যাচগুলিতে দাপট দেখিয়েছেন মনপ্রীতরা। নিউজিল্যান্ড, আর্জেন্টিনা, স্পেনের মতো দলকে হারিয়ে দিয়েছেন তাঁরা।







এ কোন চানু ?

এবারে ভারতকে গর্বিত করে রৌপ্য পদক জয় জয় করলেন মীরাবাঈ চানু । টোকিও অলিম্পিকে প্রথম সপ্তাহে ভারতের মেডেলের ঘরে একটি রুপা প্রবেশ করলো উত্তর পূর্ব ভারতের চানুর কল্যানে । চানু ভারোত্তোলনে রুপা জয়ের পর রাষ্ট্রপতি থেকে প্রধানমন্ত্রী হয়ে বিভিন্ন মহল থেকে লক্ষ লক্ষ শুভেচ্ছা বার্তা আসতে শুরু করে চানুর কাছে । স্থানীয় রাজ্য প্রশাসন তাঁকে সরকারি চাকরি দেবেন প্রতিশ্রুতি দিয়েছে । এমন কথাও দেওয়াও হয়েছে যে, তাদের সংসারের দারিদ্রর কথা সরকার জানে ।
কিন্তু এরই মধ্যে রুপো জেতা চানুর সংসারের একটি চিত্র টুইটারের মাধ্যমে উঠে এসেছে । সেখানে দেখা যাচ্ছে পরিবারের দু সদস্যের সাথে মাটিতে বসে চানু খাচ্ছেন । ভাত ডাল ও তারকাই এবং কাঁচালঙ্কা । খাওয়ার একটি টেবিল পর্যন্ত তাঁদের নেই তার সং ঘরের দৈন্যতাও ফুটে উঠেছে ছবিতে । সরকার দেখছেন কি ?


দ্বিতীয় ম্যাচে হার মানলেন ভবানী দেবী

অলিম্পিক্সে প্রথম বার ফেন্সিং প্রতিযোগিতায় ভারত। প্রথম ম্যাচে তিউনিসিয়ার প্রতিযোগীকে ১৫-৩ ব্যবধানে হারিয়ে দিয়েছিলেন ভবানী। প্রথম ভারতীয় হিসেবে অলিম্পিক্সে ফেন্সিংয়ে কোনও ম্যাচ জেতার নজির গড়েছিলেন তিনি। কিন্তু পরের ম্যাচেই মুখোমুখি হয়েছিলেন বিশ্বের তিন নম্বর ফেন্সারের। ফ্রান্সের মেনন ব্রুনেটের বিরুদ্ধে লড়াই যে সহজ হবে না তা জানাই ছিল।

তবুও অঘটনের আশায় ছিল ভারত।ব্রুনেটের বিরুদ্ধে শুরুর থেকেই পিছিয়ে ছিলেন ভবানী। তবে শেষের দিকে কিছুটা লড়াইয়ের চেষ্টা করেছিলেন তিনি। ৭-১৫ ব্যবধানে হারতে হয় তাঁকে। ভারতের এক মাত্র প্রতিযোগীর হাত ধরে ফেন্সিংয়ে যে স্বপ্ন দেখছিল ভারত তা থেমে গেল দ্বিতীয় রাউন্ডেই। শেষরক্ষা হলনা,হার মানতে হল ভবানী দেবীকে।

প্রি-কোয়ার্টারে মেরি কম

এবার বক্সারে সুখবর। মহিলাদের ফ্লাই ওয়েট বিভাগে ডমিনিকান রিপাবলিকের মিগুয়েলিনা হার্নান্দেজ গার্সিয়াকে হারিয়ে দিলেন মেরি কম। বিপক্ষকে ৪-১ ব্যবধানে হারিয়ে শেষ ষোলোয় পৌঁছে গেলেন ভারতের এই মহিলা বক্সার। চলতি টোকিও অলিম্পিক্সে পদক জয়ের অন্যতম দাবিদার মেরি। এদিকে শুরুটাও ভাল করলেন তিনি। রবিবার হার্নান্দেজ গার্সিয়াকে হারাতে তাঁকে খুব বেশি বেগ পেতে হয়নি।

যদিও প্রথম দুটি রাউন্ডের পরে দুজনের স্কোর সমান সমান ১৯-১৯ হয়। কিন্তু এরপর নিজেকে অন্য উচ্চতায় নিয়ে যান মেরি। শেষ পর্যন্ত ৪-১ ব্যবধানে ম্যাচ জিতে নেন মেরি। রবিবাসরীয় দিনে জমজমাট টোকিও অলিম্পিকের ম্যাচ। পড়ি কোয়ার্টারে এবার বক্সার মেরি কম।

টোকিও অলিম্পিকে রুপো জিতলেন মীরাবাই চানু

এবার টোকিও অলিম্পিকে প্রথম ভারতীয় পদক পেলেন মীরাবাই চানু। ভারোত্তলনে ভারতের একমাত্র প্রতিনিধি ছিলেন তিনিই। টোকিও অলিম্পিক্সে পদকের খাথা খুলতে তাঁর দিকেই তাকিয়ে ছিল সারা দেশ। হতাশ করলেন না চানু। দেশবাসীর প্রত্যাশা পূরণ করে টোকিও অলিম্পিক্স থেকে ভারতকে প্রথম পদক এনে দিলেন তিনি। মহিলাদের ৪৯ কেজি বিভাগে রুপো জিতলেন মীরাবাঈ। ম্যাচে প্রথম প্রচেষ্টায় ৮৪ ও দ্বিতীয় প্রচেষ্টায় তিনি ৮৭ কেজি ভরোত্তলন করেন তিনি। তৃতীয় প্রচেষ্টায় ৮৯ কেজির জন্য ঝাঁপিয়েছিলেন। যদিও সফল হননি। যদিও করোনা অতিমারিতে এই মীরাবাই অনেকটা ধাক্কা খেয়েছিলেন। কিন্তু এই টোকিও অলিম্পিকে চানুর একেবারের  বাজিমাত।

এক নম্বরে সৌরভ

প্রতীক্ষার অবসান। করোনার জন্য এক বছর পিছিয়ে যাওয়ার পর অবশেষে শুরু হয়েছে টোকিও অলিম্পিক্স। উদ্বোধনী দিনে তিরন্দাজির লড়াই দিয়ে অলিম্পিকে যাত্রা শুরু করেছে ভারতের। শনিবার সরকারিভাবে গেমসের প্রথম দিন হিসেবে চিহ্নিত হচ্ছে। প্রথম দিনেই পদক জয়ের সম্ভাবনা নিয়ে লড়াইয়ে নামছেন ভারতীয় অ্যাথলিটরা।

চতুর্থ সিরিজে ১০০ পয়েন্ট তুলে নিলেন সৌরভ। তাঁর স্কোর ৩৯১।তিনি আপাতত এক নম্বরে রয়েছেন।চতুর্থ সিরিজে ১০০ পয়েন্ট তুলে নিলেন সৌরভ। তাঁর স্কোর ৩৯১। তিনি আপাতত এক নম্বরে রয়েছেন।প্রথম তিনটি সিরিজে সৌরভের সংগ্রহ যথাক্রমে ৯৫, ৯৮, ৯৮। সাকুল্যে ২৯১ পয়েন্ট সংগ্রহ করেছেন তিনি।



নবম স্থানে দীপিকা

 করোনা আতঙ্ক গ্রাস করেছে। আর তার মাঝেই  শুক্রবার শুরু হল টোকিও অলিম্পিক। প্রথম দিনেই যদিও শুরুটা খারাপ করলেন ভারতীয় তিরন্দাজ তথা বিশ্বের এক নম্বর দীপিকা কুমারী। রাঙ্কিং রাউন্ডে ৬৬৩ পয়েন্ট নিয়ে নবম স্থানে শেষ করলেন তিনি। ফলে 1/32 elimination রাউন্ডে তাঁর সামনে ভূটানের কর্মা। কিন্তু কোয়ার্টার ফাইনালেই মুখোমুখি হবেন কোরিয়ার আন সানের।

যিনি  তিরন্দাজির এই রাউন্ডের শুরুতেই ২৫ বছরের পুরনো রেকর্ড ভেঙে দিয়ে প্রথম স্থান পেয়েছেন। অর্জন করেছেন ৬৮০ পয়েন্ট। যা কিনা অলিম্পিকের ইতিহাসে তিরন্দাজিতে রেকর্ডও। ফলে শুরুতেই কঠিন লড়াই দীপিকার সামনে। শুক্রবার অর্থাৎ আজ ভারতীয় সময় বিকেল সাড়ে চারটে নাগাদ সাদামাটা উদ্বোধনী অনুষ্ঠান দিয়েই শুরু হবে টোকিও অলিম্পিক। যেখানে মার্চ পাস্টে অনেক দেশই ন্যূনতম প্রতিযোগীকে পাঠাতে চলেছে। ভারত থেকে থাকতে চলেছেন ৬ জন আধিকারিক এবং ১৮ জন প্রতিযোগী। তবে করোনার কথা মাথায় রেখেই চলছে এই টোকিও অলিম্পিক।




টোকিও অলিম্পিক নিয়ে বিতর্কের ঝড়

এবছরের অলিম্পিক্সের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পরদিনই যাঁদের ইভেন্ট রয়েছে তাঁদের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে না থাকার কথা জানান হয়েছে। নিজেদের অনুশীলনে মনোনিবেস করার কথা বলা হয়েছে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান মাঝরাত পর্যন্ত চলতে পারে। ক্রীড়াবিদদের অনুশীলনের পর বিশ্রাম নেওয়ারই পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। ভারত থেকে মোট ১২৭ জন এবারের অলিম্পিক্সে অংশ গ্রহন করছে। কোচ, সাপোর্ট স্টাফ ও আধিকারিক মিলিয়ে ভারতীয় কনটিনজেন্টে রয়েছেন ২২৮ জন।

শুটার, তিরন্দাজ, বক্সার, ভারতের পুরুষ ও মহিলা হকি দলের খেলা রয়েছে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পরদিন। মার্চপাস্টে ভারতের পতাকা বহনের ভার পেয়েছেন এমসি মেরি কম ও মনপ্রীত সিং। মেরির ইভেন্ট না থাকলেও শনিবার মনপ্রীতের নেতৃত্বে ভারতের হকি দলের খেলা রয়েছে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে। কর্তারা জানিয়েছেন, কোয়ারান্টিনে থাকা অ্যাথলিটরা যেন উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে না থাকেন। এরফলে শুটিং-এর বহু প্রতিযোগি এবারের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে থাকতে পারবেন না।