অস্ট্রেলিয়ান ওপেন জিতলেন ‘জাপানি ডল’ ওসাকা

প্রত্যাশা মতোই অস্ট্রেলিয়ান ওপেন টেনিস টুর্নামেন্ট জিতলেন নাওমি ওসাকা। ফাইনালে তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী টুর্নামেন্টের ২২তম বাছাই জেনিফার বার্ডিকে স্ট্রেট সেটেই হারিয়ে চ্যাম্পিয়ান হলেন ‘জাপানি ডল’। সেমিফাইলানে হট ফেবারিট সেরেনা উইলিয়ামসকে হারিয়েছিলেন ওসাকা। তখনই বোঝা গিয়েছিল তাঁর হাতেই উঠতে চলেছে অস্ট্রেলিয়ান ওপেন। সেই অনুমান সত্যি প্রমান করে ওসাকা জেনিফার বার্ডিকে এক ঘন্টার কম সময়ে হারিয়ে দিলেন। ৬-৪, ৬-৩ সেটে জিতলেন ফাইনাল ম্যাচ। এই টুর্নামেন্ট ধরে মোট চারটি গ্র্যান্ডস্লাম খেতাব জিতলেন তিনি। আর এটা তাঁর দ্বিতীয় অস্ট্রেলিয়ান ওপেন। জেতার পর তাঁর ট্রেনারদের কৃতিত্ব দিলেন। পাশাপাশি বললেন, যে কোনও গ্র্যান্ড স্লাম খেলাটাই বিরাট ব্যাপার। সেটা খেলতে নেমে যদি ট্রফিটা জিতি, আরও তৃপ্তি পাই। এই মুহুর্তে বিশ্বের দুই নম্বর মহিলা টেনিস খেলোয়ার নাওমি ওসাকা। 

প্রয়াত প্রাক্তন টেনিস তারকা আখতার আলি

প্রয়াত হলেন টেনিস খেলোয়াড় আখতার আলি। বয়স হয়েছিল ৮১ বছর। রবিবার ভোরে ঘুমের মধ্যেই মারা গেলেন প্রাক্তন এই টেনিস তারকা। হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন আখতার আলি। কলকাতায় হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়ে মেয়ের বাড়িতে গিয়েছিলেন তিনি। সেখানেই মৃত্যু হয় তাঁর। পঞ্চাশ থেকে ষাটের দশকে আখতার ছিলেন ভারতীয় ডেভিস কাপের নিয়মিত খেলোয়াড়। টুর্নামেন্টে তাঁর জয়ের রেকর্ড ৯-২। সিঙ্গলস ও ডাবলসে তিনি খেলেছেন টেনিস কিংবদন্তি রামনাথ কৃষ্ণণ, নরেশ কুমার, প্রেমজিৎ লাল, জয়দীপ মুখার্জির সঙ্গে। ১৯৫৫ সালে জুনিয়র ন্যাশনাল চ্যাম্পিয়নশিপ জিতেছিলেন, পৌঁছেছিলেন জুনিয়র উইম্বলডনের সেমি ফাইনালে। অবসরের পর তিনি রমেশ কৃষ্ণন, বিজয় অমৃতরাজ, লিয়ান্ডার পেজ, সোমদেব দেববর্মণ, সানিয়া মির্জাদের কোচ হিসেব কাজ করেছেন। তাঁর পুত্র জিশান আলি প্রাক্তন জাতী.য় চ্যাম্পিয়ন।