সঞ্চালক সৌরভ অতিথি অমিতাভ

কৌন বনেগা কোরোরপতি শুরু হয়েছিল ২০০০ এর গোড়ায় । রামায়ণ  মহাভারতের পর অমিতাভ শো জনপ্রিয়তার শীর্ষে গিয়েছিলো । ওই সময় অমিতাভের প্রচন্ড অর্থাভাব দেখা গিয়েছিলো, এই শো তাঁকে আবার পুনর্বাসন দেয় । ফের শুরু হয়েছে কোরোরপতি শো । কিন্তু ভিন্ন স্বাদে । আসলে কোনও টিভি শো দীর্ঘদিন একই মাত্রা রাখতে পারে না তাই জনপ্রিয়তায় ভাটা পড়বেই অন্তত আজকের নেট জগৎ জনপ্রিয় হওয়াতে দেশের সমস্ত রিয়ালিটি শো থেকে সিরিয়াল মার্ খাচ্ছে । তাই নতুন নতুন ভাবনা নিয়ে সিরিয়াল প্রযোজকরা শোএর প্রস্তুতি নিচ্ছেন ।

অমিতাভ যেমন কুইজ মাস্টার হয়ে বলেছিলেন, সিদ্ধার্থ বসু না থাকলে এই শো তিনি উৎরাতে পারতেন না । তাই সিদ্ধার্থকে একটি শোয়ে নিয়ে সাদামাঠা তাঁর সাক্ষাৎকার নিয়েছেন অমিতাভ । এবারে আরও চমক পরবর্তী শোতে অমিতাভ বসছেন অতিথির আসনে এবং কুইজ মাস্টার হয়ে তাঁকে প্রশ্ন করছেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় । অমিতাভের সঙ্গী থাকছেন বীরেন্দ্র শেহবাগ । একটির পর একটি প্রশ্ন করে অমিতাভকে টেনশনে ফেলে দিচ্ছেন সৌরভ । বাণিজ্যের ভাবনার কাছে কি পরাজিত প্রতিভা, প্রশ্ন দর্শকদের ।

Sourav Ganguly: করোনায় আক্রান্ত এবার সৌরভ-জননী!

এবার করোনায় আক্রান্ত হলেন সৌরভ গাঙ্গুলির চট্টোপাধ্যায়ের মা নিরূপা চট্টোপাধ্যায়। এদিকে সোমবার গভীর রাতে আলিপুরের ওই বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয় তাঁকে। অল্প শ্বাসকষ্ট থাকায় প্রয়োজনে মিনিটে ১ থেকে ২ লিটার অক্সিজেন দিতে হচ্ছে তাঁকে। তবে হাসপাতাল সূত্রে খবর, আপাতত স্থিতিশীল রয়েছেন তিনি।

ভোররাত পর্যন্ত মায়ের অসুস্থতার জন্য ওই বেসরকারি হাসপাতালেই ছিলেন সৌরভ। করোনা  পরীক্ষা করা হয় সৌরভেরও তবে তার রিপোর্ট নেগেটিভ হয়েছে। নিরূপা দেবীর যদিও হৃদরোগ ও নার্ভের সমস্যা ছিল.  যদিও সোমবার রাতেই রক্ত-সহ একাধিক শারীরিক পরীক্ষা করানো হয়েছে তাঁর।

হাসপাতাল সূত্রে বলা হচ্ছে, নিরূপা আপাতত ‘স্থিতিশীল’ রয়েছেন। তাঁকে মেডিক্যাল বোর্ড পর্যবেক্ষণে রেখেছে। বেশকয়েদিন ধরেই তিনি নান শারীরিক সমস্যায় ভুগছিলেন। এরপর সোমবার প্রবল জোর ও শ্বাসকষ্ট ওঠে. যদিও তৎক্ষণাৎ তাঁকে হাডিসপাতালে ভর্তি করানো হয়. তবে হাসপাতালের তরফে জানানো হয়েছে,আপাতত স্থিতিশীল রয়েছেন তিনি। 


লর্ডসে উষ্ণ অভ্যর্থনা সৌরভকে

জীবনের প্রথম টেস্ট ম্যাচ সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় খেলেছিলেন লর্ডসে এবং পেয়েছিলেন শতরান । ব্রিটিশদের একটি বিষয়ে ভীষণই গোড়া তা হচ্ছে তাদের দেশের রাজধানী লন্ডনে এবং প্রধান ক্রিকেট মাঠ লর্ডসে কেউ ভালো খেললে তাঁকে প্রচারের আলোয় নিয়ে আসা হয় এবং চিরকাল সমাদৃত হন ইংল্যান্ডে । ভারত ইংল্যান্ডের দ্বিতীয় টেস্টে লর্ডসে এসে উপস্থিত হলেন বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় । তাঁকে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানানো হয় । মাঠে বসে দেখলেন কে রাহুলের শত রান এবং ওপেনিং জুড়িদার রোহিত শর্মার অসাধারণ ব্যাটিং ।

কমেন্ট্রি বক্সে অনেকেই সৌরভের ব্যাটিংয়ের সমালোচনা করেছেন বিশেষ করে রবি শাস্ত্রী কিন্তু ব্যতিক্রম অনেকেই ছিলেন । এদের মধ্যে ঠোটকাটা জেফ্রি বয়কটও রয়েছেন । বয়কটের মুখ থেকে চট করে প্রশংসা বের হয় না । তিনি ইয়র্কশারের মানুষ এবং ওখানকার মানুষ ভীষণই গোড়া । সেই জেফ বয়কট চিরকাল সৌরভের প্রশংসা করেছেন এবং তাঁকে 'প্রিন্স অফ কলকাতা' বলে ডাকতেন । সেই বয়কটের সঙ্গে বহুদিন বাদে লর্ডসে দেখা সৌরভের । দুজনেই দুজনকে দেখে আপ্লুত হন । দীর্ঘ সময় আড্ডাও হয় মাঠে ।


সৌরভের আজব যুক্তি

সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় সর্বকালের অন্যতম সেরা ক্রিকেট বিশেষজ্ঞ । খেলা ছাড়াও কমেন্ট্রি বা লেখালেখিতেও সিদ্ধহস্ত তিনি । বর্তমানে ভারতীয় ক্রিকেটের সর্বময় কর্তা । ইদানিং ভারতীয় ক্রিকেটে ভুল ত্রুটি হলেও মুখে কুলুপ আঁটছেন কিংবা ত্রুটির সপক্ষে কথা বলছেন । অনেকেই বলছেন সৌরভ নয় আসলে বোর্ড চালাচ্ছেন অমিত শাহ পুত্র জয় । এই জয়ের ক্রিকেট খেলা নিয়ে কোনও ধ্যান ধারণাই নেই কিন্তু গদি আগলে বসে আছেন কারণ তাঁর বাবা অমিত শাহ জানাচ্ছেন ক্রিকেটপ্রেমীরা ।

সম্প্রতি পরিবার নিয়ে ক্রিকেট সফর করার বিষয়ে কিছু বিধি নিষেধ থাকলেও শোনা যায় সৌরভের কল্যানে অনেকেই স্বপরিবারে ইংল্যান্ডে গিয়েছেন । টেস্ট ক্রিকেটের ফাইনালে ভারত নিউজিল্যান্ডের কাছে পরাজিত হওয়ার পর ভারতীয় দল ইংল্যান্ডেই থেকে যায় । অনেকেই পরিবার নিয়ে বেড়াতে যান আবার অনেকেই উইম্বলডন টেনিস কিংবা ইউরো কাপ ফুটবল মাঠে যান । এখানেই ঋষভ পন্থ এবং আরও এক ক্রিকেটার করোনার কবলে পড়েন । জানা যায় ঋষভের মুখে মাস্ক ছিল না । যথেষ্ট অপরাধের । কিন্তু সৌরভ ঋষভের পশে দাঁড়িয়েছেন এবং বলেছেন , সবসময়ে মুখে মাস্ক পরে থাকা যায় নাকি ? আজব যুক্তি বোর্ড প্রেসিডেন্টের, সমালোচনার মুখে মহারাজ ।

এবার সিনেপর্দায় সৌরভ

ভারতীয় ক্রিকেটের মহারাজ সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের এবার জীবনচিত্র তৈরী হতে পারে। যদিও এই চরিত্রে অভিনয়ের কথা বলা হয়েছে রিত্তিক রোশনকে। তবে এবার নাম উঠে আসছে রণবীর কাপুরের। ভায়াকম প্রোডাকশন বিশাল বাজেট নিয়ে নামছে সৌরভের বায়োপিক করার জন্য। অভিষেক টেস্টে সেঞ্চুরি থেকে ন্যাটওয়েস্ট জয়ের পর লর্ডসের গ্যালারিতেই জামা খুলে ওড়ানো। এমন একটা সময়ে সৌরভ অধিনায়কের দায়িত্ব নিয়েছিলেন, যখন ভারতীয় ক্রিকেট রীতিমতো টালমাটাল অবস্থার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছিল।

সৌরভের হাত ধরে ভারতীয় ক্রিকেটের উত্তরণ। ভারতীয় ক্রিকেটের অন্যতম সেরা অধিনায়কের বায়োপিক. ভারতের বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক মহেন্দ্র সিংহ ধোনিকে নিয়ে জীবনচিত্র নজর কেড়েছিল। অভিনয় করেছিলেন প্রয়াত অভিনেতা সুশান্ত সিংহ রাজপুত। কপিল দেবের জীবনচিত্রও তৈরি হচ্ছে। অভিনয় করবেন রণবীর সিংহ। মিতালী রাজকে নিয়ে তৈরি হতে চলা জীবনচিত্রে অভিনয় করবেন তাপসী পান্নু। কাজ চলছে ঝুলন গোস্বামীর জীবনচিত্র নিয়েও। সেখানে অভিনয় করার কথা অনুষ্কা শর্মার। তবে এবার জোর জল্পনায় সৌরভের বায়োপিক নিয়ে।

সৌরভ কি রাজ্যসভায় যাচ্ছেন ?

৮ জুলাই ছিল প্রিন্স অফ কলকাতা সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের ৪৯ তম জন্মদিন । ওই দিন হঠাৎ ই তাঁর বাড়িতে গিয়ে শুভেচ্ছা জানান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । অবশ্য মমতা জানিয়েছেন যে প্রতি বছর সৌরভকে তিনি শুভেচ্ছা বার্তা জানান কিন্তু এবারে নিজেই গিয়ে উপস্থিত হলেন তাঁর বাড়িতে । স্বাভাবিক ভাবেই আপ্লুত গাঙ্গুলি পরিবার । তারপরেই জমে ওঠে 'চা' সহযোগে আড্ডা । এইবারে প্রশ্ন উঠেছে হটাৎ মুখ্যমন্ত্রী কেন হাজির হলেন 'দাদা'র বাড়িতে ।

সৌরভকে বিজেপির কেন্দ্র নেতৃত্ব এবারের নির্বাচনে মুখ্যমন্ত্রীর মুখ করতে চেয়েছিলো বলে গুঞ্জন । সৌরভ নাকি নানান কারণ দর্শিয়ে এই আহ্বান থেকে নিজেকে সরিয়ে নেন । এমনও শোনা গিয়েছিলো স্বয়ং মোদি, শাহরাও উৎসাহী হয়েছিলেন মহারাজকে সিংহাসনে বাসাতে । প্রতিবারই বিজেপি ব্যর্থ হয়েছিল । স্বাভাবিক ভাবে এতে খুশি তৃণমূল হাই কম্যান্ড । এবারে কি তারই পুরস্কার পেতে চলেছেন সৌরভ ? সোশ্যাল নেটে এমন বার্তাই ছড়িয়ে পড়েছে । স্বয়ং বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ জানিয়েছেন, এমন কিছু হলে তাঁদের আপত্তি নেই । দিলীপবাবুর ধারণা মুখ্যমন্ত্রী নিশ্চিত কোনও বার্তা নিয়েই সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের বাড়িতে গিয়েছিলেন এবং তা রাজ্যসভার শূন্য দুই আসনের একটি সৌরভের জন্য ।

সৌরভ-র বাড়িতে মমতা

কলকাতাঃ সৌরভকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানাতে তার বেহালার বাড়িতে যান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন ৪৯ বছরে পা দিলেন বিসিসিআই সভাপতি তথা প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়।

বিস্তারিত আসছে --

রবি শাস্ত্রীর বিদায় আসন্ন

খেলোয়াড় হিসাবে প্রতিভাবান ছিলেন না রবি শাস্ত্রী, বলেছেন ভারতে প্রথম বিশ্বকাপ জয়ী কপিলদেব | কপিলের কথাকে শ্রদ্ধা জানিয়ে বলা যায় প্রতিভা না থাকলেও পরিশ্রমী খেলোয়াড় ছিলেন তিনি এবং ক্রিকেট বুদ্ধি ছিল ক্ষুরধার | এর কারণেই দুবার ভারতের অধিনায়ক হয়েছিলেন এনং পরবর্তীতে ভাষ্যকার এবং কোচের দায়িত্বও পেয়েছেন | রবির দুর্ভাগ্য আন্তর্জাতিক ট্রফি জেতার বিষয়ে তাঁর ভাগ্য বিরূপই  থেকেছে |

এবারে তাঁর সঙ্গে ভারতীয় বোর্ডের চুক্তি শেষ হচ্ছে | বোর্ড সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের সাথে চিরকালই রবির সম্পর্ক শীতল বলেই শোনা যায় | কমেন্ট্রি বক্সে রবি, সৌরভের ভয়ঙ্কর সমালোচক ছিলেন এবং সৌরভকে নেতৃত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়ার পর আল্হাদিত ছিলেন রবি | ফলে সৌরভের আমলে যে ফের রবি ফিরবেন এমন আশা স্বয়ং রবি শাস্ত্রীও করেন না | কাজেই ফের কমেন্ট্রি বাক্স ?