তবে কি শৈশব হারাচ্ছে স্মার্টফোনে!

এখনকার দিনে স্মার্টফোনের ব্যবহার অনেকাংশে। যদিও বর্তমানে করোনা অতিমারিতে বাড়িতে থাকার দরুন ফোনের ব্যবহার বাড়ছে।এদিকে বাচ্চাদের ওপর বেশি প্রভাব পরছে। তাঁরাও কিন্তু ফেসবুক, হোয়াটসআপ ,ইনস্টাগ্রাম সহ আরও অন্যান্য অ্যাপ ব্যবহারে ঝোঁক বাড়ছে। কিছু দিন আগে পর্যন্ত ছেলেমেয়ের হাতে স্মার্টফোন দেওয়ার সাহস পেতেন না অভিভাবকরাও। কিন্তু করোনায় ‘রোটি-কপড়া-মকান’-এর মতো স্মার্টফোনও প্রাথমিক চাহিদায় পরিণত হয়েছে।

আর ও পড়ুনদিল্লিতে দিদির অপেক্ষায় শতাব্দী

তবে প্রয়োজনে তা যত না ব্যবহার করছে শিশুরা, তার চেয়ে বেশি ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম এবং মেসেজিং অ্যাপগুলির দিকেই তাদের বেশি ঝোঁক। দেশব্যাপী একটি সমীক্ষা তুলে ধরে এমনই জানাল কেন্দ্রীয় নারী ও শিশু কল্যাণ মন্ত্রকের অধীনস্থ জাতীয় শিশু অধিকার সুরক্ষা কমিশন (এনসিপিসিআর)। তাদের দাবি, স্মার্টফোন ব্যবহারের এই বাড়বাড়ন্তে শৈশবের উপর প্রভাব পড়ছে। ইন্টারনেট এবং স্মার্টফোনের সাহায্যে হোয়াটসঅ্যাপ, ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম এবং স্ন্যাপচ্যাটের মতো মেসেজিং অ্যাপ ব্যবহারের দিকে ঝোঁক ৫৯.২ শতাংশ ছেলেমেয়ের। আবার এই করোনা অতিমারিতে স্কুল বন্ধ থাকলে যাবতীয় অনলাইন ক্লাস চলছে। যার ফলে স্মার্টফোনের ওপর নির্ভরশীল হচ্ছে তাঁরা। যারফলে অবসর সময় স্মার্টফোন ঘটার ইচ্ছে বাড়ছে। তবে বাচ্চাদেরকে এই স্মার্টফোন থেকে কিছুটা সরিয়ে রাখা দরকার বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।