করোনাবিধি মেনে খুলছে কফি হাউস

কলকাতা : ফের ছন্দে ফিরছে কফি হাউস। নিয়মবিধি মেনে আবার গল্প করা,আড্ডা,বই পড়া ও খাওয়া দাওয়া করা যাবে। গতবছর প্রথম লকডাউনের পর কফি হাউসের দরজা খোলে। এরপর একাধিক বিধিনিষেধ মেনে চলছিল কফি হাউস। এদিকে  বহু মেনু কাটছাঁট  করা হয়েছিল। বসার জায়গাও কমিয়ে দেওয়া  হয়েছিল। তবে একইভাবে এবছর ও বিধিনিষেধ মেনেই  আগামী সপ্তাহে বুধবার খুলতে চলেছে কফিহাউস। যদিও সময়টা অনেক কম। বিকেল ৫ টা থেকে রাট ৮ টা পর্যন্ত। কিন্তু মানুষ আসতে  পারবে তার পছন্দের জায়গায় ফের। 

তবে আড্ডার ক্ষেত্রে কিছুটা করা নিয়ম জারি থাকবে। এদিকে  ইন্ডিয়ান কফি ওয়ার্কার্স কো-অপারেটিভ লিমিটেডের সেক্রেটারি তপন পাহাড়ি জানিয়েছেন, সরকারি বিধিনিষেধ মেনে খোলা হবে এই কফিহাউস। লকডাউনের জেরে  বন্ধ হয়ে যায়  কফি হাউস। অন্যদিকে সেখানকার কর্মীরা আর্থিক সমস্যায় পড়েছে, তবে এবার খুললে কিছুটা সমস্যা সামাল দেওয়া যাবে। বলা যায় বাঙালি মন, ফের আবার কফি হাউসের দিকেই ছুটবে। 

আগামীকাল থেকে ফের খুলছে তারকেশ্বর মন্দির

হুগলিঃ রাজ্যে কার্যত লকডাউন চলছে। যদিও মুখ্যমন্ত্রীর ভাষায়,এটা কড়া বিধিনিষেধ। করোনার দ্বিতীয় পর্বে এক এক করে বন্ধ হয়ে গিয়েছিল মন্দির-মসজিদ। রাজ্যে করোনা সংক্রমণ কমতে থাকায় ফের ভক্তদের জন্য খুলে দেওয়া হচ্ছে উপাসনালয়।

আগামীকাল থেকে ভক্তদের জন্য খুলছে তারকেশ্বর মন্দির।  কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, সকাল ৭টা থেকে বেলা ১২টা পর্যন্ত ভক্তরা মন্দিরে প্রবেশ করতে পারবেন। কিন্তু এখনই  গর্ভগৃহে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না। তাছাড়া মন্দিরে ঢুকতে মানতে হবে করোনা বিধি।

 করোনার দ্বিতীয় পর্বে  ৯ মে মন্দির চত্বরে বেশ কয়েকজন করোনা আক্রান্ত হন। তার পরই পুরোপুরি বন্ধ করে দেওয়া হয় তারকেশ্বর মন্দির। অবশ্য তার আগে থেকেই অর্থাত্  ১০ এপ্রিল থেকে মন্দিরের গর্ভগৃহে প্রবেশ নিষিদ্ধ হয়।

করোনা বিধি মেনে খুলছে অযোধ্যার সব মন্দির, জানালেন যোগী সরকার

দেশে করোনা  সংক্রমণ কিছুটা কমের দিকে। তবে মিলছেনা এখন ও টিকা। নেই অক্সিজেন। এদিকে হাসপাতালে বেডের সমস্যা দেখা দিচ্ছে। তবে এমত অবস্থায় আগামী ১ জুন থেকে খুলে দেওয়া  হবে অযোধ্যার সব মন্দির। দর্শনার্থীরা  সেখানে প্রবেশ করতে  পারবে। যদিও করোনা বিধি মেনেই দর্শনার্থীরা প্রবেশ করতে পারবে। কড়া নির্দেশ জারি করল উত্তরপ্রদেশের সরকার। মন্দিরে প্রবেশ করতে গেলে অবশ্যই  মাস্ক,স্যানিটাইজার  ব্যবহার করতে হবে।  এছাড়া মন্দিরে ৫ জন করে দর্শনার্থীদের প্রবেশ করতে দেওয়া হবে।  এদিকে সোমবার উত্তরপ্রদেশের যোগী সরকার ৬ জেলায় কারফিউ নির্দেশিকায় কিছুটা পরিবর্তন  আনা হয়েছে। তবে মন্দির খোলা হলেও সমস্ত করোনা  বিধি মেনেই  প্রবেশ করা যাবে। এমনটাই জানালেন যোগী সরকার।