Weather Today: রবিবসরীয় দিনে বৃষ্টিতে ভিজবে কলকাতা, বাড়বে উত্তরবঙ্গে বৃষ্টি

আজ ও কলকাতা ও পার্শ্ববর্তী এলাকায় রবিবারও বিক্ষিপ্ত বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। আলিপুর আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর, হালকা ও মাঝারি ধরণের বজ্রবিদ্যুৎসহ বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে কলকাতা ও বেশ কয়েকটি জেলায়। যদিও সকাল থেকেই ভ্যাপসা গরম.এতে নাজেলা হয়ে পড়ছে মানুষ। তবে বেলা হতেই ফের ভারী বৃষ্টির আশঙ্কা।

এদিকে উত্তরবঙ্গে ও দাপুটে বৃষ্টি চলবে,জানালো আলিপুর হাওয়া অফিস। মূলত  জলপাইগুড়ি, কোচবিহার, আলিপুরদুয়ারে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে৷ সোমবার পর্যন্ত এই জেলাগুলিতে ভারী বৃষ্টির সতর্কতা জারি হয়েছে। বাকি জেলার কোথাও কোথাও বজ্রবিদ্যুৎ-সহ হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে৷ তবে আগামী কয়েকদিন তাপমাত্রার বিশাল কিছু পরিবর্তন হবে না বলেই জানান হয়েছে আলিপুর আবহাওয়া অফিস।

পশ্চিম বর্ধমান এবং বীরভূমের কোথাও কোথাও ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। তবে সোমবার দক্ষিণবঙ্গের কোন জেলাতে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস এখনও পর্যন্ত নেই। এদিকে, মধ্যভারত এবং উত্তর-পশ্চিম ভারতের রাজ্যগুলিতে বৃষ্টির পরিমাণ বাড়বে রবিবার থেকে।তবে এখনই বৃষ্টির থেকে আমজনতার রেহাই নেই। 

Weather Update : আজ ও ভারী বর্ষণ!

 শনিবারও যে আবহাওয়ার হাল একইরকম থাকবে জানাল আলিপুর আবহাওয়া দফতর। IMD-র জানিয়েছে, বিগত ২৪ ঘণ্টায় শহরে গড়ে ৩১ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে। শনিবারও শহর তথা রাজ্যজুড়ে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে বলেই খবর। আলিপুর জানিয়েছে, এদিন মূলত মেঘাচ্ছন্ন থাকবে কলকাতার আকাশ।

বজ্রপাতের সম্ভাবনা রয়েছে শহরে।শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকার কথা ৩২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকবে ২৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি। উল্লেখ্য, শুক্রবার শহরের সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল যথাক্রমে ৩১ ও ২৫.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।উত্তরবঙ্গের বেশ কিছু জায়গাতেও হলুদ সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

যার অর্থ শনিবার উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতেও এদিনও ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। আবহাওয়া দফতরের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি, কালিম্পং, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার, মালদা, উত্তর দিনাজপুর এবং দক্ষিণ দিনাজপুরে এদিন ভারী বৃষ্টিপাত হতে পারে।তবে এখনই বৃষ্টির হাত থেকে রেহাই নেই. 





আদ্রতা বাড়াচ্ছে অস্বস্তি,আজ ও বৃষ্টির সম্ভাবনা

শুক্রবার সকাল থেকেই আকাশের মুখ ভার. কলকাতা এবং তার পার্শ্ববর্তী অঞ্চলের সকাল থেকেই রোদের দেখা নেই। সেই সঙ্গে বাতাসের আপেক্ষিক আর্দ্রতা বেশি থাকার জন্য রয়েছে গুমোট ভাব। ভ্যাপসা গরমে নাজেহাল শহরবাসী। শুক্রবার হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে কলকাতায়। সেই সঙ্গে বৃষ্টি হতে পারে কলকাতার পার্শ্ববর্তী জেলাগুলিতেও।

আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস অনুসারে, কলকাতা এবং তার পার্শ্ববর্তী এলাকার আকাশ আগামী ২৪ ঘণ্টা মেঘে ঢাকা থাকবে। সেই সঙ্গে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ কয়েক দফা বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। ভারী বৃষ্টিপাতের কথা না জানালেও হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি হতে পারে দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে। এদিকে বৃহস্পতিবার উত্তরবঙ্গে দিনভর বৃষ্টি হতে দেখা গেছে। যদিও দক্ষিণবঙ্গেও হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি হয়েছে। তবে কমছেনা গরম. আদ্রতা বাড়ানোর পাশাপাশি চরম অস্বস্তি।

ফের বুধবার ভারী বর্ষণ

উত্তরবঙ্গে ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনার পূর্বাভাস দিল আলিপুর আবহাওয়া দফতর। এই বৃষ্টি আগামী পাঁচদিন চলবে বলে জানানো হয়েছে। এদিকে আবহাওয়া দফতর জানায়, দক্ষিণবঙ্গে আগামীকাল থেকে শুরু হবে অবিরাম বৃষ্টি। আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, ১১ থেকে ১৫ অগস্ট দক্ষিণবঙ্গের সব জেলায় ভারী বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস রয়েছে। তার মধ্যে ১১ এবং ১২ তারিখ বৃষ্টির পরিমাণ বেশি থাকবে পারে বলে জানানো হয়েছে।

যদিও নিম্নচাপের জের বেশকয়েকদিন ধরেই চলছে ভারী বৃষ্টি। এদিকে বৃষ্টিতে ভাসছে গোটা কলকাতা সহ জেলাগুলি। তবে আলিপুর হাওয়া অফিস জানিয়েছেন, এখনই বৃষ্টি থেকে রেহাই নেই. লাগাতার চলবে এই বৃষ্টি। আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস অনুযায়ী, আজ কোচবিহার ও আলিপুরদুয়ারে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। তাছাড়া দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি এবং কালিম্পংয়েও ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। কালিম্পং ও আলিপুরদুয়ারে কমলা সর্তকতা জারি করা হয়েছে। এর পাশাপাশি আগামীকাল থেকে ভারী বৃষ্টি হবে দক্ষিণবঙ্গেও। বৃষ্টির জের সমস্যায় পরবে সাধারণ মানুষ।

আজ ও দক্ষিণবঙ্গে ভারী বৃষ্টির পূর্ভাবাস

গত কয়েকদিন নিম্নচাপের জের লাগাতার বৃষ্টি। রবিবার ও  সকাল থেকেই আকাশের মুখ ভার। কলকাতা-সহ বেশ কিছু জেলায় ইতিমধ্যেই বৃষ্টি শুরু হয়েছে। আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের ১৫টি জেলায় বজ্রবিদ্যুৎ-সহ হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত চলবে।

কলকাতা ছাড়াও বৃষ্টি হবে দুই ২৪ পরগনা, পূর্ব মেদিনীপুর, হাওড়া, হুগলি, পুরুলিয়া, ঝাড়গ্রাম, পশ্চিম মেদিনীপুর, বাঁকুড়া, পূর্ব ও পশ্চিম বর্ধমান, বীরভূম, মুর্শিদাবাদ এবং নদিয়ায়। অন্য দিকে আলিপুরদুয়ার এবং কোচবিহারের দু’এক জায়গায় বজ্রবিদ্যুৎ-সহ ভারী বৃষ্টি হবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর। তবে বৃষ্টি হলেও কমবে না গরম ভাব. এদিকে উত্তরবঙ্গের ভারী বৃষ্টি চলবে। টানা বৃষ্টিতে কলকাতা সহ জেলাগুলিতে জলমগ্ন পরিস্থিতি। নাজেহাল সাধারণ মানুষ।

ফের ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা

উত্তরবঙ্গে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা জানালো আলিপুর আবহাওয়া দফতর। যদিও গত বুধ ও বৃহস্পতিবারের বৃষ্টির জেরে নাজেহাল হয়ে পরে সাধারণ মানুষ। ফের ৪৮ ঘন্টা বৃষ্টির সম্ভাবনা।রবিবার হাওয়া অফিসের তরফে জানানো হয়েছে, কলকাতায় আজ আকাশ আংশিক মেঘলা থাকবে। দু-এক পশলা হালকা বৃষ্টির সামান্য সম্ভাবনাও রয়েছে।

তবে তার মধ্যেও বাড়বে তাপমাত্রা। থাকবে আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তি।এদিন সকালে শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৭.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। শনিবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আগামী ৪৮ ঘণ্টায় উত্তরবঙ্গে ফের হবে বৃষ্টি। যার মধ্যে আগামী ২৪ ঘণ্টায় দার্জিলিং, কালিম্পং, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার, জলপাইগুড়ি জেলায় অতি ভারী বৃষ্টির সর্তকতা জারি করা হয়েছে। এদিকে দক্ষিণবঙ্গে আগামী বুধবার থেকে বাড়বে দক্ষিনবঙ্গে বৃষ্টি। তবে বৃষ্টি হলেও বাড়বে তাপমাত্রা।

ফের বাড়বে বৃষ্টি

বেশকয়েকদিন ধরেই কলকাতা সহ বেশকয়েকটি জেলায় প্রবল বৃষ্টি হচ্ছে। মূলত নিম্নচাপের জের এই বৃষ্টি। বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই কলকাতা সহ লাগোয়া জেলাগুলিতে শুরু হয়েছে ভারী বৃষ্টিপাত। আজ সারা দিন চলবে বৃষ্টি, এমনটাই জানাচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। আজ ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টিপাত হতে পারে পুরুলিয়া, বাঁকুড়া এবং পশ্চিম বর্ধমান এই তিন জেলায়। এমনকী, এই তিন জেলার দু'এক জায়গায় ২০০ মিলিমিটারের বেশি বৃষ্টিপাত হওয়ার সম্ভাবনাও রয়েছে।

এছাড়াও কলকাতা, পশ্চিম মেদিনীপুর,বীরভূম হাওড়া, হুগলি ও পূর্ব বর্ধমান জেলায় মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছে হাওয়া অফিস। শুক্রবার ও বেশকিছু জেলায় ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা। এদিকে শুক্রবার পর্যন্ত সমুদ্রে যাওয়ার নিষেধাজ্ঞা করা হয়েছে। এদিকে দক্ষিণবঙ্গেও বাড়বে বৃষ্টি। যদিও শনিবার থেকে আবহাওয়ার পরিবর্তন হবে এমনটাই জানালা আলিপুর আবহাওয়া দফতর।




মঙ্গলে প্রবল বর্ষণ

আগামীকাল অর্থাৎ বুধবার উত্তর বঙ্গোপসাগরে একটি নিম্নচাপ তৈরি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। যার জেরে মঙ্গলবার থেকে জেলায় জেলায় রয়েছে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস।আগামী ২৯ জুলাই পর্যন্ত চলবে বৃষ্টি।আগামী এক থেকে দু'ঘণ্টার মধ্যেই উত্তরবঙ্গের দু'টি জেলা, কোচবিহার ও উত্তর দিনাজপুরে বজ্রবিদ্যুৎ সহ ভারী বৃষ্টির সতর্কবার্তা জারি করা হয়েছে। এদিকে বুধবার প্রবল নিম্নচাপ তৈরীর স্বভাবনা।

যারফলে কলকাতাসহ আরও অন্যান্য জেলাগুলিতে ভারী বর্ষণের সম্ভাবনা। মঙ্গলবার অর্থাৎ আজও দিনভর জেলাগুলিতে ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা। বৃষ্টি বাড়বে উত্তরবঙ্গের দার্জিলিং, কালিম্পং, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার, জলপাইগুড়ির মতো জেলায়। ওই পাঁচ জেলাতেই সবচেয়ে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে আগামী দু'দিন। তবে নিম্নচাপের জের কি স্বস্তি মিলবে আদৌ।

ফের বঙ্গে নিম্নচাপ

 রাজ্যে ফের নিম্নচাপের ভ্রুকূটি। মঙ্গলবার থেকে ফের রাজ্যে বৃষ্টির  সম্ভাবনা। বুধবার থেকে অতি ভারী বৃষ্টিতে ভাসতে পারে গোটা বাংলা। দক্ষিণবঙ্গের পাশাপাশি উত্তরবঙ্গেও একই আবহাওয়া জারি থাকবে বলেই পূর্বাভাস আলিপুর আবহাওয়া দপ্তরের। এদিকে হাওয়া অফিস সূত্রের খবর, উত্তর বঙ্গোপসাগরে বুধবার একটি নিম্নচাপ তৈরি হতে পারে। তার প্রভাবে দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টি বাড়বে। ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা দক্ষিণবঙ্গের বেশ কয়েকটি জেলায়।

তবে রবি ও সোমবার বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বিক্ষিপ্তভাবে হালকা বৃষ্টির পূর্বাভাস। মঙ্গলবার থেকে বৃষ্টি বাড়বে দক্ষিণবঙ্গে। ওইদিন কলকাতা-সহ উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা, পূর্ব মেদিনীপুর, হাওড়া, হুগলি ও পূর্ব বর্ধমান জেলায় দু-এক পশলা ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা। তবে রাজ্যজুড়ে বৃষ্টি হলেও খানিকটা ভ্যাপসা গরম থাকছেই। এতে কিছুটা অস্বস্তি  বাড়ছে বলা যায়. তবে নিম্নচাপের জের বৃষ্টিতে কিছুটা স্বস্তি মিলবে।

ভারী বৃষ্টির পূর্ভাবাস

শুক্রবার সন্ধ্যার পর থেকে সারা রাত ধরে দফায় দফায় বৃষ্টি হয়েছে কলকাতা ও তার পার্শ্ববর্তী অংশে। ফলে বেশ কয়েকটি জায়গায় জল জমে গিয়েছে। শহরে এই বৃষ্টি চলবে শনিবারও। আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, কলকাতা ও তার পার্শ্ববর্তী অংশে শনিবার বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। শনিবারও এই বৃষ্টির দাপট চলবে বলেই জানিয়েছে আবহওয়া দফতর।

উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে তৈরি নিম্নচাপের জেরে এই বৃষ্টি বলে আবহওয়া দফতর সূত্রে খবর। এদিকে দক্ষিণবঙ্গের একাধিক জেলায় বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। দুই ২৪ পরগনা, হাওড়া, হুগলি, দুই মেদিনীপুর, বীরভূম, বাঁকুড়া, নদিয়া, মুর্শিদাবাদ, পুরুলিয়া, ঝাড়গ্রাম ও দুই বর্ধমানে শনিবার সারা দিনই বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

ভারী বৃষ্টির পূর্ভাবাস

রবিবারেও তাই বৃষ্টি থেকে মুক্তি নেই কলকাতাবাসীর। এদিন সকাল থেকেই শহরের আকাশের মুখভার। দশটা থেকে প্রবল বৃষ্টিতে ভিজছে কলকাতা-সহ রাজ্যের বিভিন্ন জেলা। উত্তরবঙ্গের ছবিও একইরকম। রবিবার এবং সোমবার ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস আলিপুর আবহাওয়া দপ্তরের। দার্জিলিং, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার-সহ পাঁচ জেলায় ভারী বৃষ্টি চলবে সোমবার পর্যন্ত। মূলত সক্রিয় মৌসুমী বায়ুর প্রভাবে বাংলায় প্রবল বৃষ্টি।

রবিবার দিনভর চলবে বৃষ্টি।কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা।আবার কোথাও ভারী বৃষ্টি হতে পারে। বর্ষার শুরুতেই ভালোই বৃষ্টি চলছে শহরজুড়ে। বৃষ্টি হলেও একরকম অস্বস্তিকর আবহাওয়া। তবে সকাল থেকেই বৃষ্টি হওয়ায় স্বস্তি মিলবে শহরবাসীর।

সপ্তাহান্তে বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টি

রাজ্যে ফের বিক্ষিপ্ত বৃষ্টির সম্ভাবনা। আজ ও কাল বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টি চলবে। শনিবার ও রবিবার বজ্রবিদ্যুৎ সহ হালকা বৃষ্টি বিক্ষিপ্তভাবে গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গের জেলাতে। দক্ষিণবঙ্গের  দু-এক জেলায় বৃষ্টি বাড়বে সোমবার থেকে। সোমবার পশ্চিম মেদিনীপুর ঝাড়গ্রাম দু-এক পশলা ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা। মঙ্গলবার মুর্শিদাবাদ ও বীরভূম জেলায় অপেক্ষাকৃত বেশি বৃষ্টি। দু এক পশলা ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা।

এদিকে ঝাড়খণ্ডে ঘূর্নাবাতের জেরে আগামী ৪৮ ঘন্টা বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়া সোমবার থেকে  উত্তরবঙ্গে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা জানালো  হাওয়া অফিস।


ভারী বৃষ্টির পূর্ভাবাস

নিম্নচাপের জের দিনভর চলবে  বৃষ্টি  জানালো আলিপুর আবহাওয়া দফতর। শনি ও রবিবার পর্যন্ত চলবে এই বৃষ্টি। যদিও উত্তরপ্রদেশ-বিহার পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে নিম্নচাপ অক্ষরেখা। পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের ওপর ঘূর্ণাবর্ত। সারাদিনই প্রায় হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা। এদিকে দফায় দফায় বৃষ্টির কারণে শহরের একাধিক জায়গায় জল জমেছে। আলিপুর হাওয়া অফিস জানিয়েছে, রাজেয় ও প্রবল বৃষ্টির সম্ভাবনা।

এছাড়া উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গে ভারী বৃষ্টি চলবে। ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা জলপাইগুড়ি, কোচবিহার, মালদহ, দুই দিনাজপুর, মুর্শিদাবাদ, নদিয়া, দুই ২৪ পরগনা, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, পশ্চিম বর্ধমান ও বীরভূমে। নিম্নচাপের জের বৃষ্টি বাড়বে জানালো আলিপুর হাওয়া অফিস।

রবিবাসরীয় বিকেলে কলকাতা সহ কয়েকটি জেলায় ঝড়বৃষ্টির পূর্বাভাস

বঙ্গোপসাগরে তৈরি হয়ে গিয়েছে নিম্নচাপ, যা ক্রমাগত শক্তি সঞ্চয় করছে। আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই যা পরিনত হবে প্রবল ঘূর্ণিঝড় ‘ইয়াস’ নামে। এরমধ্যেই আলিপুর হাওয়া অফিস জানাল রবিবার বিকেলেই কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গের কয়েকটি জেলায় ঝড়বৃষ্টি হতে পারে। আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, নদিয়া ও পূর্ব বর্ধমান জেলায় হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। সেই সঙ্গে ৩০ থেকে ৪০ কিলোমিটার গতিবেগে হওয়া বইবে। সেই সঙ্গে দুই ২৪ পরগনা এবং কলকাতাতেও হালকা বৃষ্টি হতে পারে। কারণ দক্ষিণবঙ্গের একাধিক জায়গায় তৈরি হয়েছে নিম্নচাপ। তার ফলেই এই বৃষ্টির সম্ভাবনা। আর বঙ্গোপসাগরে তৈরি হওয়া গভীর নিম্নচাপের জেরে আগামী মঙ্গলবার থেকে প্রথমে বাংলার উপকূলীয় এলাকা এবং পরবর্তী সময়ে গোটা দক্ষিণবঙ্গেই ঝড়বৃষ্টি শুরু হবে।