আগামী ৪৮ ঘন্টা নিমতলায় শুধুই করোনায় মৃতদের সৎকার

রাজ্যে ক্রমশ বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। সেই সঙ্গে বাড়ছে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যাও। ফলে শ্মশান বা কবরস্থানগুলিতে চাপও বাড়ছে। এই পরিস্থিতিতে কলকাতার নিমতলা শ্মশানে আগামী ৪৮ ঘন্টা বৈদ্যুকিন চুল্লি বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিল পুরসভা। তবে পুরোপুরি বন্ধ হবে না নিমতলা শ্মশান, এখানে শুধুমাত্র কোভিড মৃতদের দেহই সৎকার করা হবে। সুতরাং নন কোভিড মৃতদেহ শহরের অন্যান্য শ্মশানঘাটে নিয়ে যাওয়ার আর্জি জানিয়েছে পুর কর্তৃপক্ষ।



কলকাতা পুরসভার স্বাস্থ্য বিষয়ক প্রশাসক অতীন ঘোষ জানিয়েছেন, ‘নিমতলার চারটি বৈদ্যুতিক চুল্লিতেই কোভিড দেহ দাহ করা হচ্ছে। মৃতদহের সঙ্গে থাকা প্লাস্টিক গলে সমস্যা তৈরি হচ্ছে। এমনকী, ধোঁয়া নিয়ন্ত্রক যন্ত্রগুলিও সঠিকভাবে কাজ করছে না। তাই বিশেষ রক্ষণাবেক্ষণের কাজ জরুরি হয়ে পড়েছে। উল্লেখ্য নিমতলায় চারটি বৈদ্যুনিন চুল্লিই কোভিডে মৃতদের দেহ দাহ করা হচ্ছিল। কিন্তু সংক্রমণ ঠেকাতে সেই মৃতদেহ প্লাস্টিকে মুড়ে দেওয়া হচ্ছে। সেই অবস্থাতেই চুল্লিতে ঢোকানোর পর প্ল্যাস্টিক গলে যন্ত্রাংশ বিকল হয়ে পড়ছে। অপরদিকে কোভিড দেহ কাঠের চুল্লিতে দাহ করা হয় না। তাই চাপ কমাতে নিমতলায় অন্যান্য মৃতদেহ আপাতত দাহ না করার সিদ্ধান্ত নিল পুর কর্তৃপক্ষ। এর ফলে রতনবাবুর ঘাট এবং ক্যাওড়াতলা শ্মশানঘাটে চাপ বাড়বে।