দশ বছর পর অবশেষে চালু হল নোয়াপাড়া-দক্ষিণেশ্বর মেট্রো

দশ বছরের প্রতীক্ষার অবসান, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির হাতেই নোয়াপাড়া থেকে দক্ষিণেশ্বরের দিকে মেট্রোর চাকা গড়াল। সোমবার বিকেলে ভার্চয়াল মাধ্যমে সবুজ পতাকা নাড়িয়ে কলকাতা মেট্রোর সম্প্রসারিত অংশের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সেই সঙ্গেই দক্ষিণেশ্বর মেট্রো স্টেশন থেকে প্রথম মেট্রো রেকটি রওনা দিল নোয়াপাড়ার দিকে। যদিও এই ট্রেনে সাধারণ যাত্রী ছিল না। রেলের আধিকারিক কর্মীদের নিয়েই ছুটল এই লাইনে প্রথম মেট্রো। তবে আগামীকাল অর্থাৎ মঙ্গলবার সকাল থেকেই সাধারণ যাত্রীদের নিয়ে ছুটবে কবি সুভাষ থেকে দক্ষিণেশ্বরগামী মেট্রো। এদিন হুগলির সাহাগঞ্জে একটি দলীয় সভায় ভাষণের পর রেলের একটি সরকারি অনুষ্ঠানে হাজির হন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এখান থেকেই তিনি রেলের একাধিক প্রকল্পের উদ্বোধন করেন।


দক্ষিণেশ্বর থেকে নোয়াপাড়া পর্যন্ত ৪.১ কিলোমিটার পর্যন্ত সম্প্রসারিত মেট্রোপথের উদ্বোধনের পর প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশে যোগাযোগ ব্যবস্থা যত ভাল হবে আত্মনির্ভরতা ততই মজবুত হবে। তিনি আরও বলেন, সড়কপথে দক্ষিণেশ্বর থেকে নিউ গড়িয়া পর্যন্ত যেতে যেখানে আড়াই ঘন্টার বেশি সময় লাগে, সেখানে এই মেট্রো পথে মাত্র ১ ঘন্টা লাগবে। পাশাপাশি তিনি বলেন, পশ্চিমবঙ্গে রেলের প্রকল্পগুলিতে কৃষি অঞ্চলের সঙ্গে শিল্পাঞ্চলের যোগাযোগ বাড়বে। মহারাষ্ট্র থেকে শালিমার পর্যন্ত কিষান রেলের প্রসঙ্গ তুলে ধরে তিন এই অঞ্চলের কৃষকদের সুবিধার কথা উল্লেখ করেছেন।

নোয়াপাড়া-দক্ষিণেশ্বর মেট্রোর উদ্বোধন সোমবার, দেখে নিন সূচি

সোমবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি উদ্বোধন করবেন নোয়াপাড়া থেকে দক্ষিণেশ্বর পর্যন্ত সম্প্রসারিত নতুন মেট্রো পথের। হুগলির ডানলপ ময়দান থেকে রিমোর্টের মাধ্যমেই উদ্বোধন করবেন তিনি। তবে সোমবার উদ্বোধন হলেও সাধারণ যাত্রীদের নিয়ে এই পথে মেট্রো ছুটবে মঙ্গলবার থেকে। ওই দিন থেকেই নিউ গড়িয়া থেকে সরাসরি মেট্রো পৌঁছাবে দক্ষিণেশ্বরে। কলকাতা মেট্রো সূত্রে জানানো হয়েছে, কাজের দিনে দৈনিক ২৪৪টি ট্রেন পৌঁছাবে দক্ষিণেশ্বরে। আর শনিবার বা ছুটির দিনে চলবে ২২৮টি ট্রেন। অফিস টাইমে ৬ মিনিট অন্তর চলবে মেট্রো। দুরত্ব বাড়লেও সর্বোচ্চ ভাড়া বাড়ছে না। নোয়াপাড়া থেকে দক্ষিণেশ্বরের মধ্যে থাকছে মাত্র একটি স্টেশন, সেটি বরাহনগর। সাধারণ নিত্যযাত্রীদের মতে, এই রুটে মেট্রো চালু হলে সুবিধা হবে বিস্তৃর্ণ এলাকার বাসিন্দাদের। কারণ অফিস টাইমে আর বাদুড়ঝোলা হয়ে লোকাল ট্রেন ধরে দমদম আসতে হবে না ব্যারাকপুর শিল্পাঞ্চলের মানুষদের। বিটি রোড ধরে সহজেই বরাহনগর বা দক্ষিণেশ্বরে গিয়ে মেট্রো ধরে গন্তব্যে পৌঁছাতে পারবেন অফিসযাত্রীরা।

দেখে নিন পূর্ণাঙ্গ সময়সূচি…

সোম থেকে শুক্র কাজের দিনে-