ফের ড্রোন হামলা জম্মুতে

জম্মু ও কাশ্মীরের আবারও আকাশে উড়তে দেখা গেল পাকিস্তানি ড্রোন। তবে এবার ড্রোনটি পালাতে পারেনি। পুলিশের গুলিতে ড্রোনটি মাটিতে পড়ে যায়। ঘটনাটি ঘটেছে জম্মুর কানাচকে। সেই ড্রোনের সঙ্গে লাগানো পাঁচ কেজি বিস্ফোরক উদ্ধার হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। অপর এক ঘটনায় কাশ্মীরের সোপোরে সারা রাত ধরে এনকাউন্টার চলে। সেই গুলির লড়াইতে খতম করা হয়েছে ২ জন লস্কর-ই-তৈবা কমান্ডার। মৃত জঙ্গিদের কাছ থেকে অত্যাধুনিক অস্ত্রশস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।

যদিও বুধবার সাতওয়ারি এলাকায় একটি সন্দেহজনক ড্রোনকে উড়তে দেখা গিয়েছিল। তারও আগে ১৬ জুলাই জম্মু বিমান ঘাঁটির আশেপাশে ফের ড্রোন উড়ছিল বলে অ্যান্টি-ড্রোন রাডারে ধরা পড়েছিল। বর্তমানে জম্মুতে মোট তিনটি অ্যান্টি-ড্রোন রাডার বসিয়েছে ন্যাশনাল সিকিউরিটি গার্ড। জম্মুতে এবং দেশের কোনও বিমান ঘাঁটিতে যাতে কোনও ভাবে ড্রোন হামলা না চালানো যায়, তার জন্যে যথাযথ পদক্ষেপ নিচ্ছে সরকার।

জম্মুর আকাশে ফের ড্রোন

সোমবার জম্মু বায়ুসেনা ঘাঁটিতে ড্রোন হামলার পর ফের মঙ্গলবার অর্থাৎ আজ জম্মুর তিন জায়গায় ড্রোন উড়তে দেখা গিয়েছে বলে পুলিশ সূত্রে খবর। কুঞ্জওয়ানি, সাঞ্জোয়ান এবং কালুচকে মধ্যরাতে এই ড্রোন লক্ষ্য করে সেনা। কিছু ক্ষণের মধ্যেই সেগুলো গায়েব হয়ে যায়। যদিও ড্রোন হামলার তদন্তভার দেওয়া হল জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা এনআইএর হাতে। এই হামলার পেছনে করা জড়িত, এছাড়া কোথা থেকে এই হামলা পরিচালনা করা হয়েছে,তা সবকিছু তদন্ত করে দেখবে এনআইএ।

এদিকে শনিবার মধ্যরাতে পর পর দু’টি বিস্ফোরণ হয় জম্মুর সামরিক ঘাঁটিতে। এই ঘটনায় বায়ুসেনার দুই জওয়ান সামান্য আহত হয়েছেন। এই ঘটনার পরই রাজৌরি, পুঞ্চ এবং পঞ্জাবের পঠানকোটে চূড়ান্ত সতর্কতা জারি করা হয়। এই প্রথম দেশে ড্রোনের মাধ্যমে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটল। তবে এই বিষয়ে সমস্তকিছু খতিয়ে দেখা হবে জানানো হয় ।