ফের ডেল্টার দাপট, সংক্রমণ বাড়ছে শিশুদের

করোনার নয়া প্রজাতি ডেল্টার দাপট বাড়ছে ক্রমশই। তবে গত কয়েক সপ্তাহে বদলেছে ছবিটা। এদিকে স্কুল খোলার মুখে শিশুদের মধ্যে বাড়ছে সংক্রমণ। এর জন্য ডেল্টা স্ট্রেনের দাপট এবং ১২ বছরের কমবয়সিদের টিকা না-পাওয়াকেই দায়ী করছেন বিশেষজ্ঞরা। যদিও ১২ বছরের কমবয়সিদের উপরে পরীক্ষা চালাচ্ছে মডার্না ও ফাইজ়ার। ফাইজ়ার জানিয়েছে, ৫ থেকে ১১ বছর বয়সিদের পরীক্ষার তথ্য মিলবে সেপ্টেম্বর নাগাদ। তার পরে হাতে আসবে ২ থেকে ৫ বছরের শিশুদের ফলাফল।

যারা আরও ছোট, অর্থাৎ ৬ মাস থেকে ২ বছর বয়সি শিশুদের উপরে পরীক্ষা-পর্বের তথ্য মিলবে অক্টোবর বা নভেম্বর নাগাদ। দ্য আমেরিকান অ্যকাডেমি অব পেডিয়াট্রিকস (আপ) জানিয়েছে, শুধুমাত্র ৮-১৫ জুলাইয়ের মধ্যে ২৩,৫৫০টি শিশুর দেহে নতুন করে সংক্রমণ ধরা পড়েছে। যা জুনের শেষার্ধের পরিসংখ্যানের প্রায় দ্বিগুণ। যদিও আপের মতে, শিশুদের মধ্যে গুরুতর অসুস্থ হওয়ার হার খুবই কম। আমেরিকায় ১২ বছরের কমবয়সিদের টিকাকরণ এখনও শুরু হয়নি। সুতরাং এ বছরের মধ্যে শিশুদের টিকাকরণের সম্ভাবনা যে খুবই কম তা স্পষ্টত ।


ফের বাড়ল রাজ্যের দৈনিক করোনা সংক্রমণ

কিছুতেই বাগে আনা যাচ্ছে না করোনাকে। রাজ্যে এখনও কড়া বিধি নিষেধ চলছে। রয়েছে নাইট কার্ফু। তা স্বত্বেও রাজ্যে সোমবারের তুলনায় মঙ্গলবার বাড়ল দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা। 

মঙ্গলবার সন্ধের স্বাস্থ্য দফতরের বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৭৫২ জন। সোমবার সংখ্যাটা ছিল ৬৬৬। সবমিলিয়ে এদিন রাজ্যের মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ১৫ লক্ষ ১৯ হাজার ৫৯৯ জন। রাজ্যের পজিটিভিটি রেট দাঁড়াল ১.৪৮ শতাংশ।

একদিনে সুস্থ হয়েছেন ৯৯২ জন। মোট সংখ্যাটা ১৪ লক্ষ ৮৯ হাজার ৬৯ জন। ফলে সুস্থতার হার দাঁড়াল ৯৭.৯৯ শতাংশ। এদিন রাজ্যে ৫০ হাজার ৭১৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। 

গত ২৪ ঘন্টায় রাজ্যে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১০ জনের। সর্বাধিক মৃত্যু হয়েছে উত্তর ২৪ পরগনা ও হুগলিতে। এই দুই জেলায় ২৪ ঘন্টায় মোট ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া কলকাতা, হাওড়া, পূর্ব মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, দাঁর্জিলিং, ও জলপাইগুড়িতে এক জন করে করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে।  তারফলে রাজ্যে করোনায় মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ১৮ হাজার ২১ জন। মৃত্যু হার হল ১.১৯ শতাংশ। 


রাজ্যে দৈনিক মৃত্যু কমলেও, বাড়ল সংক্রমণ



কলকাতাঃ রাজ্যে দৈনিক সংক্রমণ ফের বাড়ল। ফলে উদ্বেগ বাড়ছে স্বাস্থ্য দফতরের।  

শনিবার রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে করোনা আক্রান্ত ৯৯৭ জন। গতকাল ছিল ৯৯০ জন। সব মিলিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৫ লক্ষ ১১ হাজার ২০৫ জন।

অন্যদিকে গত ২৪ ঘন্টায় রাজ্যে মৃত্যু হয়েছে ১৭ জনের। গতকাল ছিল ১৯ জন। তারফলে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে  ১৭ হাজার ৯০৩ জন।



তবে দৈনিক আক্রান্তের তুলনায় সুস্থতার সংখ্যা বেশি। একদিনে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরেছেন ১ হাজার ৩৩৬ জন। মোট সুস্থ হয়েছেন ১৪ লক্ষ ৭৭ হাজার ৯৯৮ জন।

অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যা কমে ১৫ হাজার ৩০৪ জন। একদিনে কমেছে ৩৮৬ জন। গত ২৪ ঘন্টায় করোনা টেস্ট হয়েছে ৫২ হাজার ৫৪১ টি। বর্তমানে রাজ্যের ১২৬ টি ল্যাবরেটরিতে টেস্ট হচ্ছে।

রাজ্যে ফের বাড়ল দৈনিক সংক্রমণ ও মৃত্যু

কলকাতাঃ রাজ্যে ফের বাড়ল দৈনিক সংক্রমণ ও মৃত্যু। গত ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত প্রায় এক হাজার। যা গতকালের তুলনায় বেশি। বেড়েছে মৃতের সংখ্যাও।

বৃহস্পতিবার রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, একদিনে নতুন করে করোনা আক্রান্ত ৯৯৫ জন। গতকাল ছিল ৯৮২ জন। সব মিলিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৫ লক্ষ ৯ হাজার ২১৮ জন।

বিস্তারিত আসছে --

দেশে ফের ঊর্ধ্বমূখী করোনার গ্রাফ

নয়াদিল্লিঃ দেশে ফের ঊর্ধ্বমূখী করোনার গ্রাফ। গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ৪৫ হাজার ৮৯২ জন। একই সময় মৃত্যু হয়েছে মৃত্যু হয়েছে ৮১৭ জনের।

বিস্তারিত আসছে --