গণেশ মন্দির ভাঙচুরের ঘটনায় সংস্কারের বার্তা ইমরানের

এবার পাকিস্তানের  সিদ্ধি বিনায়ক মন্দিরের ভাঙচুরের ঘটনার তীব্র নিন্দা করলেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। বুধবার সেদেশের পাঞ্জাব প্রদেশের ভঙ্গ শরিফ গ্রামের সিদ্ধি বিনায়ক মন্দিরের ভিতরে হামলা চালায় দুষ্কৃতীরা। বৃহস্পতিবারই এই হামলার তীব্র নিন্দা করে ভারতের বিদেশমন্ত্রক। এরপরই টুইট করে হামলার কড়া সমালোচনা করতে দেখা যায় ইমরানকে। সেই সঙ্গে দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপের আশ্বাসও দেন তিনি।

পাক মন্ত্রী ইমরান একটি টুইটে জানান, ”ভঙ্গের গণেশ মন্দিরে হওয়া হামলার তীব্র নিন্দা করছি। ইতিমধ্যেই আমি পাঞ্জাবের আইজিকে নির্দেশ দিয়েছি সমস্ত দুষ্কৃতীকে গ্রেপ্তার করতে এবং পুলিশের গাছাড়া মনোভাবের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নিতে। সরকারের তরফেই মন্দির ফের গড়ে দেওয়া হবে।” এর আগেও পাকিস্তানের বহু মন্দিরে হামলার অভিযোগ উঠেছে।

মহিলাদের সম্পর্কে বিতর্কিত মন্তব্য করে বিপাকে ইমরান খান!

ফের সংবাদের শিরোনামে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। মহিলাদের সম্পর্কে বিতর্কিত মন্তব্য করে বিপাকে তিনি! বিশ্বজুড়ে সমালোচনার ঝড় উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

পাকিস্তানে বেড়ে চলা ধর্ষণ,নির্যাতন ও শ্লীলতাহানির জন্য মহিলাদেরকেই দায়ী করলেন ইমরান খান। মহিলারা স্বল্পবসন পরে ঘুরে বেড়ানোর জন্যই বাড়ছে ধর্ষণ।

Axio ON HBO-র একটি অনুষ্ঠানে দেওয়া সাক্ষাৎকারে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, “পুরুষরা যদি রোবট না হয়, তাহলে মহিলাদের স্বল্পবসনে তাঁদের উপরে প্রভাব পড়বেই। এটা খুবই সাধারণ বুদ্ধি।”

তার এই মন্তব্যের পরই বিশ্বজুড়ে সমালোচনার ঝড় উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। পাশাপাশি পাকিস্তানের বিরোধী রাজনৈতিক দলের নেতারাও ইমরান খানের মন্তব্যের বিরোধিতা করেছেন।