Sports:সরছেন শাস্ত্রী, সরতে চান কোহলিও

রবি শাস্ত্রী কোচ হওয়ার পর ভারতীয় ক্রিকেটের আলাদা কোনও উন্নতি হয় নি কিন্তু দুই দেশের খেলতে সিরিজ জিতলেও আন্তর্জাতিক স্তরের ট্রফি আসেনি ঘরে । অন্যদিকে একই সমস্যা বিরাট কোহলির । তিনিও সিরিজ জিতেছেন কিন্তু বহুদলীয় টুর্নামেন্টে ট্রফি আসে নি । গত দু বছরের উপর একসময় বিশ্বের সেরা ব্যাটসম্যান কোহলির কোনও সেঞ্চুরি নেই । প্রশ্ন উঠে গিয়েছে তার পারফর্মেন্স নিয়ে । কোহলি নিজেও চিন্তিত নিজের ব্যাটিং নিয়ে । প্রবাদপ্রতিম সুনীল গাভাসকার বলেছেন, সময়মতো কোহলি বালের লাইনে পা নিয়ে যেতে পারছেন না । 

আপাতত যা খবর তাতে রবি শাস্ত্রীর ৭ বছরের চুক্তি শেষ হয়ে যাবে টি২০ বিশ্বকাপের পরেই । শোনা যাচ্ছে সৌরভদের নতুন কোচ নিয়ে ভাবনা রয়েছে । সৌরভের পছন্দ রাহুল দ্রাবিড় এবং জয় শাহের পছন্দ মাহেন্দ্র সিং ধোনি । ধোনিতে আপত্তি নেই সভাপতি সৌরভেরও । ইতিমধ্যে ধোনিকে টি ২০ র চিফ মেন্টর করে শাস্ত্রীর উপর চাপিয়ে দেওয়া হয়েছে । অন্যদিকে কোহলি জানিয়েছেন তিন পর্যায়ের ক্রিকেটের অধিনায়ক থাকতে চান না । কোহলি শুধু টেস্টের অধিনায়ক থাকতে চাইছেন বলে খবর । সে ক্ষেত্রে সল্প ওভারের ক্রিকেটের সেরা রোহিত শর্মাকে ভাবা হচ্ছে । মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স রোহিতের অধিনায়কত্বে বহুবার ট্রফি জয় করেছে এবং রোহিতও ভালো ব্যাট করেছেন ।


এখনও ভারতীয় দলে নাক গলাচ্ছেন চ্যাপেল

গ্রেগ চ্যাপেল, অনেকেই বলেন ভারতীয় দলের শনির প্রকোপের মতো এক কোচ এসেছিলেন । তাঁর কল্যানে সৌরভ দল থেকে বাদ পড়েছিলেন । দ্রাবিড় অধিনায়ক হয়ে স্বাভাবিক খেলা নষ্ট করে ফেলেছিলেন । সচিন থেকে শেহবাগ, প্রত্যেকে এক অশান্তির মধ্যে ক্রিকেট খেলেছিলেন ২ বছর । অবশেষে ক্রিকেট বোর্ডের হুশ ফেরে এবং বিদায় নেয় গ্রেগ । তাঁর আমলে উঠে আসা খেলোয়াড়ও ছিলেন বেশ কয়েকজন তার মধ্যে অবশ্যই ধোনি । বাকিদের খবর আর কেউ রাখে না ।

ইদানিং ভারতীয় দলের সহ অধিনায়ক অজিঙ্কা রাহানে ফর্মে নেই কিন্তু এই রাহানের নেতৃত্বে অস্ট্রেলিয়াতে ভারত সিরিজা জয় করেছিল বিরাটের অনুপস্থিতিতে । গ্রেগ বলেছেন অবিলম্বে রাহানেকে বাদ দেওয়া হোক । সহ অধিনায়ক হিসাবে বেশ কয়েকজনের নাম প্রস্তাব করেছেন গ্রেগ । তারপরই গ্রেগের বিরুদ্ধে শুরু হয়েছে ট্রল । 

Sports: ভারতীয় দলে রবি শাস্ত্রী সহ ৪ জন করোনা আক্রান্ত

ভারতীয় দলে ফের করোনাতঙ্ক। রবি শাস্ত্রী সহ ৪ জনকে পাঠানো হল আইসোলেশনে। 

শনিবার সন্ধেয় রবি শাস্ত্রী, বোলিং কোচ বি অরুণ, ফিল্ডিং কোচ আর শ্রীধর এবং ফিজিওথেরাপিস্ট নীতিন প্যাটেলের র‍্যাপিড টেস্টের ফল পজিটিভ আসে। তারপরই তড়িঘড়ি আইসেলোশনে পাঠানো হয় তাদেরকে। 

বিস্তারিত আসছে --


Sports: অশান্তির ছায়া ভারতীয় ক্রিকেটে

গত ৬০ বছর ধরে ভারতীয় ক্রিকেটে রাজনীতি ছিল তুঙ্গে । মূলত লড়াই ছিল মুম্বাই এবং দিল্লি লবির । এক মাত্র পাতৌদি যখন অধিনায়ক ছিলেন তখন ক্রিকেটার থেকে নির্বাচন কমিটির কেউ ট্যাঁ ফো করতে পারতো না । পাতৌদিকে ভয় পেত খেলোয়াড়রা । কিন্তু তারপর ওয়াদেকার যখন অধিনায়ক হন তখন ফের লবির খেলা শুরু হয় । তারপর বেদি, গাভাসকার, কপিল ইত্যাদি যে যখন অধিনায়ক হয়েছেন তখনই নিজের 'অঞ্চলের' খেলোয়াড়দের সুযোগ দিয়েছে ।

এই রাজনীতির পাকেচক্রে সবচাইতে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে বাংলার খেলোয়াড়রা । এর মধ্যে আজহারউদ্দিন অধিনায়ক হয়ে অন্তত ৭ খেলোয়াড়কে ঠান্ডা ঘরে পাঠিয়ে দেন, অবশ্য ওই সময়ে ভারতীয় ক্রিকেট বেটিং চক্রে জড়িয়ে পরে । একমাত্র সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় অধিনায়ক থাকা কালীন একটি "টীম ইন্ডিয়া" তৈরি হয় ।

এরপর চ্যাপেল এসে সর্বনাশ করে ছাড়েন দলের । দ্রাবিড় অধিনায়ক হিসাবে একদম ফ্লপ করেন । পরে ধোনি অধিনায়ক হলে দলে ভারসাম্য আসে । কিন্তু এই ধোনিও নিজের মর্জিমাফিক দল থেকে বহু খেলোয়াড়কে বিদায় করে দেন । এখন কোহলির জমানা । কোহলির অধিনায়কত্বে ভারত সফল হলেও শেষ পর্যন্ত কোনও বড় ট্রফি আসে নি । পারেন নি কোহলি তার সাথে জঘন্য ফর্মে তিনি ।

এরই মধ্যে চতুর্থ টেস্টে কি দল হবে তাই নিয়ে টিমের মধ্যেই বিতর্ক শুরু হচ্ছে । অশ্বিন, ধোনির প্রিয়পাত্র ছিলেন কিন্তু কোহলির জমানায় তাঁকে বাদ দেওয়া হচ্ছে বারবার । এই মুহূর্তে বিশ্বের পয়লা নম্বর স্পিনারকে মাঠের বাইরেই কাটাতে হচ্ছে । 


রাহুলের ক্রিকেট জীবনে একটাই দুর্বল স্থান

শ্রীলংঙ্কার জাতীয় দলকে ভারতের দ্বিতীয় দল হারিয়ে সিরিজ জয় করলো । ভারতীয় দলের ক্রিকেট কোচ রাহুল দ্রাবিড় এই জয়ের সমস্ত কৃতিত্ব তাঁর দলকে দিলেন । কিন্তু দলের খেলোয়াড়রা বলছে অন্য কথা । তাঁরা জানাচ্ছে, রাহুলস্যার সমস্ত দলকে উজ্জীবিত করেছেন ।

রাহুল দ্রাবিড়, এমন একটি নাম ক্রিকেট দুনিয়াতে যাঁর নাম নীরবে শ্রদ্ধার স্থান অর্জন করেছে । ভারতের সর্বকালের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান ছিলেন। অসাধারণ একেকটি ইনিংস খেলেছেন । দলের বিপর্যয়ে পাঁচিল হয়ে দাঁড়িয়ে ব্যাট করেছেন । বহু ম্যাচ জিতিয়েছেন । ওয়ান ডেতেও দারুন ফল করেছেন । স্লীপের অন্যতম সেরা ফিল্ডার ছিলেন । বোলিং অবশ্য করেন নি , তবে উইকেটকিপিং করেছেন বহু ম্যাচে এবং বিশ্বকাপেও । তাঁর জীবনে একটাই দুর্বল জায়গা ছিল। .অধিনায়ক হিসাবে অসফল ছিলেন তিনি তাই দ্রুত সরেও আসেন । আজ কোচ হিসাবে কিন্তু দুর্দান্ত পারফর্মেন্স রাহুল দ্রাবিড়ের । এবারে অপেক্ষা কবে তিনি ভারতীয় মূল দলের দায়িত্ব পাবেন । 


করোনার কবলে ঋষভ পন্থ

ভারতের নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান তথা উইকেটকিপার ঋষভ পন্থ করোনাতে আক্রান্ত হয়েছেন, একই সাথে ভারতীয় ক্রিকেট দলের অন্য আরেক খেলোয়াড়েরও এই সংক্রমণ হয়েছিল তবে অপ্রাপ্তত তিনি ভালো আছেন । চারিদিকে যখন আক্রান্ত কমছে তখন কোন জাদুতে ঋষভ করোনার কোপে পড়লেন ?
জানা গিয়েছে বিশ্বকাপ ক্রিকেট টেস্ট ফাইনাল হয়ে যাওয়ার পর অনেক খেলোয়াড় নানান দিকে বেড়াতে গিয়েছিলেন ইংল্যান্ডে । ঋষভ সেমিফাইনাল এবং ফাইনাল ইউরো কাপ দেখতে স্টেডিয়ামে গিয়েছিলেন, ওখানেই সম্ভবত সংক্রমণ আঘাত হানে তাঁর শরীরে । আপাতত তিনি এক আত্মীয়র বাড়িতে নিভৃতালায়ে রয়েছেন । ইংল্যান্ডের সাথে প্রথম টেস্টে তিনি খেলতে পারবেন না জানা গিয়েছে ।

বিদায় নিলেন বিশ্বজয়ী দলের যশপাল

১৯৮৩ র বিশ্বকাপ ক্রিকেট ইতিহাস সৃষ্টি করেছিল । মাত্র ১৮৩ রান করেও বিশ্ব ত্রাস ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে বিশ্বকাপ জয় করে কপিলদেবের ভারত এবং ওই দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন যশপাল শর্মা । ৪ নম্বরে খেলতে নামতেন । যথেষ্ট নির্ভরশীল ব্যাটসম্যান ছিলেন যশ । এছাড়াও বিশ্বের অন্যতম সেরা ফিল্ডার ছিলেন । মঙ্গলবার খবর এলো হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মাত্র ৬৬ বছর বয়সে তিনি প্রয়াত হয়েছেন ।১৯৭৯ এ ভারতীয় দলে সুযোগ পান । মূলত পাঞ্জাবি হলেও সারা জীবন হরিয়ানা এবং রেলে খেলেছেন । খুব বেশিদিন খেলেন নি । টেস্টে ২টি সেঞ্চুরি এবং ৯টি অর্ধ শত সহ ১৬০৬ রান করেন । একদিবসীও ক্রিকেটে ৯৫০ রান করেন । তাঁর মৃত্যুতে ক্রিকেট দুনিয়ায় এক মহা তারকার নির্গমন হলো ।

টি ২০ বিশ্বকাপ হবে না ভারতে

ফের সম্মানের প্রশ্নে ভারতীয় প্রশাসন | করোনা ভাইরাস এসেছিলো বিদেশ থেকে | চীন, ইউরোপ, আমেরিকা ঘুরে অবশেষে এসেছিলো ভারতে | সমস্যা হচ্ছে ভারতের প্রস্তুতিই ছিল না প্রথম এবং দ্বিতীয় ঢেউয়ের ক্ষেত্রে | আজও বিশ্বের সর্বত্র করোনা আবহ আছে কিন্তু যত দোষ ভারতের উপরই | এর অন্যতম কারণ ভ্যাকসিনের প্রতুলতা এবং জনগোষ্ঠী | ভারতে আই এস এল ফুটবল হয়েছে গোয়াতে এবং জনশূন্য মাঠে |

আইপিএল মাঝ পথেই বন্ধ হয়ে গিয়েছে কারণ সংক্রামিত হয়েছেন অনেক ক্রিকেটার \ এবারে বাতিল হয়ে গেলো টি২০ বিশ্বকাপ | বিশ্ব ক্রিকেট সংস্থা ভারত থেকে খেলা সরিয়ে নিয়ে যাচ্ছে মধ্যে প্রাচ্য বা দুবাই, শারজা ইত্যাদি শহরে | এই বিষয়ে পরিষ্কার বার্তা এসেছে বিসিসিএল প্রধান সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের কাছে | অক্টোবরের পর শুরু হচ্ছে বিশ্বকাপ |