By-Election: তথ্য গোপনের অভিযোগে মমতার মনোয়ন বাতিলের দাবি বিজেপির

 নন্দীগ্রামের পর ভবানীপুর। ফের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের  মনোনয়ন বাতিলের দাবিতে কমিশনে অভিযোগ জানাল বিজেপি। গেরুয়া শিবিরের দাবি, ভবানীপুর উপনির্বাচনে মনোনয়নের আগে তথ্য গোপন করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর বিরুদ্ধে থাকা ফৌজদারি মামলার বিষয়ে হলফনামায় কোনও তথ্য দেননি মমতা। সামনেই উপনির্বাচন। মঙ্গলবার ভবানীপুরের  তৃণমূল প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিলের দাবি তুলে কমিশনকে চিঠি দিয়েছেন বিজেপি প্রার্থী প্রিয়াঙ্কা টিবরেওয়ালের  নির্বাচনী এজেন্ট সজল ঘোষ। অভিযোগপত্রে তিনি দাবি করেছেন, একাধিক থানায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ থাকা সত্ত্বেও তিনি নির্বাচনী হলফনামায় তা প্রকাশ করেননি।

প্রসঙ্গত, ১৩ সেপ্টেম্বর অর্থাৎ গতকাল ছিল ভবানীপুর কেন্দ্রের মনোনয়ন জমা দেওয়ার শেষ দিন। তার অনেক আগে শুক্রবারই আলিপুর সার্ভে বিল্ডিংয়ে গিয়ে নিজের মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। মঙ্গলবার স্ক্রুটিনির সময় তাঁর মনোনয়ন পত্রে ত্রুটির অভিযোগ তুলেছে বিজেপি।

যদিও ২০২১ বিধানসভা নির্বাচনের সময় মমতা যখন নন্দীগ্রাম  কেন্দ্রের প্রার্থী হলেন, তখনও একইভাবে তাঁর মনোনয়ন বাতিলের দাবি তুলেছিলেন বিজেপি প্রার্থী শুভেন্দু অধিকারী। কিন্তু কমিশন সে অভিযোগে সায় দেয়নি । শুভেন্দু  দাবি করেছিলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নামে একটি সিবিআই মামলা ও অসমের ৫টি মামলা মিলিয়ে মোট ছ’টি মামলা আছে। পরে সিবিআই সূত্রে জানা যায়, শুভেন্দু যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে মামলার কথা বলছেন, সেটা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী নন। অন্য মমতা। সেসময় বিজেপি নেতার অভিযোগ স্পষ্টতই খারিজ করে দেয় নির্বাচন কমিশন।