টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত কোহলির

চিপকে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় টেস্টে টসে জিতে ব্যাট করা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ভারত অধিায়ক বিরাট কোহলি। সিরিজের প্রথম টেস্টে বড় রানের ব্যবধানে হারতে হয়েছিল ভারতকে। ফলে দ্বিতীয় টেস্ট ঘুরে দাঁড়ানোর লড়াই ভারতের কাছে। ম্যাচ জিতে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালের দৌঁড়ে এগিয়ে যাওয়ার লক্ষ্য টিম ইন্ডিয়ার কাছে। দুই দলের একাদশেই ব্যাপক পরিবর্তন লক্ষ্য করা গেল।  

ভারতের একাদশঃ রোহিত শর্মা, শুভমন গিল, চেতেশ্বর পূজারা, বিরাট কোহলি, অজিঙ্কা রাহানে, ঋষভ পন্থ, অক্ষর প্যাটেল, রবিচন্দ্রন অশ্বিন, কুলদীপ যাদব, ইশান্ত শর্মা ও মহম্মদ সিরাজ।

ইংল্যান্ডের একাদশঃ ররি বার্নস, ডমিনিক সিবলি, ড্যান লরেন্স, জো রুট, বেন স্টোকস, ওলি পোপ, বেন ফোকস, মঈন আলি, স্টুয়ার্ট ব্রড, ওলি স্টোন ও জ্যাক লিচ।


ফের ঝুরঝুরে পিচে খেলা

আম জনতা যাকে বলে পিচ তারই আসল নাম উইকেট অর্থাৎ টেকনিকাল ভাষায় প্রশ্ন থাকে উইকেটের অবস্থা কেমন, তার অর্থ পিচ কেমন। চেন্নাইয়ের পিচ বা উইকেট বরাবরই স্পিনারদের সাহায্য করে এবং এই মাঠেই খেলতে ভালোবাসে ভারত কারণ ভারতে কোনও দিন স্পিনারের অভাব হয়নি। প্রথম টেস্টে হারার পর দ্বিতীয় টেস্ট ওই চেন্নাইতে কিন্তু উইকেট বা পিচ আলাদা। অধিনায়ক বিরাট কোহলির হাতে বিশ্বমানের ফাস্ট বোলার থাকা সত্বেও তিনি ঝুরঝুরে উইকেট চেয়েছেন। সহ অধিনায়ক অজিঙ্ক রাহানে জানিয়েছেন যে, প্রথম দিন থেকেই বল ঘুরবে, তার অর্থ শনিবার ফের তিন স্পিনারেই খেলবে ভারত। এই টেস্ট ভারতকে জিততেই হবে নতুবা বিশ্ব টেস্ট ফাইনালে যাওয়া মুশকিল হয়ে যাবে। বেশ কিছুদিন ধরে টেস্ট ম্যাচের ফলাফলের উপর পয়েন্ট দেওয়া হচ্ছে। আপাতত চারটি দল ফাইনালে যাওয়ার জন্য খেলে যাচ্ছে। ভারত, ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া এবং নিউজিল্যান্ড। আপাতত পয়েন্টের অবস্থান যা যায় ভারতকে বাকি তিনটি টেস্টে হারা চলবে না। সে কারণেই স্পিনিং ট্রাক করে শেষ চেষ্টা করবেন কোহলি।

ঘরের মাঠেই হার টিম কোহলির!

ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা মাথা চুলকিয়েও বুঝে উঠতে পারছেন না, এই ভারতীয় দল অস্ট্রেলিয়াতে অবাক করা লড়াই লড়ে সিরিজা জিতে এল আর তারাই নাকি দেশে নিজেদের মর্জিমাফিক পিচ তৈরি করে সফরকারী ইংল্যান্ডের কাছে হেরে গেল! কার দোষে, অনেক দিন অবধি এই প্রশ্ন ঘুরবে ক্রিকেটপ্রেমীদের মধ্যে। তবে কিছু উত্তর তো মিলবেই অন্তত গাভাসকারদের মতো বিশেষজ্ঞদের কাছে। 

প্রথমত ব্রিসবেন টেস্টের "টিম রাহানে"কে চেন্নাই টেস্টে রাখা উচিত ছিল। মনে রাখতে হবে বাউন্সি পিচে জান লড়িয়ে খেলে দ্বিতীয় সারির দলটি পরে ব্যাট করে অস্ট্রেলিয়াকে তাদের অপরাজেয় মাঠে হারিয়েছিল সেই দল থেকে কোন যুক্তিতে সিরাজ, নটরাজনদের ছিটকে দেওয়া হল? তাঁরা কি এর থেকেও বাজে বল করতেন? দ্বিতীয়ত, ভারত যখন স্পোর্টিং পিচে অসাধারণ খেলতে পারে তখন আন্ডারপ্রিপেয়ার্ড পিচ তৈরি করা হলো কার নির্দেশে, যেখানে ক্রমাগত বল ধীরে আসছে কিংবা বাউন্স পাচ্ছে না? এটার ফসল তুলেছে ইংল্যান্ড। শোনা যাচ্ছে, কোহলির নির্দেশেই এই পিচ তৈরি হয়েছিল। তৃতীয়ত নাদিমের মতো নতুন খেলোয়াড়কে নেওয়া হলো কার জায়গায়? এটা পরিষ্কার হয়ে গিয়েছে, কোহলির ফর্ম খুবই খারাপ, শেষ সেঞ্চুরি কবে করেছেন তিনি সেটা তিনিই ভুলে গিয়েছেন। এছাড়া এত বেশি পরিবারের চিন্তা নিয়ে খেলায় উচিত হয়নি বলেই দাবি ক্রিকেট প্রেমীদের। হয়তো দেখা যাবে পরের টেস্টে কোপ পড়বে নাদিম, রোহিত কিংবা বুমরার উপর। কিন্তু উচিত কোহলির অধিনায়কত্ব ছেড়ে নিজের ব্যাটিংয়ের উপর জোর দেওয়া যা দিয়েছিলেন সচিন তেন্ডুলকর।  

হারের দোর গোড়ায়, ৬ উইকেট হারিয়ে ধুঁকছে ভারত

৯ উইকেট হাতে নিয়ে চেন্নাই টেস্টের পঞ্চম দিনে ব্যাট করতে নেমেছিল ভারত। জয়ের জন্য দরকার ছিল ৩৮১ রান। কিন্তু চেন্নাইয়ে চিপকের ঘূর্ণি পিচে ভারত কতটা প্রতিরোধ গড়ে তুলতে পারবে সেটা নিয়ে সন্দিহান ছিলেন ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা। কিন্তু মঙ্গলবার পঞ্চমদিনের খেলা শুরু হতেই দেখা গেল ইংরেজ পেসারদের দাপট। জেমস অ্যান্ডারসন একাই তুলে নিলেন তিন উইকেট। জ্যাক লিচ পেলেন দুই উইকেট।


কিছুটা লড়াই দিচ্ছিলেন তরুণ ওপেনার শুভমান গিল, করলেন হাফ সেঞ্চুরিও। কিন্তু ৫০ রান করার পরই অ্যান্ডারসন গিলের স্ট্যাম্প ছিটকে দিয়ে ভারতকে বড় ঝটকা দিলেন। তিনবল পরেই ফের অ্যান্ডারসন ধাক্কা দিলেন ভারতকে, এবারও রাহানের স্ট্যাম্প ছিটকে দিয়ে। ফলে চাপে পড়ে যায় ভারত। ৩৫ ওভারের পর ৬ উইকেট হারিয়ে ভারতের স্কোর ১১৮ রান। ক্রিজে রয়েছেন অধিনায়ক বিরাট কোহলি (২৬) এবং রবিচন্দ্র অশ্বিন (০১)। ফলে নিশ্চিত হারের মুখে দাঁড়িয়ে ভারত।

প্রথম ইনিংস শুরুতেই ধাক্কা খেল ভারত

তৃতীয় দিনের শুরুতেই দুই উইকেট হারিয়ে ৫৭৮ রানের প্রথম ইনিংস শেষ হয় ইংল্যান্ডের। ৫৭৮ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে রোহিত শর্মার উইকেট হারিয়ে ধাক্কা খেতে হল টিম ইন্ডিয়াকে। ৭ ওভারে এক উইকেট হারিয়ে ভারতের স্কোর ৩৫ রান। ক্রিজে রয়েছেন তরুণ ব্যাটসম্যান শুভমন গিল (২২) ও চেতশ্বর পূজারা (৭)।
দ্বিতীয় দিনের শেষে ৮ উইকেট হারিয়ে ৫৫৫ রান করেছিল ইংল্যান্ড। তৃতীয় দিনের শুরুতেই ডমিনিক বেসকে আউট করে প্যাভিলিয়নে ফিরিয়ে দেন বুমরা। ৬টি বাউন্ডারির সাহায্যে ৩৪ রান করেছিলেন বেস। অ্যান্ডারসনকে বোল্ড করে ইংল্যান্ডে প্রথম ইনিংস শেষ করে রবিচন্দ্র অশ্বিন। ইংল্যান্ডের হয়ে ভালো রান করেছেন ডোম সিবলি (৮৭) এবং বেন স্টোকস (৮২)। পরের দিকে ইংল্যান্ডের স্কোরবোর্ডে রান যোগ করেন ওলে পোপ (৩৪), জস বাটলার (৩০) এবং ডোম বেস (২৮)। ২টি ছয় এবং ১৯টি চারের সাহায্যে ২১৮ রান করেছিলেন ইংল্যান্ডের অধিনায়ক জো রুট। তিনটি করে উইকেট পেয়েছেন জশপ্রীত বুমরা ও রবিচন্দ্র অশ্বিন। দুটি করে উইকেট পেয়েছেন ইশান্ত শর্মা ও শাহবাজ নাদিম।

ইংল্যান্ড সিরিজের আগে একাধিক রেকর্ডের মুখে কোহলি

বিরাট কোহলির সামনে একাধিক রেকর্ডের হাতছানি। ৫ ফেব্রুয়ারি থেকে  শুরু হচ্ছে ইংল্যান্ডর সঙ্গে ভারতের চার ম্যাচের টেস্ট সিরিজ। সেই সিরিজের আগেই একাধিক রেকর্ডের মুখে দাঁড়িয়ে আছেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি।
ভারতের প্রাক্তন অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি দেশের মাটিতে ২১টি টেস্ট জিতেছিলেন। তাঁর পিছনেই রয়েছেন কোহলি, এখন অবধি তিনি ২০টি টেস্ট জিতেছেন। সাম্প্রতি ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে চারটি টেস্ট খেলবে ভারত। তার মধ্যে দুটি টেস্ট জিতলেই বিরাট টপকে যাবেন প্রাক্তন অধিনায়ক ধোনির টেস্ট জয়ের রেকর্ডকে। অন্যদিকে, একটি টেস্টে শতরান করলেই কোহলি টপকে যাবেন অজি অধিনায়ক রিকি পন্টিংকে। সব ধরনের ক্রিকেট মিলিয়ে ৪১টি শতরান রয়েছে বিরাট এবং পন্টিংয়ের। একটি শতরান করলেই অধিনায়ক হিসেবে সব চেয়ে বেশি শতরানের মালিক হবেন বিরাট কোহলি।

প্রকাশ্যে এল বিরুষ্কা কন্যার নাম ও ছবি

প্রকাশ্যে এল বিরাট অনুষ্কার কন্যা সন্তানের নাম। সোমবার সকালেই সোশাল মিডিয়ায় তাঁদের কন্যা সন্তানের নাম ও ছবি শেয়ার করবেন অনুষ্কা। বিরুষ্কার মেয়ের নাম ‘ভমিকা’। যদিও যে ছবি তিনি শেয়ার করেছেন তাতে পরিস্কার মুখ দেখা যাচ্ছে না। উল্লেখ্য, গত ১১ জানুয়ারি মুম্বইয়ের এক হাসপাতালে জন্ম নেয় বিরাট-অনুষ্কার প্রথম কন্যাসন্তান। বিরুষ্কার সদ্যজাত কন্যাকে দেখার জন্য মুখিয়ে ছিলেন নেটিজনরা। করোনা পরিস্থিতির কারণে হাসপতালে সদ্যজাত কন্যাকে দেখার একমাত্র অনুমতি ছিল তাঁদের নিকট আত্মীয়দের। হাসপাতালের তরফেও নেওয়া হয়েছিল বাড়তি সতর্কতা৷ তাঁদের কর্মীদেরও ছবি তোলার কোনও অনুমতি ছিল না৷ 
অবশেষে অপক্ষার অবসান ঘটল, ১ ফেব্রুয়ারি মেয়েকে সামনে আনল কোহলি দম্পতি। সোমবার নিজের টুইটারে বিরাট কোহলি ও ভামিকাকে নিয়ে ছবি পোস্ট করলেন অনুষ্কা।

অস্ট্রেলিয়ার ছোট্ট ইন্ডি রে কোহলির বিশাল ভক্ত

ফুটবল দুনিয়ায় সকলের পরিচিত নাম লিওনেল মেসি ও ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। তাঁরা এক অপরে আবার চিরপ্রতিদন্দ্বী বলাই যায়। কিন্তু দেখা গিয়েছে পর্তুগিজ তারকা রোনান্ডোর ছেলে লিওনেল মেসিকে সমর্থন করার ছবি। আবার তার ঠিক উল্টো ছবি মেসির ছেলেকে রোনাল্ডোকে সমর্থন করতে। ক্রিকেট দুনিয়া এইরকমই এক ছবি উঠে এল। যেখানে অজি ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নারের মেয়ে ইন্ডি রে-কে দেখা গেল বিরাট কোহলির জার্সি গায়ে। এই সুন্দর ছবি মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়।

বর্ডার-গাভাস্কার ট্রফি জিতে দেশে ফিরেছে টিম ইন্ডিয়া। যদিও ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি অজিদের বিরুদ্ধে শুধুমাত্র প্রথম টেস্টেই খেলেছিলেন। তারপর পিতৃত্বকালীন ছুটি নিয়ে দেশে ফিরেছিলেন। তবে সেই ম্যাচে চোটের কারণে ছিলেন না অজি তারকা ক্রিকেটার ডেভিড ওয়ার্নার। শনিবার ডেভিড ওয়ার্নার তাঁর মেয়ের বিরাট কোহলির জার্সি পড়া ছবি ইনস্ট্রাগামে পোস্ট করেছেন। ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, ‘আমি জানি আমরা সিরিজ হেরেছি, কিন্তু এই মেয়েটি এখানে বেজায় খুশি। বিরাট কোহলি, ধন্যবাদ জানালাম নিজের জার্সিটা দেওয়ার জন্য। বাবাকে ছাডা় এই মেয়েটি অ্যারন ফিঞ্চ এবং বিরাট কোহলির বিশাল ভক্ত’। এই মুহূর্ত দেখে বোঝা যায় প্রতিদন্দ্বিতা শুধু মাঠেই সীমাবদ্ধ।