কুণাল ঘোষের বাড়িতে বেসুরো রাজীব

কলকাতাঃ কুণাল ঘোষের বাড়িতে রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। তাহলে কি তৃণমূলে ফেরার মরিয়া চেষ্টা রাজীবের? জল্পনা রাজনৈতিক মহলে। যদিও জল্পনা উড়ালেন রাজিব।

সূত্রের খবর, শনিবার বিকেলে তৃণমূলের রাজ্য সম্পাদক তথা মুখপাত্র কুণাল ঘোষের বাড়িতে হাজির হন প্রাক্তন মন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। কোনও রকম ব্যক্তিগত নিরাপত্তা ছাড়াই এদিন কুণাল ঘোষের বাড়িতে আসেন তিনি।  
উল্লেখ্য, বিধানসভা ভোটের তৃণমূল ছেড়া যোগ দিয়েছেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা দিয়ে বিধানসভা থেকে বেরনোর সময় মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের ছবি সঙ্গে করে নিয়ে গিয়েছিলেন তিনি। একুশের ভোটে হাওড়া ডোমজুড় থেকে হেরে যান বিজেপি প্রার্থী রাজীব।

তার পর থেকেই বিজেপির বিভিন্ন কর্মসূচিতে গড়হাজির ছিল রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু শনিবার আচমকাই কুণালের বাড়ির আসেন রাজীব।

রাজীবের পাশে ববি!


কলকাতাঃ নীলসাদা রঙে দেওয়া ফেসবুকের পোস্টে প্রাক্তন তৃণমূলী এবং বর্তমান বিজেপি নেতা সরাসরি মমতা সরকারকে সমর্থন জানিয়েছিলেন পরোক্ষভাবে | তিনি বিজেপির উদ্যেশ্যে জানিয়েছিলেন, অযথা তৃণমূলের সমালোচনা না করার জন্য এবং ৩৫৬ ধারা বা রাষ্ট্রপতি শাসন জারির ধামকনির বিরুদ্ধে পোস্ট দিয়েছিলেন | অতঃপর শুরু হয়ে যায় জল্পনা, তিনি কি ফিরছেন? এখানেই শেষ নয়, মন্ত্রী অরূপ রায় থেকে ডোমজুড়ে রাজীবকে হারানো তৃণমূল প্রার্থী কল্যাণ ঘোষও কটাক্ষ করেন রাজীবকে | ফেসবুকে রাজীবের না ফেরার পক্ষে সওয়াল করে অনেকেই |


কিন্তু আজ পরিবহন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম রাজীবের পশে দাঁড়ালেন | ববি জানালেন, রাজীব তাঁর ছোট ভাইয়ের মতো | তিনি কেন যে বিজেপিতে গেলেন এবং মন্ত্রিসভার বৈঠকে কেন আসতেন না, সেই প্রশ্ন তুলেছেন | পরিবহন মন্ত্রীর বক্তব্য শুনে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বিজেপিতে যাওয়া নরমপন্থী প্রাক্তন তৃণমূলীদের প্রতি সদয় হতে পারে দল | 

দিলীপের ডাকা বৈঠকে অনুপস্থিত মুকুল রাজীব

কলকাতাঃ ইদানিং বিজেপির ডাকা জরুরি বৈঠকে অনুপস্থিত থাকছেন বেশ কয়েকজন প্রাক্তন তৃণমূলী | পার্টি অফিস যাচ্ছেন না অনেকেই | কিন্তু আজকের জরুরি বৈঠকে অবশেষে উপস্থিত থাকলেন সৌমিত্র খান, সব্যসাচী দত্ত | শোনা যাচ্ছিলো অনেকেই পা বাড়িয়ে রয়েছেন পুরাতন দলে, কিন্তু সোমবার অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় সাংবাদিক বৈঠকে দলবদলুদের সম্বন্ধে কোনও উচ্চবাচ্চ না করায়, আজকের দলের সভায় অনেকেই উপস্থিত ছিলেন |


তবে ছিলেন না মুকুল রায় কারণ তাঁর স্ত্রী অসুস্থ হয়ে বাইপাসের ধারের একটি হাসপাতালে ভর্তি গত ১১ মে থেকে | কার্যত তিনি মানসিক ভাবে বিপর্যস্ত | তিনি জানিয়েছেন, মিটিংয়ের খবর জানেন না | কিন্তু রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় অনেকদিন ধরেই দলের সঙ্গে বিচ্ছিন্ন | দলের থেকেই জানা গিয়েছে, তিনি এই কমিটির সদস্য নন কিন্তু বিশেষ আমন্ত্রিত থাকেন। কিন্তু কেন আজ আসেন নি কেউ জানে না |