Modi: দেশের প্রত্যেক মানুষ ডিজিটাল হেলথ কার্ড পাবেন, ঘোষণা মোদির

দেশবাসীর জন্য এবার স্বাস্থ্য সুরক্ষিত করতেই আয়ুষ্মান ভারত  প্রকল্পের ঘোষণা করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি । এ বার আরও এক ধাপ এগিয়ে গেল কেন্দ্রের সেই প্রকল্প। সোমবার আয়ুষ্মান ভারত ডিজিটাল এর উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী। সকাল ১১টায় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এই প্রকল্পের উদ্বোধন করলেন তিনি। বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “আয়ুষ্মান ভারতে দেশবাসী বিনামূল্যে চিকিৎসা পাবেন। এই প্রকল্প স্বাস্থ্য ব্যবস্থাকে পুরোপুরি বদলে দিয়েছে। দেশের প্রত্যেক নাগরিককে ডিজিটাল কার্ড দেওয়া হবে।

যেখানে নাগরিকদের ডিজিটাল হেলথ রেকর্ড থাকবে। আর এতে চিকিৎসকদের রোগ নির্ণয়ে সুবিধা হবে। চিকিৎসা নিয়ে গরিব-মধ্যবিত্তদের যাবতীয় হয়রানি দূর হয়েছে। হাসপাতালে ভরতি প্রক্রিয়াও সহজ হবে। গরিবদের সুবিধাও পাবে। আয়ুস্মান ভারতে গোটা দেশের সুবিধা হবে।”এরপরই তিনি আরও যোগ করেন, “দেশের স্বাস্থ্য পরিকাঠামো উন্নয়নে তৈরি হয়েছে নয়া স্বাস্থ্য নীতি।

দেশে এমন এক হেলথ মডেল ভারতে কাজ করছে, যাতে চিকিৎসার খরচ কমে। অত্যাবশকীয় ওষুধের দাম কম করা হয়েছে। 

Modi-Baiden: আফগানিস্তান নিয়ে মুখোমুখি হবে মোদি-বাইডেন

আগামী শুক্রবার প্রথমবার শীর্ষ দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে মুখোমুখি হচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং আমেরিকার প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। ওই একই দিনে রয়েছে ভারত, আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়া এবং জাপানের চতুর্দেশীয় অক্ষ কোয়াড-এর বৈঠক।বিদেশ মন্ত্রক সূত্রের মতে, মোদী-বাইডেন শীর্ষ বৈঠকে অগ্রাধিকার পাবে আফগানিস্তান, পাকিস্তান এবং চিনের প্রসঙ্গ। পাশাপাশি থাকবে কোভিড পরিস্থিতি, প্রতিষেধকের যৌথ উৎপাদন, পরিবেশ উষ্ণায়নের মতো বিষয়গুলিও। তাৎপর্যপূর্ণ ভাবে বাইডেনের সঙ্গে বৈঠকের আগের দিন জাপানের প্রধানমন্ত্রী ইয়োশিহিদে সুগা এবং অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসনের সঙ্গে কথা বলবেন মোদী পৃথক পৃথক ভাবে।

দেশে কোভিড সংক্রমণের পরে এই প্রথম এশিয়ার বাইরে পা রাখছেন মোদী। কোয়াড এবং দ্বিপাক্ষিক বৈঠকের পাশাপাশি নিউ ইয়র্কে রাষ্ট্রপুঞ্জের সাধারণ অধিবেশনেও বক্তৃতা দেবেন মোদী। কূটনৈতিক শিবিরের মতে, এমন একটি সময়ে আমেরিকার নতুন প্রেসিডেন্টের মুখোমুখি হচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী যখন বিশ্বের ভূকৌশলগত পরিস্থিতি উত্তপ্ত।

পশ্চিম এশিয়া, দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার নিরাপত্তা প্রশ্নের মুখে। কাবুল তালিবানের দখলে যাওয়ার জেরে ভারত এবং প্রতিবেশী বলয়ে সন্ত্রাসবাদের বাড়বাড়ন্ত হবে বলে আশঙ্কা করছে নয়াদিল্লি। অন্য দিকে চিনের সঙ্গে সংঘাতের বার্তা দিয়ে অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে পরমাণু-চালিত ডুবোজাহাজ ব্যবহার সংক্রান্ত চুক্তি করল ব্রিটেন ও আমেরিকা।


টার্গেই তালিবান, প্রথমবার বৈঠকে সামিল হবেন মোদি-বাইডেন

 আফগানিস্তানে তালিবানি লক্ষ্য। এই  প্রথমবার সশরীরে বৈঠকে বসতে চলেছেন চতুর্দেশীয় অক্ষ বা QUAD রাষ্ট্রপ্রধানরা। আগামী ২৪ সেপ্টেম্বর ভারত, আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়া এবং জাপানের রাষ্ট্রপ্রধানরা বৈঠকে বসতে চলেছেন। এই বৈঠকের আয়োজন করবেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন । সশরীরে উপস্থিত থাকবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন এবং জাপানের প্রধানমন্ত্রী ইয়োশিহিদে সুগাও এই বৈঠকে সশরীরে উপস্থিত থাকবেন।

আগামী ২৪ সেপ্টেম্বর হোয়াইট হাউসে QUAD রাষ্ট্রপ্রধানদের এই বৈঠক আয়োজিত হবে, মঙ্গলবারই বিবৃতি দিয়ে নিশ্চিত করেছে আমেরিকা (USA)। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি যে এই বৈঠকে হাজির হচ্ছেন, সেটাও সরকারিভাবে জানিয়ে দিয়েছে বিদেশমন্ত্রক। মোদির আমেরিকা যাত্রায় যাতে কোনও সমস্যা না হয়, তা নিশ্চিত করতে তড়িঘড়ি তাঁর নেওয়া কোভ্যাকসিন টিকাকে WHO’র ছাড়পত্র দেওয়ানোর ব্যবস্থা করছে নয়াদিল্লি।

ভারত, জাপান, অস্ট্রেলিয়া ও আমেরিকা মিলে তৈরি হয়েছে ‘Quadrilateral Security Dialogue’ বা QUAD গোষ্ঠী। চিন একাই ঘুম উড়িয়ে দিচ্ছে গোটা বিশ্বের। বেজিংয়ের অর্থনৈতিক, সাইবার এবং সামরিক আগ্রাসনকে মাথায় রেখেই আমেরিকা-সহ বিশ্বের চার বৃহৎ শক্তি একত্রিত হয়েছে। কিন্তু এবার নজরে নতুন সংকট তালিবান।তবে এই বৈঠকে মূল টার্গেটই হল আফগানিস্তান।

চোরের দাড়ি ! রাফাল ইস্যুতে ফের সরব রাহুল

নয়াদিল্লিঃ রাফাল যুদ্ধবিমান চুক্তি-বিতর্কে নাম না করে ফের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে বিঁধলেন রাহুল গাঁধী। ইনস্টাগ্রামে নিজের ব্যক্তিগত হ্যান্ডেলে একটি ছবি পোস্ট করেছেন। সেখানে দেখা যাচ্ছে,  এক ব্যক্তির দাড়ি থেকে সোজা রাফাল যুদ্ধবিমান বেরোচ্ছে। যা প্রধানমন্ত্রীর দাড়ির সঙ্গে অনেকটাই মিল রয়েছে মনে করছেন অনেকে। শুধু ছবি পোস্ট করেই থেমে থাকেননি রাহুল। লিখেছেন, 'চোরের দাড়ি'।

তবে বিজেপির আইটি প্রধান অমিত মালব্য পাল্টা টুইটে তিনি লিখেছেন, “২০১৯ সালে আপত্তিজনক মন্তব্যের পর রাহুল গান্ধী এ বার আরও নীচে নেমে গিয়েছেন। সারা ভারতের মানুষ তাঁকে প্রত্যাখ্যান করেছে। ২০২৪ নির্বাচনে এই ইস্যুতে লড়াইয়ের জন্য স্বাগত।”

সম্প্রতি রাফাল চুক্তি নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগের বিচারবিভাগীয় তদন্তের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ফ্রান্সের সরকার। এর পরই রাফাল চুক্তি নিয়ে ফের সরব হলেন কংগ্রেস সাংসদ।

২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনের সময়েও এই রাফাল চুক্তি নিয়ে মোদীকে ক্রমাগত আক্রমণ করে গিয়েছিলেন তিনি। প্রতিটি জনসভায় প্রধানমন্ত্রীকে নিশানা করে তাঁকে বলতে শোনা যেত, ‘চৌকিদার চোর হ্যায়’।

মোদি বিরোধী জোট ভাঙছে

ফের কোনও নতুন খেলা খেলছে কি মোদি সরকার, নাকি ফের ধমক চমক কিংবা এজেন্সির ভয় দেখানো চলেছে? প্রশ্ন রাজনৈতিক মোদি বিরোধী বিশেষজ্ঞদের মধ্যে | কারণ অরবিন্দ কেজরিওয়াল  এবং অখিলেশ যাদবকে কিছুটা বেসুরো লাগছে অবশ্য এখনই চরম বার্তার জায়গায় যান নি তাঁরা | কেজরি জানিয়েছেন যে আগামী পাঞ্জাব বিধানসভা নির্বাচনে তাঁরা একক ভাবে লড়বেন এবং আগামী গুজরাট নির্বাচনেও তারা ছোট দলগুলির সাথে জোট বেঁধে লড়বেন |


পাশাপাশি অখিলেশ যাদব জানাচ্ছেন যে, আসন্ন উত্তর প্রদেশ নির্বাচনে তাঁরা কংগ্রেস বা মায়াবতীর সাথে জোট বাঁধবেন না , কারণ বিগত নির্বাচনগুলিতে তাঁর দলের ক্ষতিই হয়েছে | এবারে স্থানীয় ছোট দলগুলি এবং কৃষি আন্দোলনকারীদের সাথে জোট বাঁধবেন | লোকসভার আগে বিরোধীদের, রাহুল গান্ধি এবং কংগ্রেসের সাথে জোট বাঁধতে আপত্তি | যদিও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এখনও ময়দানে নামেন নি। 

অভিষেকেও চিন্তা নাকি কেন্দ্রের ?

অভিষেকেও চিন্তা নাকি কেন্দ্রের ?

কলকাতাঃ মুকুল পত্নী কৃষ্ণাকে দেখতে যান যুব তৃণমূল সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, সেখানে তাঁর সাথে বেশ কিছুক্ষন কথা হয় মুকুল পুত্রের সঙ্গে । এরপরই খবরটি হু হু করে ছড়িয়ে পরে বাংলার জনতার মধ্যে । কয়েকদিন আগে নিজের ফেসবুক পেজে মুকুল পুত্র শুভ্রাংশু দলের সমালোচনা করে লেখেন যে, এখন অন্যের ( তৃণমূলের) সমালোচনা না করে আত্মসমালোচনা করা উচিত । ১১ মে থেকে কৃষ্ণদেবী হাসপাতালে ভর্তি ।


জানা গিয়েছে বিজেপির ছোট বড় কোনও নেতাই তাঁর খবর নেয় নি । কিন্তু অভিষেক উপস্থিত হওয়ার কিছুক্ষন বাদেই রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ হাসপাতালে উপস্থিত হন এবং খবরা খবর নেন । বৃহস্পতিবার সকালে আরও চমক এবারে স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, মুকুল রায়কে ফোন করে তাঁর স্ত্রীর খবর নেন । সোশ্যাল নেটে এরই মধ্যে এই খবরটি ভাইরাল হয়ে যায় যে, অভিষেকের উপস্থিতিতে  ভাবিত বিজেপি, ফলে ড্যামেজ কন্ট্রোলে  ময়দানে নামলেন মোদিও ।